10 টি সাধারণ সানস্ক্রীন উপকরণ যা আপনার শিশুর ক্ষতি করতে পারে

10 টি সাধারণ সানস্ক্রীন উপকরণ যা আপনার শিশুর ক্ষতি করতে পারে

আমরা আমাদের মাবাবা এবং গুরুজনদের থেকে যেমন শুনে এসেছি যে কোনও কিছুরই আধিক্য ভাল নয়, এমনকি রোদও নয়।যখন বাইরে বেরোবেন, আপনার ছোট সোনার নমনীয় ত্বকটিকে সূর্যের ক্ষতিকারক আলট্রাভায়োলেট(UV) রশ্মি থেকে আপনার রক্ষা করা প্রয়োজন।তবে আপনার বাচ্চার জন্য যে সানস্ক্রীনটি ব্যবহার করবেন সেটি অবশ্যই ভালভাবে চেক করে নেবেন যে, তার মধ্যে যেন এমন কোনও সম্ভাব্য বিষাক্ত রাসায়নিক না থাকে যা ত্বকজনিত অ্যালার্জি থেকে এমনকি ক্যান্সার পর্যন্ত এক বিরাট পরিসরে ব্যাধির কারণ হয়ে উঠতে পারে!

aniview

সানস্ক্রীনগুলি বিস্তৃতভাবে 2 ভাগের হয়ে থাকেখনিজ এবং রাসায়নিক।খনিজ সমৃদ্ধ সানস্ক্রীনগুলি সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মিগুলি অবরুদ্ধ করে কিম্বা প্রতিফলিত করার দ্বারা ত্বককে রক্ষা করে।আবার অন্যদিকে, রাসায়নিক জনিত সানস্ক্রীনগুলি UV রশ্মিগুলি শোষণ এবং ফিল্টার করার জন্য ত্বকের মধ্যে শোষিত হয়, আর এইভাবেই ত্বকের গভীর স্তরগুলিকে রক্ষা করে।যাইহোক, যখন কোনও ব্র্যান্ড পছন্দ করবেন, সানস্ক্রীনের উপকারিতাগুলি লাভ করতে এবং সম্ভাব্য ক্ষতিকারক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলি থেকে আপনার বাচ্চাকে দূরে রাখতে নিম্নোলিখিত 10 টি সন্দেহভাজন উপকরণগুলি এড়িয়ে চলুন।

সানস্ক্রীনের বিপজ্জনক উপকরণগুলি যেগুলি আপনি অবশ্যই এড়িয়ে চলবেন

1.অক্সিবেনজোন

রাসায়নিক সানস্ক্রীনের এই সাধারণ উপকরণটি আমাদের দেহ থেকে যত তাড়াতাড়ি মুক্ত হতে পারে তার থেকেও দ্রুত শরীরের মধ্যে জমে যায়।অক্সিবেনজোন আপনার শিশুর ত্বকে শোষিত হয়ে গেলে তা একজিমার ন্যায় অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়ার কারণ হয়ে উঠতে পারে।অক্সিবেনজোন আবার আপনার সন্তানের দেহে হরমোন এবং এন্ডোক্রনিক সিস্টেম বা অন্তঃক্ষরা তন্ত্রের ব্যাঘাত ঘটায় বলেও বিশেষজ্ঞরা সন্দেহ করে থাকেন।

2.অক্টিনক্সেট

সানস্ক্রীনে সচারচর পাওয়া যায় এমন অপর আরেকটি অভিযুক্তকারী হল রাসায়নিক অক্টিনক্সেট যা মুক্ত মূলকগুলি তৈরী করে এবং তার সাথে আবার দীর্ঘ মেয়াদে ত্বকের ও কোষের ক্ষতিসাধন করতে পারে।এটি আবার আপনার সন্তানের হরমোনের ভারসাম্য ব্যাহত করে বলেও বিশ্বাস করা হয়ে থাকে।

3.সিনক্সেট

সানস্ক্রীনের এই সক্রিয় উপাদানটি বাচ্চাদের স্কিন র‍্যাশ বা ত্বক জনিত ফুসকুড়ি এবং ফুলে যাওয়ার মত অন্যান্য গুরুতর অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়াগুলি বিশেষ করে মুখমণ্ডল/জিহ্বা/গলায় এবং তীব্র মাথা ঝিমঝিম ও শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যার কারণ হয়ে উঠতে পারে।

4.রেটিন্যাল পালমিটেট (ভিটামিন A পালমিনেটেট)

সানস্ক্রীনের অ্যান্টিএজিং ক্ষমতা যুক্ত এই সক্রিয় উপাদানটি সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মির সংস্পর্শে আসার পর ভেঙ্গে যায় এবং ধ্বংসাত্মক মুক্ত বিষাক্ত মূলকগুলি তৈরী করে।এগুলি DNA কে ক্ষতিগ্রস্থ করে এবং এমনকি স্কিন টিউমার এবং ক্যান্সারেরও কারণ হয়ে উঠতে পারে।

5.হোমোস্যালেট

এগুলি হল সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি শোষণকারী বিষাক্ত সানস্ক্রীন উপকরণ সমূহ, যেগুলি আমাদের শরীরের মধ্যে জমে যাওয়ার প্রবণতা থাকে এবং সময়ের সাথে সাথে পরবর্তীতে তা বিষে রূপান্তরিত হয়।দীর্ঘ সময়ের জন্য এর সংস্পর্শে আসলে এগুলি আমাদের হরমোনের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে।

6.প্যারাবেন প্রিজারভেটিভ

সানস্ক্রীনের এই সাধারণ বিষাক্ত রাসায়নিকটির কারণে তীব্র এবং দীর্ঘস্থায়ী উভয় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলিই দেখা দিতে পারে।অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়া, হরমোনের ব্যাঘাত, বিকাশমূলক এবং প্রজনন জনিত প্রতিবন্ধকতা এগুলি হল সানস্ক্রীনের এই উপকরণের কয়েকটি ক্ষতিকারক প্রভাব যা আপনার কঠোরভাবে এড়িয়ে চলা উচিত।

7.অক্টোক্রাইলীন

এই রাসায়নিকটি যা দেহ দ্বারা সহজেই শোষিত হয় এবং দেহের মধ্যে বজায় থাকে, অত্যন্ত ক্ষতিকারক, বিশেষকরে যখন সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মির সংস্পর্শে আসে।এটি অক্সিজেনের মূলকগুলি উৎপন্ন করে যা কেবল মানব কোষকে ক্ষতিগ্রস্থই করে না, পরিবর্তিতও করে, তবে এটি আবার পরিবেশকেও বিষাক্ত করে।

8.ন্যানোপার্টিকেলস বা ক্ষুদ্র কণা বিশেষ(জিঙ্ক ডাইঅক্সাইড/ টাইটেনিয়াম ডাইঅক্সাইড)

স্প্রে আকারে সানস্ক্রীনের মাধ্যমে প্রশ্বাস নেওয়া হলে এটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।ক্ষুদ্র অণুগুলিকে অপসারণ করার ক্ষেত্রে আপনার বাচ্চার ফুসফুসের পক্ষে অসুবিধা জনক হয়ে ওঠে যার ফলে তা ফুসফুস থেকে রক্তপ্রবাহের মধ্যে চলে যেতে পারে। দ্রবণীয় ক্ষুদ্র অণুগুলি যা ত্বক অথবা ফুসফুসের কলায় প্রবেশ করে তা ব্যাপক অঙ্গ ক্ষতির কারণ হয়ে উঠতে পারে।

9.মিথাইলাইসোথিয়াজোলিনন(MI)

এটি হল সানস্ক্রীনে ব্যবহৃত একটি সাধারণ রাসায়নিক প্রিজারভেটিভ যা একটি শক্তিশালী অ্যালার্জেন এবং বাচ্চাদের মধ্যে তীব্র ত্বকজনিত অ্যালার্জি সৃষ্টি করে।এবং অবশ্যই সানস্ক্রীনে এড়ানোর মত উদ্বেগজনক উপকরণগুলির মধ্যে এটি একটি অন্যতম।

10.সুগন্ধি

কিছু সানস্ক্রীনে ব্যবহৃত কৃত্রিম সুগন্ধিতে ক্ষতিকারক রাসায়নিক থাকে যা আপনার বাচ্চার অন্তক্ষরা তন্ত্রকে ব্যাহত করে তুলতে পারে।এগুলি হল সানস্ক্রীনের মধ্যে থাকা কিছু বাজে উপকরণ যেগুলির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলি দীর্ঘস্থায়ী থাকতে পারে।

এটি শুনতে নিশ্চই ভয়ঙ্কর লাগছে!উদ্বিগ্ন এবং চিন্তিত মা হসেবে চেষ্টা করুন হারবাল বা ভেষজ সানস্ক্রীনগুলিকে বেছে নিতে যেগুলিতে এই সকল ক্ষতিকারক রাসায়নিক নেই।আর তার সাথে আবার এটিও নিশ্চিত করুন যে রোদে বেরোনোর সময় আপনার বাচ্চাকে একটি ফুল হাতা সুতির পোশাক এবং চওড়া ও পুরো মাথা ঢাকা একটি টুপি পরানোউচ্চ মাত্রায় অ্যান্টঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ডায়েটকে মনোনীত করুন যা ত্বকের যত্ন নেয় এবং রক্ষা করে।এক্ষেত্রে আপনার সেরা বাজি হয়ে উঠবে তাজা রসালো ফল এবং বিভিন্ন শাকসবজিকে বেছে নেওয়া।