গর্ভে শিশুর হেঁচকি-এটি কি স্বাভাবিক?

গর্ভে শিশুর হেঁচকি

একজন গর্ভবতী মহিলার গর্ভে তার শিশুটির ক্রমশ বিকাশ হওয়ার সাথে সাথে তিনি তার দেহে নানা পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারেন।আপনি যদি গর্ভবতী হয়ে থাকেন আপনি অবশ্যই ইতিমধ্যে কিছু পৃথক আন্দোলন আপনার দেহে অনুভব করেছেন।আপনার গর্ভস্থ শিশুটি বৃদ্ধি পেতে থাকার কারণে এবং আপনার গর্ভাবস্থার ক্রমশ অগ্রগতি হওয়ায় এই আন্দলনগুলি কেবল আরও শক্তিশালী হতে থাকবে।কিছু ক্ষেত্রে,আপনি আপনার গর্ভে ছোট ছো্ট খিঁচুনির পুনরাবৃত্তি অনুভব করতে পারবেন।আপনি সেগুলিকে তার পা ছোঁড়া ভেবে ভুল করতে পারেন কিন্তু আসলে সেগুলি হল ভ্রূণের হেঁচকি।গর্ভাবস্থায় ছোট ছোট এবং ছন্দময় আন্দোলনগুলির অভিজ্ঞতা হওয়াটা স্বাভাবিক আর এই আন্দোলনগুলিই ভ্রূণের হেঁচকি নামে পরিচিত।আসুন অণ্বেষণ করা যাক গর্ভের মধ্যে শিশুদের কেন হেঁচকি হয়ে থাকে।

aniview

ভ্রূণের হেঁচকি ওঠার কারণগুলি কি?

ভ্রূণের হেঁচকি ওঠার সঠিক কারণটি যে কি তা ডাক্তাররাও ঠিক জানেন না।গর্ভের মধ্যে সকল শিশুরই হেঁচকি ওঠে না।এটি বিশ্বাস করা হয় যে ভ্রূণের হেঁচকি ওঠা শিশুর ফুসফুসের বিকাশের সাথে জড়িত তবে এটি এখনও প্রমাণ হয় নি।ভ্রূণের হেঁচকিগুলি কেবলমাত্র তার দ্বারা করা সমস্ত নতুন জিনিসের সাথে সামঞ্জস্য করার চেষ্টা একটি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে।যখন গর্ভে একটি শিশু হেঁচকি তোলে তখন সেটি তার ঠিক সময়মত উন্নয়নমূলক মাইলস্টোনগুলি ছুঁতে পারার একটি লক্ষণকেই চিহ্নিত করে যা তার অগ্রগতি নির্দিষ্ট পথে চালিত হওয়াকেই নির্দেশ করে।গর্ভাবস্থায় যদি আপনি গর্ভের মধ্যে শিশুর হেঁচকি অনুভব করেন সেটি আপনার কাছে কিছুটা চিন্তার হতে পারে তবে জরায়ুর মধ্যে যে সকল কারণে ভ্রূণের হেঁচকি উঠতে পারে সেগুলিকে চিকিৎসকরা নিম্নলিখিত কারণ হিসেবে সনাক্ত করেছেন।

1. ডায়াফ্রামের সংকুচিত হওয়া

ভ্রূণের হেঁচকি হল ছোট শিশু এবং প্রাপ্তবয়স্কদের দ্বারা হেঁচকি ওঠার অভিজ্ঞতারই সমতুল্য।একটি ভ্রূণের মধ্যে এটির আকস্মিক সূত্রপাত হয়ে থাকে ডায়াফ্রামের (একটিপেশী যা ফুসফুস এবং পেটের মধ্যে বিভাজক হিসাবে কাজ করে) তীব্র খিঁচুনি অথবা সংকোচনের ফলে।জরায়ুতে হেঁচকি ওঠাগুলি হল অ্যামনিয়োটিক থলির মধ্যে শিশুর অ্যামনিয়োটিক তরলে শ্বাস ফেলার একটি প্রতিক্রিয়া।কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের বিকাশের পরে, অ্যামনিয়োটিক অ্যাসিডটি শিশুর ফুসফুসের ভিতরে এবং বাইরে প্রবাহিত হয় যা ডায়াফ্রামকে অনায়াসে সংকুচিত করে।

2. প্রতিবর্তী ক্রিয়া

ভ্রূণের হেঁচকিগুলি শিশুদের জরায়ুর মধ্যে বিকাশে এবং তাদের প্রতিবর্তী ক্রিয়াকে শক্তিশালী করতে সহায়তা করে যা জন্মের পর তাদের শ্বাসনালীর আন্দোলনকে নিয়ন্ত্রণ করে।এই প্রতিবর্ত ক্রিয়াগুলি শিশুদের কোনওরকম বিষম না লেগেই তাদের খাওয়ার সময় সহায়তা করে। ডাক্তাররা ভ্রূণের এই হেঁচকিগুলিকে চিহ্নিত করেছেন জরায়ুতে থাকাকালীন সময়ে স্তনপান করার প্রক্রিয়াটি শুরু করার জন্য শিশুর প্রস্তুতি হিসেবে।এই প্রক্রিয়াটি অনুকরণের ফলে ভ্রূণ হেঁচকি অনুভব করে।

3. আম্বেলিক্যাল কর্ড বা নাড়ির সংকোচন

এটি একটি ভীতিকর এবং অত্যন্ত গুরুতর চিকিৎসাগত অবস্থা যেখানে আম্বেলিক্যাল কর্ড শিশুর গলার চারপাশে জড়িয়ে গেলে অথবা সংকুচিত হলে শিশুর হেঁচকি ওঠার সম্বাবনা থাকে। এটি সাধারণত গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ত্রৈমাসিকে হয়ে থাকে।

গর্ভাবস্থায় আপনি হেঁচকি ওঠার বিভিন্ন ধরণগুলি বুঝতে সমর্থ হতে পারেন।যদি আপনি হেঁচকি ওঠার সময়সীমার পরিবর্তন হতে অথবা তাতে কোনও অনিয়ম লক্ষ্য করে থাকেন তবে আপনার ডাক্তারবাবুর সাথে এ বিষয়ে আলোচনা করা উচিত।এই দৃষ্টান্তে হেঁচকিগুলি ওঠে সাধারণত আপনার শিশুর দেহে সীমিত অথবা কোনওরকম বায়ু সরবরাহ না হওয়ার কারণে।যদি আপনি আপনার গর্ভে হেঁচকি ওঠা অথবা পা ছোঁড়ার মধ্যে সামান্য থেকে ব্যাপক পরিবর্তন হতে অনুভব করে থাকেন সেক্ষেত্রে অবিলম্বে আপনার ডাক্তারি সহায়তা নেওয়া আবশ্যক।

আম্বেলিক্যাল কর্ড বা নাড়ির সংকোচন

ভ্রূণের হেঁচকি ওঠা কি স্বাভাবিক?

গর্ভের মধ্যে শিশুদের নিয়মিতভাবে এবং দীর্ঘ সময় ধরে হেঁচকি উঠতে পারে।আপনি গর্ভবস্থার দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ত্রৈমাসিক থেকেই আপনার গর্ভে আপনার সন্তানের হেঁচকি ওঠা লক্ষ্য করা শুরু করতে পারেন।তবে নিশ্চিতভাবে কিছুই বলা যায় না,কারণ সকল মায়েরাই তাদের শিশুর হেঁচকি এবং ভ্রূণের আন্দোলনগুলি বিভিন্ন সময়ে অনুভব করে থাকেন।

কিছু শিশুর যখন প্রায়শই হেঁচকি উঠে থাকে তখন অন্যরা সেগুলি মোটেও অনুভব নাও করতে পারে।স্বাস্থ্যপেশাদারদের অভিমত অনুযায়ী শিশুরা গর্ভাবস্থার প্রথম ত্রৈমাসিক থেকেই হেঁচকি তুলতে শুরু করে কিন্তু সেগুলির আকার সংক্ষিপ্ত হওয়ার কারণে মায়েরা এই সকল আন্দোলনগুলিকে লক্ষ্য করেন না।গর্ভে শিশুর হেঁচকি ওঠার অভিজ্ঞতা হওয়াটা একটি ভাল লক্ষণ যা কেবল শিশুর একটি সুস্থ সুন্দর বিকাশকেই নির্দেশ করে।তবে আপনি যদি আপনার গর্ভাবস্থায় 32 সপ্তাহ পরে শিশুর হেঁচকি ওঠা লক্ষ্য করেন,আপনার ডাক্তারের সাথে এ ব্যাপারে আলোচনা করা উচিত কারণ এটি কিছু সমস্যার লক্ষণ হতে পারে।

কখন আপনি ভ্রূণের হেঁচকি ওঠা আশা করতে পারেন?

গর্ভাবস্থার ঠিক প্রথম ত্রৈমাসিক থেকেই আপনার গর্ভস্থ শিশুটি আপনার গর্ভের অভ্যন্তরে হেঁচকি তোলা শুরু করতে পারে কিন্তু শিশুটি তখনও বিকাশের প্রাথমিক পর্যায়ে থাকার দরুন আপনি হয়ত সেটি লক্ষ্য নাও করতে পারেন।শিশুদের মধ্যে এই হেঁচকি ওঠা শুরু হয় কেবল তাদের কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র গঠিত হওয়ার পরেই যা ভ্রূণকে শ্বাস নিতে সক্ষম করে।এবং সেগুলি দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ত্রৈমাসিকে আরও স্পষ্ট হয়ে ওঠে।

হেঁচকি ওঠা এবং পা ছোড়াছুড়ির মাধ্যমে পদাঘাত করার মধ্যে পার্থক্য কীভাবে করবেন

প্রাথমিকভাবে আপনি আপনার গর্ভের মধ্যে বাচ্চার হেঁচকি ওঠাকে পা ছুঁড়ে পদাঘাত করা ভেবে ভুল করতে পারেন।কিন্তু একবার সেই আন্দোলনগুলিকে অধ্যায়ন করলেই আপনি হেঁচকি তোলা এবং পদাঘাত করার মধ্যে পার্থক্য অনুভব করতে পারবেন। আপনার গর্ভের ভিতরে শিশুটি হেঁচকি তুলছে নাকি পদাঘাত করছে তা সনাক্ত করার সবচেয়ে ভাল উপায় হল শিশুটির ঘুরে যাওয়া বা নড়াচড়ার দ্বারা। কখনও সখনও আপনার শিশুটি আপনার গর্ভের কেন্দ্রীয় অবস্থানে কোনওরকম অস্বস্তি অনুভব করলে নড়ে উঠতে পারে।

আপনি আপনার গর্ভস্থ শিশুটির আন্দোলন আপনার পেটের বিভিন্ন অংশে অনুভব করতে সমর্থ হবেন এবং তারা সেগুলি করা থামিয়ে ফেলতে পারে যদি আপনি নিজেকে পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে এনে স্থির হন।আপনি যদি একদম স্থির হয়ে বসে থাকেন এবং আপনার পেটের একটা অংশ থেকে একটি স্পন্দন বা ছন্দময় ঝাঁকুনি আসা অনুভব করেন,তবে সেটি কেবল আপনার শিশুটির হেঁচকিই হতে পারে।এই আন্দলনগুলিতে অভ্যস্ত হতে আপনার কিছুটা সময় লাগতে পারে কিন্তু শেষ পর্যন্ত খুব শীঘ্রই আপনি সেগুলিকে পৃথক করে সনাক্ত করতে সমর্থ হবেন।

হেঁচকি ওঠা এবং পা ছোড়াছুড়ির মাধ্যমে পদাঘাত করার মধ্যে পার্থক্য কীভাবে করবেন

কীভাবে গর্ভের মধ্যে ভ্রূণের হেঁচকি বন্ধ করা যায়

কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আপনি আপনার সন্তানের হেঁচকি ওঠাগুলিকে সনাক্ত করার স্বপক্ষে সমর্থ হবেন।যদিও ভ্রূণের হেঁচকি ওঠাটি যন্ত্রণাদায়ক নয়,তবে এগুলি বিভ্রান্তিকর হতে পারে।ভ্রূণের হেঁচকি তোলার পর্বগুলি 15 মিনিটের বেশি সময় ধরে হওয়া উচিত নয়,কিন্তু যদি সেটি হয়ে থাকে তবে সেটি আপনার পক্ষে অত্যন্ত অস্বস্তিককারক হয়ে উঠতে পারে।আপনার শিশুর এই হেঁচকি তোলাটি আপনার স্থির ভাবে বসার এবং আরাম করার ক্ষেত্রটিকে কিছুটা মুশকিল করে তুলতে পারে।ভ্রূনের এই হঁচকি ওঠাকে কমানোর জন্য বেশ কয়েকটি জিনিস করা যেতে পারে কিন্তু সেক্ষেত্রে জরায়ুর ভিতরে আপনার বাচ্চার হেঁচকি সম্পূর্ণ নিরাময় করার কোনও নিশ্চিত স্থির উপায় নেই।ডাক্তররা সাধারণত নিম্নলিখিত বিষয়গুলির পরামর্শ দিয়ে থাকেনঃ

  • ঘুমানোর সময়,আপনার বাম পাশ ফিরে শুন।
  • পুষ্টিকর খাবারগুলি খান এবং আপনার ডায়েটে প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবারগুলি যুক্ত করুন কারণ এটি আপনার গর্ভস্থ শিশুকে আরাম পেতে সহায়তা করে এবং গর্ভের অভ্যন্তরে তার হেঁচকি হ্রাস করতে সহায়তা করে।
  • পর্যাপ্ত জল পান করুন এবং হাইড্রেট থাকুন।মাঝে মধ্যে দেহস্থ তরলের ঘাটতির কারণে গর্ভস্থ শিশুর হেঁচকি উঠে থাকে।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান।
  • গর্ভাবস্থার শেষ পর্যায়ে বাচ্চার পা ছোঁড়ার সংখ্যা এবং সময়সীমা গণনা করুন,এটি আপনার শিশুর অঙ্গ প্রত্যঙ্গের সঞ্চালনা এবং তার বিকাশের অগ্রগতিটিকে নজরের মধ্যে রেখে একটি হিসেবের মধ্যে রাখতে সহায়তা করতে পারে।

কখন আপনার চিন্তা করা উচিত?

যদি আপনার গর্ভস্থ শিশুটির হেঁচকি ওঠা হঠাৎ বেড়ে যাওয়া লক্ষ্য করেন এবং তার জন্য গর্ভের মধ্যে শিশুটির আন্দোলনটিও বেড়ে যাওয়া অনুভব করে থাকেন,তবে এ ব্যাপারে আপনার ডাক্তারের সাথে আলোচনা করা উচিত।আপনার ডাক্তারবাবু আপনার শিশুটির স্বাস্থ্য সম্পর্কে একটা ভাল ধারণা পেতে খুব সম্ভবত আপনাকে একটা আল্ট্রাসাউন্ড করানোর পরামর্শ দিতে পারেন।যতটা আগে আপনি এই লক্ষণগুলি ধরতে পারেন ততটাই ভাল হয়।

গর্ভাবস্থায় আপনার শিশু তার পা ছোড়াছুড়ির মাধ্যমে পদাঘাত করছে কি হেঁচকি তুলছে নাকি অন্য কোনও কিছু করছে সেগুলিকে ভালভাবে বোঝার জন্য তার আন্দোলনগুলির দিকে আপনার গভীর মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন।আপনার বাচ্চার গতিবিধিগুলির উপর যদি আপনার একটা স্বচ্ছ ধারণা থাকে,আপনি এব্যাপারে কম উদ্বিগ্ন হবেন।আপনার গর্ভাবস্থাটি একটা সুষ্ঠুভাবে অগ্রসর হচ্ছে কিনা সেটি নিশ্চিত করার জন্য এ ব্যাপারে নিয়মিত আপনার ডাক্তারের সাথে আলোচনা করা উচিত।আপনার নয় মাসের গর্ভাবস্থা জুড়ে আপনাদের দুজনের জন্যই খুব ভালভাবে যত্ন নেওয়া প্রয়োজন,এতে আপনার বাচ্চাটি নিঃসন্দেহে একজন সুস্থ, স্বাস্থ্যকর এবং সুখী শিশু হয়ে উঠবে।