গর্ভাবস্থায় পা ফুলে যাওয়ার 12টি কার্যকর ঘরোয়া প্রতিকার

গর্ভাবস্থায় পা ফুলে যাওয়ার 12টি কার্যকর ঘরোয়া প্রতিকার

গর্ভাবস্থা আপনার জীবনের এমন একটি সময় যখন আপনি ক্রমাগত মিশ্র অনুভূতির সম্মুখীন হন আপনি আপনার ছোট্টোটির জন্য খুব উত্তেজিত, কিন্তু একই সাথে, অনেক ছোট জিনিস আছে যা আপনাকে হতাশ করবে আপনাকে অনেক কিছু সম্পর্কে সতর্ক হতে হবে, এবং এমনকি আপনার কিছু অভ্যাস এবং জীবনধারা পরিবর্তন করতে হবে এই সময়ে আপনি আপনার দেহে কিছু শারীরিক পরিবর্তন দেখবেন, যার মধ্যে রয়েছে আপনার পা ফুলে যাওয়া

aniview

যদি আপনি এটি লক্ষ্য করেন, অস্থির হবেন না গর্ভকালীন সময়ে পা ফুলে যাওয়া খুব সাধারণ একটি ব্যাপার আপনার শরীরে অতিরিক্ত তরল এবং রক্ত থাকার কারণে এটি ঘটে এই অবস্থাকে এডিমা বলা হয়

এডিমা গোড়ালি, হাত এবং পায়ে বেশি হয় মাঝে মাঝে, আপনি ঘাড় এবং মুখেও ফোলাভাব লক্ষ্য করতে পারেন এটা অনেক গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রেই দেখা যায় ফোলা কমাতে এই সময় আপনি অনেক কিছু করতে পারেন গর্ভাবস্থায় পা ফোলার জন্য সবসময় প্রাকৃতিক প্রতিকারের পরামর্শ দেওয়া হয়

বাড়িতে গর্ভাবস্থায় পা ফোলার চিকিৎসা করার উপায়সমূহ

বাড়িতে গর্ভাবস্থায় পা ফোলার চিকিৎসা করার উপায়সমূহ

ছোট ছোট পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন এবং ফোলা কমাতে বাড়িতেই আপনি যে প্রতিকারগুলি করতে পারেন সেগুলি চিহ্নিত করুন সাদামাটা, সহজ এবং বাড়িতে সম্পন্ন করা যেতে পারে এমন কিছু প্রতিকার নিচে তালিকাভুক্ত করা হল

1. উচ্চপটাসিয়াম যুক্ত ডায়েট

ফোলা হ্রাস করার একটি উপায় হল উচ্চ মাত্রার পটাসিয়াম যুক্ত খাবার খাওয়া এটি বেশ সহায়ক কলা হল এমন একটি ফল যাতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম থাকে

2. বিশ্রাম নিন

আপনার পাকে যথেষ্ট বিশ্রাম দেওয়া জরুরি যখন আপনি আপনার পায়ের উপর অত্যধিক চাপ দেন, তখন এটি আরও বেশি ফুলে উঠবে বিশ্রাম নেওয়ার সময় আপনার পাকে কিছু সময়ের জন্য উঁচুতে উঠিয়ে রাখুন

3. পোশাকের বিষয়ে সতর্ক হন

আপনি আপনার গর্ভাবস্থার সময়কালে আপনার পরিধানে সহজ কিছু পরিবর্তন করতে পারেন আরামদায়ক জুতা পরিধান করুন, এবং এছাড়াও এর সমর্থনকারী স্টকিংস এবং টাইটস পরুন গোড়ালির চারপাশে খুব আঁটসাঁট হয়ে থাকে এমন পোশাকগুলি এড়িয়ে চলুন কখনও কখনও আঁটসাট জুতোও পরিস্থিতিকে আরও খারাপ করতে পারে সুতরাং এই সময়ে আপনার জুতো পরিবর্তন করা গুরুত্বপূর্ণ

4. খুব দীর্ঘ সময়ের জন্য নিশ্চল হয়ে থাকবেন না

খুব দীর্ঘ সময়ের জন্য একই অবস্থানে আপনার পাকে রেখে দিলেও এডিমা হতে পারে আপনার পাগুলিকে নড়ানো এবং মাঝে মাঝে সেগুলির অবস্থান পরিবর্তন করা গুরুত্বপূর্ণ আপনার যদি ডেস্কে বসে করার কাজ থাকে, তবে আপনার পায়ের অবস্থা হয়তো আরো খারাপ হয়ে উঠতে দেখবেন আপনি যা করতে পারেন তা হল প্রতি 4 থেকে 5 ঘন্টায় একবার বা দুবার আপনার অফিসের মধ্যে বা বাইরে দ্রুত একটু হেঁটে আসতে পারেন এটি আরও ভাল রক্ত সঞ্চালনে সাহায্য করবে, এবং ফলে, এটি পা ফুলে যাওয়ার সম্ভাবনা হ্রাসে সহায়তা করবে

5. কফি কম পান করুন

আপনি গর্ভবতী থাকার সময় ক্যাফিন একটি স্বাস্থ্যকর বিকল্প নয় আসলে, যখন আপনার পা ফুলে যাওয়ার লক্ষণ দেখা যায়, তখন এটি পান করা বন্ধ করা ভাল, কারণ এটি ডিহাইড্রেশন ঘটাতে পারে

6. পর্যাপ্ত এবং বেশি পরিমাণে জল পান করুন

পা ফুলে যাওয়া আপনার শরীরে তরল জমে যাওয়ার ফলে হয় আপনি হয়তো ভাবতে পারেন যে জল খেলে পরিস্থিতি কেবল খারাপই হতে পারে, কিন্তু এটি সত্য নয় এই সময় আপনার শরীরকে হাইড্রেটেড রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ আপনি যখন জল পান করেন, এটি আসলে শরীরের অতিরিক্ত তরল এবং বিষাক্ত পদার্থকে বের করে দেয় এবং আপনার শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে সহায়তা করে তাই প্রচুর জল পান করুন

7. একটি ত্বকের ব্রাশ ব্যবহার করুন

যদি আপনি এডিমার লক্ষণ দেখতে পান, তবে আপনি সংবহনে সাহায্য করার জন্য একটি ত্বকের ব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন আপনার হৃৎপিন্ডের দিকে ঊর্ধ্বমুখী ভাবে আপনার পাগুলিকে ব্রাশ করুন শরীরে থাকা তরলের সংবহনে সাহায্য করার এটি একটি উপায়

8. নিয়মিত ব্যায়াম করুন

নিয়মিত ব্যায়াম করা পা ফোলা থেকে মুক্তি পাওয়ার একটি দুর্দান্ত উপায় কারণ এটি সংবহনে সাহায্য করে তবে, কিছু ক্ষেত্রে ব্যায়াম থেকে পা ফোলা শুরু হয় অতএব, ব্যায়ামের পরে পা ফুলে যাচ্ছে কিনা সে দিকে চোখ রাখুন এছাড়াও, যে ব্যায়ামগুলি করছেন সেগুলি গর্ভাবস্থার সময় অনুসরণ করা আপনার পক্ষে নিরাপদ কিনা তা নিশ্চিত করুন ভারী ব্যায়ামগুলিকে এড়িয়া যাওয়াই ভাল আপনি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য নিরাপদ ব্যায়ামের সন্ধান করতে পারেন এবং দারুণ আইডিয়া পেতে পারেন

9. অ্যাপেল সীডার ভিনিগার

আপনার শরীরের ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্য রক্ষায় সাহায্য করতে দুই গ্লাস জলে এক চামচ অ্যাপেল সীডার ভিনিগার মেশান এর কারণ হল অ্যাপেল সীডার ভিনিগারে উচ্চ মাত্রায় পটাসিয়াম থাকে আসলে, আপনি আপনার পায়ের ফোলাভাব কমানোর জন্য উষ্ণ জল এবং অ্যাপেল সীডার ভিনিগারের সমান পরিমাণের মিশ্রণে ভেজানো একটি তোয়ালে দিয়ে আপনার পা মুড়েও রাখতে পারেন

10. সাঁতার কাটা

সুস্থ সংবহন বজায় রাখার একটি উপায় এখানে দেওয়া হল সাঁতার আসলে তরলের উপর মাধ্যাকর্ষণ টানের বিরুদ্ধে যাওয়ার মাধ্যমে সংবহনে সাহায্য করে থাকে সাঁতার কাটা হল ব্যায়ামের একটি নিরাপদ রূপও যা আপনি আপনার গর্ভাবস্থার মাসগুলিতে অনুসরণ করতে পারেন

11. আপনার পায়ের পাতাগুলিকে ভেজান

গরম লবণ জলে আপনার পায়ের পাতাগুলিকে ভেজান এপসম লবণ ব্যবহার করলে সবসময় আপনার পাগুলিকে শিথিল করবে গর্ভাবস্থায়, এটি আরও সাহায্য করে এমনকি আপনি পায়ের পাতাগুলি ভেজানোর পরে সেগুলিকে জোজোবা তেল দিয়ে মালিশও করতে পারেন

12. মালিশ

আপনার গর্ভাবস্থার সময়, আপনার পা এবং পায়ের পাতাগুলি সত্যিই ক্লান্ত এবং অবসন্ন বোধ করবে আচ্ছা, এটা নিয়ে বিরক্ত হবেন না, আপনি আপনার পেটের মধ্যে একজন মানুষকে বহন করছেন এই দিনগুলি আপনার জীবনের সবচেয়ে ক্লান্তিকর দিন হতে পারে একটি ভাল মালিশ আপনাকে সত্যিই আরামদায়ক অনুভূতি দিতে পারে এছাড়াও যদি আপনি আপনার পায়ের ফোলা নিয়ে সংগ্রাম করে থাকেন, তবে একটি ভাল মালিশ সঞ্চালনেও এক্ষেত্রে সাহায্য করবে আপনার পায়ের পাতায় ভালভাবে মালিশ করলে, তরলে থাকা বিষাক্ততা থেকে শরীরকে পরিত্রাণ পেতে সাহায্য করে

যখন আপনি গর্ভবতী হন, তখন আপনাকে অনেক ছোট ছোট বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে পায়ের পাতা ফুলে যাওয়া এমন একটি জিনিস যা অনেক নারীর মধ্যেই দেখা যায় যদিও এটি অদ্ভুত নয় তবে এটির প্রতি মনোযোগ দেওয়া এবং নিজেকে সাহায্য করা গুরুত্বপূর্ণ গর্ভাবস্থায় যখন আপনি পা ফুলে উঠতে দেখেন তখন ঘরোয়া প্রতিকারগুলি হল সেরা বিকল্প, কারণ কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় না এবং এতে চিন্তা করার মতো কিছু নেই

আপনি যদি অস্বাভাবিক ফোলাভাব দেখতে শুরু করেন তবে ডাক্তারকে দেখানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারণ পা ফুলে যাওয়া প্রিক্ল্যাম্পসিয়ার লক্ষণ হতে পারে এটি একজন পেশাদারের দ্বারা নির্ণয় করা দরকার

পা ফুলে যাওয়া থেকে আপনি অস্বস্তি এবং হতাশা অনুভব করতে পারেন তবে, এটি কমানোর অনেক উপায় আছে এই সময়ে নিজেকে শারীরিক দিক দিয়ে ভালো রাখতে ভুলবেন না নিজেকে সুস্থ রাখার জন্য আপনি যে ছোট ছোট জিনিসগুলি করবেন তা আপনার ছোট্টটিকেও উপকৃত করবে