ফলিকুলার স্টাডি-জানুন কখন আপনি ওভ্যুলেটিং করবেন

Follicular Study - Know When You Are Ovulating

পরিবারেরই একজন সদস্য হিসেবে একটা বাচ্চাকে বাড়িতে স্বাগত জানানোটা সবচেয়ে কঠিনতম বিষয়গুলির একটা, তবুও সংসারের জন্য এটা সবচেয়ে পরিপূরণকারী একটা ব্যাপার যা আপনি একজন দম্পতি হিসেবে করতে পারেন।তবে এটা ঘটনা যে গর্ভবতী হওয়াটা ততটাও সহজ নয় যতটা এটা সহজ বলে মনে করা হয়।আপনাকে সঠিক সময়ে গর্ভধারণের চেষ্টা করতে হবে যেহেতু উর্বর সময়ে যখন একজন মহিলার ডিম্বাণু উর্বর হয়ে ওঠে, (তার পিরিয়ড বা মাসিকের সময় তার শরীর থেকে সেটি অপসারিত হওয়ার আগে) সেই সময়কালটি বেশ ছোট হয়ে থাকে।

aniview

আপনার দেহে কয়েক মিলিয়ন ডিম্বাণু থাকে যা নিষিক্ত হওয়ার জন্য প্রতীক্ষা করে চলে, যার মধ্যে একটি করে প্রতি ঋতুস্রাব চক্রে ফ্যালোপিয়ান টিউবের মধ্যে মুক্ত হয়।যদি নিষেক সম্পন্ন না হয়ে থাকে, তবে ঋতুস্রাব প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ডিম্বাণু জরায়ুর অতিরিক্ত আস্তরণের সাথে (যা ডিম্বাণুটি নিষিক্ত হওয়ার প্রত্যাশ্যায় নির্মিত হয়েছিল) মুক্ত হয়।

আসুন দেখা যাক ফলিকুলার স্টাডি কি, এবং কীভাবে এটি আপনার গর্ভধারণের প্রচেষ্টার সময় ব্যবহার করা যেতে পারে।

ফলিকুলার স্টাডি কি?

একটি ফলিক্যল হল কোষের সমষ্টি বা কোষগুচ্ছ (কলার অনুরূপ) যা কোনও মহিলার ডিম্বাশয়ে পাওয়া যায়। প্রতিটি ফলিকল জীবদ্দশায় 1 টি ডিম্বাণু নিষ্ক্রান্ত করে থাকে।একজন মহিলা মোটামুটি প্রায় 400,000 ফলিকল সহ জন্মগ্রহণ করে থাকে।একটি ফলিকুলার স্টাডি এবং গর্ভাবস্থা নিবিড়ভাবে সম্পর্কিত; কোনও ব্যক্তি সময় মত ওভ্যুলাটিং বা ডিম্বস্ফোটন করছে কিনা তা বোঝার জন্য একটি ফলিকুলার স্টাডি করা হয়ে থাকে। ফলিকুলার ট্র্যাকিং করাটা ফলিকলের বিকাশের স্টাডির সাথে জড়িত থাকে, কোনও মহিলা তার ডিম্বস্ফোটনের কতটা কাছাকাছি তার সন্ধান পাওয়ার জন্য।এটিতে যোনি স্ক্যানগুলির একটি সহজ সিরিজ জড়িত থাকে যা মহিলাটি সম্প্রতি মাসিক চক্রের কোন পর্যায়ে রয়েছে তা সনাক্ত করতে সহায়তা করে।

ফলিকুলার মনিটরিং কেন করানো হয়?

ফলিকুলার স্টাডিগুলি মহিলাদের ফার্টিলিটি বা উর্বরতার চিকিৎসার অঙ্গ বিশেষ, কারণ মহিলাটি চিকিৎসার প্রতি সাড়া দিচ্ছেন কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য এটি প্রয়োজনীয়।যদি কোনও ব্যক্তি নিষেকের IVF (ইনভিট্রো ফার্টিলাইজেশন) পদ্ধতিটি বেছে নেন, তবে ফলিকুলার স্ক্যানগুলিও করানো জরুরি।স্ক্যানটি একটি ওভ্যুলেশনের বা ডিম্বস্ফোটনের ফলে উৎপাদিত হওয়া ডিম্বাণুর সংখ্যা এবং স্বাস্থ্য ও সংশ্লিষ্ট হরমোনের স্তর নির্ধারণ করে। যদি হরমোনের মাত্রা ঠিক না থাকে তবে গর্ভধারণের সম্ভাবনা সর্বাধিকতর করার জন্য ওষুধের ডোজটি সামঞ্জস্য করা যেতে পারে।

ফলিকুলার মনিটরিং আল্ট্রাসাউন্ড কীভাবে সম্পাদন করা হয়?

যে পদ্ধতিটির দ্বারা ফলিকুলার মনিটরিং প্রক্রিয়াটি পরিচালনা করা হয়, তাকে আল্ট্রাসাউন্ড স্ক্যানিং বলা হয়।ডিম্বাশয়ের ফলিক্যলগুলি পরীক্ষা করা হয় এবং যোনিতে ছোট প্লাস্টিকের প্রোব প্রবেশ করিয়ে অভ্যন্তরীণ অঙ্গাণুগুলির ছবি তোলা হয়।এই প্রক্রিয়াটি সার্টিফায়েড সোনোগ্রাফারদের দ্বারা পরিচালিত হয়।প্রোবগুলিকে অত্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি সম্মত, জীবাণুমুক্ত এবং পরিষ্কার হতে হবে।আপনাকে স্টিরাপ পজিশনে চিৎ শুয়ে পড়তে হবে যাতে স্ক্যানটি পরিচালনা করা যেতে পারে।আপনার কোমরের নিচের অংশ থেকে ঢাকা দিয়ে প্রোবটি প্রবেশ করানো হবে।এই প্রোবগুলি আল্ট্রাসাউন্ড ফ্রিকোয়েন্সিগুলিতে শব্দ তরঙ্গ নিক্ষেপ করবে, যার উপর নির্ভর করে চিত্রগুলি গঠিত করা হবে।জরায়ুর প্রাচীর কতটা পুরু হয়েছে তার উপর ভিত্তি করে ডিম্বাণুটি কোন সময়ে মুক্ত হবে তার সঠিক পূর্বাভাস সোনোগ্রাফার দিতে সক্ষম হবেন।অতএব, আপনার গর্ভধারণের সম্ভাবনা সর্বাধিকতর করার জন্য আপনি আপনার প্রচেষ্টার পরিকল্পনা করতে পারেন।অতএব, এর ফলস্বরূপ ফলিকুলার স্টাডি প্রক্রিয়াটি চমৎকার কার্যকর হয় যদি আপনি সন্তান গ্রহণের চেষ্টা করেন সেক্ষেত্রে।

কার ক্ষেত্রে একটা ফলিকুলার স্ক্যান করানো প্রয়োজন?

 

এই স্ক্যান করার প্রক্রিয়াটি সেই সকল দম্পতির ক্ষেত্রে করানোর প্রস্তাব দেওয়া হয় যারা গর্ভধারণের জন্য চেষ্টা চালান, বিশেষ করে যদি তারা বহু মাস ধরে চেষ্টা চালানোর পরেও সফল না হয়ে থাকেন।এই চিহ্নিতকরণ প্রক্রিয়াটি আবার যেগুলির ক্ষেত্রেও উপকারি সেগুলি হলঃ

  • প্রেডিকশন কিটগুলি বেশ কিছু সময় ধরে ব্যবহার করার পরেও যদি কোনও মহিলা কখন ওভ্যুলেট বা ডিম্বস্ফোটন হবে তা না জেনে থাকেন।
  • গর্ভাবস্থার প্রাথমিক পর্যায়ে দুর্ভাগ্যজনক গর্ভপাত ঘটেছে এমন মহিলাদের এই স্ক্যানগুলি বুঝতে সাহায্য করে যে সেটা কেন ঘটেছিল
  • যেসব মহিলারা তাদের মধ্যে ওভ্যুলেশন বা ডিম্বস্ফোটন প্রক্রিয়াটি প্ররোচিত করার জন্য ওষুধ খাচ্ছেন, বা অন্যান্য গর্ভধারণ সংক্রান্ত সমস্যাগুলি মোকাবিলায় ওষুধগুলি গ্রহণ করেন

ফলিকুলার ট্র্যাকিং স্ক্যান করাতে কত সময় লাগে?

শুধুমাত্র স্ক্যান করার প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে এক ঘন্টা চতুর্থাংশেরও কম সময় লাগে, তবে স্ক্যান হওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে থেকেই এর জন্য প্রস্তুতি শুরু করতে হতে পারে। আপনি যদি আপনার ডাক্তারবাবুর সাথে সহযোগিতা করেন এবং সোনোগ্রাফারকে সহায়তা করার জন্য একটি ভাল স্টিরাপ প্রক্রিয়া বজায় রাখেন তবে পুরো প্রক্রিয়াটি দশ মিনিটেরও কম স্থায়ী হয়।

একটি একক চক্রে কতগুলি স্ক্যান করানো যায়?

ওভ্যুলেশন বা ডিম্বোস্ফোটন কখন হবে তা আরও ভালভাবে নিশ্চিত হওয়ার জন্য একটা চক্রে 4-6 টি স্ক্যান করানোটা সাধারণ ব্যাপার।প্রাথমিক স্ক্যানটিকে বলা হয়ে থাকে বেসলাইন স্ক্যান আর এটি ডাক্তারবাবুকে দারুণ নিশ্চয়তার সাথে ফলিক্যলের প্রাথমিক অবস্থাটি বুঝতে সাহায্য করে।সেখান থেকে ইউটেরাইন ফলিক্যলগুলির বিকাশ অনুধাবন করার জন্য ডাক্তারবাবু যথার্থ সময়গুলিতে স্ক্যানগুলি করানো নির্ধারণ করেন।প্রতিটি স্ক্যানে জরায়ুর আভ্যন্তরীণ আস্তরণ এবং ফলিক্যলের বৃদ্ধি চেক করা হয়, আর সবশেষে মহিলাটির কখন ওভ্যুলেটিং বা ডিম্বোস্ফোটন হবে তার একটা স্বচ্ছ ধারণা ডাক্তারবাবু অর্জন করেন।এই স্ক্যানগুলি মহিলার মাসিকচক্র চলাকালীন এগার দিনের সম্ভাবনাময় সময়পর্বের মধ্যেই চালনা করা হতে পারে।

এই স্ক্যানের দ্বারা আর কি সনাক্ত করা যেতে পারে?

যদিও এটি সন্তান চান এমন দম্পতিদের জন্য একটা দুর্দান্ত টুল বা সরঞ্জাম, তবুও স্ক্যানটি আরও অন্যান্য কিছু সমস্যা নির্ধারণও করতে পারে যেগুলি হতে পারে আপনি গর্ভবতী না হতে পারার মূল কারণ।

  • এই স্ক্যানের সাহায্যে ডাক্তারবাবু ঠিকমত বৃদ্ধি না পাওয়া ফলিক্যলগুলিকে এবং প্রাথমিক পর্যায়ে এর বিদারণকে সনাক্ত করতে সক্ষম হবেন।
  • এছাড়াও স্ক্যানটি এই অবস্থাটি সনাক্ত করতে পারে।
  • এই স্ক্যানটি আবার ফলিক্যলগুলি আদৌ বাড়ছে কিনা অথবা নিষেকের জন্য ফলিকল সঠিক সময়ে বিদীর্ণ হয়ে ডিম্বাণু নিষ্ক্রমণ না করলে তা সনাক্ত করতে পারে।

আপনি যদি এই সকল অবস্থাগুলির যেকোনওটির মুখোমুখি হন এই স্ক্যানের সাহায্যে ডাক্তারবাবু তা পরীক্ষা করতে পারেন আর সেগুলি সংশোধনে বা সেগুলি হওয়া রোধ করতে আপনাকে সাহায্য করতে পারেন।

ফলিকুলার আল্ট্রাসাউন্ড স্ক্যান করানোর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে কি?

এই স্ক্যান করানোর পরিণতি হিসেবে আপনার মধ্যে দেখা দিতে পারে এমন কোনও শারীরিক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই, তবে এটি দম্পতির কাছে একটি যন্ত্রণাদায়ক কঠোর অগ্নি পরীক্ষা হয়ে উঠতে পারে।এই পদ্ধতিটি পরিচালনা করার জন্য সাধারণত নির্ধারণ করা হয় যাদের, তাদের মধ্যে অধিকাংশ দম্পতিই বেশ কয়েক মাস ধরে একটা সন্তান লাভের আশায় কঠোর প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েও ব্যর্থ হয়েছেন, সুতরাং এই স্ক্যানগুলি তাদের মধ্যে যৌন সঙ্গতি সমস্যা দেখা দেওয়ার কারণ হয়ে উঠতে পারেযা শেষ পর্যন্ত তাদের মধ্যে বৈবাহিক সম্পর্কের অবণতির কারণও হয়ে উঠতে পারে।গর্ভধারণের সম্ভাবনার সঠিক সময় নির্ধারণের জন্য ডাক্তাররা ফলিক্যল স্টাডিটি করান, তারা আপনার ওভ্যুলেশন বা ডিম্বোস্ফোটনের সঠিক সময়টি আপনাকে জানাবেন।তার ফল হিসেবে মহিলারা কেবল শুধু ওভ্যুলেশনের সেই নির্দিষ্ট সময় পর্বের মধ্যেই সঙ্গম করতে চাইবেন, যা তার সঙ্গীর কামনাকে বিধস্ত করে দিতে পারে। আবার পুরুষদেরও এই মত থাকতে পারে যে, নিয়মিত সঙ্গম করাই হল এর উত্তর গর্ভধারণের এই প্রক্রিয়াতে স্বামীকে কেবল নিছক শুক্রাণু দাতার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে, তার মধ্যে সেই ধারণাও তৈরী হতে পারে।অতএব আপনি যদি গর্ভবতী হওয়ার জন্য ডিম্বাণুর আকারের ফলিকুলার মনিটরিং করানোর দিকে যান, আপনাকে নিশ্চিত হতে হবে যে আপনি যা অর্জন করতে চান তার থেকে দৃষ্টি হারাবেন নাহ্যাঁ সেটি নিঃসন্দেহে একটি শিশু, এবং প্রক্রিয়াটিতে ডিম্বাণু পর্যবেক্ষণ, ডিম্বোস্ফোটনের সময়কাল এবং ফলিকুলার আস্তরণ চিকিৎসকের নজরে রাখার বিষয়টা যাতে একটি ধোঁয়াশার মধ্যে হারিয়ে না যায় সেদিকে সজাগ থাকুন।

গর্ভধারণ প্রক্রিয়াটিকে বোঝার জন্য এবং একজন মহিলার কখন ওভ্যুলেট বা ডিম্বোস্ফোটন হতে পারে তার সন্ধান পাওয়ার এক দুর্দান্ত পদ্ধতি হল ফলিকুলার ট্র্যাকিং।বেশ কিছুটা অতিরিক্ত সময় ধরে গর্ভধারণের চেষ্টা চালাচ্ছেন বা গর্ভধারণের জন্য IVF এর মত অন্যান্য পদ্ধগুলি বেছে নিচ্ছেন এমন দম্পতিদের জন্য এটি প্রয়োজনীয়।আপনি শুধু সঠিক সময় মত আপনার প্রচেষ্টাগুলি করুন আর গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনাকে বাড়িয়ে তুলুন।