সাধ (ভারতীয় রীতিতে অনাগত শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ) অনুষ্ঠান

সাধ (ভারতীয় রীতিতে অনাগত শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ) অনুষ্ঠান

গর্ভাবস্থা এবং শিশুর জন্মের সাথে জড়িত পালন করা অনুষ্ঠানগুলি হল মানব ইতিহাসের অংশ বিশেষ।অনাগত শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ অনুষ্ঠানটির দ্বারা ইতিহাসের অনেক পিছনে ফিরে যাওয়া যায় এবং এখন যেভাবে সেগুলি অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে সেই সকল রীতি রেওয়াজ সুদূর প্রাচীনে বহাল থাকলেও তার ধরণগুলি ছিল ভিন্ন প্রকৃতির।প্রাচীন ভারতবর্ষে,গর্ভবতী মাকে ফল এবং অন্যান্য আহার্য সামগ্রী যা কিনা গর্ভস্থ শিশুর বৃদ্ধির সহায়ক সেগুলিকেই উপহার স্বরূপ দেওয়া হতযা সময়ের সাথে সাথে পরিবর্তিত হয়েছে এবং বর্তমানে তা বাংলায় সাধ এবং হিন্দিতে গোধ ভরাই হিসেবে সুপ্রসিদ্ধ।

aniview

সাধ অথবা গোধ ভরাই আসলে কি?

এই প্রাচীন ভারতীয় ঐতিহ্যটি প্রাচ্যের বেবি শাওয়ার বা জন্মের পূর্বে অনাগত শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণের ধারণার মতই অনুরূপ একটি প্রথা।এটি হবু মায়ের আসন্ন মাতৃত্ববোধ উদযাপনের একটি অনুষ্ঠান এবং তাদের গর্ভাবস্থার যাত্রাপথের শেষ পর্যন্ত এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে এটি তাদের মধ্যে একটা জোরালো সমর্থন হিসেবে কাজ করে।গোধ ভরাইহল একটি হিন্দি শব্দ যার অনুবাদ হয় কোল পূরণ

এই অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে দেশের অন্যান্য অংশে পালিত অনুষ্ঠানটি যে বিভিন্ন নামে পরিচিত তার মধ্যে রয়েছেঃ

1. পশ্চিম বাংলা

বাংলায় সাধনামে পরিচিত এই অনুষ্ঠানটিতে নানান সুস্বাদু খাবারের উপর প্রভূত জোর দেওয়া হয় এবং এটি গর্ভাবস্থার শেষ মাসে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে,এবং সাধারণত এই মাসে গর্ভবতী মায়ের বাপের বাড়ির দিক থেকেই এটি পালন করা হয়,তবে আবার শ্বশুর বাড়ির দিক থেকেও এটি উদযাপন করা হয়ে থাকে সম্ভবত গর্ভাবস্থার সাত মাসে,তবে কারুর কারুর মধ্যে আবার তাদের নিয়ম অনুসারে গর্ভাবস্থার পঞ্চম মাসেও ছোট করে সাধ দেওয়ার রীতি আছে।তবে এই অনুষ্ঠান পালনের অনন্য দিকটি হল এক্ষেত্রে গর্ভবতী মাকে তার অনাগত শিশুর জন্য কোনও উপহার দেওয়ার রীতি নেই কারণ এক্ষেত্রে সেটি হয়ত দুর্ভাগ্য বয়ে আনতে পারে বলে বিশ্বাস করা হয়।

2. কেরালা

সীমান্ধানহিসেবে পরিচিত অনুষ্ঠানটি অন্তঃসত্ত্বা মায়ের আবশ্যিকভাবে একটি পবিত্র ডুব দেওয়াতে অংশগ্রহণ করার সাথে জড়িত।অনাগত শিশুর বুদ্ধিমত্তাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়ার লক্ষ্যে তার উদ্দেশ্যে প্রায় 90 মিনিট ধরে এই অনুষ্ঠানটিতে মন্ত্র উচ্চারণ এবং প্রার্থনা করা হয়ে থাকে।

3. তামিল নাড়ু

ভালাই কাপ্পুহিসেবে পরিচিত এই অনুষ্ঠানটিতে হবু মাকে লাল এবং সবুজ চুড়ির সাথে একটি কালো শাড়ি পরিয়ে সাজিয়ে অপবিত্র সত্ত্বাগুলির থেকে রক্ষা করা হয়।অন্তত পক্ষে চারটি ভিন্ন মন্দির পরিদর্শনের সাথে এক্ষেত্রে মন্দিরগুলি একটি কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে,যা এই অনুষ্ঠানের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

4. পাঞ্জাব

গোধ ভরাইঅনুষ্ঠানটি সাধারণত গর্ভাবস্থার সপ্তম মাসে খুব নিকট আত্মীয়স্বজনদের সাথে পালন করা হয়।এই অনুষ্ঠানটিতে শাশুড়ি মায়ের মূখ্য ভূমিকা রয়েছে,যেখানে তিনি প্রার্থনা করার পর এক আঁচল ভর্তি ফল এবং নারকেল তাঁর কন্যা সমান বৌমার কোলে রাখেন।

সাধ অথবা গোধ ভরাই আসলে কি?

5. গুজরাট

এখানে এই অনুষ্ঠানটি গোধ ভরনাহিসেবে পরিচিত।পাঞ্জাবী রীতির সাথে এর বেশ কিছুটা মিল রয়েছে,এখানেও এই অনুষ্ঠানটিতে শাশুড়ি মায়ের একটি মূখ্য ভূমিকে রয়েছে।এখানে হবু মাকে বাজথ নামে একটি আসবাবের উপর হাঁটু মুরে বাবু হয়ে বসানো হয়।তারপর তার শাশুড়ি মা তার কোলের উপর গয়নাগাটি এবং আরও অন্যান্য উপহারগুলি রাখেন।

গুজরাট গোধ ভরনা

6. মহারাষ্ট্র

মারাঠি ভাষায় এখানে এটি দোহাল জেভাননামে পরিচিত যার মোটামুটি অনুবাদটি হল খাদ্য আকাঙ্খার পরিতৃপ্তিনামের দ্বারা প্রমাণ স্বরূপ,এই অনুষ্ঠানটিতে খাদ্যের দিকটিতে যথেষ্ট জোর দেওয়া হয়।ভাত এবং মিষ্টি চাপাটির মত পুষ্টিকর খাদ্যগুলিকে এই অনুষ্ঠানের সাথে জড়িত খাদ্য মেনুতে সহজেই খুঁজে পাওয়া যায়।এই অনুষ্ঠানের একটি উত্তেজনাপূর্ণ দিক হল প্রতিটি খাবারের সাথে লিঙ্গ সংযুক্তি যা লিঙ্গ অনুমানের খেলায় রূপান্তরিত হতে পারে।

এটি কখন অনুষ্ঠিত হয়?

ভারতবর্ষ বিশাল দেশ এবং সেখানে মাতৃত্ব উদযাপন অনুষ্ঠানটির এই প্রাচীন কলাকৌশলটি পালন করার কোনও নির্দিষ্ট একক রীতি নিয়ম নেইউদাহরণ হিসেবে কেরালা রাজ্যের নায়ার সম্প্রদায় অনুষ্ঠানটি গর্ভাবস্থার শেষ মাসে পালন করে থাকেন, যেখানে প্রতিবেশী তামিল নাড়ু রাজ্যে এটি কিছু সময় গর্ভাবস্থার পঞ্চম মাসে পালিত হয়ে থাকে,যদিও এটিকে সপ্তম অথবা নবম মাসের দিকে ঠেলে নিয়ে যাওয়া যেতে পারে

ভারতীয় রীতি অনুযায়ী জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়ার গুরুত্ব

ভারতীয় রীতি অনুযায়ী জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়া হল একটি সাংস্কৃতিক উদ্ভাবন এবং এটিকে অবশ্যই এর ঐতিহাসিক প্রসঙ্গে দেখা উচিতআধুনিক চিকিৎসা প্রযুক্তি বিদ্যা এবং বিশেষ যত্ন ব্যবস্থার আবির্ভাবের কারণে এখন গর্ভাবস্থাগুলি অপেক্ষাকৃতভাবে নিরাপদএমনকি এক শতাব্দী আগেও এখনের মত পরিস্থিতি ছিল না যেখানে গর্ভাবস্থায় বহু মহিলাই অস্বাভাবিক রক্তপাতের মত বিভিন্ন জটিলতার শিকার হয়ে ওঠার সাথে মারা যেতেন এবং এভাবে তখন গর্ভবতী মহিলাদের মধ্যে মৃত্যুর হারও উচ্চ মাত্রায় ছিলকখনও কখনও আবার সাধ বা গোধ ভরাই অনুষ্ঠানটি ছিল গর্ভবতী মহিলাকে ঘিরে পালন করা গর্ভাবস্থার সর্বশেষ অনুষ্ঠান,আর সেই কারণেই গর্ভবতী মা এবং তার গর্ভস্থ সন্তানটির জন্য প্রার্থনা করা হল এই অনুষ্ঠানের একটি মূখ্য পর্ব

কীভাবে এটি অনুষ্ঠিত হয়?

  • বেশিরভাগ গোধ ভরাই বা সাধ অনুষ্ঠানগুলিতে প্রার্থনা করা হল এর একটি অপরিহার্য অংশ,যেখানে নিয়মমাফিক আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থনা এবং একসাথে সমন্বিত স্বরে মন্ত্র উচ্চারিত করা হয়।
  • অন্য যেকোনও অনুষ্ঠানের মতই,সাজগোজ করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনাকে প্রথাগত পোশাক পরিধান করিয়ে ফুলের অলঙ্কারে সুশোভিত করে তোলা হবে।
  • দেশের বহু অংশে তেল প্রলেপনের একটি বিশেষ জায়গা আছে,এবং আপনি প্রায়শই পরিবারের বয়োঃজ্যেষ্ঠ্যা মহিলাদের দ্বারা উপলিপ্ত হয়ে থাকেন।
  • কোনও কিছু মজা ছাড়া কীভাবে একটা অনুষ্ঠান সম্পাদিত হতে পারে?শিশুর কথা মাথায় রেখে এই খেলাগুলি শুরু করা হয় এবং লিঙ্গ অনুমান করা থেকে শুরু করে তার নাম চয়ন করা পর্যন্ত এই খেলাগুলি চলতে থাকে
  • গর্ভবতী মহিলার সাধ বা জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণের ভারতীয় সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ স্বরূপ নাচগান এর সাথে অন্তর্ভূক্ত।
  • হবু মাকে মজার ছলে কিছুটা উত্যক্ত সর্বদাই করা হয়ে থাকে।তবে ইচ্ছাকৃতভাবে কাউকে আঘাত করার উদ্দেশ্য ছাড়াই সবটাই একটা ভাল হাস্যরসাত্মকভাবে করা হয়ে থাকে
  • দেশের কিছু কিছু অংশে আবার এই অনুষ্ঠানটিতে কেবলমাত্র মহিলা অতিথিরাই নিমন্ত্রিত হয়ে থাকেন।
  • গোধ ভরাই অনুষ্ঠানটির নামটির সাথে জড়িত অর্থানুযায়ী এবং রীতি অনুযায়ী পরিবারের মহিলাদের পাশাপাশি আপনার বান্ধবীরাও মিষ্টি এবং ফলের দ্বারা আপনার কোল ভরিয়ে তুলবেন।
  • সহজে প্রবেশযোগ্য একটি স্থানে আপনাকে বসানো হবে যেখানে আপনার আত্মীয় পরিজন,বন্ধুবান্ধব সহজেই প্রবেশ করে আপনাকে আশীর্বাদ করতে পারেন।
  • গোধ ভরাই বা জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ অনুষ্ঠানটিতে উপহার দেওয়ার অংশটি কেবলমাত্র মাতৃকেন্দ্রিক এবং সেখানে উপহারের জন্য থাকতে পারে মায়ের জন্য শাড়ি,গয়না এবং অন্যান্য পোশাক ইত্যাদি।সাধের মত অনুষ্ঠানে আবার বহু সম্প্রদায় বিশ্বাস করেন শিশুর জন্য উপহার কেবলমাত্র শিশুর জন্মের পরেই দেওয়া উচিত।

কীভাবে এটি অনুষ্ঠিত হয়?

গোধ ভরাই বা সাধ নামক অনুষ্ঠানটিকে আরও আনন্দদায়ক করে তোলার পরামর্শগুলি

1. বিশ্রাম

কিছু অন্তঃসত্ত্বা মহিলার ক্ষেত্রে অনুষ্ঠানগুলি কিছুটা ঝক্কিবহুল হয়ে উঠতে পারে।তাই অনুষ্ঠানের আগে এবং পরে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেওয়ার বিষয়টি আপনি নিশ্চিত করুন। অনুষ্ঠানক্ষেত্রে মনোনীত অবস্থানগুলি আপনার জন্য সংরক্ষিত করুন,যাতে প্রয়োজনবোধ হলেই আপনি সেই জায়গাগুলিতে সেই মুহূর্তেই বসতে পারেন।

2. বেশভূষা

আবহাওয়া অপ্রত্যাশিতভাবেই আপনার অনুষ্ঠানটিতে আনন্দনাশকের ভূমিকা গ্রহণ করতে পারে।গ্রীষ্মের সময় এমন ধরনের শাড়িগুলি পরিধান করা এড়িয়ে চলুন যেগুলি খসখসে এবং কঠিণ বা মোটা সিল্কের হয়ে থাকে অথবা যেগুলিতে প্রচুর পরিমাণে সূচিকর্মের কাজ করা রয়েছে,কারণ এগুলি আপনাকে ঘর্মাক্ত করে তুলতে পারে।আবার শীতের সময় যদি আপনার খুব ঠাণ্ডা লাগতে থাকে সেক্ষেত্রে আপনার সঙ্গীর কোর্টটিকে যেন গায়ে জড়াতে ইতস্ততবোধ করবেন না।

3. খাওয়ায় নিয়ন্ত্রণ

চারিদিকে প্রচুর ভাল ভাল খাবারের আয়োজন থাকার কারণে,এই অনুষ্ঠানটিতে অংশগ্রহণ করাটা বেশ প্রলুব্ধকর হয়ে উঠতে পারেমনে রাখবেন যে এই সময় আপনার ডায়েটটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সংযত না হলে হৃদয় জ্বলন বা গলা বুক জ্বালা অম্বল এবং রক্ত শর্করার উত্থান পতনের মত সমস্যাগুলি সৃষ্টি হতে পারে।

4. অতিথিদের বিনোদন

আপনার অতিথিদের সন্তুষ্ট রাখুন এবং একটি ভালো অনুষ্ঠানের চাবিকাঠি হল সেটির বিষয়টি।ভাল ভালো খাবার ছাড়াও আপনি একজন মেহেন্দী শিল্পীকে ভাড়া করে আনতে পারেন যিনি অনুষ্ঠানে আগত মহিলা অতিথিদের হাতে তার শিল্প নৈপুণ্যের দক্ষতা ফুঁটিয়ে তুলে অতিথিদের মুখে আরও এক ঝলক হাসি বাড়িয়ে তুলবেন।

5. পাল্টা উপহার

অনুষ্ঠা্নটির জন্য আপনার যদি বিশাল বাজেট থাকে এবং আপনি আগত অতিথিবৃন্দকে ধন্যবাদ দেখাতে চান,আপনি তাদেরকে বিদায়কালীন উপহার প্রদান করে পাঠাতে পারেন।এগুলি দোকান থেকে কেনা যেতে পারে,যেমন সুন্দর নকশায়িত দোপাট্টার মত মহিলাদের কিছু ঐতিহ্যবাহী উপকরণ অথবা এমনকি সেটি হাতে তৈরী ধন্যবাদ জ্ঞাপন কার্ডও হতে পারে।

ভারতীয় রীতি অনুযায়ী জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়ার জন্য চমকপ্রদ ধারণাগুলি

ভারতীয় রীতি অনুযায়ী জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়ার জন্য চমকপ্রদ ধারণাগুলি

ভারতে জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়া হল একটি ঐতিহ্যগত বিষয়,তবে এ ব্যাপারে কয়েকটি পরিবর্তন আনয়নের ক্ষেত্রে কোনও কঠোর বিধিনিষেধ নেই।নিম্নলিখিতগুলি হল এমন কিছু ধারণা যেগুলি আপনি প্রয়োগের চেষ্টা করতে পারেনঃ

1. অনুষ্ঠানের থিমে শিশুর প্রসঙ্গ

গোধ ভরাই বা সাধ অনুষ্ঠানটির সাথে সর্বদাই একটি থিম জড়িত থাকতে পারে। এগুলির মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি থিম হতে পারে শিশুর প্রসঙ্গ,যেখানে একটা প্লেট থেকে ন্যাপকিন সকল কিছুর প্রস্তুতির উপরেই শিশুর একটি বিষয় উপস্থাপিত হয়।

অনুষ্ঠানের থিমে শিশুর প্রসঙ্গ

2. আহার সামগ্র

ক্যাটারিংয়ের জন্য প্রচুর অর্থ ব্যয় হতে পারে এবং সাধারণত অনুষ্ঠানের শেষে অনেক খাবারই নষ্ট হয়ে থাকে।মেনুতে কি থাকবে এবং অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রিত প্রতিটি ব্যক্তি যাতে তাদের পরিমাণ মতই খাবার পান সে ব্যাপারে আপনি এবং আপনার বান্ধবীরা যৌথভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

3. হবু মাকে প্রশ্রয় দেওয়া

জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মাকে সাধ দেওয়ার সারমর্মটি হল সকলকে এই বিষয়টি জানতে দেওয়া যে আপনিই হলেন এই অনুষ্ঠানটিতে মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু।এর অর্থ হল অনুষ্ঠানগুলির মূখ্যতা কম এবং আপনাকে বিশেষ অনুভব করানোর জন্য এর বাজেটটি হল বহুমূল্যের।এর মধ্যে স্পা অথবা কোনও নাম করা সেলুনের কুপনগুলিও অন্তর্ভূক্ত হতে পারে।

4. বন্ধুসুলভ ডায়েট

গোধ ভরাই বা সাধের অনুষ্ঠানটি যদি আপনাকে ঘিরেই হয়ে থাকে তবে কেন পরিবেশিত বেশিরভাগ খাদ্যেরই স্পর্শ পাওয়ার অনুমতি আপনার নেই?এখানে কিছু বিষয় আপনি পরিবর্তন করতে পারেন।এমন একটি ক্যাটারিং করাতে পারেন যারা কেবল মাত্র স্বাস্থ্যকর জলখাবারগুলিই পরিবেশন করবে এবং যেখানে কেবল গর্ভবতীবান্ধব খাবারগুলিই অনুমোদিত।

5. জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মা হিসেবে নিজের জন্যই সাধ দিন

জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মায়ের সাধের অনুষ্ঠানটি যে সর্বদাই কোনও শৌখিন জায়গায় বা অনুষ্ঠান মণ্ডপে হয়ে থাকতে হবে এমন কোনও কথা নেই।জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মা হিসেবে নিজের জন্যই সাধা দেওয়া হল এমন একটি বিষয় যা আপনার গর্ভস্থ শিশুর প্রতি তার জন্মের পূর্বে আশীর্বাদ বর্ষণের একটি যথোপযুক্ত সুন্দর ও ভালো পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য আপনার দক্ষতার উপরেই জোর দেয়।অতিথিদের হাতে তৈরী সুন্দর নকশা করা ফিতেগুলি উপহার হিসেবে দেওয়া যেতে পারে।গৃহের সাজসজ্জাগুলি চার্ট পেপারের দ্বারা নানান নকশা করে করা যেতে পারে এবং এমনকি সকলকে দেওয়া প্রতিটি উপহারই অবশ্যই হাতে প্রস্তুত হতে হবে।

6. পরিবেশবান্ধব থিম

আপনি কি প্রকৃতি প্রেমী?আবহাওয়া যদি মনোরম থাকে তবে অনুষ্ঠানটি ঘরের বাইরে সম্পাদন করা যেতে পারে।অনুষ্ঠানক্ষেত্রটিকে প্লাস্টিকের পরিবর্তে কাগজ প্লেট এবং কাপ ব্যবহারের দ্বারা একটি প্লাস্টিকমুক্ত অঞ্চল করে তোলা যেতে পারেপ্লাস্টিকের চামচগুলি এড়াতে হাত দিয়ে খাওয়ার প্রতি উৎসাহ বাড়িয়ে তোলা যেতে পারে এবং মণ্ডপের সজ্জীকরণ নূন্যতম হতে হবে।

পরিবেশ-বান্ধব থিম

জন্মের পূর্বে গর্ভস্থ শিশুর প্রতি আশীর্বাদ বর্ষণ বা গর্ভবতী মায়ের সাধ কিম্বা গোধ ভরাই অনুষ্ঠানটি এমন সময়ে করা হয়ে থাকে যখন আপনি মাতৃত্বের যাত্রাপথে থাকেন এবং আপনার চারপাশের সেই সকল ব্যক্তিদের সমর্থন প্রয়োজন হয়।উদ্বিগ্নতা,অনিদ্রা এবং হজমের সমস্যাগুলির সাথেই আপনাকে ঘিরে থাকা আপনার পরিজনবর্গ এবং বন্ধু বান্ধবদের নিয়ে এই অনুষ্ঠানটির উদযাপনা করা একটি দুর্দান্ত বিরতি হয়ে থাকে।