অ্যাভোকাডোর পরিচয় করান শিশুদেরকেঃ কখন,কেন এবং কীভাবে

অ্যাভোকাডোর পরিচয় করান শিশুদেরকেঃ কখন,কেন এবং কীভাবে

এটা মায়েদের জন্য একটা রোমাঞ্চকর এবং চ্যালেঞ্জিং এর সময় ওঠে যখন আপনি আপনার সন্তানকে কঠিন খাবারে রূপান্তরিত করেন।সে আপনি প্রথম-বার অথবা দ্বিতী্য-বারই মা হয়ে থাকুন না কেন,এটি সর্বদাই একটা নতুন অভিজ্ঞতা হয় যখন আপনার ছোট্ট সোনা কঠিন খাবারের সাথে তার প্রথম পরীক্ষা চালানো শুরু করে।

aniview

পিতা-মাতা হিসেবে আমরা সর্বদাই আমাদের সন্তানকে সব থেকে সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করে থাকি।সুতরাং পুষ্টি-ঘন খাদ্য নির্বাচন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যা তাদেরকে স্বাস্থ্যকর পুষ্টি সরবরাহ করবে এবং তাদের স্বাদ কোরককে আকর্ষণ করবে।শিশুর খাদ্য তালিকায় ফল এবং সবজি থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ,এবং সেগুলির স্বাদের সাথে তাদেরকে অভ্যস্থ করে তুলতে গোড়ার দিকেই তাদেরকে এগুলির সাথে পরিচয় করানো গুরুত্বপূর্ণ।বিশেষজ্ঞরা শিশুর খাদ্যে বিভিন্ন ধরনের ফল এবং সবজি অন্তর্ভূক্ত করার পরামর্শ দেন,একই সময়ে একটাই,তাদের সেগুলির স্বাদ গ্রহণ করতে।সময়ের সাথে ,আপনি এগুলিকে বিভিন্ন পরিমাণে মিশ্রিত করতে পারেন দৃশ্যত আকর্ষণীয় করে তুলতে এবং পাশাপাশি তাদের স্বাদ কোড়ক গুলিকে আরও উন্নত করতে।

বিভিন্ন ফল এবং সবজির মধ্যে শিশুদের জন্য যেগুলি উপযুক্ত সেগুলির মধ্যে প্রথম খাদ্য হিসেবে অ্যাভোকাডো হল উচ্চ মাত্রায় সুপারিশিকৃত একটি খাদ্য।

অ্যাভোকাডো ফলটি কি?

অ্যাভোকাডো হল একটা সমৃদ্ধ ফল যেটি বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর উপকারিতার জন্য উচ্চ চাহিদা যুক্ত হয়।আজকালকার দিনে,বিভিন্ন সুপার মার্কেটে এই ফলটিকে খুঁজে পাওয়া খুবই সহজ।এটি অনেকটা একটা বেরী সদৃশ,যেটির ভিতরের অংশটি একটা শাঁসালো পিণ্ডের মত হয় যার গঠণ ক্রীমের ন্যায় এবং স্বাদে ভরপুর।অ্যাভোকাডোগুলিকে সাধারণত তুলে নেওয়ার পর পাকানো হয়।এগুলির রঙ পরীক্ষা করে এবং স্পর্শের মাধ্যমে সেগুলির পক্কতা নির্ধারণ করে এগুলিকে সহজে শণাক্ত করা যেতে পারে।একটি পাকা অ্যাভোকাডো কোমল এবং নরম হয় এবং সহজেই একে পিষে একটা কোমল পিণ্ডে পরিণত করা যাবে,যা সহজেই খেতে পারবে একদম ছোট শিশুরা এমনকি যাদের দাঁত ওঠে নি তারাও।

অ্যাভোকাডোর মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিকর উপাদান যা এটিকে একটা বিস্ময়কর স্বাস্থ্যকর খাদ্য হিসেবে গড়ে তুলেছে।এতে রয়েছে উচ্চ ফ্যাটজাত উপাদান এবং এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পাশাপাশি ভিটামিনেও সমৃদ্ধ।অতএব এটিকে শিশু এবং প্রাপ্ত বয়স্ক উভয়ের জন্যই ভীষণ স্বসস্থ্যকর একটি খাদ্য বিকল্প হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে।

অ্যাভোকাডো ফলটি কি?অ্যাভোকাডোর পুষ্টি মান

এই ফলটি কেবল এর ঘন,ক্রীমের গঠণের জন্যই সুস্বাদু নয়,এটির মধ্যস্থ গভীর পুষ্টিকর উপাদানগুলির কারণের জন্যও এটি দুর্দান্ত।অ্যাভোকাডোর একবার সেবনের মধ্যে থাকে মোনো-আনস্যাচুরেটেড ফ্যাট,ভিটামিনগুলি যেমন  B, K, C, E এবং মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট গুলি যেমন পটাসিয়াম,ফসফরাস এবং সেলিনিয়াম।এতে উপস্থিত ফ্যাটজাত উপাদানগুলি হল ওয়েলিক অ্যাসিড,লিনোলেয়িক অ্যাসিড,পালমিটিক অ্যাসিড এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাট।এটি বিবেচিত হয় যে,সমৃদ্ধ খাবার রূপে এটি হল 1 টি মাত্র খাবার যার বহুমুখিতা অনেক স্বাদে রূপান্তরিত হয়।যদিও এই ফলটিতে স্যাচুরেটেড ফ্যাট আছে, কিন্তু এটিতে কোনও কোলেস্টেরল যুক্ত খাদ্য উপাদান নেই,এটিতে আবার সোডিয়ামের উপাদানগুলিও খুব কম মাত্রায় থাকে।

ভিটামিনঃ (এক কাপ পিউরি)

ভিটামিন A-338 IU

ভিটামিন  C – 20.2 mg

ভিটামিন B1 (থিয়ামিন) – 0.2 mg

ভিটামিন  B2 (রাইবোফ্লাবিন) – 0.3 mg

নিয়াসিন-3.9 mg

ফোলেট-205 mg

প্যানটোথেনিক অ্যাসিড- 3.3 mg

ভিটামিন B6 – .6 mg

অল্প পরিমাণে অন্যান্য ভিটামিনগুলিও থাকে।

খনিজঃ (একটা মাঝারি)

পটাসিয়াম-1166 mg

ফসফরাস-124 mg

ম্যাগনেসিয়াম-67 mg

ক্যালসিয়াম-30 mg

সোডিয়াম-18 mg

আয়রণ-1.4 mg

এছাড়াও থাকে অল্প পরিমাণে সিলেনিয়াম,ম্যাঙ্গানিজ,কপার এবং জিঙ্ক।

অ্যাভোকাডো কি শিশুদের জন্য ভাল?

প্রাপ্ত বয়স্ক হিসেবে আমরা সকলেই অ্যাভোকাডোর স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর উপকারিতা সম্পর্কে ভাল সচেতন।সে কারণে আমাদের নিত্য খাদ্য তালিকায় এটিকে প্রায় সর্বদাই দেখতে পাওয়া যায়।যাইহোক,যখন আপনার ছোট্ট সোনা এই ফলের স্বাদ আস্বাদন করে ফেলে তখন আপনি হয়ত দেখে অবাক হয়ে যেতে পারেন এই ভেবে যে,শিশুরা অ্যাভোকাডো খেতে পারে?এর উত্তর হল হ্যাঁ!এমনকি অ্যাভোকাডো হল অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর ফ্যাটযুক্ত একটা খাবার যেটি ছোট এবং বাড়ন্ত শিশুদের উচ্চ মাত্রায় সুপারিশ করা হয়।

এটি একটি ফ্যাট যুক্ত খাবার বিবেচিত হওয়ার দরুণ ভীষণ ছোট বাচ্চাদের জন্য অ্যাভোকাডোর নিরাপত্তার বিষয়ে এক্ষেত্রে বেশ কিছু বিভ্রান্তি আছে।যে ঘটনাটা রয়ে যায় সেটি আসলে হল যদিও অ্যাভোকাডো ফ্যাটে ভরপুর,এগুলির সবগুলিই হল স্বাস্থ্যকর ফ্যাট যা বাড়ন্ত শিশুদের জন্য অপরিহার্য।সে কারণে ছোট শিশুদের খাদ্য তালিকায় থাকা প্রয়োজন বেশি পরিমাণে ফ্যাটজাত উপাদান।এটি সত্যিই একটি ভাল এবং স্বাস্থ্যকর ফল একটি অল্পবয়সী শিশুর ভোজনের জন্য।

শিশুরা এই ফলের স্বাদ এবং গঠণ ভালোবাসে,একটি সুষম স্বাস্থ্যকর খাদ্যের জন্য এটিকে একটা দূর্দান্ত পছন্দ করে তোলে।এটি প্রতিটি ছোট শিশুর জন্যই খুব ভাল একটা খাবার,এবং 4-6 মাসের ছোট বাচ্চাদেরকেও এটি পরিবেশন করা যেতে পারে।এই ফলটিকে খুব সহজেই পিঁষে নেওয়া যায় এবং একক রূপেই এটিকে পরিবেশন করা যায় অথবা অন্য খাবারের সাথে মিশ্রিত করে।প্রথম শিশু খাদ্য হিসেবে এই ফলটি একদম ছোট বাচ্চারদের জন্য ভীষণ ভালোভাবে কার্যকরী।এটির স্বাদ মাত্রাধিক নয় এবং সহজেই ভিন্ন স্বাদে রূপান্তর করা যায় এবং ছোট্ট সোনার স্বাদ কোরককে সহজেই তৃপ্ত করে তোলে।

অ্যাভোকাডো কি শিশুদের জন্য ভাল?

কখন শিশুদের সাথে অ্যাভোকাডোর পরিচয় করাবেন

একটি নিখুঁত প্রাকৃতিক খাবার হিসেবে বিবেচিত,অ্যাভোকাডোর মধ্যে রয়েছে ভাল ফ্যাটগুলি যেগুলি একটি শিশুর সার্বিক বিকাশে সাহায্য করে।একদম ছোট শিশুদের জীবনের প্রথম বছরের মধ্যেই তাদের শারীরের এবং মস্তিষ্কের অনেক বৃদ্ধি হয়ে থাকে।আপনার সন্তানের খাদ্য তালিকায় অ্যাভোকাডোকে প্রথম খাদ্য হিসেবে তালিকাভুক্ত করতে পারেন যেহেতু এটির পুষ্টি মান শিশুর মস্তিষ্কের বৃদ্ধিতে অবদান রাখে।সুতরাং,আপনি এটিকে পরিচয় করাতে পারেন আপনার সন্তানের 4-6 মাস বয়স হওয়ার সাথে সাথে এবং এটিকে তার খাদ্য তালিকায় একটা নিয়মিত খাদ্য উপাদানে তৈরী করুন।বাচ্চার জন্য এই অ্যাভোকাডো দিয়ে পিউরি হয় আপনি বাড়িতে বানাতে পারেন অথবা সুপার মার্কেটের শিশু খাদ্য বিভাগ থেকে কিনে আনতে পারেন। অ্যাভোকাডো দিয়ে বাড়িতে প্রস্তুত শিশু খাদ্য তৈরী করা,মজুত করা এবং প্রয়োজন মত পরিবেশন করা সহজ।

ছোট শিশুদের জন্য অ্যাভোকাডোর স্বাস্থ্যকর উপকারিতা

বাবা-মা হিসেবে আমাদের উচিত সর্বদা আমাদের সন্তানকে স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর খাদ্যের সাথে পরিচয় করানো যা তাদের সারা জীবন ধরে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে উৎসাহিত করে।যাইহোক,এটি সবসময় সহজ কাজ হয়ে ওঠে না,যেহেতু যে খাবারগুলি দিয়ে আমরা তাদেরকে খাওয়ানো শুরু করাই সেগুলি আবার তাদের স্বাদ কোরকে ভাল লাগা উচিত।

  • অ্যাভোকাডোর বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর উপকারিতাগুলির মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল এটির মধ্যে পচুর পরিমাণে ফ্যাট থাকে যা শিশুর মানসিক এবং শারীরিক বৃদ্ধি ঘটায়।বাড়ন্ত শিশুদের মস্তিষ্কের সঠিক বিকাশের জন্য ফ্যাটের প্রয়োজন।অ্যাভোকাডো সে সকল স্বস্থ্যকর ফ্যাটগুলিকেই সরবরাহ করে যা শিশুদের এই চাহিদাকে সম্পূর্ণ করতে পারে।অ্যাভোকাডো মধ্যস্থ মোনোস্যাচুরেটেড হল সেই সকল ভাল ধরনের ফ্যাট যা শিশুর সার্বিক বিকাশের জন্য উপকারী।
  • ফসফরাস,পটাসিয়াম,ম্যাগনেসিয়াম,ক্যালসিয়াম,সোডিয়াম এবং আয়রণের মত খনিজ ভাল পরিমাণে থাকা ছাড়াও এর মধ্যে থাকে অল্প পরিমাণে সেলেনিয়াম,ম্যাঙ্গানিজ,কপার এবং জিঙ্ক যেগুলি শিশুর বিকাশের জন্য অপরিহার্য।এছাড়াও প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন এর মধ্যে অন্তর্ভূক্ত থাকে,সেগুলি হল ভিটামিন B1, B2,নিয়াসিন,ফোলেট, B6 এবং প্যানটোথেনিক অ্যাসিড যা শিশুর সক্রিয় বিকাশকে সহজ করে তোলে। এছাড়াও এতে রয়েছে ভিটামিন C এবং E যা অনাক্রম্যতা বৃদ্ধি এবং ত্বকের অবস্থার উন্নতি ঘটায়।
  • এই ফলটি সোডিয়াম এবং কোলেস্টেরল থেকে মুক্ত, তবে এটিতে স্বাস্থ্যের উন্নতি এবং কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের বৃদ্ধি ও বিকাশের জন্য এবং স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত উপাদান রয়েছে।
  • অ্যাভোকাডোতে প্রদাহজনিত বিরোধী বৈশিষ্ট্যগুলি রয়েছে যা প্রদাহকে নিয়ন্ত্রণ করে, এটি প্যাথোজেনের প্রবেশের ফলে গড়ে ওঠে, যার ফলে জ্বলনগত পরিবেশগত উপাদানগুলির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ করে।
  • অ্যাভোকাডোতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা শরীরের ভিতরে র‍্যাডিক্যালগুলির অবাধে উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করে।এই বৈশিষ্ট্য বিষক্রিয়াগুলিকে নিষ্ক্রিয় করে তোলে যেগুলি শিশুর দেহকে সুস্থ রাখে।
  • অ্যাভোকাডোগুলি আবার অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদানে সমৃদ্ধ যা শিশুর সামগ্রিক অনাক্রম্যতাকে বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।এটি আবার ত্বকের র‍্যাশ,ক্ষত,এবং কাটা অংশের নিরাময়ের দ্বারা শরীরের স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধারে উন্নীত করে।
  • অ্যাভোকাডো খাওয়া হজমের এবং লিভারের সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য উপযোগী।যে সকল শিশুরা জন্ডিস এবং হেপাটাইটিসের মত রোগগুলি থেকে সেরে উঠেছে তাদেরকে এই ফলটি খাওয়ার সুপারিশ করা হয়।

ছোট শিশুদের জন্য অ্যাভোকাডোর স্বাস্থ্যকর উপকারিতা

শিশুকে অ্যাভোকাডো দেওয়ার আগে মনে রাখার কিছু পরামর্শ

  • একটা সুবিধা হল এই যে,চাষের সময় ব্যবহৃত কীটনাশক এবং রাসায়নিকগুলি অ্যাভোকাডর মধ্যে স্থিতিস্থাপক অবস্থায় থাকে।সুতরাং আপনার সন্তানের জন্য এটি সুরক্ষিত খাদ্য রূপে বিবেচিত,এমনকি যখন সেগুলি জৈবিকভাবে চাষ করা না হলেও।
  • আপনার বাচ্চার জন্য যখন অ্যাভোকাডো চয়ন করবেন,সঠিক রূপে পাকা ফলকে চিহ্নিত করতে পারাটাই সবচেয়ে ভাল।অ্যাভোকাডো সবচেয়ে ভাল অবস্থায় থাকে যখন এটির রঙ হয় ঘন সবুজ এবং এর গঠণ হয় কিছুটা খড়খড়ে বন্ধুর প্রকৃতির যদি সঠিকভাবে পেকে থাকে।কাটা অ্যাভোকাডোটি হওয়া উচিত এর বীজের চারিপাশটি হলুদের সাথে সবুজ।
  • অ্যাভোকাডোকে ভালোভাবে কাঁচা অবস্থাতেই খাওয়া যেতে পারে।সাধারণভাবে এটিকে কাটুন,খোসাটিকে ছাড়িয়ে নিন,এবার শাঁসটিকে আলাদা করে বের করে নিন এবং পিষে নিন।তারপর সরাসরি আপনার শিশুকে এটি পরিবেশন করুন।আপনি দীর্ঘ সময়ের জন্য অ্যাভোকাডোকে মজুত করেও রাখতে পারেন।সঠিক তাপমাত্রায় হিমায়িত করে রাখা রাখা টুকরোগুলি দিয়ে এটি করা সবচেয়ে ভাল।এটিকে গলে যেতে দিন তারপর এটিকে চটকে নিয়ে আপনার বাচ্চাকে খাওয়ান।
  • যদিও অ্যাভোকাডো বিষম খাওয়ার মত কোনও বিপত্তির উদঘাটন করে না,তবুও খুব ছোট বাচ্চাকে এটিকে পিউরি করে দেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ।যখন আপনার সন্তানের কোনও দাঁত থাকে না তখন তাকে এটিকে পিষে নিয়ে নরম করে পরিবেশন করুন।এরপর আপনার বাচ্চা একটু বড় হলে আপনি ধীরে ধীরে তাকে এটিকে দিতে পারেন আরও নানা রকমের টুকরো করে।এরপর আপনার সোনা নিজে নিজে উঠে বসতে শিখলে এবং খাবার চিবিয়ে খেতে শুরু করলে,তাকে এটিকে ছোট ছোট ঘনকাকারে কেটে দিন যাতে সে এগুলিকে সহজেই চিবিয়ে গিলে ফেলতে পারে।
  • ঘনকাকারে কাটা অ্যাভোকাডো একটা দূর্দান্ত ফিঙ্গার ফুড হিসেবে কাজ করে,যা নোংরা হয় না এবং শিশুদের জন্য খেতে পারা এবং হজম করা সহজ। অক্সিডেশন রোধ করার জন্য আপনি এটিকে সঠিকভাবে মজুত করলেও আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন।যখন বাতাসে উন্মুক্ত করা হয় অ্যাভোকাডো ফলটি সহজেই বাদামী বর্ণে রূপান্তরিত হয়ে যায়।সুতরাং আপনি যদি এটিকে কিছুদিনের জন্য মজুত করে রাখতে চান,তবে মজুত করার পূর্বে সেটিকে লেবু স্নান করানো সেরা হবে।এর জন্য,সহজ ভাবেই জল এবং কয়েক ফোঁটা লেবুর রসের দ্রবণ বানান।এই জলে অ্যাভোকাডোর টুকরোগুলিকে ডবান,এবং একটা পার্চমেন্টের টুকরোর উপর সেগুলিকে তুলে সরিয়ে রাখুন।এরপর আপনি ঐ টুকরোগুলিকে হিমায়িত করে রাখতে পারেন একটা জিপলক ব্যাগে করে এবং যখন প্রয়োজন হবে প্রয়োজন মত বের করে নিতে পারেন।যাইহোক,এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করা থাকে বিরত থাকুন যদি আপনার সন্তান সাইট্রাস ফ্রুটের প্রতি সংবেদনশীল হয়ে থাকে অথবা সে এক বছরের কম বয়সী হয়ে থাকে।যদি অ্যাভোকাডোটিকে দীর্ঘ সময়ের জন্য রাখা হয় তবে সেক্ষেত্রে সেগুলিকে সাইট্রাস মাধ্যমে মজুত করে রাখার পরামর্শও দেওয়া হয় না।

শিশুকে অ্যাভোকাডো দেওয়ার আগে মনে রাখার কিছু পরামর্শ

ছোট শিশু এবং টলটলায়মান শিশুদের জন্য দ্রুত এবং স্বল্প অ্যাভোকাডো রেসিপি সমূহ

যদিও অ্যাভোকাডোকে সরাসরি ছোট শিশু এবং একটু বড় বাচ্চাদেরকে পরিবেশন করা যায়,আপনি বিভিন্ন রেসিপি তৈরী করার চেষ্টার মাধ্যমে বাচ্চাদের কাছে এটির আকর্ষণকে আরও বাড়িয়ে তুলতে পারেন।এটি ভীষণ নমনীয় একটি মাধ্যম এবং এটিকে অন্যান্য উপাকরণের সঙ্গে মিশ্রিত করে এর বিভিন্ন স্বাদ এবং গন্ধের সাথে আপনার সন্তানকে পরিচয় করানোর সময় এটি অভিযোজিত হতে পারে।যদি অ্যাভোকাডোর নিজস্ব স্বাদটিকে আপনার বাচ্চা খুব বেশি পছন্দ না করে,এখানে দেওয়া হল শিশু খাদ্যের জন্য অ্যাভোকাডোর সাথে কি মিশ্রিত করলে সেটি ভোজনকারীর কাছে আরও বেশী পছন্দসই হয়ে উঠবে।

সুগন্ধযুক্ত খাদ্য উপাদান যেমন রসুন,ক্রীম,চীজ,মরিচ,পুদিনা এবং আরও অন্যান্য ভেষজের জেল অ্যাভোকাডো পিউরির সাথে বেশ ভাল।সুতরাং আপনি এগুলি সব এক সাথে অ্যাভোকাডোর সাথে ব্যবহার করতে পারেন,আপনার শিশুর স্বাদ কোরকগুলিতে কিছু মজাদার স্বাদের অণ্বেষণ করতে দিতে।এছাড়াও অ্যাভোকাডোকে দই এবং হোল মিল্কের সাথে মেশানো যায় তার ঘনত্বে সামঞ্জস্য আনার জন্য এবং একটি সুক্ষ্ম উপায়ে বাচ্চার খাদ্যের মধ্যে দুধের পরিচয় করানো যায়।

এখানে শিশুদের জন্য অ্যাভোকাডো দিয়ে কিছু দ্রুত এবং সহজ রেসিপির উল্লেখ করা হল।

  • প্রাথমিকভাবে চটকে– শিশুদের অ্যাভোকাডো পরিবেশন করার সহজ এবং সাধারণ উপায় হল সেটিকে চটকে বা পিষে নিয়ে তাদেরকে দেওয়া।সাধারণ ভাবে অ্যাভোকাডোটিকে অর্ধেক করে কেটে নিয়ে একটি ছুরির সাহায্যে সেটির বীজটিকে বের করে নিন।এরপর একটি চামচের সাহায্যে এর মধ্যস্থ মাংসল অংশটিকে কুঁড়িয়ে বের করে নিন।এটিকে পাতলা পাতলা করে স্লাইস করে নিন অথবা ঘনকাকারে কেটে নিন।একটা কাঁটা চামচের সাহায্যে এটিকে সম্পূর্ণ রূপে পিষে নিন।এটির রঙটি অক্সিডাইজ হওয়ার আগেই অবিলম্বে এটিকে আপনার শিশুকে খাইয়ে দিন।

প্রাথমিকভাবে চটকে

  • ফলের সাথে অ্যাভোকাডো- অ্যাভোকাডোর সাথে অন্য ফল যেমন কলাকে একসাথে পিষে নিয়ে আপনার সন্তানের খাদ্যের মধ্যে বৈচিত্র আনুন।আলাদা আলাদা ভাবে প্রতিটা ফলকে ঘনকাকারে কেটে নিন এবং তারপর সেগুলি সব একসাথে একটা মিক্সচারের মধ্যে নিয়ে ব্লেন্ড করুন যতক্ষণ না একটা সুন্দর ক্রীম ভাব আসে।একটু বড় বাচ্চাদের জন্য আপনি এমনকি একটা কাঁটা চামচের সাহায্যে এটিকে পিষে নিতে পারেন এর গঠণটা ধরে রাখার জন্য এবং তাদের কিছু চিবাতে দিন।

ফলের সাথে অ্যাভোকাডো

  • মশলাদার অ্যাভোকাডো- মশলাদার স্বাদ এবং সাইট্রাস ফ্রুটের জুসের সাথে অ্যাভোকাডো ভীষণ ভালোভাবে কাজ করে।সুগন্ধি শুকনো ভেষজ যেমন তুলসী,মরিচ,পুদিনা অথবা রসুনের সাথে অ্যাভোকাডো মিশ্রিত করুন।স্বাদ মিশ্রিত করার জন্য এর সাথে একটা কমলা লেবু বা লেবু থেকে নির্গত রস যোগ করুন।এবার আপনার সোনাকে পরিবেশন করুন অথবা পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্য এটিকে মজুত করে রাখুন।ভিটামিন C এর সংযোজন নিশ্চিত করবে যে এটিকে কয়েক দিনের জন্য কোনও রকম বিবর্ণ হয়ে যাওয়া ছাড়াই রাখা যাবে।এটা আবার এমন একটা খাদ্য যেটা আপনি আপনার সাথে বহন করতে পারেন কোথাও যাওয়ার পথে বাচ্চাকে দেওয়ার জন্য।

মশলাদার অ্যাভোকাডো

  • দইয়ের সাথে ক্রীমি অ্যাভোকাডো- ঠিক অ্যাভোকাডোর মতই দই-ও শিশুদের জন্য একটা সুপার খাদ্য,এবং আপনার সন্তানের খাদ্যের সাথে আপনার এটিকে পরিচয় করানো উচিত।এটি করার একটা উপায় হল দইয়ের সাথে একটা অ্যাভোকাডো পিউরি তৈরী করুন অথবা ঘনকাকারে কাটা অ্যাভোকাডোর টুকরোগুলিকে ঘন দইয়ের মধ্যে কেবল পিষে নিন।এর ক্রীম জাতীয় গঠণ এবং সূক্ষ্ম স্বাদ ছোট শিশুদের দ্বারা ভালোভাবেই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবে এবং এই রেসিপিটির সহজ প্রস্তুত প্রণালী সর্বদাই একটা দূর্দান্ত ধারণা হয় যখন আপনি ভীষন তাড়াহুড়োর মধ্যে থাকেন।

দইয়ের সাথে ক্রীমি অ্যাভোকাডো

  • দুধের সাথে অ্যাভোকাডো- একটি অ্যাভোকাডোকে নরম করার সহজ উপায় হিসেবে দুধ ব্যবহার, এটিকে খাওয়ার জন্য সহজ করে তোলে।দানা শস্যের মত একটা খাদ্য পদ তৈরী করার জন্য কেবল প্রয়োজনীয় পরিমাণ দুধের সাথে সাধারণ ভাবে অ্যাভোকাডোকে পিষে নিতে হবে যা একটা চামচ সহযোগে আপনার ছোট্ট সোনার খাওয়া সহজ হয়ে উঠবে।

দুধের সাথে অ্যাভোকাডো

  • অ্যাভোকাডো ফ্রুট স্যালাড- আপনার আদরের ছোট্ট সোনাকে প্রলোভিত করে তুলুন এই সাধারণ কিন্তু সুস্বাদু অ্যাভোকাডো ফ্রুট স্যালাড রেসিপির বর্ণের বৈচিত্র এবং স্বাদের বিস্ফোরণের সাথে।অ্যাভোকাডোর ঘনকাকার টুকরোগুলিকে ভাঁপানো ন্যাশপাতি এবং চটকানো পাকা কলার সাথে মিশিয়ে নিন।এবার হয় সমগ্র মিশ্রণটিকেই পিষে নিয়ে একটা মসৃণ ঘনত্বে আনুন অথবা এটির সাথে চিবোতে কিছু গোটা ধরণের কামড়ে খাওয়ার উপাদান যোগ করে এর একটি পছন্দসই গঠণ রাখুন।এবার মিক্সচারের মধ্যে নরম ক্রীমের মত কিছুটা দইয়ের সাথে ব্লেন্ড করে নিন এবং এটি আপনার ছোট্ট সোনার জন্য একদম উপযুক্ত একটা মিষ্টান্ন জাতীয় খাদ্য হয়ে উঠবে।

অ্যাভোকাডো ফ্রুট স্যালাড

  • গুয়াক্যামোল- অ্যাভোকাডো গুয়াক্যামোলের সাথে সমার্থক হয় এবং যখন আপনি এত শখ করে এই খাদ্য পদটি প্রস্তুত করেন তবে কেন আপনার বাচ্চা এটির প্রতি তার নিজস্ব সংস্করণকে উপভোগ করবে না।আপনার সন্তানের গুয়াক্যামোলের জন্য,একটি অ্যাভোকাডোকে চটকে নিন এবং এটিকে সুগন্ধযুক্ত করে তুলুন বিভিন্ন মশলা যেমন রসুন গুঁড়ো,তুলসী এবং গমের দানা অথবা দানা শস্য চূর্ণ সহযোগে।যদি আপনার বাচ্চা এক বছরের বেশী বয়সী হয়ে থাকে তবে এটির উপর লেবু নিসৃত রস ছড়িয়ে দিন।অন্যথায় এগুলিকে সব একসাথে পিষে নিন এবং আপনার পরিবেশনের জন্য এটি একদম প্রস্তুত।

গুয়াক্যামোল

  • টোস্টের উপর অ্যাভোকাডো- একটা অর্ধেক অ্যাভোকাডোকে নিয়ে পিষে চটকে নিন এবং একটা তাজা পাউরুটির টোস্ট করা স্লাইসের উপর সেটিকে ছড়িয়ে দিন।কয়েক ফোঁটা দুধ দিয়ে পাউরুটিটিকে আদ্র করে নিন এবং সেটি আপনার বাচ্চাকে উপভোগ করতে দিন।

টোস্টের উপর অ্যাভোকাডো-

  • অ্যাভোকাডো এবং পাস্তা- চটকানো অ্যাভোকাডোকে কয়েক চা-চামচ দুধের সাথে মিশিয়ে একটি পেষ্ট রূপে গড়ে তুলুন।এবার তাজা রান্না করা পাস্তার সাথে সেটিকে মিশিয়ে নেড়ে নিন এবং পরিবেশন করুন।

অ্যাভোকাডো এবং পাস্তা

  • অ্যাভোকাডো চিকেনের মিশ্রণ- ভালোভাবে রান্না করা মুরগীর মাংসের সাথে অর্ধেক অ্যাভোকাডোকে নিয়ে ব্লেন্ড করে মসৃণ করে নিন।এইভাবেই পরিবেশন করুন অথবা একটা টোস্টের উপরে ছড়িয়ে দিন একটা দ্রুত এবং সহজ জলখাবারের জন্য।

অ্যাভোকাডো চিকেনের মিশ্রণ

উপসংহার- শিশুর প্রথম কঠিন খাবার হল তার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ মাইল স্টোন গুলির মধ্যে একটা।তাদের কঠিন খাবার খাওয়ার প্রাথমিক মাসগুলিতে অ্যাভোকাডো হতে পারে একটি সুস্বাদু বিকল্প এবং এটি তাদের সারা জীবনের জন্য একটা ভাল খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা নিশ্চিত করে।