গর্ভাবস্থায় সকালের অসুস্থতা

গর্ভাবস্থায় সকালের অসুস্থতা

আপনি যে গর্ভধারণ করেছেন সেই সুখবরকেবলমাত্র একটি সাহসিক অভিযানের শুরু যার জন্য আপনার নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে গর্ভাবস্থা আপনার সন্তানের জন্মের পথে আপনার সামনে অনেক শারীরিক মানসিক পরিবর্তনগুলি নিয়ে আসে যেগুলি আপনাকে মোকাবিলা করতে হবে

aniview

প্রায়ই, গর্ভাবস্থার প্রথম চিহ্ন হল সকালের অসুস্থতা নামটি অসার্থক, এটি একটি ভয়ঙ্কর অসুস্থতাও নয় আবার এটি সবসময় সকালেও ঘটে না এটি বমিভাব এবং বমি করার লক্ষণগুলিকে বোঝায় যা সাধারণত সকালে শুরু হয় এবং সাধারণত দিনের অগ্রগতির সাথে ঠিক হয়ে যায় সুতরাং, যদি আপনি বমি করার জন্য বারবার বাথরুমের ভেতর ঢোকেন এবং বাইরে বেরিয়ে আসেন, তবে চিন্তা করবেন না, আপনি একা নন এখানে সকালের অসুস্থতার ধরন, উপসর্গ এবং মোকাবিলা করার উপযোগী উপায় সম্পর্কে কিছু তথ্য রয়েছে

সকালের অসুস্থতা কি?

বেশিরভাগ গর্ভবতী মহিলারা সকালের অসুস্থতা ভোগ করে এটি প্রথম ত্রৈমাসিকে বেশী ঘটে যদিও কিছু মহিলাদের ক্ষেত্রে, বমি বমি ভাব এবং বমি করার প্রভাব তাদের গর্ভাবস্থার পুরো সময় জুড়ে প্রসব না হওয়া পর্যন্ত চলতে থাকে পেশাগত চিকিত্সা সাধারণত এর জন্য প্রয়োজন হয় না

সকালের অসুস্থতার কারণ কী?

বেশিরভাগ মহিলারা গর্ভধারণের সময় সর্বাধিক সাধারণ উপসর্গ হিসাবে বমিভাব সম্পর্কে অভিযোগ করেন যদিও কোনো নির্দিষ্ট কারণ নেই, তবে বমি বমি ভাব এবং হিউম্যান কোরিয়নিক গোনাডোট্রোপিন (এইচসিজি) হরমোন উৎপাদনকে যুক্ত করা হয় চিকিত্সাগতভাবে, গর্ভাবস্থার হরমোন শরীরের দ্বারা উত্পাদিত হয় যখন নিষিক্ত ডিম্বাণু নিজেই জরায়ুর আস্তরণের সাথে সংযুক্ত হয় যদিও এইচসিজি বমিভাবের মধ্যে সঠিক সংযোগ অজানা, এটি সত্য যে তারা উভয়ে একই সময়ে চূড়ান্ত মাত্রায় আসে বিশেষজ্ঞরা অনুমান করেন যে তাদের মধ্যে একটি পরিষ্কার সংযোগ আছে

গর্ভাবস্থায় সকালের অসুস্থতার সঠিক কারণ এখনও অজানা যাইহোক, বেশিরভাগ বিশেষজ্ঞ সম্মত হন যে হরমোন পরিবর্তন সম্ভবত একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এর অন্তর্ভুক্ত হল:

1. এস্ট্রোজেন মাত্রা

গর্ভবতী নয় এমন মহিলাদের মাত্রার তুলনায় গর্ভাবস্থায় এই হরমোন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেতে পারে পরিবর্তিত হরমোন মাত্রা সকালের অসুস্থতাকে শুরু করতে পারে

2. প্রজেস্টেরোন মাত্রা

গর্ভাবস্থায় প্রজেস্টেরোনের মাত্রাও বেড়ে যায় উচ্চতর হরমোন মাত্রা জরায়ুর (গর্ভ) পেশীকে শিথিল করে যাতে সন্তানের দ্রুত জন্ম প্রতিরোধ করা যায় যাইহোক, পেট এবং অন্ত্রের শিথিলতার কারণে পেটের অতিরিক্ত অ্যাসিডগুলি জমে গিয়ে গ্যাস্ট্রোইসোফেজিয়াল রোগ, বা অ্যাসিড রিফ্লাক্স সৃষ্টি করে

3. হিউম্যান কোরিয়নিক গোনোডোট্রপিন (এইচসিজি)

আলোচনা অনুসারে, গর্ভধারনের পর বিকাশমান ভ্রূণটি খুব শীঘ্রই এই হরমোন উৎপন্ন করে এবং তারপর প্লাসেন্টা দ্বারা এটি উত্পাদিত হয় এইচসিজি এবং সকালের অসুস্থতার মধ্যে একটি সম্ভাব্য সংযোগ থাকতে পারে

4. গন্ধের অনুভূতি

আপনি গর্ভবতী হলে, শক্তিশালী গন্ধের প্রতি আপনার সংবেদনশীলতা বৃদ্ধির অভিজ্ঞতা হতে পারে, যা আপনার বমি বমি ভাব বাড়িয়ে তুলতে পারে

একজন গর্ভবতী মহিলার লালা ক্ষরণের পরিমাণও বাড়তে পারে এবং নির্দিষ্ট গন্ধে সংবেদনশীলতা বেড়ে যেতে পারে এবং কিছু খাবারের স্বাদে পরিবর্তন অনুভব করতে পারে

মনে রাখবেন, সব বমি গর্ভাবস্থার কারণে না হতে পারে

কিছু অন্যান্য অবদানকারী উপাদান হতে পারে:

  • একটি সংবেদনশীল পেট সকালের অসুস্থতাকে আরো খারাপ অবস্থায় নিয়ে যেতে পারে
  • একটি মূত্রনালীর সংক্রমণও একটি সম্ভাব্য কারণ হতে পারে
  • চাপ বা ক্লান্তি শরীরের মধ্যে একটি শারীরিক প্রতিক্রিয়ার কারণ ঘটায়, যার ফলে বমি বমি ভাব এবং বমি হতে পারে

গর্ভাবস্থায় কিছু গর্ভবতী মহিলারা অত্যধিক বমিভাব এবং বমি হওয়ার অভিজ্ঞতা পেতে পারেন তারা দিনের বেলায় অনেক বার অসুস্থ বোধ করতে পারেন এবং খাদ্য বা জল পেটে ধরে রাখতে অক্ষম হতে পারেন, এটি দৈনিক জীবনকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে

অত্যধিক বমি হাইপারএমেসিস গ্র্যাভিডারাম (এইচজি) হিসাবে পরিচিত এবং প্রায়শই এটির ক্ষেত্রে প্রচুর যত্নের প্রয়োজন হয় এইচজি কেন হয়, বা কিছু মহিলারা এটিতে কেন বেশী ভোগেন তা জানা যায় না বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে এটি গর্ভাবস্থায় শরীরের পরিবর্তিত হরমোনগুলির সাথে যুক্ত

সকালের অসুস্থতার লক্ষণ উপসর্গগুলি

বেশিরভাগ মহিলারা গর্ভাবস্থায় বমি বমি ভাব অনুভব করেন এবং বমি করে থাকেন লক্ষণ এবং তীব্রতা সামগ্রিক ফিটনেস, খাওয়ার অভ্যাস এবং জেনেটিক প্রভাব অনুযায়ী পরিবর্তন হতে পারে সকালের অসুস্থতার সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • বিচলিত এবং বমি ভাব
  • ক্ষুধান্দ্য
  • নির্দিষ্ট খাবারে বিতৃষ্ণা
  • ডিহাইড্রেশন
  • বিষণ্ণতা যখন তীব্র বমি হয়, তখন আপনি দৈনন্দিন কাজ করতে বা আপনার বাড়ির যত্ন নিতে অক্ষম হতে পারেন  এটি আপনার চারপাশের মানুষের সাথে আপনার সম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে এবং বিষণ্নতা সৃষ্টি করতে পারে
  • দুর্বল লাগা বা হালকা মাথার অনুভূতি

সকালে জাগার পরে বমিভাব শুরু হতে পারে বা নির্দিষ্ট গন্ধ দ্বারা শুরু হতে পারে বমি ভাব এবং অস্বস্তির অনুভূতি দিনে যে কোনো সময় ঘটতে পারে এবং কয়েক সপ্তাহ বা এমনকি কয়েক মাস ধরে চলতে পারে

লক্ষণের তীব্রতা ব্যক্তির থেকে ব্যক্তিতে পৃথক গর্ভাবস্থায় বমি বমি ভাব এবং বমি করা বেশিরভাগ গর্ভবতী মহিলাদের 12 সপ্তাহের পরে ভালো হতে শুরু করে দুর্ভাগ্যবশত, কিছুদের জন্য, এই লক্ষণগুলি তাদের সম্পূর্ণ গর্ভাবস্থাকে প্রভাবিত করতে পারে

গর্ভাবস্থায় সাধারণত সকালের অসুস্থতা কখন শুরু হয় এবং শেষ হয়?

প্রথম ত্রৈমাসিকে বমি ভাব এবং সকালের অসুস্থতা গর্ভাবস্থার 4 থেকে 8 সপ্তাহের মধ্যে শুরু হয় এবং 13 থেকে 14 সপ্তাহের মধ্যে হ্রাস পায় যাইহোক, এটি আরো আগে শুরু হতে পারে এবং আরো দীর্ঘদিন স্থায়ী হতে পারে প্রত্যেক মহিলা প্রথম ত্রৈমাসিকের পুরো সময় জুড়ে বমি বমি ভাব অনুভব করেন না এটি মাত্র কয়েক সপ্তাহ ধরে চলতে পারে বা প্রথম কয়েক মাস জুড়ে আসতে চলে যেতে পারে

চিকিত্সা

সকালের অসুস্থতা একটি মায়ের জীবনের মানকে বিশাল পরিমাণে প্রভাবিত করতে পারে সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যাগুলি কাটিয়ে উঠার জন্য গর্ভাবস্থায় পরিবার এবং বন্ধুদের ভালোবাসাযুক্ত সমর্থন ব্যাপকভাবে সাহায্য করে কিছু খাদ্যতালিকাগত পরিবর্তন এবং প্রচুর পরিমাণে বিশ্রাম নেওয়া সকালের অসুস্থতার চিকিৎসার জন্য সাধারণত প্রয়োজন আপনার লক্ষণগুলির তীব্রতার উপর নির্ভর করে, ডাক্তাররা সকালের অসুস্থতার প্রতিকারের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণের পরামর্শ দেন

সকালের অসুস্থতার লক্ষণগুলির উন্নতিতে সহায়তা করার জন্য গর্ভাবস্থার প্রাথমিক পর্যায়ে ওষুধওষুধ ব্যবহার করা যেতে পারে এতে যে ওষুধগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে তার মধ্যে আছে ভিটামিনগুলি (বি6 এবং বি12) বা তাদের সমন্বয়গুলি আপনাকে আরও ভাল করে তুলতে পারে প্রচুর পরিপূরক ওষুধ রয়েছে যা পিল হিসাবে উপলভ্য এবং ভ্রূণের জন্য নিরাপদ

সকালের অসুস্থতার জন্য ওভারদ্যকাউন্টার পাওয়া যায় এমন কয়েকটি চিকিত্সা আপনার নির্দিষ্ট সমস্যাটির সমাধান করতে সহায়তা করতে পারে

1. মেডিকেল চিকিত্সা

  • ভিটামিন বি6 প্রত্যাশী মায়েদের মৃদু থেকে মাঝারি বমি বমি ভাব মোকাবেলা করতে সাহায্য করার জন্য দরকারী

  • অ্যান্টিহিস্টামাইনস, যা ডক্সাইলামাইনের মতো ফর্মগুলিতে সহজে পাওয়া যায়, গর্ভাবস্থায় বমি এবং বমি বমি ভাবের চিকিৎসা করার জন্য ব্যবহার করা হয় ভিটামিন বি6 এবং ডক্সাইলামাইনের সংমিশ্রণও সকালের অসুস্থতার প্রাথমিক চিকিৎসা হিসাবে নির্ধারণ করা যেতে পারে

  • জ্যানটাক বা পেপসিড হল রিফ্লাক্স ওষুধ যা কখনও কখনও আপনার বমিভাব কাটাতে কাজ করে যদি সেটি পেট বা অন্ত্রের সমস্যা দ্বারা সৃষ্ট হয়

2. প্রাকৃতিক / ঘরোয়া প্রতিকার

গর্ভাবস্থায় সকালের অসুস্থতা মোকাবেলা করার জন্য আপনার প্রশ্নগুলিকে উড়িয়ে দেওয়ার জন্য আমাদের মা এবং দিদাদের কাছে অব্যর্থ কিছু প্রাকৃতিক ঘরোয়া প্রতিকার রয়েছে

যদি আপনি হালকা বমি ভাব এবং বমির অভিজ্ঞতা লাভ করেন, তবে সাধারণ ব্যবস্থা গ্রহণ করা গর্ভাবস্থায় সকালের অসুস্থতার প্রতিকার হিসাবে যথেষ্ট হতে পারে এই পরামর্শগুলি কঠোর প্রমাণের দ্বারা সমর্থিত নয়, তবে ওবেস্ট্রিসিয়ানরা সাধারণত এগুলিকে সুপারিশ করে

  • সারা দিন জুড়ে ধীরে ধীরে এবং ঘন ঘন অল্প স্ন্যাক এবং খাবার খান যাতে আপনার পেট খালি না হয় প্রোটিন এবং কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাদ্য সহায়ক হতে পারে
  • খাওয়ার পরে সঙ্গে সঙ্গে শোবেন না কারণ এটি পাচনে বিলম্ব করতে পারে
  • ফল, বাদাম এবং ক্র্যাকার দিয়ে স্ন্যাক করাও ভাল লাগতে পারে যদি মধ্যরাত্রে আপনার বমিভাব লেগে ঘুম ভেঙে যায়
  • সকালে উঠে আপনার সময় নিন কিছুক্ষণের জন্য বিছানায় অপেক্ষা করুন
  • তৈলাক্ত খাবার খাওয়া এড়িয়ে যান এবং আপনার বমি ভাব ট্রিগার করে এমন গন্ধে উন্মুক্ত হওয়া এড়িয়ে যান
  • গরম বাষ্পীকৃত খাবারের উগ্র সুবাস থাকতে পারে বলে খাবারগুলি ঠান্ডা করে বা ঘরের তাপমাত্রায় এনে খাওয়া উচিত
  • ফ্যাটি, গভীরভাবে ভাজা, অম্লীয় বা জাঙ্ক খাবার খাবেন না কারণ এটি আপনার পাচক সিস্টেমকে ধীর করে তুলতে পারে
  • আহারগুলির অন্তর্বর্তী সময়ে তরল পান করুন, তবে একসাথে খুব বেশি পান করবেন না যাতে আপনার পেট পূর্ণ হয়ে যায় দিন জুড়ে নিয়মিত একটু করে তরল চুমুক দিয়ে খাওয়া আপনার হাইড্রেটেড থাকার একটি ভাল উপায়
  • কার্বনেটেড পানীয় শুধুমাত্র সংযমী পরিমানে নেওয়া আবশ্যক কিছু মহিলারা হারানো ইলেক্ট্রোলাইট প্রতিস্থাপনের জন্য গ্লুকোজ, লবণ, এবং পটাসিয়াম যুক্ত স্পোর্টস পানীয় বা লেমোনেডের মতো টক রস খুঁজে নেন
  • খাদ্যনয় এমন কিছু দ্বারা বমি ভাব ট্রিগার যাতে না হয় সে জন্য সতর্ক থাকুন এর মধ্যে রয়েছে একটি স্যাঁতসেঁতে বা জিনিসে ভরা ঘর, ভারী সুগন্ধির গন্ধ, একটি উঁচুনীচু বা দ্রুত গাড়ী যাত্রা, বা এমনকি কিছু চাক্ষুষ উদ্দীপনা, যেমন ঝলকানি আলো
  • চাপ মুক্ত হোন এবং ঘুমান টিভি দেখুন, একজন বন্ধুর সাথে চ্যাট করুন যদি আপনি ক্লান্ত হন বা চাপযুক্ত হন, তবে বমি বমি বেশী হতে পারে
  • আদা বমি বমি ভাব উপশম করতে সাহায্য করে এবং একটি খারাপ পেটকে ভাল করার এবং বমি উপশম করার জন্য একটি বিকল্প প্রতিকার
  • পেপারমিন্ট চা চুমুক দিয়ে খান বা পেপারমিন্ট ক্যান্ডিগুলি চুষুন, বিশেষ করে যদি খাবারের পরে সম্ভব হয়, এটি বমি বমি ভাব উপশম করতে পারে
  • অ্যারোমাথেরাপি কিছু মহিলাদের জন্য উপযুক্ত যারা লেবু, পুদিনা, বা কমলালেবু সুগন্ধে তাজা অনুভব করেন

এই বাড়ির প্রতিকারগুলি যদি সাহায্য না করে তবে আপনার নির্দিষ্ট সমস্যার জন্য বমিভাব কাটানোর ওষুধগুলি জানার জন্য আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন

সকালের অসুস্থতার ঝুঁকি জটিলতা?

সাধারণত, সকালের অসুস্থতা গর্ভাবস্থার একটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য এবং খুব কম ঝুঁকি থাকে যদি না এটি আপনাকে ডিহাইড্রেটেড করে বা আপনি খুব অসুস্থ বোধ করেন, এটিতে চিকিৎসা মনোযোগের প্রয়োজন হয় না

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটস অফ হেল্থের মতে, এইচজি শুধুমাত্র গর্ভবতী মহিলাদের প্রায় 1 শতাংশকে প্রভাবিত করে এবং সাধারণত গর্ভাবস্থার দ্বিতীয়ার্ধে চলে যায় এবং সাধারণত মা বা সন্তানের ক্ষেত্রে গুরুতর জটিলতা সৃষ্টি করে না

কখন সাহায্য চাইতে হবে?

যদি গর্ভাবস্থায় অসুস্থতা বমিভাব আপনাকে খুব বেশি প্রভাবিত করে, তবে চিকিৎসা হস্তক্ষেপের প্রয়োজন হতে পারে যদি আপনি এই লক্ষণগুলির মধ্যে কোনোটি অনুভব করেন তবে ডাক্তারের সাথে আপনার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করুন:

  • উপসর্গগুলি হ্যান্ডেল করার পক্ষে খুব গুরুতর হলে
  • আপনি যদি আপনার নিয়মিত খাবার এবং জল গ্রহণ করতে না পারেন
  • আপনি খুব দ্রুত ওজন হারান
  • আপনার তরল পান করা ব্যাপকভাবে হ্রাস পায়
  • যদি বমির সাথে জ্বর, মাথা ব্যাথা বা পেট ব্যথা যুক্ত হয়

যদি আপনার অবস্থা খারাপ হয় বা আপনি ডিহাইড্রেটেড অসুস্থ হয়ে পড়েন তাহলে আপনার হাসপাতালে যত্নের প্রয়োজন হতে পারে

আগে যেমন আলোচনা করা হয়েছিল, গর্ভাবস্থায় গুরুতর সকালের অসুস্থতা বা হাইপারএমেসিস গ্র্যাভিডারাম (এইচজি)-এর জন্য চিকিত্সা করা উচিত যদি গর্ভাবস্থাকে সহজ রাখতে হয়

বিভিন্ন বিপাকীয় এবং নিউরোমাস্কুলার কারণগুলি এইচজিতে অবদান রাখে বলে মনে করা হয়; তবে, সঠিক কারণ অজানা ফলস্বরূপ, এইচজি চিকিত্সা কঠিন হতে পারে কারণ এইচজি চিকিত্সার লক্ষ্য বা ক্রমবর্ধমান ভ্রূণের উপর সম্ভাব্য চিকিত্সাগুলির পূর্ণ প্রভাবগুলি অজানা

গর্ভবতী মহিলাদের তাদের ডাক্তারকে কল করা উচিত যদি:

  • বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া গুরুতর আকার নেয়
  • প্রস্রাব কম বার হয়
  • প্রস্রাবের রঙ গাঢ় হলুদ হয়
  • তারা কোনো তরল পান করতে অক্ষম হন
  • তারা দাঁড়িয়ে থাকার সময় মাথা ঘোরে
  • তারা উঠে দাঁড়ালে অজ্ঞান হয়ে পড়েন
  • তাদের হৃদস্পন্দন বৃদ্ধি পাওয়ার অনুভূতি হয়
  • তারা রক্ত বমি করে

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন

সকালের অসুস্থতায় ভুগছেন এমন সমস্ত প্রত্যাশী মায়েদের মনের মধ্যে কিছু সাধারণ সন্দেহ এবং ভয় থাকে আপনাদের এই অবস্থার সাথে আরও ভালভাবে মোকাবিলা করতে সহায়তা করার জন্য এখানে এই সাধারণ প্রশ্নগুলির সমাধান দেওয়া হল

1. সকালের অসুস্থতা থেকে কি গর্ভস্রাব হতে পারে?

যে মহিলাদের গর্ভস্রাব হয়েছে তাঁদের আসলে বমি বমি ভাবের সম্ভাবনা কম আপনার বাচ্চা বা আপনার প্লাসেন্টা সঠিকভাবে বিকাশমান না হয়ে থাকলে, এটির অর্থ হল আপনার সিস্টেমে গর্ভাবস্থার হরমোনগুলির নিম্ন মাত্রায় রয়েছে তাই, আপনার বমি হয় না

তবে সকালের অসুস্থতা না থাকলে চিন্তিত হবেন না স্বাভাবিক গর্ভাবস্থা যুক্ত গর্ভবতী মহিলাদের একটি উল্লেখযোগ্য শতাংশ তাদের প্রথম ত্রৈমাসিকে হালকা বমি বমি ভাব অনুভব করেন বা একেবারেই করেন না নিজেকে আশীর্বাদ ধন্য মনে করুন এবং আপনি যদি কষ্ট না পান তবে চিন্তা করবেন না!

2. সকালের অসুস্থতা থেকে কি আমার শিশুর ক্ষতি হবে?

সৌভাগ্যবশত, বমি কোনো ভাবেই আপনার সন্তানের ক্ষতি করে না এমনকি যদি আপনি প্রথম ত্রৈমাসিকে কোনও ওজন অর্জন করতে অক্ষম হন তবুও এটি আপনার উদ্বেগের বিষয় নয় যতক্ষণ আপনি আপনার দৈনন্দিন খাদ্য গ্রহণ সম্পূর্ণ করতে পারবেন আপনার পুষ্টির চাহিদা পূরণ হয় কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য, আপনার ডাক্তারের সাথে আলোচনা করার পরে একটি পেরেন্টাল ভিটামিন সম্পূরক নিন

তবে, দয়া করে মনে রাখবেন যে গুরুতর এবং দীর্ঘস্থায়ী বমিভাবের সাথে অকাল জন্মের ঝুঁকি, কম জন্ম ওজনের ঝুঁকি এবং গর্ভধারণের বয়সের তুলনায় আকারে ছোট নবজাতকের ঝুঁকিকে যুক্ত করা হয়েছে আপনি যদি গুরুতর লক্ষণগুলি ভোগ করেন যেগুলি মোকাবেলা করতে আপনাকে সংগ্রাম করতে হচ্ছে, তবে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা ভালো

সকালের অসুস্থতা এবং গর্ভাবস্থার অন্যান্য স্বাস্থ্যের উদ্বেগগুলি সাময়িক অস্বস্তি ঘটাতে পারে যাইহোক, সব মায়েরা সফল গর্ভধারণের জন্য যত্ন নেওয়ায় মনোযোগ দেওয়ার জন্য কোপিং পদ্ধতিগুলি শিখতে পারেন অবিরত বমি বমি ভাব, বমি করা, এবং ফলত ক্লান্তির যন্ত্রণা দিয়ে আপনার স্বাভাবিক জীবনকে প্রভাবিত হতে দেবেন না 9 মাসের গর্ভধারণের পরে আপনার সন্তানকে ধরার জন্য ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি এবং আশা আপনাকে সকালের অসুস্থতার অভিজ্ঞতা মোকাবেলা করতে সহায়তা করবে