আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী শিশু—বিকাশ,মাইলস্টোন এবং যত্ন

your 52-week-old baby - development, milestones and care

অভিনন্দন! শেষ পর্যন্ত আপনার সোনা এক বছর বয়স অতিক্রম করল।এটা খুব শক্ত বিশ্বাস করা যে আপনার সন্তান তার জন্মের পর থেকে পুরো একটা বছর কাটিয়ে ফেলল।প্রতিটি শিশুই হল অনন্য মানুষ।তারা প্রত্যেকেই নিজের নিজের গতিবেগ অনুযায়ী পরিক্রমণ করে কেউ কেউ এ ব্যাপারে অন্যদের থেকে দ্রুত হয়।যেহেতু আপনার সোনাটি দ্বিতীয় বছরে প্রবেশ করতে চলেছে তাই তার বিকাশে আরো বেশি পরিবর্তন দেখা যায়।এখন আপনি তাকে নতুন ধরনের খাবার দিতে পারেন অথবা যে খাবারগুলো সে আগে অপছন্দ করত সেগুলোকেও পুনরায় চালু করতে পারেন।তার স্বাদ গ্রহণের ক্ষমতা বেড়ে গেছে তাই নানা ধরণের মশলা এবং নতুন রন্ধণপ্রণালী ব্যবহার করুন।আপনার শিশুটি আক্ষরিক অর্থেই যেসব জিনিস দেখবে সেগুলো সম্পর্কে প্রশ্ন করবে তার আধো আধো বুলিতে এটা কী।তার কাছে নতুন পৃথিবীটাকে জানার জন্য কৌতুহলের সীমা থাকবে না।

aniview

52 সপ্তাহ বয়সী শিশুর বিকাশ

এই সময়ে আপনার শিশুর খাবারের অভ্যাসের সাথে সাথে তার ঘুমের অভ্যাসের ও পরিবর্তন হবে।12 থেকে 14 সপ্তাহ বয়সী শিশুরা সক্রিয় ভাবেই তাদের ঘুমের মধ্যে স্বপ্ন দেখা শুরু করে।এই স্বপ্ন গুলো আপনার শিশুকে চমকে দেয় এবং অনেক সময় ঘুম ভাঙিয়ে দেয়।সেই মুহূর্তে আপনি তাকে আরামে রাখুন যতক্ষণ না সে আবার ঘুমিয়ে পড়ছে।এই সময়ে আপনার বাচ্চাটি,যে এখন টলটলায়মান শিশু সে তার ব্যক্তিক্তকে দ্রুত বিকশিত করে।তার ভাষার দক্ষতা দ্রুত হারে বাড়তে থাকে সে সেই সব মানুষজনের সাথেও কথাবার্তা চালাবার চেষ্টা করে যারা তার নিজস্ব ভাষা ওয়ামানে ওয়াটার ব্যপারটা বোঝে না।শারিরীক ভাবে সে এখন টলমল পায়ে চলে,তবে সে সক্ষম হয়ে উঠতে চলেছে দৌড়তে,ঝাঁপাতে এবং নাচ করতে।তার নিজস্বতা সম্পর্কে ধারণায় খুব শক্তিশালী হয়ে উঠবে, সে অপরিচিত লোকেদের সাথেও যোগাযোগ রক্ষা করতে চাইবে অথবা অনান্য বাচ্চাদের সাথেও খেলাধূলা করবে।তবে আপনার প্রতি তার ভালবাসার এবং সহযোগীতার চাহিদা আগের মতই অটুট থাকবে।

আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী সন্তানের বিকাশের মাইলস্টোনগুলি

নিচে উল্লেখ করা হল আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী সন্তানের মাইলস্টোনগুলি যা আপনি লক্ষ্য করবেন।

  • আপনার বাচ্চাটি মুখের শব্দাবলী গুলোকে হাতের ভঙ্গিমার সাহায্যে প্রকাশ করবে।
  • আপনার কৃত হাতের পাঁচ আঙ্গুলের ভঙ্গিমা সে সম্পুর্ণ অনুকরণ করতে পারবে।
  • এই বয়সকালের মধ্যে সে তার প্রথম পদক্ষেপ ফেলবে।
  • তার সঞ্চালন দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে সে তার বৃদ্ধাঙ্গুলি এবং তর্জনীর সাহায্যে একটি আঙ্গুর ধরতে সক্ষম হবে।
  • সে এটা বুঝতে পারবে যে বিভিন্ন বিষয় এবং বস্তর উপস্থিতি যদিও সে সেগুলোকে নাও দেখতে পেতে পারে।
  • আপনার সোনা 25 টার মত কথা বুঝতে পারে এবং সহজ এক ধাপের নির্দেশের প্রতিক্রিয়া জানায়।
  • সে তার প্রিয় স্থান এবং জিনিস বুঝতে পারে।

আপনার বাচ্চাটি কোন জিনিসের দিকে দিক নির্দেশ করতে পারে এবং আপনার দিকে তাকিয়ে থাকে প্রশ্ন করবে বলে যদিও সে শব্দ প্রয়োগ করতে পারে না প্রশ্নের জন্য।

খাওয়ানো

এখন আপনার সোনা 12 মাসের বেশি বয়সের হয়ে গেল এবার আস্তে আস্তে তাকে ফর্মুলা দুধ আর বোতলে খাওয়ানোর অভ্যাস ছাড়ান।আপনার বাচ্চা এখন নানা ধরণের খাবার খেতে পারবে আর পুষ্টির জন্য দুধ হবে তার দ্বিতীয় পছন্দ।আপনি ধীরে ধীরে তার বোতলে খাবার অভ্যাস ছাড়াতে পারেন তার রাতের খাবার দুধ বা জল তাকে বোতলে না দিয়ে কাপে দিতে শুরু করুন।আপনার সোনা কিন্তু এখন খাওয়ার ব্যাপারে খুঁতখুঁতে হয়ে উঠেছে তাই তাকে বিভিন্ন ধরণের স্বাস্থ্যকর খাবার দিন।যতটা সে খেতে চায় তার থেকে বেশি তাকে খাবার জন্য চাপ দেবেন না,তাকে স্ন্যাক্স এবং জাঙ্কফুড জাতীয় খাবার থেকে দূরে রাখুন।আপনি হয়ত চিন্তিত হতে পারেন এই ভেবে যে সে হয়ত ঠিক মত খাচ্ছে না।যদি সে স্বাভাবিক থাকে তাহলে চিন্তার কোন কারণ নেই।যখন বিভিন্ন অভ্যাস গুলো ছাড়াবেন তখন গরুর দুধ তার খাদ্য তালিকায় যুক্ত করুন।যদি আপনি এটা করেন তবে তাকে পাস্তুরাইজ সম্পূর্ণ দুধ দিন কারণ সম্পূর্ণ দুধে বর্তমান ফ্যাট এবং কোলেস্টেরল তার বৃদ্ধির জন্য অত্যন্ত প্রয়োজন।

ঘুমানো

এই সময় আপনার বাচ্চাটি রাত্রে একটানা অনেকক্ষন ধরে ঘুমাবে না।ছয় মাস বয়সের পর থেকে তার ঘুমের অন্যতম অন্তরায় হল হামাগুড়ি দিতে শেখা।হামাগুড়ি দিতে শুরু করার এক মাস আগে আর শেখার পর থেকে তিন মাস পর্যন্ত সমস্যাপূর্ণ, গবেষকরা বলেন যে জন্মের প্রথম বছরের মধ্যে 23 সপ্তাহ হল ব্যাস্ত সময়তার ঘুমের ক্ষেত্রে।এটা হয় তার মানসিক এবং শারিরীক বিকাশ দ্রুত বৃদ্ধি পায় এবং সঞ্চালন ক্ষমতার বৃদ্ধির অভজ্ঞতা বাড়বার জন্য।দাঁত ওঠার বিষয়টা আলাদা করে না বললেও চলে 12 মাস বয়সী শিশুদের আটটি প্রাথমিক দাঁত উঠে যায় তাদের প্রথম জন্মদিনের আগেই।পরবর্তি আরো আটটি দাঁত ওঠে তার দ্বিতীয় জন্মদিনের আগেই,যার অর্থ হল তাদের দাঁতের যন্ত্রণা,আর তার সাথে আপনার এবং আপনার বাচ্চার রাতের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটবে।

আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী বাচ্চার যত্নের জন্য কতগুলি পরামর্শ

কীভাবে আপনি আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী শিশুর যত্ন নেবেন সে সম্বন্ধে নিচে আলোচনা করা হল

  • দেখবেন আপনার আঙ্গুলগুলো যখন তাদের মুখের কাছাকাছি চলে যায় অথবা আপনার স্তনবৃন্তের খেয়াল রাখুন যখন সে বুকের দুধ খাবে কারণ সে তার দাঁত ওঠার কারণে শিরশিরাণির জন্য কামড়ে দিতে পারে।
  • আপনি তাকে গরুর দুধ দিন যদি আপনি তাকে স্তনপান বা বুকের দুধ খাওয়ানো ছাড়াতে(যদি সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন)চান।
  • প্রক্রিয়াজাত প্যাকেটের রস(জুস) খাওয়ানো এড়িয়ে চলুন কারণ এগুলোতে প্রচুর শর্করা থাকে যা তার খাবারে অনীহা নিয়ে আসে।
  • আপনার শিশুর খাদ্য তালিকায় কড়াইশুঁটি,চিজ, বিনস্ লস্যি, ডিম প্রভৃতি প্রোটিন জাতীয় খাদ্য যোগ করুন।
  • তাকে টাটকা ফল দিন এটা হল বিভিন্ন অপরিহার্য ভিটামিনের উৎস।
  • তার মর্জি বুঝে চলুন যখন সে কোনো কিছুর প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে এবং আপনার দিকে একদৃষ্টে তাকিয়ে থাকবে।আপনি তাকে খুব সাবধাণতার সঙ্গে পুরো বাক্যে উত্তর দিন।
  • বিভিন্ন বস্তুর দিকে নির্দেশ করুন এবং সেগুলোর নাম স্পষ্টভাবে জোরে বলুন আপনার বাচ্চাকে। এটা কখনই বন্ধ করবেন না,কারণ এই ব্যাপারটা তার ভাষা দক্ষতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।
  • আপনার বাচ্চার চিত্র রঞ্জিত বই গুলো থেকে গল্প পাঠ করুন।
  • একটা রুটিন ঠিক করুন যার মধ্যে তার স্নানের,এককাপ দুধ খাওয়ার, দাঁত মাজার এবং রাতে শুতে যাবার আগে গল্প বলার সময় নির্দিষ্ট থাকবে।
  • এই ছোট্টোটার জন্য একটা নরম জুতো কেনার আদর্শ সময় হয়ে গেছে।

পরীক্ষা নিরীক্ষা এবং টিকাকরণ

আপনার টলটলায়মান শিশুটির অতি অবশ্যই এক বছরের চেকআপ প্রয়োজন এবং আপনার শিশু বিশেষজ্ঞের সংস্পর্শে থাকা দরকার।

1. পরীক্ষা

আপনার ডাক্তারবাবু আপনার বাচ্চার উচ্চতা ,ওজন এবং তার মাথার পরিধির পরিমাপ করবেন তার বৃদ্ধির মান ট্র্যাক করবার জন্য সাথে সাথে তার খাওয়া দাওয়া, ঘুমের অভ্যাস, এবং ব্যবহার সম্পর্কে আপনাকে প্রশ্ন করবেন।

2.ভ্যাক্সিন

আপনার বাচ্চার দরকার গত একবছর ধরে দেওয়া ভ্যাক্সিনগুলোর বুষ্টার ডোজের। যার মধ্যে ভ্যাক্সিন শট নেওয়া দরকার হেপাটাইটিস A,হেপাটাইটিস B,হিব,পোলিও,ইনফ্লুইয়েঞ্জা এবগ ডিট্যাপ এর।তকে এই সময়ে এম এম আর এবং চিকেনপক্স ভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজটা দেওয়া প্রয়োজন।

খেলাধূলা এবং ক্রিয়াকলাপ

নিচে রইল কিছু খেলাধূলা এবং ক্রিয়াকলাপ যা আপনি আপনার সোনার সাথে করতে পারেন।

  • আপনি পোষ্টার রঙ দিয়ে আপনার সোনার হাত বা পা এর ছাপ সাদা কাগজে নিয়ে ফ্রেমে বাঁধিয়ে রেখ দিতে পারেন।
  • তার এক বছরের জন্মদিন প্রায় এসে গেল আপনি তাকে হ্যাপি বার্থ ডেগানটি শেখানোর জন্য সে যখন ঘুমাতে যাবে বা ঘুম থেকে উঠবে কিম্বা অন্য যেকোন সময়ে গাইতে থাকুন যখনই সুযোগ পাবেন।সে অতি দ্রুত নকল করে নেবে এবং তালে তালে হাততালি দেবে।
  • আপনি তার হাতদুটো ধরুন যখন সে দাঁড়িয়ে থাকবে ধীরে ধীরে তাকে ঘোরাতে থাকুন যতে সে শেখে হাঁটবার সময়কার অঙ্গ সঞ্চালনাগুলো এবং সে নিজে নিজেই হাঁটতে পারবে তার সময় মত।
  • পিকাবু কিম্বা লুকোচুরি খেলা খেলুন আপনার চলমান সোনাটির সাথে ঘরের মধ্যে।এটা নিশ্চিত করবেন ঘরটি যেন বাচ্চাটির উপযোগী হয়।

কখন ডাক্তারবাবুর সাথে আলোচনা করবেন

যদি আপনি আপনার 52 সপ্তাহ বয়সী বাচ্চাটির মধ্য নিম্নলিখিত বিষয় গুলো লক্ষ্য করেন তাহলে অতি অবশ্যই ডাক্তারবাবুর সাথে আলোচনা করবেন।

  • আপনার বাচ্চার কী স্ট্রবেরী,মধু,গরুর দুধ,ডিম,বাদাম বা অন্য যেকোন খাবারে এলার্জি হয়?এই বয়সে কিছু খাবারে এলার্জি হয়ে থাকে যার জন্য র‍্যাশ দেখা যায়, চোখ দিয়ে জল পড়ে,জিভ বা হাত বা মুখ ফুলে যাওয়া এমনকি শ্বাসকষ্ট পর্যন্ত দেখা দেয়।এক্ষেত্রে অতি দ্রুত আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিন যদি উপরের কোনো লক্ষণ আপনি দেখতে পান আপনার সন্তানের মধ্যে
  • যদি আপনার বাচ্চার ওজন কমে যায় এবং তার জ্বর বা ডায়েরিয়ার লক্ষণ দেখা যায় তাহলে আপনি তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান সংক্রমণ জনিত সমস্যায় ভুগতে পারে।
  • এটা সব সময় ভাল যদি আপনি আপনার শিশুর খাদ্য তালিকায় গরুর দুধ যোগ করার আগে ডাক্তারবাবুকে দিয়ে তাকে একবার চেকআপ করিয়ে নেন। যদি তার স্থূলতা বা কোনোরকম কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা থাকে তাহলে ডাক্তারবাবু তাকে ফ্যাট যুক্ত গরুর দুধ কম খেতে দেবার পরামর্শ দেবেন।

একজন অভিভাবক হিসাবে আপনার শিশুর প্রথম বছর সময়কাল অত্যন্ত পরিবর্তনের সাথে সাথে আপনার জীবন ধারাও বদলে যেতে থাকবে যা আপনি কোনোদিন কল্পনা করেন নি।আবার অভিনন্দন আপনার অভিভাবকত্বের এক বছর পূর্ণ হবার জন্যেযা এক মহান কৃতিত্ব।