ডেলিভারির প্রসবের পর যৌনতা – কতদিন অপেক্ষা করতে হবে?

ডেলিভারির প্রসবের পর যৌনতা – কতদিন অপেক্ষা করতে হবে?

গর্ভাবস্থা এমন একটি পর্যায়ে যেখানে শরীরের অনেক পরিবর্তন ঘটে। শিশুর প্রসব করার পরে আগের অবস্থায় ফিরতে কিছু সময় লাগে। গর্ভাবস্থার পীড়া থেকে শরীর সম্পূর্ণভাবে সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত, মাকে নিজের বিশেষ যত্ন নিতে হবে। এটি নিশ্চিত করা উচিত যে, যে কোনও ক্রিয়াকলাপ যাতে মানসিক চাপ থাকে এবং মায়ের অনেক শক্তি খরচের দরকার হয়, সেগুলি কেবল ডাক্তারের পরামর্শের পরেই করা উচিত। এইরকম একটি কাজ হল গর্ভাবস্থার পর যৌনতা।

aniview

প্রসবে পরে কখন যৌনতায় ফিরে আসা নিরাপদ?

এটা বোঝা গুরুত্বপূর্ণ যে প্রসবের পর শরীরটি ভঙ্গুর থাকে এবং চরম যত্নের প্রয়োজন হয়। এই সময়ের মধ্যে জরায়ুর সংক্রমণ বা হেমারেজের সম্ভাবনা বেশি হওয়ার কারণে প্রসবের পরে অন্তত দুই সপ্তাহের মধ্যে যৌনসঙ্গম করা নিরাপদ নয়। অধিকন্তু, যৌনসম্পর্ক করার আগে অন্তত চার সপ্তাহ অপেক্ষা করার পরামর্শ দেওয়া হয়। সিসেকশন দ্বারা বা অন্যান্য অস্ত্রোপচারের কারণে প্রসবেত ফলে তাজা সেলাই থাকলে, এই সময়সীমা ছয় মাস পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

শিশুর জন্মের পরে যৌনতা করার সবচেয়ে সঠিক সময়সীমার জন্য আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।

শিশুর জন্মের পরে কখন আপনার যৌনতা করার ইচ্ছা হবে?

গর্ভাবস্থা শেষ হওয়ার পর প্রথম চার থেকে ছয় সপ্তাহ হল এমন একটি সময়কাল যেখানে আপনার শরীর গর্ভাবস্থা ও প্রসবের চাপ এবং ক্লান্তি থেকে আরোগ্য লাভ করছে। এই সময়ের মধ্যে কম লিবিডো মাত্রা থাকা স্বাভাবিক। উপরন্তু, আপনার প্রসবের পরে সন্তানকে বুকের দুধ খাওয়ানো এবং তার স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়াকেই আপনি অগ্রাধিকার দেন। যৌনতার বিষয় দূরে সরে যেতে বাধ্য হয়।

উপরন্তু, যোনির স্বাভাবিক তৈলাক্ততা ডেলিভারির পরে এস্ট্রোজেনের মাত্রা হ্রাসের কারণে কম থাকে এবং যতদিন আপনি শিশুকে বুকের দুধ খাওয়াবেন ততদিন এই শুষ্কতা চলতে পারে।

যৌনতার ইচ্ছা তাত্ক্ষণিকভাবে ফিরে আসতে নাও পারে। বেশিরভাব সঙ্গীরা প্রসবের 2 মাস পরে যৌনতা শুরু করে।

জন্ম দেওয়ার পর আপনার যৌনসম্পর্ক করার ইচ্ছা কেন হয় না?

এর জন্য একাধিক কারণ থাকতে পারে। প্রথমত, আপনি অত্যন্ত মানসিক চাপে থাকবেন এবং আপনার শক্তি কম থাকবে যে আপনি যৌনতা করার কথা চিন্তা করতে পারবেন না।

প্রথম কয়েক সপ্তাহে শিশুকে সামলানোর দায়িত্ব থাকায়, যৌনতা করার জন্য কোনও সময় থাকে না। আপনার পরিবর্তনশীল শরীরের কম আকর্ষণীয় এবং এলোমেলো হওয়ার অনুভূতি আপনার আত্মবিশ্বাসকে কমাতে পারে এবং আপনার সঙ্গীর সাথে ঘনিষ্ঠ হওয়া থেকে বিরত রাখতে পারে।

বাচ্চা হওয়ার পীড়া বা প্রসবোত্তর বিষণ্নতাও জন্ম দেওয়ার পরে আপনাকে যৌনতা থেকে দূরে রাখতে পারে।

আপনার সঙ্গী যদি আপনার চেয়ে আগে যৌন সম্পর্ক চায় তবে কী করবেন?

সন্তানের জন্মের পরে আপনার সঙ্গীর যৌনসম্পর্ক করতে চাওয়া খুব স্বাভাবিক হতে পারে। এটা আপনার প্রতি তাঁর প্রেম এবং স্নেহ দেখানোর উপায় হতে পারে। তবে, আপনার অবস্থার খোঁজ নেওয়া এবং আপনি কিভাবে গর্ভাবস্থার পরবর্তী প্রভাবগুলি মোকাবিলা করছেন সে বিষয়ে আপনার সঙ্গীর সাথে কথা বলা গুরুত্বপূর্ণ। আপনার শরীর যৌনতার জন্য এখনো কেন প্রস্তুত নয় তা তাঁকে ব্যাখ্যা করুন।

আপনাদের সম্পর্কের মধ্যে প্রেমকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য স্পষ্ট যোগাযোগ এবং পারস্পরিক বোঝাপড়ার প্রয়োজন।

আপনার যৌনতার ইচ্ছাকে বাড়াতে আপনি কী করতে পারেন?

প্রথমত, আপনার যৌন জীবন পুনরায় শুরু করার আগে আপনার শরীরকে আরোগ্য হতে দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। সন্তান জন্মের জন্য যে সব সঙ্গীরা যৌনতা করতে চান, তাঁদের একে অপরের সম্মতি নিয়ে এটি করা উচিত।

দিনের একটি সময় শনাক্ত করুন যখন আপনাদের দুইজনই ক্লান্ত থাকবেন না এবং একে অপরের সাথে যুক্ত হওয়ার শক্তি থাকবে। প্রথম কয়েকটি সেশন মৃদু হতে হবে, এবং আপনাকে এমন অবস্থান নির্বাচন করতে হবে যেখানে অনুপ্রবেশের গভীরতা এবং তার গতির নিয়ন্ত্রণ নারীর হাতে থাকে।

প্রচুর পরিমাণে তরল সহ স্বাস্থ্যকর খাবার এবং হালকা শারীরিক ব্যায়াম সহ ভালো বিশ্রাম নেওয়া আপনার শরীরের দ্রুত আরোগ্য হতে সাহায্য করবে।

প্রসব পরবর্তী যৌনতার কৌশল

প্রসব পরবর্তী কালে, নিম্নলিখিত কৌশলগুলি আপনার যৌন ক্ষুধাকে বাড়ায়:

  • আপনার যৌন রুটিন পুনরায় আরম্ভ করার সময় সম্পর্কে আপনার সঙ্গীর সাথে কথা বলুন।

  • আস্তে আস্তে শুরু করুন। এটিকে যতটা সম্ভব আরামদায়ক করুন যাতে যৌনতা থেকে ব্যাথার জন্য আপনার মন থেকে যে বাধাগুলি আছে সেগুলি চলে যায়।

  • স্বাস্থ্যকর খাবার খান। প্রচুর পরিমাণে তরল পান করুন এবং শরীরকে স্বাভাবিক আকৃতিতে ফিরিয়ে আনতে হালকা শারীরিক ব্যায়াম করুন।

  • আপনার বাবামায়েদের বাচ্চাদের দেখাশোনা করতে দেওয়া একটি ভালো বুদ্ধির কাজ, যাতে আপনি আপনার সঙ্গীর সাথে কিছুটা সময় কাটাতে পারেন।

  • আপনার শিশুর ঘুমের সময়কে যৌনতার জন্য সময় বানান। এটি নিশ্চিত করবে যে আপনাকে বিরক্ত করা হবে না।

  • ফোরপ্লে আপনাকে সম্পূর্ণভাবে যৌনতায় জাগাতে সাহায্য করবে। যোনির শুষ্কতা বাধা হয়ে যাতে না দাঁড়ায় তা নিশ্চিত করতে লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করুন।

  • যৌনতা করার আগে, আপনার আস্তে আস্তে আপনার যোনির মধ্যে আঙ্গুল প্রবেশ করান। এটি আপনাকে আগে থেকে আনন্দ এবং ব্যথার বিন্দুগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করবে।

  • শুরুতেই পূর্ণ অনুপ্রবেশ এড়িয়ে চলুন। অনুপ্রবেশকে সীমিত করে এমন অবস্থান খুঁজে বের করুন।

  • আপনি কিভাবে পুরো জিনিসটিতে, বিশেষ করে প্রথমবার, যেতে চান সে সম্পর্কে আপনার সঙ্গীর সাথে কথা বলুন। আপনি কিভাবে স্পর্শ পেতে চান তাকে জানান।

  • এই পর্যায়ের মধ্যে দিয়ে গেছেন এমন বন্ধুদের সাথে এবং আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন। তারা আপনাকে ভালো উপদেশ দিতে সক্ষম হবেন।

জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিগুলি সম্পর্কে কী জানেন?

শিশুর জন্মের অব্যবহিত পর অসুরক্ষিত যৌনসম্পর্ক করলে, গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা বহুগুণ বৃদ্ধি পেতে পারে। প্রথমত, প্রতিবার যৌনসম্পর্ক করার সময় কনডোম ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

গর্ভনিরোধক ওষুধ উপলভ্য রয়েছে যা আপনার হরমোন এবং বুকের দুধের চক্রগুলিকে প্রভাবিত না করে গর্ভাবস্থার ঝুঁকি কমাতে পারে। তবে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ না করে এবং এর থেকে সম্ভাব্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি না বুঝে, যে কোনো গর্ভনিরোধক এড়াতে সুপারিশ করা হয়।

আপনি ইন্ট্রাইউটেরিন ডিভাইসগুলির ব্যবহারের মতো মাধ্যম থেকে দীর্ঘমেয়াদী জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাগুলির কথাও বিবেচনা করতে পারেন।

অন্যান্য অনেক জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাও উপলভ্য আছে। আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা এবং জন্ম নিয়ন্ত্রণের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত এবং কম ঝুঁকিপূর্ণ পদ্ধতি বেছে নেওয়া সবেচেয়ে ভালো।

যে সমস্যাগুলি আপনাকে দেখতে হবে

1. আপনার সঙ্গী যৌনতা চায়, কিন্তু আপনি চান না।

যথেষ্ট সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরেও, আপনি যৌনতা করতে আগ্রহী নাও হতে পারেন, যখন আপনার সঙ্গী আগ্রহী এবং অপেক্ষা করছে।

এই কৌশলগুলি চেষ্টা কররে দেখুন: 

যৌনতা করতে আপনার আপত্তিগুলি সম্পর্কে আপনার সঙ্গীর সাথে কথা বলুন। তাকে বলুন যে আপনি শীঘ্রই এটির জন্য প্রস্তুত হবেন। প্রেমকে বাঁচিয়ে রাখতে, আপনারা আদর করার, চুম্বন করার বা আপনার বাচ্চার সাথে একসাথে খেলা করার চেষ্টা করতে পারেন।

2. ছয় সপ্তাহ অপেক্ষা করা আপনার পক্ষে কঠিন এবং আপনি এটিতে তাড়াতাড়ি যেতে চান।

কিছু ক্ষেত্রে, প্রসব পরবর্তী যৌনতার তৃষ্ণা আপনার চার থেকে ছয় সপ্তাহের জন্য অপেক্ষা করাকে অসম্ভব করে তোলে, বিশেষত যদি আপনার গর্ভাবস্থায় এটি আপনি খুব কম করে থাকেন।

এই কৌশলগুলি চেষ্টা কররে দেখুন: 

গর্ভাবস্থা শেষ হওয়ার পর যৌনসম্পর্ক করা কখন নিরাপদ তা আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন। প্রসব পরবর্তী রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়ে গেলে, এটি করা ঠিক আছে।

3. স্তন নমনীয় হওয়ার জন্য লিক করে এবং ব্যাথা করে

বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় স্তনগুলি ফুলে ওঠে এবং ভারী হতে পারে এবং যৌনতার সময় উত্তেজনা সৃষ্টিতে সহায়তা না করতে পারে। তাছাড়া, আপনার সন্তান হওয়ার পর, আপনি সেগুলিকে সারা দিন আপনার শিশুর জন্য রেখে দিতে চাইতে পারেন।

এই কৌশলগুলি চেষ্টা কররে দেখুন: 

যৌনতার ঠিক আগে আপনার শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ালে, স্তনদুটি কম পূর্ণ থাকতে পারে এবং লিক করার সমস্যা সমাধান করতে পারে। এছাড়াও, আপনি যৌনতার সময় নার্সিং ব্রা বা ট্যাঙ্ক টপ পরিধান করে দেখতে পারেন, যদি এগুলিতে আরামদায়ক বোধ করেন।

4. যৌনতা কষ্টদায়ক

শিশুর জন্মের জন্য ফোলাভাব এবং হরমোনগত পরিবর্তন ও বুকের দুধ খাওয়ানোর কারণে যোনির শুষ্কতা গর্ভাবস্থা পরবর্তী যৌনতাকে বেদনাদায়ক করে তোলে।

এই কৌশলগুলি চেষ্টা কররে দেখুন: 

ফোলাভাব আরোগ্য হতে কিছু সময় দিন, বিশেষ করে যদি এটি সিসেকশন সার্জারি থেকে উদ্ভূত হয়ে থাকে। একটি জল ভিত্তিক লুব্রিকেন্ট হাতের কাছে রাখা একটি ভাল বুদ্ধি।

5. আপনি আপনার পরিবর্তিত শরীর সম্পর্কে সচেতন বোধ করছেন

আপনার শরীরের প্রাকগর্ভাবস্থার আকৃতিতে ফিরে যেতে কিছু সময় লাগতে পারে এবং প্রসারণ চিহ্নগুলি আপনাকে নিজের সম্পর্কে আরো বেশী সচেতন করে তুলতে পারে এবং আপনার সঙ্গীর সাথে যৌন সম্পর্ক করতে দ্বিধাগ্রস্ত করতে পারে।

এই কৌশলগুলি চেষ্টা কররে দেখুন: 

আপনার শরীর যা সব কিছুর মধ্যে দিয়ে গেছে, সেই সব কিছুর ফল হল আপনার সুন্দর শিশুটি। এটি একটি প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া, এবং শরীরের তার আকৃতি ফিরে পাওয়া শুধু সময়ের ব্যাপার। আপনার সঙ্গী আপনি যতটা গর্বিত ততটাই গর্বিত। আপনার শরীর নিয়ে লজ্জিত বা সচেতন হওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

প্রসবের পরে শরীরের প্রতি নিবেদিত মনোযোগ ও পুষ্টির প্রয়োজন, এবং শিশুরও তাই প্রয়োজন। যৌনতা এবং ঘনিষ্ঠতা বিভিন্ন কারণে দম্পতির জীবন থেকে অগ্রাধিকারের স্থান থেকে সরে যেতে পারে। তবে, একে অন্যের প্রতি বিশ্বাস বজায় রাখা এবং সব ব্যাপারগুলি ঠিক হতে শুরু করলে, ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠতা গড়ে তোলা গুরুত্বপূর্ণ।