ভারতবর্ষে শিশু দত্তকঃ নিয়মকানুন,প্রক্রিয়া এবং আইন

ভারতবর্ষে শিশু দত্তক

ভারত তথা সমগ্র বিশ্বে শিশু দত্তক নেওয়াকে একটি বর্ধিত প্রবণতা হিসেবে দেখা যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে শিশু দত্তক নেওয়া হয়ে থাকে হয় অভিভাবক দম্পতিরা তাদের নিজেদের সন্তান ধারণে সক্ষম না হওয়ার কারণে অথবা তারা সমর্থন করতে চায় এবং নতুন একটি জীবন দান করতে চায় সেই শিশুটিকে যে এই বিরাট পৃথিবীতে সম্পূর্ণ রূপে একা।পূর্বে ভারতবর্ষে এটি নিষিদ্ধ হিসেবে বিবেচিত ছিল,তবে বর্তমানে ভারতীয় সমাজে দত্তক গ্রহণ বিষয়টি অবাধে বিবেচনা করা হয় এবং কথিত হয়।

aniview

ভারতবর্ষের মত বিশ্বের অন্যান্য বহু দেশে এমন কিছু নিয়ম কানুন,বিধি নিষেধ রয়েছে যা একটি শিশু দত্তক গ্রহণের ক্ষেত্রে পরিচালনা করা হয়।

ভারতে একটি শিশু দত্তক নেওয়ার উপযুক্ত কে বা কারা হতে পারেন?

ভারতবর্ষে দত্তক নেওয়া প্রক্রিয়াটি কেন্দ্রীয় দত্তক সম্পদ কর্তৃপক্ষ (CARA) দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়,যেটি হল দেশ এবং অন্তর্দেশীয় গ্রহণের উপর নজরদারী ও নিয়ন্ত্রণের জন্য নোডাল এজেন্সি এবং মহিলা ও শিশু যত্ন মন্ত্রকের একটি অংশ।একটি শিশুকে দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্য হওয়ার জন্য দত্তক নেওয়া মাতা-পিতার সন্তুষ্ট হওয়া দরকার এমন কিছু মৌলিক শর্তাদিগুলি নিচে দেওয়া হল:

  • একটি ভারতীয় শিশুকে একজন ভারতীয় নাগরিক,NRI বা অনাবাসী ভারতীয় অথবা একজন বিদেশী নাগরিক দত্তক নিতে পারেন।এই তিন ক্ষেত্রেই দত্তক গ্রহণের প্রক্রিয়াটি পৃথক হয়ে থাকে।
  • যে কোনও ব্যক্তি তাদের লিঙ্গ বা বৈবাহিক অবস্থান নির্বিশেষে সন্তান দত্তক নেওয়ার জন্য যোগ্য।
  • যদি কোনও দম্পতি সন্তান দত্তক নিতে চান তবে সেক্ষেত্রে তাদের স্থিতিশীল বিবাহের অন্ততপক্ষে দু’বছর সম্পূর্ণ হওয়া উচিত এবং সন্তান দত্তক গ্রহণের ক্ষেত্রে তাদের যৌথ সম্মতি থাকা দরকার।
  • শিশু এবং দত্তক নেওয়া পিতা-মাতার বয়সের মধ্যে পার্থক্য কখনই 25 বছরের কম হওয়া উচিত নয়।

দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে একটি শিশু কখন যোগ্য হতে পারে?

  • ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশিকা অনুসারে,যেকোনও অনাথ,পরিত্যক্ত অথবা ত্যাজ্য শিশু যারা শিশু কল্যাণ কমিটি কর্তৃক দত্তক নেওয়ার জন্য আইনত মুক্ত বলে ঘোষিত তারাই দত্তক গ্রহণের জন্য যোগ্য।
  • একটি শিশুকে তখনই অনাথ বলা হয়ে থাকে যখন শিশুটির কোনও আইনত পিতা-মাতা বা অভিভাবক থাকে না অথবা মা-বাবারা আর তাদের সন্তানটির যত্ন নেওয়া,দেখাশুনা করার ক্ষেত্রে সমর্থ হন না।
  • একটি শিশু পরিত্যক্ত বলে বিবেচিত হয় তার পিতা-মাতা বা অভিভাবক দ্বারা পরিত্যক্ত অথবা তাদের সংসর্গ ছাড়া থাকার কারণে এবং শিশু কল্যাণ কমিটি শিশুটিকে পরিত্যক্ত বলে ঘোষণা করে থাকলে সেই শিশুটি দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্য বলে বিবেচিত।
  • একটি ত্যাজ্য শিশু হল সেই শ্রেণীভুক্ত একজন যে কিনা শারীরিক,সামাজিক এবং সংবেদনশীল কারণগুলির জন্য পরিত্যক্ত যা তাদের পিতা-মাতা অথবা অভিভাবকদেরও নিয়ন্ত্রণের বাইরে এবং সেই কারণে তারা শিশু কল্যাণ কমিটির দ্বারা একটি ত্যাজ্য শিশু হিসেবে ঘোষিত।
  • দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও শিশুকে “আইনী মুক্ত” করা প্রয়োজন।একটি পরিত্যক্ত শিশুকে পাওয়ার পরে জেলা শিশু সুরক্ষা ইউনিট শিশুটির একটি ছবি সহযোগে যাবতীয় নথির বিশদ রাজ্য ব্যাপী সংবাদপত্রগুলিতে ছাপানোর মাধ্যমে একটি সতর্কতা নোটিস জারী করে এবং স্থানীয় পুলিশের কাছে তার বাবা-মায়ের খোঁজ করার জন্য একটি অনুরোধ পত্র জমা দেয়।এক্ষেত্রে শিশুটি দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে আইনত মুক্ত কেবল তখনই হয় যখন পুলিশ একটি প্রতিবেদনে বিবৃতি দেন যে শিশুটির মা-বাবাকে শণাক্ত করা যায়নি।

এক্ষেত্রে মা-বাবার দ্বারা পূর্ণ করা সাধারণ শর্তগুলি কি?

CARA দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যাশিত মা-বাবার একটি শিশুকে দত্তক নেওয়ার জন্য সক্ষম হয়ে উঠতে তাদের যোগ্যতার মানদণ্ডকে সংজ্ঞায়িত করেছে।সেগুলি হল নিম্নরূপঃ

  • দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে সম্ভাব্য পিতা মাতাদের শারিরীক,আবেগীয় এবং মানসিকভাবে স্থিতিশীল হওয়া দরকার।
  • তাদের আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হওয়া প্রয়োজন।
  • প্রত্যাশিত সম্ভাব্য মা-বাবকে জীবনহানিকর কোনও রোগে ভোগা চলবে না।
  • বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুর ক্ষেত্র ব্যতীত তিন বা তার বেশি সন্তান থাকা দম্পতিরা দত্তক গ্রহণের ক্ষেত্রে বিবেচ্য নন।
  • একজন একক মহিলা যেকোনও লিঙ্গের শিশুকেই দত্তক নিতে পারেন তবে একজন একক পুরুষ একটি কন্যা শিশুকে দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে বিবেচিত নন।
  • একজন একক অভিভাবক দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে কখনই 55 উর্দ্ধ বয়সী হতে পারেন না।
  • একটি দম্পতির বয়স 110 বছরের বেশি আর হতে পারে না।
  • শিশু দত্তক গ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশনের সময় অভিভাবকের যোগ্য বয়স CARA নির্দেশিকা অনুযায়ী হওয়া উচিত।

ভারতে কীভাবে একটি শিশু দত্তক নিতে হয়?

ভারতবর্ষে শিশু দত্তক নেওয়ার প্রক্রিয়াটি একাধিক আইন এবং বিধিনিষেধ দ্বারা পরিচালিত হয় এবং এর সাথে একইভাবে কেন্দ্রীয় দত্তক সম্পদ কর্তৃপক্ষ এই বিষয়গুলি তত্ত্বাবধান করে।

ভারতে কীভাবে একটি শিশু দত্তক নিতে হয়?

ভারতে একটি শিশু দত্তক নেওয়ার পদ্ধতিটি নিম্নলিখিত পর্যায়গুলির দ্বারা বোঝা যেতে পারে।

পর্যায় 1-রেজিস্ট্রেশন বা নিবন্ধীকরণ

সম্ভাব্য দত্তক গ্রহণকারী মা-বাবাদের একটি অনুমোদিত সংস্থার সাথে নিবন্ধিত হওয়া প্রয়োজন।স্বীকৃত ইন্ডিয়ান প্লেসমেন্ট এজেন্সিগুলি(RIPA)এবং স্পেশাল অ্যাডপশন এজেন্সি(SPA)হল এমন কিছু এজেন্সি যারা ভারতে এই জাতীয় নিবন্ধকরণ করার অনুমতি বা ছাড়পত্র দিয়ে থাকে।সম্ভাব্য দত্তক নেওয়া অভিভাবকরা তাদের এলাকার দত্তক সমন্বয় সংস্থাটি দেখতে যেতে পারেন যেখানে আপনাকে কোনও একজন সমাজকর্মী দত্তক গ্রহণ প্রক্রিয়াটির ব্যাখ্যা করবেন এবং আপনাকে রেজিস্ট্রেশনের জন্য প্রয়োজনীয় নিয়মকানুনতা,খাতা-কলমে কাগজপত্রগুলি প্রস্তুত করা এবং সাধারণ প্রস্তুতির মত রীতিনীতিগুলি অনুসরণের মাধ্যমে যথাযথ পথে পরিচালিত করতে সহায়তা করবেন।

পর্যায় 2- হোম স্টাডি এবং কাউন্সিলিং

দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে সম্ভাব্য মা-বাবার বাড়িতে রেজিস্ট্রেশন সংস্থার একজন সমাজকর্মী একটি হোম স্টাডি করার জন্য একটি পরিদর্শন করতে যাবেন।দত্তক নেওয়ার প্রতি সম্ভাব্য পিতামাতার অনুপ্রেরণা,প্রস্তুতি,সক্ষমতা এবং দুর্বলতাগুলিকে বোঝার জন্য সংস্থাটি হয়ত সম্ভাব্য মা-বাবাকে একটি কাউন্সেলিং সেশনে অংশগ্রহণ করানোর প্রয়োজনবোধ করতে পারে।CARA এর নিয়মানুসারে,নিবন্ধকরণ বা রেজিস্ট্রেশনের তারিখ থেকে 3 মাসের মধ্যে এই হোম স্টাডিটি সম্পন্ন করতে হবে।

পর্যায় 3- শিশুকে অর্পণ করা

দত্তকনেওয়ারক্ষেত্রে কোনওশিশুযখন জন্যপ্রস্তুতথাকেতখনসংস্থা থেকেআগ্রহীদম্পতিকেজানাবে।সংস্থাটিএইদম্পতিরসাথেচিকিৎসা সংক্রান্তপ্রতিবেদন,শারীরিকপরীক্ষাররিপোর্টএবংঅন্যান্যপ্রাসঙ্গিকতথ্যভাগকরবেএবংএই ভাগ করে নেওয়া বিবরণের সাথে তারা একবারস্বাচ্ছন্দ্যবোধকরলেসংস্থা শিশুটির সাথে তাদের সময়কাটাতেদেবে।

পর্যায় 4 – সন্তানের গ্রহণযোগ্যতা

মা-বাবা সন্তানের সাথে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করলে তাদের সন্তানের গ্রহণযোগ্যতা সংক্রান্ত কয়েকটি নথিতে স্বাক্ষর করতে হবে।

পর্যায় 5- আবেদনপত্র পূরণ

সমস্ত প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র একজন আইনজীবীর কাছে জমা দেওয়া হয় যিনি আদালতে উপস্থাপনের জন্য একটি আবেদনপত্র প্রস্তুত করেন। একবার আবেদনপত্রটি তৈরী হয়ে গেলে,দত্তক নেওয়ার জন্য প্রস্তুত মা-বাবাকে আদালতে যেতে হবে এবং আদালতের আধিকারিকের সামনে এই আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করতে হবে।

পর্যায় 6- দত্তক নেওয়ার পূর্বে লালন পালন সংক্রান্ত যত্ন নেওয়া

আদালতে আবেদনপত্রে স্বাক্ষর করা হয়ে গেলে দত্তক নেওয়া মা-বাবা তাদের শিশুটিকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার আগে একটি দত্তক নেওয়ার পূর্বে লালন পালনের যত্ন নেওয়ার কেন্দ্রে (প্রি-অ্যাডপশন ফস্টার কেয়ার সেন্টার) নিয়ে যেতে পারেন সেখানকার একজন নার্সিং স্টাফের থেকে শিশুটির স্বভাব এবং অভ্যাসগুলিকে বুঝে নেওয়ার জন্য।

পর্যায় 7- আদালতে শুনানি

আদালতে শুনানির দিন বাবা-মাকে তাদের শিশুকে নিয়ে হাজির হতে হবে।শুনানিটি একটি বন্ধ ঘরে একজন বিচারকের সাথে হয়।বিচারক আপনাকে কয়েকটি প্রশ্ন করতে পারেন এবং শিশুটির নামে যে পরিমাণে অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে তার উল্লেখ করবেন।

পর্যায় 8- আদালতের নির্দেশ

তৈরী করা বিনিয়োগের রসিদটি দেখার পর বিচারক দত্তক গ্রহণের আদেশটিকে পাস করবেন।

পর্যায় 9- অনুসরণযোগ্য প্রতিবেদন জমা দেওয়া

দত্তক গ্রহণের প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হওয়ার পর সংস্থাটি শিশুটির সুস্থতার বিষয়ে আদালতে একটি অনুসরণযোগ্য বিবৃতি বা প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আর্জি জানাবে।এটি 1-2 বছর ধরে চলতে পারে।

অনুসরণযোগ্য প্রতিবেদন জমা দেওয়া

মা-বাবারা কি কোনও একটি নির্দিষ্ট শিশু চাওয়ার আর্জি জানাতে পারেন?

সম্ভাব্য বাবা-মায়েরা দত্তক গ্রহণের ক্ষেত্রে কোনও একটি নির্দিষ্ট শিশুর আর্জি করতে পারেন না,সুতরাং আপনি যদি শুধুমাত্র নবজাত শিশুর সন্ধান করেন সেটি সম্পূর্ণরূপে সম্ভবপর নাও হতে পারে।তবে তারা যে সকল পছন্দগুলির উপর অগ্রাধিকার দিতে পারেন সেগুলির মধ্যে অন্তর্ভূক্ত হতে পারেঃ

  • বয়স
  • শিশুর লিঙ্গ
  • ত্বকের বর্ণ
  • স্বাস্থের অবস্থা(পিতামাতারা কোনও শারীরিক বা মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুকে দত্তক নিতে চান কিনা তা উল্লেখ করতে পারেন)
  • ধর্ম

কোনও ক্ষেত্রে আপনার পছন্দগুলি যদি নির্দিষ্ট করা থাকে,তবে সেক্ষেত্রে আপনার পছন্দানুযায়ী বাচ্চার সাথে মিলতে কিছুটা বেশি সময়ও লাগতে পারে কারণ উপলব্ধ শিশুদের দত্তক গ্রহণের ক্ষেত্রে আপনার সকল শর্ত সবসময় নাও মিলতে পারে।

ভারতে প্রশাসনিকভাবে দত্তক গ্রহণের আইনগুলি

ভারতে দত্তক গ্রহণের আইনটি পৃথক ধর্মের ব্যক্তিগত আইনের সহিত সংযুক্ত রয়েছে এবং সেই কারণে দেশের মুসলমান, খ্রিস্টান, পার্সী এবং ইহুদিদের ব্যক্তিগত আইন অনুযায়ী দত্তক গ্রহণের অনুমতি নেই। যাইহোক,তবে আদালতের অনুমোদনের সাপেক্ষে অভিভাবক এবং তত্ত্বাবধান আইন, ১৮৯০ এর অধীনে অনাথ আশ্রম থেকে একটি শিশু দত্তক নেওয়া যেতে পারে। এই ক্ষেত্রে, দত্তক দম্পতি দত্তক নেওয়া শিশুটির একজন অভিভাবক হয়ে থাকেন,তার বাবা-মা নয়। এই আইনের আওতায় খ্রিস্টানরা কেবলমাত্র লালনপালন এবং যত্নের অধীনে একটি শিশুকে গ্রহণ করতে পারে এবং পালিত শিশুটি বড় হয়ে ওঠার সাথে তার অভিভাবকদের থেকে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে মুক্ত হতে পারে।

ভারতীয় নাগরিকের মধ্যে যারা হিন্দু,জৈন,বৌদ্ধ অথবা শিখ সম্প্রদায়ভুক্ত,তারা একটি শিশুকে আনুষ্ঠানিকভাবে দত্তক গ্রহণ করতে পারে এবং দত্তক গ্রহণটি হিন্দু দত্তক গ্রহণ ও রক্ষণাবেক্ষণ আইন, 1956 অনুসারে বিধিবদ্ধকরণ হয়েছিল যা হিন্দু আইনের নিয়মাবলীর বিলের অংশ হিসাবে প্রণীত হয়েছিল।

তাজ্য,পরিত্যক্ত অথবা নির্যাতিত শিশুদের দত্তক গ্রহণ জুভেনাইল জাস্টিস(শিশুদের যত্ন এবং সুরক্ষা প্রদান করে)আইন,2015 দ্বারা নিয়ন্ত্রিত।

বর্তমানে,এমন কোনও নির্দিষ্ট আইন নেই যা বিদেশী নাগরিক বা প্রবাসী ভারতীয়দের দ্বারা ভারতে শিশুদের দত্তক গ্রহণ নিয়ন্ত্রণ করে তবে এটি শিশুদের দত্তক গ্রহণ পরিচালনার নির্দেশিকাবলী ,2015-এর অধীনে পরিচালিত হয়ে থাকে। আন্তঃদেশীয় দত্তক নেওয়ার জন্য কোনও বাস্তব আইনের অনুপস্থিতিতে, অভিভাবক ও তত্ত্বাবধায়ক আইন, 1890 দ্বারা নির্ধারিত পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করা হয়।

একটি শিশু দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে কি কি নথিপত্রের প্রয়োজন হয়?

দত্তক গ্রহণ প্রক্রিয়াটি প্রস্তুতের জন্য প্রয়োজন নিম্নলিখিত তালিকাভুক্ত নথিগুলিঃ

  • দত্তক গ্রহণের আবেদনপত্র
  • 4×6 মাপের ছবি- 4 কপি স্বামী-স্ত্রী উভয়ের একসাথে।
  • বিবাহের শংসাপত্র এবং বয়সের প্রমাণপত্র
  • দত্তক গ্রহণের কারণ
  • দম্পতির HIV এবং হেপাটাইটিস B এর নথি
  • আয় শংসাপত্র
  • বসবাসের প্রমাণপত্র
  • বিনিয়োগের বিশদ বিবরণ
  • 3 জন ব্যক্তির রেফারেন্স লেটার
  • এছাড়াও সংস্থা অথবা আদালতে প্রয়োজন হতে পারে এমন যেকোনও প্রমাণপত্র

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

১. ভারতেদত্তকগ্রহণেরপদ্ধতিগুলিকিএকরাজ্যেরথেকেঅন্যরাজ্যেপৃথক হয়ে থাকে?

যদিও সমগ্র ভারতবর্ষ জুড়ে দত্তক গ্রহণের আইনটি একইভাবে প্রচলিত,তবে সেক্ষেত্রে কিছু বিশেষ দত্তক গ্রহণের নির্দেশিকাবলী এবং কাগজপত্রের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে যা হয়ত এক রাজ্য থেকে অপর রাজ্যে পৃথক হয়ে থাকতে পারে।

২. একটি শিশু দত্তক নেওয়ার ক্ষেত্রে কি একটি নূন্যতম আয়ের প্রয়োজন আছে?

CARA (কেন্দ্রীয় দত্তক সম্পদ কর্তৃপক্ষ)অনুযায়ী,একটি শিশু দত্তক গ্রহণে সমর্থ হওয়ার ক্ষেত্রে আপনার গড় আয় নূন্যতম 3000 টাকা হওয়া প্রয়োজন।আপনার যদি নিজস্ব বাড়ি বা জোরালোভাবে সমর্থনযোগ্য ব্যবস্থার মতো আরও কিছু অন্যান্য সম্পদ থাকে তবে সেক্ষেত্রে কম আয়ের বিষয়টি বিবেচনা করা যেতে পারে।

৩.আমার যদি ইতিমধ্যেই একটি শিশু থেকে থাকে সে ক্ষেত্রে আমি কি আর একটি শিশুকে দত্তক গ্রহণ করতে পারি?

হ্যাঁ,আপনি তা পারেন।তবে হিন্দু দত্তক ও রক্ষণাবেক্ষণ আইনের অধীনে,আপনি কেবল আপনার শিশুটির বিপরীত লিঙ্গের একটি শিশুকেই দত্তক নিতে পারেন।অভিভাবক এবং ত্তত্বাবধায়ক আইন এবং জুভেলিন জাস্টাসিস আইনে এরকম কোনও কঠোর শর্ত আরোপিত নেই।যে শিশুটিকে আপনি দত্তক নিতে চান সে যদি এই বিষয়টিতে তার মতামত জানানোর মত যথেষ্ট বয়সী হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে তার লিখিত মতামত নেওয়া হবে।

আমার যদি ইতিমধ্যেই একটি শিশু থেকে থাকে সে ক্ষেত্রে আমি কি আর একটি শিশুকে দত্তক গ্রহণ করতে পারি?

৪. কোনও ব্যক্তি একটি শিশু দত্তক নেওয়ার জন্য আবেদনপত্রের স্ট্যাটাস কোথায় পাবেন?

আবেদনপত্রগুলি অনুসরণ করার জন্য যদিও কোনও কেন্দ্রীয় ডাটাবেস নেই,তবে আপনি নিজের আবেদনের স্থিতির জন্য সর্বদা ACA এর সহিত যোগাযোগ বজায় রাখতে পারেন।

৫. আপনাকে দেখানো শিশুটির স্বাস্থ্য সম্পর্কে কীভাবে অবগত হবেন?

শিশুটির সামগ্রিক স্বাস্থ্যের ব্যাপারে ভালভাবে বুঝে নেওয়ার জন্য ডাক্তারের দ্বারা তার একটি সাধারণ পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার অধিকার আপনার আছে।তবে সেক্ষেত্রে যদি কোনও গুরুতর চিকিৎসাগত অবস্থার ইঙ্গিত দেখা যায় তবে শুধুমাত্র সেই ক্ষেত্রেই
শরীরের অভ্যন্তরে কোন কিছু প্রবেশ করিয়ে যে পরীক্ষাগুলি করা হয় সেগুলি করানো উচিত।