উর্বরতার জন্য ফলিক অ্যাসিড – এটি কি সহায়তা করে?

উর্বরতার জন্য ফলিক অ্যাসিড - এটি কি সহায়তা করে?

সঠিক পুষ্টি স্বাস্থ্যকর গর্ভাবস্থার মূল চাবিকাঠি। অতএব, আপনি যদি গর্ভধারণের দিকে তাকিয়ে থাকেন তবে আপনার শরীরটি সর্বোত্তম অবস্থার মধ্যে রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় পরিপূরক গ্রহণ করা আপনার পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ।

aniview

মহিলাদের গর্ভধারণের চেষ্টা করার সাহায্যের জন্য সাধারণত যে উপাদানগুলির জন্য সুপারিশ করা হয় তার মধ্যে একটি হল ফলিক অ্যাসিড। এটি লাল রক্তকণিকার পাশাপাশি ডিএনএ তৈরিতে সহায়তা করে। যদিও এটি জানা যায় যে গর্ভবতী মহিলাদের জন্য ফলিক অ্যাসিড খাওয়ার ফলে প্রচুর উপকার পাওয়া যায়, এটি গর্ভবতী হওয়ার চেষ্টা করা মহিলাদের এবং পুরুষদের জন্য সমানভাবে উপকারী।

ফলিক অ্যাসিড কি?

ভিটামিন বি৯এর একটি কৃত্রিম রূপ, ফলিক অ্যাসিড হল জলে দ্রবণীয় ভিটামিনগুলির মধ্যে একটি যা কোষের বিপাকের মৌলিক ক্রিয়াকে সহায়তা করে। এটি সেই আটটি ভিটামিনের মধ্যে একটি যা জলে দ্রবণীয় এবং এর প্রাকৃতিক আকারে ভিটামিন বি৯কে ফোলেট বলা হয়। এগুলি অনেক খাবারে পাওয়া যায়, যার মধ্যে সাধারণ হল পালং শাক, কুমড়ো, ঝিনুক, গাজর, ওকরা, অ্যাস্পারাগাস, লিভার এবং ব্রোকলির মতো জিনিস। পোল্ট্রিজাত পণ্য, চাল, মটরশুটি, ডিম, বিভিন্ন বাদাম, মাংস এবং দুগ্ধজাত পণ্যও হল এমন খাবার যা এটি সরবরাহ করে।

প্রয়োজনে ফলিক অ্যাসিড অন্যান্য খাবারে যুক্ত করা যেতে পারে যাতে তাদের ভিটামিনের পরিমাণ বাড়ানো যায়। এটি প্রয়োজন মতো পুষ্টির পরিপূরকগুলিতেও পাওয়া যায় এবং এগুলি পাউরুটি, পাস্তা, সিরিয়াল, চাল এবং অন্যান্য প্রচুর শস্যভিত্তিক খাবারে পাওয়া যায়।

ফলিক অ্যাসিড কিভাবে প্রজনন উর্বরতা বাড়াতে সহায়তা করে?

ফলিক অ্যাসিড প্রজনন উর্বরতার জন্য দুর্দান্ত উপকারী হিসাবে পরিচিত। এখানে এটি উর্বরতা বাড়াতে পারে এমন কয়েকটি উপায় দেওয়া হল।

পুরুষের উর্বরতা

ফলিক অ্যাসিড পুরুষের উর্বরতাতেও সহায়তা করে এবং শুক্রাণুকে ডিম্বাণু নিষিক্ত করতে সাহায্য করার সম্ভাবনা বাড়ানোয় ভূমিকা রাখে। এটি অন্যান্য উপায়েও কার্যকর, এর কিছু এখানে আছে:

  • শুক্রাণুর মাত্রা বৃদ্ধি:

ফলিক অ্যাসিড শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি করে এবং এটি সঙ্গীকে গর্ভবতী করার জন্য পুরুষদের প্রয়োজনীয় পরিপূরক পেতে সহায়তা করতে পারে। যদিও মহিলাদের সাধারণত তাদের চক্রটিকে সঠিকভাবে সময় দেওয়া এবং কখন ডিম্বস্ফোটিত হয় তা জানতে হবে; সমস্যা সঙ্গীর মধ্যেও হতে পারে। যখন কোন পুরুষের শুক্রাণুর সংখ্যা কম থাকে, তখন পথটি দীর্ঘ হওয়ায় ডিম্বাণু পর্যন্ত ভ্রমণ এবং তাকে নিষিক্ত করার মতো পর্যাপ্ত শুক্রাণু থাকতে পারে না।

এই পথটি সার্ভিক্স থেকে ফ্যালোপিয়ান টিউব দিয়ে ডিম্বাণু পর্যন্ত চলে এবং শুক্রাণু সাধারণত এই পথটি অতিক্রম করে। যখন পুরুষটি ৭০০ এমসিজি ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ করে এবং তারপর যদি গর্ভধারণ ঘটে থাকে তবে এটির জন্য ফলিক অ্যাসিডকেই দায়ী করা যেতে পারে।

  • শুক্রাণুর অস্বাভাবিকতার ঝুঁকি কম করা

পুরুষরা যখন ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ করেন, এটি কেবল তাদের শুক্রাণুর বৃদ্ধিতেই সাহায্য করে না, পাশাপাশি তাদের শুক্রাণুর অস্বাভাবিকতা ২০ থেকে ৩৯% হ্রাস করতে সহায়তা করে। এটি ক্রোমসোমাল অস্বাভাবিকতাগুলির ঝুঁকি হ্রাস করে যার কারণে ডাউন সিনড্রোমের মতো জন্মগত ত্রুটিগুলি দেখা দিতে পারে।

যদিও এটি বিশ্বাস করা হত যে ডিম্বাণুর ত্রুটির কারণে বাচ্চারা ক্রোমোসোমাল ডিজঅর্ডারের সাথে জন্মগ্রহণ করে, তবে এটি প্রকাশ্যে এসেছে যে শুক্রাণুর অস্বাভাবিকতাগুলিও সমস্যা তৈরি করতে পারে। নিয়মিত ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ পুরুষদের মধ্যে এই সমস্যাগুলি হ্রাস এবং উর্বরতা উন্নত করতে সহায়তা করতে পারে।

  • অন্যান্য পরিপূরকের সাথে গ্রহণ করলে উর্বরতা বাড়ায়

পুরুষদের জন্য ফলিক অ্যাসিডের কাজ করার সর্বোত্তম উপায় হল ভিটামিন সি এবং জিংকের মতো অন্যান্য পুরুষদের জন্য উর্বরতার পরিপূরকের সাথে এটি গ্রহণ করা। এগুলি শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়াতে এবং শুক্রাণুর গুণমান উন্নত করতে সহায়তা করতে পারে। ফলিক অ্যাসিডের সাথে মিশ্রিত হয়ে গেলে এগুলি শুক্রাণুর সামগ্রিক গতিশীলতা এবং উপযোগিতা বাড়াতে সহায়তা করতে পারে। নেদারল্যান্ডসের একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা গেছে যে ফলিক অ্যাসিড পুরুষদের উর্বরতা প্রায় ৭৪% বৃদ্ধি করে।

মহিলার প্রজনন উর্বরতা

ফলিক অ্যাসিড মহিলাদের দেহে উর্বরতার অবস্থার উন্নতি করে গর্ভাবস্থার সম্ভাবনা বাড়াতে সক্ষম করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ। ফলিক অ্যাসিড মহিলাদের জন্য কিভাবে উপকারী তার কয়েকটি উপায় এখানে রইল:

  • অন্যান্য ভিটামিনের সাথে কাজ করা

অন্যান্য ভিটামিন এবং খনিজগুলির সাথে কাজ করার মাধ্যমে, ফলিক অ্যাসিড শুক্রাণু দ্বারা নিষেকের অবস্থার উন্নতি করে মহিলাদের দ্রুত গর্ভবতী হতে সহায়তা করে। অন্যান্য প্রচুর ভিটামিন রয়েছে যা এই প্রক্রিয়াতে সহায়তা করে এবং শুধু ফলিক অ্যাসিডি কেবলমাত্র প্রয়োজনীয় নয়। মহিলাদের সাধারণতঃ প্রসবপূর্ব ভিটামিনের সাথে ফলিক অ্যাসিডের পরিপূরক খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয় যাতে সাধারণত প্রায় ৪০ এমসিজি পুষ্টি থাকে।

গর্ভবতী হওয়ায় সহায়তার জন্য ভিটামিন সি, ভিটামিন বি৬, জিংক, আয়রন এবং নিয়াসিনের পাশাপাশি কিছুটা অতিরিক্ত ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ করা বাঞ্ছনীয়।

  • ডিম্বাণুর গুণমান বাড়ানো

ফলিক অ্যাসিড যেভাবে পুরুষদের মধ্যে শুক্রাণুর গুণগত মান উন্নত করে তার মতোই, এটি মহিলাদের ডিম্বাণুর মান উন্নত করতেও সহায়তা করে। মহিলারা যদি গর্ভধারণের চেষ্টা করার কয়েক মাস আগে থেকে ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ শুরু করেন, তবে ক্রোমোসোমাল / জন্মগত ত্রুটিযুক্ত শিশুর জন্মের সম্ভাবনা অনেক কমে যায়। ফলিক অ্যাসিড ডিম্বাণুকে সুস্থ রাখতে এবং কোন রোগসৃষ্টিকারী এজেন্ট থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করবে।

  • জরায়ুর মিউকাসের গুণমান উন্নত করা

জরায়ু মিউকাসের সঠিক ঘনত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যখন এটি মহিলাদের গর্ভধারণে সহায়তা করার বিষয় হয়। অনেক মহিলা জরায়ুর মিউকাসের গঠন এবং রঙ পরীক্ষা করে তাদের মাসিক চক্রটিকে চার্ট করেন, তবে যখন ডিম্বস্ফোটন কাছাকাছি থাকে, তখন লক্ষণীয় গুরুত্বপূর্ণ যে সেই সময় মিউকাসের পরিমাণ যথেষ্ট বেশি হয়। এই মিউকাস শুক্রাণুর ভ্রমণ এবং ডিম্বাণুর নিষেকে সহায়তা করে।

  • রক্তাল্পতা রোধ করা

রক্তস্বল্পতার এমনকি সামান্যতম আক্রমনে ভোগা মহিলাদের ক্ষেত্রে ডিম্বস্ফোটন কঠিন হতে পারে, কারণ আয়রনের অভাব হরমোনের ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে। গর্ভধারণের কমপক্ষে ৩ মাস আগে থেকে যখন প্রায় ৪০০ এমসিজি ফলিক অ্যাসিড অন্যান্য খনিজ পরিপূরকগুলিতে যুক্ত হয়, তখন এটি রক্তে আয়রনের মাত্রা বাড়াতে সহায়তা করতে পারে। আয়রন হরমোন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে এবং এর কারণে ডিম্বস্ফোটন প্রত্যাশিত স্তরে ফিরে আসবে।

পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য ফলিক অ্যাসিড গ্রহণের প্রস্তাবিত মাত্রা

পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য ফলিক অ্যাসিড গ্রহণের মাত্রা নীচে পৃথক করে দেওয়া হল:

  • ১৪ বছর বা তার বেশি বয়সের মহিলাদের পাশাপাশি পুরুষদের জন্যও ৪০০ এমসিজি পরিমাণ বাঞ্ছনীয়।
  • বুকের দুধ খাওয়ানো মহিলাদের জন্য ৫০০ এমসিজি।
  • গর্ভবতী মহিলাদের জন্য ৬০০ এমসিজি।

সমৃদ্ধ পাউরুটি এবং সিরিয়ালগুলি আপনার ফোলেট ও ফলিক অ্যাসিডের ডোজ পাওয়ার জন্য সেরা উপায়। কিছু খাবারে অতিরিক্ত ফলিক অ্যাসিড যুক্ত করা হয়, তাই এগুলির নিয়মিত ব্যবহারে উর্বরতার স্তরটি উন্নত করা যায়।

পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য ফলিক অ্যাসিড গ্রহণের প্রস্তাবিত মাত্রা

ফলিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার

এখানে কয়েকটি খাবার উল্লেখ করা হল যেগুলির মধ্যে ফলিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ মাত্রায় রয়েছে। আপনার শরীরকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি পেতে সহায়তা করার জন্য আপনি এগুলি নিয়মিত খেতে পারেন:

খাবার ফলিক অ্যাসিডের পরিমাণ
লিভার (প্রাণীর যকৃত) ২১৫ এমসিজি
পালং শাক ১৩১ এমসিজি
অ্যাস্পারাগাস ৮৯ এমসিজি
বরবটি ১০৫ এমসিজি
সাদা চাল ৯০ এমসিজি
ছোট পাতার লেটুস শাক ৬৪ এমসিজি
ব্রাসেল অঙ্কুর ৭৮ এমসিজি
অ্যাভোকাডো ৫৯ এমসিজি
ব্রোকোলি ৫২ এমসিজি

সূত্র: https://www.verywellfamily.com/folic-acid-for-female-and-male-fertility-1959878

মহিলাদের জন্য ফলিক অ্যাসিড পরিপূরক কি নিরাপদ?

ফলিক অ্যাসিড মহিলাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয়তা এবং পাউরুটি ও সিরিয়ালের সাথে এটি যুক্ত হওয়া সত্ত্বেও, অনেক মহিলা এটি পর্যাপ্ত পরিমাণে পান না। যে মহিলারা গর্ভবতী হতে চান তাদের প্রতিদিন ৪০০ এমসিজি ফলিক অ্যাসিডের ডোজের পরামর্শ দেওয়া হয়। গর্ভাবস্থায়, প্রায় ৬০০ এমসিজির পরামর্শ দেওয়া হয়।

অনেক ডাক্তাররা মহিলাদের গর্ভধারণ করতে সহায়তার জন্য প্রতিদিন কিছু প্রিন্যাটাল ভিটামিন বা শুধুমাত্র একটি মাল্টিভিটামিন খাওয়ার পরামর্শ দেন। যতক্ষণ পর্যন্ত মাল্টিভিটামিনে ৪০০ এমসিজি ফলিক অ্যাসিড অন্তর্ভুক্ত থাকে ততক্ষণই ভাল। ফলিক অ্যাসিড একটি জল দ্রবণীয় ভিটামিন, তাই এটি প্রতিদিনের ভিত্তিতে গ্রহণ করা প্রয়োজন।

ফলিক অ্যাসিডের উচ্চ মাত্রা গ্রহণের ঝুঁকিগুলি কি কি?

  • আপনার পক্ষে খুব বেশি ফলিক অ্যাসিড গ্রহণ করায় কিছু ঝুঁকি জড়িত থাকে এবং এটি গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি কেবলমাত্র আপনার ডাক্তার নির্ধারিত ডোজ গ্রহণ করা উচিত। ফলিক অ্যাসিডের দৈনিক গ্রহণের পরিমাণ ১০০০ এমসিজির বেশি হওয়া উচিত নয়। ফলিক অ্যাসিড ছাড়াও ভিটামিন বি১২এর ঘাটতিতে বেশি ডোজ নির্ধারিত হতে পারে এবং অতিরিক্ত গ্রহণের ফলে বন্ধ্যাত্ব দেখা দিতে পারে। এগিয়ে যাওয়ার আগে বি১২এর স্তরগুলি এবং অতিরিক্ত পরিপূরকের পরীক্ষা করা প্রয়োজন।
  • এছাড়াও, অতিরিক্ত মাত্রা শুক্রাণুর অভ্যন্তরে ডিএনএ সংশ্লেষণের ক্ষতি করতে পারে এবং এটি অন্যান্য ওষুধের সাথেও প্রতিক্রিয়া করতে পারে। ফলিক অ্যাসিড ফেনিটিনের কার্যকারিতা হ্রাস করতে পারে যা একটি অ্যান্টিসেইজার ড্রাগ। কিছু উর্বরতার মিশ্রণে কিছু ঔষধিও অন্তর্ভুক্ত থাকে যা উর্বরতার ওষুধের সাথে প্রতিক্রিয়া করে এবং সমস্যা সৃষ্টি করে।

সুতরাং, ফলিক অ্যাসিড, পুরুষ ও মহিলা উভয়ই যাতে তাদের প্রজনন উর্বরতার মাত্রা বাড়াতে সক্ষম হয় তা নিশ্চিত করতে একটি বড় ভূমিকা নিতে পারে। এগুলি বেশিরভাগ সাধারণ খাবারে পাওয়া গেলে, নিয়মিত ফোলিক অ্যাসিডের একটি অতিরিক্ত ডোজ গর্ভধারণে সহায়তা করতে পারে। সুপারিশ করা হয় যে অতিরিক্ত কোন ডোজ গ্রহণে এগিয়ে যাওয়ার আগে আপনি একজন ডাক্তারের সাথে দেখা করুন, কারণে এটির কারণেও সমস্যা হতে পারে।