শিশুদের মধ্যে হিট স্ট্রোক বা তাপজনিত স্ট্রোকের 6 টি সতর্কতামূলক লক্ষণ এবং কীভাবে সেগুলিকে এড়িয়ে চলতে হবে

শিশুদের মধ্যে হিট স্ট্রোক বা তাপজনিত স্ট্রোকের 6 টি সতর্কতামূলক লক্ষণ এবং কীভাবে সেগুলিকে এড়িয়ে চলতে হবে

গ্রীষ্মের সময় শিশুদের ঘরের ভিতরে আটকে রাখাটা বেশ অসম্ভব।স্কুল এবং বাড়ির কাজ বা হোমওয়ার্ক থেকে অবশেষ একটি বিরতি পাওয়ার পরে, তারা সকলেই যা চায় তা হল সারাদিন ধরে বাড়ির বাইরে থাকতে এবং খেলতে।কিন্তু একজন মাবাবা হিসেবে, এটি বেশ স্পষ্ট যে আপনি তাদের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে উদ্বিগ্ন হবেন, বিশেষ করে প্রতিটি বছর পার হওয়ার সাথে গ্রীষ্ম আরও কতটা ক্রমশ গরম হয়ে উঠছে সেদিকে দৃষ্টি রেখেগ্রীষ্মকালগুলি শরীরের পক্ষে নিষ্ঠুর হয়ে উঠতে পারেসেগুলি আপনাকে গরম অনুভূত করায়, ঘাম ঝরায়, আপনার ক্ষুধামান্দ্য দেখা দেয় এবং এগুলি সাথে করে বয়ে নিয়ে আসে বহুবিধ অ্যালার্জি এবং অসুস্থতাগুলি।এ ধরণের একটি গুরুতর সমস্যা হল হিট স্ট্রোকবা গরমের তাপজনিত স্ট্রোক

aniview

হিটস্ট্রোক ব্যাপারটি আসলে কি?

দীর্ঘ সময়ের জন্য প্রখর রোদের সংস্পর্শে আসলে হিট স্ট্রোক বা তাপজনিত স্ট্রোকটি হয়ে থাকেবিশেষ করে গ্রীষ্মের দুপুরে তীব্র তাপপ্রবাহের ফলে দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিটি ব্যাহত হয়।সাধারণত মানব দেহের তাপমাত্রা তার আশেপাশের তাপমাত্রার উত্থানপতনের প্রতিক্রিয়ার সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ন্ত্রিত হতে সমর্থ হয়ে থাকে।ঠিক এই কারণের জন্যই আমরা গরমকালে ঘেমে যাই (দেহকে ঠাণ্ডা করতে)আর শীত কালে অনেক বেশি খাবার খাই(কারণ খাদ্য হজম প্রক্রিয়াটি দেহের মধ্যে তাপ উৎপন্ন করে এবং আপনাকে গরম রাখে)।যাইহোক, দেহের এই প্রাকৃতিক থার্মোস্ট্যাটিকবা তাপস্থাপকবিষয়কক্ষমতাটির একটি উর্দ্ধ সীমা আছেযেখানে দেহ বাহ্যিক তাপমাত্রার একটি নির্দিষ্ট পরিসরের বাইরে বৃহৎ ক্ষেত্রে সেটি আর কার্যকর করতে পারে না।সেই কারণের জন্যই গ্রীষ্মের তাপের সংস্পর্শে দীর্ঘ সময় ধরে থাকলে তা শরীরের স্বাভাবিক থার্মোস্ট্যাটকে ব্যাহত করতে পারে, যার পরিণতি স্বরূপ হিট স্ট্রোক বা তাপজনিত স্ট্রোকটি হয়ে থাকে।

হিট স্ট্রোকের দিকে পরিচালিত করার প্রাথমিক লক্ষণগুলি

উপরের আলোচনানুযায়ী নোট করে রাখার মত উল্লেখযোগ্য মূল শব্দটি হল দীর্ঘ মেয়াদেবা দীর্ঘায়িতহিট স্ট্রোক কখনই হঠাৎ করে হয় না।এটি সর্বদাই সূর্যের চড়া রোদের নিচে দীর্ঘ সময় ধরে থাকার একটি পরিণাম।অতএব হিট স্ট্রোককেও প্রতিরোধ করা সম্ভব।এ ব্যাপারে আপনার যা করণীয় তা হল প্রথমেই হিট স্ট্রোক বা তাপজনিত স্ট্রোকের প্রাথমিক লক্ষণ এবং উপসর্গগুলিকে সনাক্ত করা।

আপনার বাচ্চা প্রকৃতপক্ষেই হিট স্ট্রোকের শিকার হওয়ার আগে নিম্নোলিখিত উপসর্গগুলি প্রদর্শন করাতে পারে

  • তাপজনিত ক্লান্তিবোধমাথা ঝিমঝিম, অজ্ঞান হয়ে যাওয়ার মত একটা অনুভূতি অথবা দুর্বল বোধ করা ও কোনওকিছুতে মনোনিবেশ না করতে রা, আশেপাশে কি হচ্ছে তা উপলব্ধি বা বুঝতে না পারা।
  • হিট সিনকোপ বা তাপজনিত কারণে রক্তচাপের নিম্নতা হেতু সাময়িক সংজ্ঞাহীনতারৌদ্র তাপের সংস্পর্শে দীর্ঘ সময় থাকায় মূর্ছা যাওয়া।
  • হিট ক্র্যাম্প বা তাপজনিত খিঁচুনিঅত্যধিক জল হ্রাসের দ্বারা পেশীগুলির খিঁচুনি(চড়া রোদের সংস্পর্শে থাকার কারণে)দেখা যাওয়া।

হিট স্ট্রোকের সাধারণ লক্ষণগুলি

যেকোনও হিট স্ট্রোকই হল একটি গুরুতর অবস্থা যার জন্য তৎক্ষণাৎ চিকিৎসাগত হস্তক্ষেপ করার প্রয়োজন।তবে আপনার বাচ্চার মধ্যে হিট স্ট্রোক হয়ে থাকলে প্রথমেই তা সনাক্ত করতে সক্ষম হওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, যাতে সেটির জন্য তাকে অবিলম্বে সাহায্য করা যেতে পারে।এখানে হিট স্ট্রোকের হলমার্ক লক্ষণগুলির উল্লেখ করা হলঃ

1.ঘামের অনুপস্থিতি

গ্রীষ্মের চড়া রোদের মধ্যে থাকার সময় আমরা সাধারণত ঘেমে যাই।কিন্তু যে ব্যক্তি হিট স্ট্রোকের শিকার হয়ে থাকেন তিনি কখনই ঘামবেন না।এটি হল সবচেয়ে সুস্পষ্ট, প্রথম এবং সহজে সনাক্তকরণ যোগ্য হিট স্ট্রোকের একটি লক্ষণ বা উপসর্গ।

2.দ্রুত এবং অগভীর শ্বাসপ্রশ্বাস নেওয়া

এটি অপর আরেকটি লক্ষণ যেটি সনাক্ত করা সহজ।হিট স্ট্রোকের শিকার হওয়া ব্যক্তির শ্বাসপ্রশ্বাস গ্রহণ বর্জন প্রক্রিয়াটি হবে অগভীর, বিঘ্নিত এবং দ্রুত গতি সম্পন্ন।

3.গরম, শুষ্ক এবং জ্বালাপোড়া করা চামড়া

হিট স্ট্রোকের দ্বারা প্রভাবিত হবে এমন একটি অন্যতম প্রথম অঙ্গাণু হল ত্বকএটি লাল, গরম এবং ভীষণ শুষ্ক হয়ে যাবে

4.ডিসওরিয়েন্টেশন বা অসংলগ্নতা

হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত একটি শিশুকে দিশেহারা ও বিভ্রান্তিকর দেখাবে। একটা মাথা ঝিমঝিম ভাব থাকায় তার চলাচলগুলি টলে টলে যাওয়ার মত দেখাবে, আর তা দেখে মনে হবে, সে কোথায় যেতে চাইছে বা কি করতে চাইছে সে ব্যাপারে যেন সে অনিশ্চিত।আর মারাত্মক ক্ষেত্রে, তার নাম জিজ্ঞাসা করার মত অতি সাধারণ প্রশ্ন করা হলে কিম্বা তাকে ডাকলে তার জবাবও হয়ত সে দিতে সমর্থ হবে না।

5.সিজারস বা হৃদরোগের আক্রমণ

সে হয়ত হঠাৎ করে অত্যধিক ঝাঁকুনিপূর্ণ অনিচ্ছাকৃত খিঁচুনির মুখোমুখি হতে পারে যার কারণে দেহে অনিয়ন্ত্রিত খিঁচুনিগুলি হয়ে থাকে।

6.অসাড়তা বা সংজ্ঞাহীনতা

শেষ পর্যন্ত, হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত একটি শিশু হয়ত কেবল তার চেতনা হারাতে পারে এবং অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে।

হিট স্ট্রোকের জন্য ফার্স্টএইড বা প্রাথমিক সহায়তা

এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে, যখন কোনও শিশু হিট স্ট্রোকের শিকার হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে তখনই তাকে সঠিক প্রাথমিক চিকিৎসার দ্বারা সহায়তা প্রদান করা।এক্ষেত্রে সবচেয়ে প্রথম যে জিনিসটি আপনি করতে চান তা হল সবার আগে একটা অ্যাম্বুলেন্স ডাকা।যদিও এটা সবসময় প্রয়োজনীয় হয়ে ওঠে না কিন্তু হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত ব্যক্তিদের হসপিটালে ভর্তি করাটা হল একটি প্রচলিত সাধারণ ব্যাপার।অ্যাম্বুলেন্সটি আসার অপেক্ষায় থাকার সময় আপনি নিম্নোলিখিত বিষয়গুলি অনুসরণ করুনঃ

  • তাকে রোদ থেকে দূরে নিয়ে যান।বাচ্চাটিকে একটা ছায়ার মধ্যে সরিয়ে নিন(যদি সে বাইরে থাকে) অথবা তাকে বাড়ির ভিতর ঠাণ্ডা একটা ঘরের ভিতর রাখুন
  • বাচ্চাটিকে ঠাণ্ডা হতে সাহায্য করুনতার মাথার ওপর পাখা চালিয়ে দিন এবং ঠাণ্ডা জলের মধ্যে কাপড় ভিজিয়ে তা দিয়ে তার সারাটা দেহ ভালভাবে মুছিয়ে দিন
  • ঠাণ্ডা জল দিয়ে তাকে একটি স্পঞ্জ স্নান করিয়ে দিন।
  • গলা, ঘাড়, পিঠ, কুঁচকি এবং বোগলের মত দেহের জায়গাগুলি যেখানে রক্তবাহ বা নালীগুলিগুলি বেশি থাকেসেসব জায়গায় ঠাণ্ডা জলের ছিঁটা দিন।এর আসল কারণটি হল এই সকল জায়গাগুলি রক্তবাহ পূর্ণ হওয়ায় তা দেহকে দ্রুত শীতল করে তোলে।

একটি গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শবরফ ব্যবহার করবেন না

এটি বিভ্রান্তিকর শোনাতে পারে যেবরফ স্নান শরীরের তাপমাত্রা কমাবার একটা দ্রুততম উপায় হয়ে উঠতে পারে।প্রকৃতপক্ষে, তাপজনিত বা হিট স্ট্রোকের ক্ষেত্রে ফার্স্ট এইড বা প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে এটির পরামর্শ প্রায়শই দেওয়া হয়ে থাকেতবে ছোট শিশু এবং বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এই কৌশলটি বেশ ঝুঁকিপূর্ণ এবং বিপজ্জনক প্রমাণিত হতে পারে।এর কারণ হল ছোট শিশু এবং বাচ্চাদের দেহ, তাপমাত্রার এই হঠাৎ মারাত্মক হ্রাস পাওয়ার সাথে মানিয়ে নিতে সমর্থ নাও হতে পারে, ফলে সেটি মারাত্মক প্রমাণিত হতে পারে।সুতরাং আপনি যাই করুন না কেনবরফ ব্যবহার করবেন না।

নিরাময়ের চেয়ে প্রতিরোধ সবসময়ের জন্যই বেশি ভাল

এটি বোঝা গুরুত্বপূর্ণ যেমূলত বাচ্চা, ছোট শিশু এবং বয়স্ক লোকেরা তাপজনিত বা হিট স্ট্রোক এবং ডিহাইড্রেশন বা জলশূণ্যতা, মাথা ঘোরা, ঝিমঝিম করা ইত্যাদির মত তাপ সম্পর্কিত সমস্যাগুলির ঝুঁকির সম্ভাবনায় বেশি থাকেন।এর কারণ হল তাদের দেহ এই তাপের সাথে সেভাবে দক্ষতার সাথে মানিয়ে নিতে সক্ষম হয় না যেভাবে প্রাপ্তবয়স্করা মানিয়ে নিতে পারেন।সুতরাং যেকোনও মূল্যে তাপজনিত বা হিট স্ট্রোককে এড়িয়ে চলাই আবশ্যক।

হিট স্ট্রক থেকে আপনার বাচ্চাকে এবং আপনার নিজেকে দূরে রাখার জন্য আপনি অবলম্বন করতে পারেন এমন কিছু সহজ পদ্ধতির উল্লেখ এখানে করা হলঃ

  • সকাল 11 টা থেকে বিকাল 4 টের মধ্যে বাড়ির বাইরে বেরোনোকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন, বিশেষ করে গ্রীষ্মের সময়।এই কয়েক ঘন্টা সূর্যের তেজ হয় প্রখর ও চড়া।তাই আপনার দৈনন্দিন কাজকর্ম এবং পরিকল্পনাগুলিকে সেই অনুযায়ী স্থির করুন।
  • যখন বাড়ির বাইরে পা দেবেন, সর্বদা একটা জলের বোতল সঙ্গে নিয়ে বেরোন এবং হাতের নাগালে কিছু মিষ্টি রাখুন(টকমিষ্টি লজেন্স, খেজুর, চকোলেট, বাদামচাক বিশেষ বা দানাদার জাতীয় কিছু মিষ্টি ইত্যাদি)
  • আপনি বাইরে বেরোনোর আগে মাথায় চাপা দিন।একটা স্কার্ফ কিম্বা বড় ও চওড়া একটা টুপি ব্যবহার করুন।(প্রসঙ্গক্রমে বলা ভালএটি বেশ অভিনব এবং ফ্যাশানেবলও দেখায়!)
  • আরামদায়ক, ঢিলেঢালা পোশাক পরুন, প্রাকৃতিক ফাইবার, বিশেষ করে সুতির দ্বারা প্রস্তুত বস্ত্রাদিগুলিকে বেছে নিন।এই ধরণের পোশাকগুলিতে আপনার দেহে বায়ু চলাচল করতে পারবে যার ফলে দেহের মধ্যে তাপ ধরে রাখার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হবে।
  • একটা ভালো সানস্ক্রীন ক্রীম বা লোশন ব্যবহার করুন যার নূন্যতম SPF হওয়া উচিত 30.
  • আপনি বা আপনার বাচ্চা যদি খেলাধূলার জন্য যান, নিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার দেহকে শুধুই জল নয় ইলেকট্রোলাইটগুলিও সরবরাহ করছেন।সাধারণ জলের বদলে তাজা ফলের রসকে মনোনীত করুন।একটি উত্তম লেবু জলের গ্লাস এক্ষেত্রে অমোঘ ওষুধের মত কাজ করতে পারেএটি শরীরে লবণ, শর্করা এবং জল সরবরাহ করে।