মৌখিক গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল

মৌখিক গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল

In this Article

মৌখিক গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল

গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল মহিলাদের ওষুধ রূপে সেবনের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়, যা ঋতুচক্র অনুযায়ী গ্রহণ করতে হয় এবং যা অপ্রত্যাশিত গর্ভধারণ রোধে সাহায্য করে। বৈজ্ঞানিক অগ্রগতি গর্ভনিরোধক বড়িগুলির বা পিলগুলো ব্যবহার পদ্ধতিকে কার্যকরি, নিরাপদ এবং সাশ্রয়ী করেছে জন্ম নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে।

aniview

জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়িগুলো বা পিলগুলো কি?

জন্ম নিয়ন্ত্রণ বড়ি হল গর্ভনিরোধের জন্য প্রযোজ্য বড়ি (মৌখিক গর্ভনিরোধক বড়ি বা OCPs নামেও পরিচিত),যেগুলিতে মহিলাজাত হরমোন যেমন-ইস্ট্রোজেন, প্রোজেস্টেরন অথবা দুটোই নির্দিষ্ট মাত্রায় সমন্নিত থাকে। এই বড়িগুলি প্রতি ঋতুচক্রের সময় হরমোনের নিয়ন্ত্রণ মাত্রাকে নিপুণভাবে ব্যবহার করে ওভুলেশন প্রতিরোধে এবং সেই কারণে গর্ভাবস্থাও প্রতিহত হয়।

গর্ভনিরোধক বড়ির বা পিলগু্লোর ধরণ

হরমোনাল গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল বিভিন্ন রূপে এখন বানিজ্যিক ভাবে সহজলভ্য। বেশীর ভাগ ট্যাবলেটে হয় শুধুমাত্র প্রোজেস্টিন (প্রোজেস্টেরন) অথবা ইস্ট্রোজেনের সাথে নির্দিষ্ট মাত্রায় প্রোজেস্টিনের সমন্নিত অবস্থায় যুক্ত থাকে।

1.প্রোজেস্টিন-অনলি পিলস বা শুধুমাত্র প্রোজেস্টিন যুক্ত বড়ি বা পিল

প্রোজেস্টিন অনলি পিলস অথবা POP তে শুধুমাত্র প্রোজেস্টিন সমৃদ্ধ থাকে(যেটি মানুষের প্রাকৃতিক হরমোন প্রোজেস্টেরনের অনুরূপ কৃত্রিম হরমোনের রূপ) এবং তাতে ইস্ট্রোজেনের কোন উপাদান থাকে না।এই POP খাওয়া প্রয়োজন স্বাভাবিক ঋতুচক্রের প্রত্যেকদিন। স্বাভাবিক ঋতুচক্র চলে 28 দিন পর্যন্ত,এই পিল বা বড়িগুলি পাওয়া যায় 28 টি ট্যাবলেটের ব্লিস্টার প্যাকে।অন্যান্য সূত্রের মত নয়,এক্ষেত্রে সর্বোত্তম ফলাফল পাওয়ার জন্য এই ট্যাবলেট গুলি নিয়মিত বা দৈনিক ভিত্তিতে গ্রহণ করতে হবে।প্রাপ্ত নির্দেশানুযায়ী, এই ব্লিস্টার প্যাকের পিল খাওয়া শুরুর পর থেকে পরবর্তী আনুমানিক পিরিয়ডের সময়কাল 28 দিন পর্যন্ত নিয়িমিত ভাবে আপনার পিল বা বড়ি গ্রহণ করা উচিত। প্রাথমিক কিছু মাসে আপনি অনিয়মিত ঋতুচক্র বা অস্বাভাবিক স্পটিং ভোগ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ডাক্তারের সাথে এবিষয়ে আলোচনা করুন। P O P এ ইস্ট্রোজেন না থাকার কারণে এগুলির কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে, যেমন ওজন বৃদ্ধি ইত্যাদি।

2.কম্বিনেশন পিল বা সম্মিলিত বড়ি

কম্বিনেশন পিল-এ প্রোজেস্টিনের পাশাপাশি ইস্ট্রোজেনও সমৃদ্ধ থাকে।

এই বড়ি গুলিকে পুনরায় বিভক্ত করা হয় প্রোজেস্টিন হরমোনের মাত্রা এবং অনুপাতের উপর নির্ভর করে, সেগুলি নিম্নরূপ।

  • মোনো-ফ্যাসিকপিল: ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিনের ডোজ নির্দিষ্ট মাত্রায় থাকে।
  • বাই-ফেসিকপিল: ইস্ট্রোজেনের মাত্রা নির্দিষ্ট থাকে, যখন প্রোজেস্টিনের ডোজ পুরো চক্র জুড়ে অর্ধেক বৃদ্ধি করা হয়।
  • ট্রাই-ফেসিকপিল: তিনটি বিভিন্ন ডোজের ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিন যেগুলি প্রতি সাতদিনে পরিবর্তন করা হয়।
  • ফোর-ফেসিকপিল: 28 দিনের কোর্সে চারটি বিভিন্ন ডোজের ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিন দেওয়া থাকে।
  • নাইন্টি-ওয়ান ডে পিল: 84 দিনের জন্য নির্দিষ্ট ডোজের ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টিন দেওয়া থাকে।

এই পিল বা বড়িগুলি পাওয়া যায় 28 অথবা 21 দিনের ব্লিস্টার প্যাকে। অন্যান্য সূত্রের মতো এই সমন্নিত বড়ি গুলি শুরু করা হয় মাসিক সময়ের প্রথম থেকে এবং যা চালু রাখা হয় আপনার পরবর্তী চক্র পর্যন্ত। 21 দিনের ব্লিস্টার প্যাকের একমাত্র পার্থক্য হল শুধুমাত্র প্রথম 21 টি ট্যাবলেটে হরমোন গুলি কার্যকরি থাকে,যখন শেষের 7 টি ট্যাবলেট হল কোনো রকম কার্যকরি ওষুধ ছাড়াই ‘ডাম্মি’ ট্যাবলেট।এই 7 টি ফাকা ট্যাবলেট দেওয়ার উদ্দেশ্য হল আপনাকে নিয়মিত বড়ি বা পিল নেওয়ার অভ্যাসের মধ্যে রাখা এবং তার পাশাপাশি পিল মুক্ত রাখাও, ইস্ট্রোজেনের অপ্রত্যাশিত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলি হ্রাস করার জন্য।নির্দেশানুযায়ী ঠিক সময় মেনে এগুলি গ্রহণ করুন,প্রতিটা ব্লিস্টার প্যাক আপনার মাসিক চক্রের 28 দিন পর্যন্ত চলা উচিত,এবং এই কোর্সটি চলার শেষ সপ্তাহেই আপনার আনুমানিক মাসিক ফিরে পাওয়ার কথা, যখন আপনি এই ‘ডাম্মি ‘ট্যাবলেট গুলি গ্রহণ করেন।

গর্ভনিরোধক বড়ি বা (O P C) খাওয়ার সাথে সংশ্লিষ্ট থাকে অনিয়মিত ঋতুস্রাব,আশানুরূপ সময়ানুযায়ী আপনার মাসিক নাও হতে পারে,সেক্ষেত্রে আপনার স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে আলোচনা করুন সৌজন্য বোধের সাথে।কিছু মহিলার আবার অনবরত ভাবে যৎসামান্য স্পটিং হতে আপনি লক্ষ্য করতে পারেন যখন তারা OCP গুলি সেবন করেন।

3.জরুরী গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিল

এই পিল বা বড়িগুলিতে থাকে কম ডোজের লিভো-নরজেস্টেরল (ইস্ট্রোজেনের অনুরূপ একটি উদাহরণ) এবং এটি গ্রহণ করার অনুমতি দেওয়া হয় অসুরক্ষিত সঙ্গম করার 72 ঘন্টার মধ্যে গর্ভধারণ রোধের জন্য।

বড়ির বা পিলগুলোর ধরণ নির্বাচনের সিদ্ধান্ত

আপনার শারীরিক পরিমিতি এবং হরমোনের বা মাসিক প্রতিক্রিয়ার উপর নির্ভর করে আপনার স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ আপনাকে হয় কম্বিনেশন পিল অথবা প্রোজেস্টিন অনলি পিলের কোর্সটি শুরু করাতে পারেন। এই বিভিন্ন ধরণের পিলের উপাদানের প্রতিক্রিয়ার বিষয় গুলি নির্ভর করে বিভিন্ন মহিলার উপর, এবং সকল সর্বোত্তম ঔষধ সরঞ্জামের মধ্যে কোন ধরণের OCP আপনার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত সেটি বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বড়ির বা পিলগুলোর ধরণ নির্বাচনের সিদ্ধান্ত
জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি বা পিলগুলো কতটা নিরাপদ?

ডাক্তারবাবু ওষুধের ডোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে দেন।সাধারণত বেশীর ভাগ মহিলাদের জন্যই খাওয়ার জন্মনিরোধক বড়িগুলি নিরাপদ হয়, যেহেতু এগুলিতে কোনো ঔষধের উত্তেজিত শর্তাবলী থাকে না অথবা দীর্ঘ সময় ব্যাপী চালু রাখতে হয় না।যাইহোক, এক্ষেত্রে এমন কিছু শর্ত থাকে যেখানে আপনার ডাক্তারবাবু পিলের ডোজের পরিমাণ নির্ধারণ করে দিতে পারেন অথবা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এবং ওষুধে-ওষুধে মিথোস্ক্রিয়া এড়িয়ে যাওয়ার জন্য গর্ভনিরোধের অন্য পদ্ধতি ব্যবহারের পরামর্শ দিতে পারেন।

নিচে এমন কিছু শর্তাবলী এবং চিকিৎসাগত তালিকা দেওয়া হল যেগুলির ক্ষেত্রে আপনাকে OCP এড়িয়ে যেতে হতে পারে।

  • গর্ভাবস্থায় এবং প্রসবের পরের প্রথম কয়েক সপ্তাহে।গর্ভাবস্থা নিজেই গর্ভনিরোধের একটি প্রাকৃতিক পদ্ধতি, সুতরাং আপনি যদি গর্ভবতী হন, সেখানে আপনার শরীরে অন্য সন্তানধারণের কোন পথই নেই এবং তাই সেক্ষেত্রে আপনার কোনো গর্ভনিরোধক বড়ির প্রয়োজন হয় না।প্রসবের প্রথম 4-6 সপ্তাহ যখন আপনি চূড়ান্ত ভাবে বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়াতে থাকেন সেই সময়ে OCP এড়িয়ে যাওয়া সবচেয়ে ভালো।
  • পূর্ব বিদ্যমান কার্ডিয়াক সমস্যা যেমন-করোনারী ডিসিজ,হার্টফেল অথবা ভাল্ভের সমস্যার কোনো পূর্ব ইতিহাস থাকলে।
  • লম্বা হাড়ের ভাঙন,মাঝারি মানের স্থূলতা,স্ট্রোক বা বিছানায় শয্যাশায়ী অবস্থায়,নিম্নাঙ্গের ভেনাস থ্রম্বোসিস হলে।
  • বংশগত সমস্যা থাকলে
  • একটানা দাঁড়িয়ে থাকা বা জটিল উচ্চরক্তচাপ অথবা ডায়াবেটিস মেলিটাস হলে
  • যোগকলার বিভিন্ন রোগ যেমন-সিস্টেমিক লুপ্স এরিথ্রোমাইটোসাস থাকলে
  • হেপাটিক অথবা লিভারের সমস্যায়,দীর্ঘকালীন ধরে চলে আসা লিভারের অসুখ থাকলে
  • সেসব রোগীর ক্ষেত্রে যারা দীর্ঘকালীন ওয়ারফারিনে ভুগছেন অথবা মৃগী রোগের ওষুধ খাচ্ছেন।

কখন থেকে আপনি বড়ি বা পিলগুলো গ্রহণ করা শুরু করবেন?

প্রসবের পরে,কোয়াগুলেশন (জমাটবাঁধা) সিস্টেমটি তখনও অতিরিক্ত কার্যকারি থাকে (প্রো-থম্বোটিক এবং প্রো-অ্যাথিরোজেনিক),এটি পরামর্শ দেওয়া হয় OCP চালু করার আগে কয়েক সপ্তাহ জুড়ে অপেক্ষা করতে যেকোনো থ্রম্বো-এম্বোলিক সমস্যাকে এড়িয়ে চলার জন্য।

আপনি বেছে নিতে পারেন হয় যৌনসঙ্গম পরিহার অথবা গর্ভনিরোধের অন্য কোন পদ্ধতি যেমন এই সময়ে কন্ডোমের ব্যবহার।একবার আপনার ঋতুস্রাব পুনরায় শুরু হয়ে গেলে, এটি নিশ্চিত যে আপনি এখনও গর্ভবতী হননি (যদি আপনি এর মধ্যে অসুরক্ষিত সঙ্গম করে থাকেন) এবং আপনি গর্ভধারণের পূর্বে ব্যবহারের জন্য ওভুলেটের জন্যও প্রস্তুত। এখন আপনার মাসিকের প্রথম দিনে গর্ভনিরোধক বড়ি খাওয়াও নিরাপদ হবে।OCP গ্রহণের প্রথম দিন থেকেই সেটি গর্ভনিরোধের জন্য কার্যকরি হয়ে ওঠে না,তাই পরামর্শ দেওয়া হয় OCP শুরু করার পরে প্রথম কিছুদিন বা সপ্তাহ গর্ভধারণে বাঁধা সৃষ্টির জন্য অতিরিক্ত কোন বিকল্প পরিকল্পনা বজায় রাখতে।

আপনার কি কোনো অতিরিক্ত বিকল্প পদ্ধতির প্রয়োজন আছে?

গর্ভাবস্থার বিরুদ্ধে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে, গর্ভনিরোধক বড়ি খাওয়া শুরুর অন্তত কম করে প্রথম 7-8 দিন গর্ভনিরোধের সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত অন্য কোনো অতিরিক্ত পদ্ধতি ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়। আপনার সঙ্গী একটি কন্ডোম ব্যবহার করতে পারেন, যার থেকে জন্মনিয়ন্ত্রণে ভালো ফল পাওয়া যায়, এর পাশাপাশি আপনাদের দুজনকেই সুরক্ষা দেয় যৌন বাহিত রোগ সংক্রমণ থেকে। অতিরিক্ত বিকল্প পদ্ধতি ব্যবহার নিশ্চিত ভাবে বিশেষ প্রভাব ফেলে এবং জন্মনিয়ন্ত্রণের সফলতার মাত্রা অনেকখানি বাড়িয়ে তোলে।

গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিলগুলো কীভাবে কাজ করে?

মুখে খাওয়ার জন্ম নিরোধক .বড়ি গুলি মূলত কাজ করে নিম্নোল্লিখিত পদ্ধতিগুলির দ্বারা, হয় একক ভাবে অথবা উভয় ভাবেই।

ওভুলেশন প্রতিরোধ: ওভুলেশন হল মহিলাদের ডিম্বাশয় থেকে পরিণত ডিম্বকোষ বা ডিম্বাণুর অপসারণের প্রক্রিয়া। এটি সাধারণত হয় ঋতুচক্রের 14 তম দিনে।মহিলাদের যোনি অঞ্চলের অভ্যন্তরে পুরুষদের শুক্রাণুর নিজস্ব জীবনি শক্তি থাকে 4 দিন ব্যাপী,যেখানে ডিম্বাণুর জীবনিশক্তি মাত্র 2 দিন।যদি ওভুলেশনের এই সময়কালে অসুরক্ষিত সঙ্গম করা হয়ে থাকে তবে জমায়িত শুক্রাণু পরিণত ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করে।OCP ওভুলেশনকে প্রতিরোধ করে বিভিন্ন হরমোনের যেমন-ইস্ট্রোজেন,প্রোজেস্টেরন-এর নিপূণ ব্যবহার করে, এবং সেই কারণে লিউটিনাইজিং হরমোন(LH) এবং ফলিকল স্টিমুলেটিং হরমোন (FSH) যেগুলি মূলত ওভুলেশনকে নিয়ন্ত্রণ করে সক্রিয় হয়ে ওঠে।

স্পার্মি সাইডের বৈশিষ্ট্য: OCP সার্ভিক্যাল মিউকাসের ঘনত্ব বাড়ায় এবং ওই অঞ্চলে একটি অ্যাসিডিক মাধ্যম তৈরি করে যা, প্রবেশে ক্ষেত্রে এবং মহিলার যোনি অঞ্চলে শুক্রাণুর বেঁচে থাকার ক্ষেত্রে প্রতিকূলতার সৃষ্টি করে।

বড়িগুলি বা পিলগুলো কত দ্রুত কাজ করা শুরু করে?

কম্বিনেশন পিল গুলি শুরু করুন আপনার মাসিকের ঠিক প্রথম দিনে,যা গর্ভাবস্থার বিরুদ্ধে জরুরী প্রতিরোধ ক্রিয়া শুরু করে।যাইহোক,যদি বড়ি গুলি আপনার মাসিকের পাশাপাশি শুরু না হয়, এটা সুরক্ষা দেওয়ার জন্য সাত দিন পর্যন্ত সময় নিতে পারে।এটা পরামর্শ দেওয়া হল,হয় যৌন মিলন থেকে নিজেকে অবদমন করুন না হলে এই সময়কালে সঙ্গম করার সময় কন্ডোম ব্যবহার করতে হবে।

যে সব মহিলারা P O P বা প্রোজেস্টিন অনলি পিল নেওয়া শুরু করেছেন, তাদের উচিত,হয় অপেক্ষা করা অথবা কোনো অতিরিক্ত বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া,যেমন পিল গ্রহণের প্রথম দুদিন কন্ডোম ব্যবহার ভরসাযোগ্য সুরক্ষা প্রদান করে। আবার যদি আপনি একটি P O P ও মিস করেন তবে পরবর্তী পিল গুলি নেওয়ার সঙ্গে দু-দিনের জন্য বাঁধার সৃষ্টি করা সবচেয়ে ভালো উপায়।

কীভাবে জন্মনিয়ন্ত্রক বড়ি বাপিল খেতে হয়

জন্ম নিয়ন্ত্রণ এবং গর্ভনিরোধণ নিয়ে আপনি আপনার সঙ্গীর সাথে আলোচনা করুন এবং আপনার ডাক্তারবাবু আপনাকে সাহায্য করবেন সঠিক গর্ভনিরোধকটি বাছতে।একবার আপনি যখন OCP খাওয়া শুরু করবেন আপনাকে ডাক্তারবাবুর প্রেসকিপশান অনুযয়ী চলতে হবে।আপনি ভাল ভাবে ওষুধের ব্লিস্টার প্যাকে লেখা নিয়মাবলী গুলো ভালভাবে পড়ুন। আপনি সব সময়ে একটা অতিরিক্ত ব্লিস্টার প্যাক, কন্ডোম এবং আপৎকালীন গর্ভনিরোধক পিল সঙ্গে রাখুন।

আপনাকে 21 দিনের না 28 দিনের কোর্স দেওয়া হয়েছে তার ওপর নির্ভর করে আপনি ঋতুস্রাবের প্রথম দিন থেকে গর্ভনিরোধক পিল খাওয়া শুরু করে প্রতিদিন একটা করে টানা খেতে থাকুন। আপনার ঋতুস্রাবের প্রথম 21 দিনের মধ্যে পিলের হরমোন কাজ করা শুরু করে। পরবর্তী 7 টি ট্যাবলেট সাধারণত কোনো কাজ করে না এগুলোতে থাকে সুগার কিছু ক্ষেত্রে সামান্য মাত্রায় প্রোজেস্টেরন।

কীভাবে জন্মনিয়ন্ত্রক বড়ি বাপিল খেতে হয়

এটা অত্যন্ত জরূরী যে প্রতিদিন একই সময়ে আপনাকে ট্যাবলেট খেতে হবে, কতবার সঙ্গম করলেন সেটা ব্যাপার নয়।যদি না আপনার কোন রকম অসুবিধা যেমন- বমি,ডাইরিয়া, অন্যান্য সমস্যাগুলো যেগুলো বলা হয়েছে সেগুলো না হলে কোর্সের মাঝপথে এটা বন্ধ করবেন না তাহলে গর্ভসঞ্চার হয়ে যাবার ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে।

আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিন যদি কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়। আপনি যদি একটা ডোজ নিতে ভুলে যান তবে পরবর্তি ডোজ নেবার আগেই সেটা নিয়ে নিন। আপনি যদি নিয়মিত এবং সঠিক ভাবে OCP র স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন তাহলে কোর্স শুরু করার 28 দিনের মাথায় প্রথম ঋতুস্রাব আশা করতে পারেন।গর্ভধারণের সম্ভবনাকে নস্যাৎ করতে আপনি নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার OCP কাজ করছে যা আপনি পরবর্তি ব্লিস্টার প্যাক শুরু করার সময়েই বুঝতে পারবেন।

কীভাবে পিল আপনার জন্য সবথেকে ভালভাবে কাজ করবে ?

নিয়মিত OCP নেওয়াতে ভুল হয়ে যাওয়া, পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার জন্য কোর্স সম্পূর্ণ না করা, নিয়মিত স্ত্রীরোগ বিশেষঞ্জের পরামর্শ না নেওয়া হল OCP র ব্যার্থতার কয়েকটি কারণ।নিচের বলা ধাপ গুলো মেনে চললে দেখবেন OCP আপনার জন্য ভাল কাজ করছে।

  • অ্যালার্ম সেট করুন বা দিনলিপি রাখুন অথবা কোনো অ্যাপ এর সাহায্য নিন যাতে রোজ নির্দিষ্ট সময়ে পিলটা খাওয়া যায়।
  • আপনার প্রতিদিনের কাজের ব্যাগে বা বাক্সে পিলের বাক্সটি রাখুন
  • আপনার সঙ্গী বা আপনার পরিবারের কাউকে পিল খাবার কথা মনে করিয়ে দিতে বলুন।
  • খুব বেশী চা বা কফি খাবেন না এগুলি ড্রাগের অধিশোষণ কমিয়ে দেয়।
  • কার্যক্ষমতা বাড়ানোর জন্য ধুমপান এবং মদ্যপান কমিয়ে দিন।
  • অন্যান্য দীর্ঘমেয়াদি ওষুধ খাওয়া কমিয়ে দিন ডাক্তারের পরামর্শ মত,যেহেতু OCP অন্যান্য ওষুধের সাথে বিক্রিয়া করে,ফলে OCP র কর্মক্ষ্মতা কমে যায়।
  • আপনার স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়মিত মেনে চলুন।
  • পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নিয়ে বেশী ভাববেন না,আপনার ডাক্তারের পরামর্শ মানলে এবং জীবন যাপনের সামান্য পরিবর্তন করলে তা সহজেই মিটে যাবে।
  • যদিও OCP গুলো 100% কার্যকর নয় তবুও সঙ্গমের সময় কন্ডোম ব্যবহার করলে অনেক বেশী সুরক্ষা (STD থেকে) এবং অনেক বেশী কার্যকর(জন্ম নিয়ন্ত্রনের ক্ষেত্রে) হবে।

বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় কি আপনি পিল ব্যবহার করতে পারেন?

সদ্য মায়েদের জন্য বাধা দানকারী গর্ভনিরোধক যেমন কন্ডোম হল সবথেকে ভাল। বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় হরমোনাল গর্ভনিরোধক ব্যবহার না করাই ভাল। ব্যবহার করতে হলে শুধুমাত্র প্রোজেস্টিন যুক্ত পিল খাওয়া যেতে পারে। ইস্ট্রোজেন মায়ের দুধের পরিমান কমিয়ে দেয়। প্রসবের পর থেকে ছয় সপ্তাহ পর্যন্ত পিল না খাওয়াই ভাল কারণ গর্ভধারণ এবং ইস্ট্রোজেন দুটোই প্রো- থ্রম্বটিক, ফ্অলে নিম্ন উপাঙ্গের শিরা গুলোতে রক্ত জমাট বাধায়।

গর্ভনিরোধক পিলের কার্যকারীতা

গর্ভনিরোধক পিল গুলোর মোটামুটি কর্যকরি ক্ষ্মতা মোটামুটি 97%। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে তার সফলতার হার 91% এর মত।

জন্মনিয়ন্ত্রনের হরমোনাল পিল এর সাথে সাথে আপনার সঙ্গীর সহায়তা,নিয়মিত দেখভাল এবং অবশ্যই আপনার স্ত্রীরোগ বিশেজ্ঞের পরামর্শ সবগুলির প্রয়োজন।

পাশাপাশি অন্য ধরনের গর্ভনিরোধক যেমন কন্ডোম এর ব্যবহার জন্ম গর্ভসঞ্চার রোধ করতে সাহায্য করবে।

সুবিধাগুলি

OCP এর উপকারীতা গুলো নিম্নরূপ

  • প্রত্যাবর্তনযোগ্য – যখন গর্ভধারন করতে ইচ্ছা হবে তখনই OCP বন্ধ করে দেওয়া যায়।ইন্ট্রাটেরিন ডিভাইস (IUD) মত নয়। এটা খুব সহজে প্রত্যাবর্তনযোগ্য গর্ভনিরোধক প্রক্রিয়া।
  • ঋতুচক্রের সুবিধা –OCP রোজ খেলে এটি আপনার ঋতুচক্রের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।(যদিও কিছু ক্ষেত্রে অনিয়মিত ঋতুস্রাব দেখা যায়।
  • কম খরচ এবং সহজ লভ্য – OCP গুলো বর্তমানে বিভিন্ন সরকারী অনুদানের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।
  • ক্যান্সারের সুরক্ষা– OCP ডিম্বাশয় এবং জরায়ুর ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।
  • অস্টিয়পোরেসিসের চিকিৎসা– OCP গুলো হরমোনাল রিপ্লেসমেন্ট থেরাপি (HRP) যা মেনোপজের পরে মহিলাদের অস্টিয়পোরেসিসের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার হয়।

ঝুঁকির বিষয়গুলি

খাওয়ার গর্ভনিরোধকে নিম্নলিখিত বড় ঝুঁকি দেখা যায়।

  • এগুলো যৌন সংক্রামক ব্যাধি বা STD থেকে সুরক্ষা দেয় না।
  • OCP গুলো ওয়ারফ্রিন জাতীয় বিভিন্ন ওষুধের সাথে ক্রিয়া করে।
  • উচ্চরক্তচাপ এবং স্ট্রোকের সম্ভবনা বেড়ে যায়।
  • OCP গুলো সারভাইকাল এবং স্তন ক্যান্সারের সম্ভবনা বাড়িয়ে দেয়।
  • OCP গুলোর তঞ্চনকারী ধর্ম আছে তাই যাদের রক্ত জমাট বাধা (তঞ্চনের) সমস্যা আছে এবং ধুমপায়ীদের ক্ষেত্রে ক্ষতিকর।
  • OCP ডাক্তারের প্রেশক্রিপশান অনুযায়ী প্রতিদিন নিয়ম করে খেতে হয়।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

যখন বেশ কিছু সময় ধরে গর্ভনিরোধক পিল খাওয়া হয় তখন বেশ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়।যদিও এগুলো খুবই সামান্য তবুও কিছু কিছু মহিলার ক্ষেত্রে এটা সহ্য করা কঠিন হয়ে পড়ে।

  • গ্যাস্ট্রাইটিস এবং বমি বমি ভাব
  • দেহের ওজন বেড়ে যায়
  • স্তন ফুলে যায় এবং নরম হয়ে যায়
  • মাঝে মাঝে স্পটিং সহ অনিয়মিত ঋতুস্রাব
  • মেজাজ খারাপ

খাবার গর্ভনিরোধক পিল বিভিন্ন অসুখ যেমন যকৃতের ব্যাধি, হৃদপিন্ডের অসুখ এমনকি স্ট্রোক এর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত।

কঠিন সমস্যা বোঝার লক্ষণ গুলো

নিচের লক্ষণগুলো হল বিপদ সংকেত যা দেখা দিলে আপনি সাথে সাথে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন।

  • প্রচন্ড বুকে যন্ত্রণা
  • ডিস্পেনিয়া বা তীব্র শ্বাসকষ্ট
  • হেমোপ্টিসিস বা থুতুতে রক্ত
  • তলপেটে প্রচন্ড যন্ত্রণা
  • পা অসমভাবে ফুলে যাওয়া, কাফ মাসলে যন্ত্রণা,বা থাই তে যন্ত্রণা।
  • মাইগ্রেন বা তীব্র মাথার যন্ত্রণা যা OCP নেবার সাথে সাথে শুরু হয়েছিল।
  • কথা কেঁপে যাওয়া, চোখে অন্ধকার দেখা, যেকোন একদিকের প্রত্যঙ্গের দুর্বল হয়ে যাওয়া, ঝিমুনি।
  • যকৃতে দুর্বল হয়ে যাওয়া, বমি পাওয়া,ত্বক বা চোখ বা মুত্র হলুদ হয়ে যাওয়া পেটের ডানদিকে বা সাধারণ পেট ব্যাথা।

বিভিন্ন ওষুধ পিলের কার্যক্ষমতা হ্রাস করে

খাওয়ার গর্ভনিরোধকগুলো বিভিন্ন ড্রাগের সাথে বিক্রিয়া করে।আপনার ডাক্তারবাবু আপনাকে এ সম্বন্ধে একটা তালিকা দেবেন যার মধ্যে এই সংক্রান্ত বিভিন্ন ড্রাগ এবং রাসায়নিক আছে।

  • যক্ষা নিবারণকারী ড্রাগ
  • ছত্রাক বিনাশকারী ওষুধ (যেমন গ্রিসিওফ্লুভিন)
  • বারবিউটারনেট এবং অন্যান্য সিডাটিভ
  • অ্যান্টিরেট্রভাইরাল ড্রাগ জিডোভিউডাইন এবং স্ট্যাভুডিন
  • মৃগী রোগের ওষুধ যেমন ফেনিটোন সোডিয়াম

সাধারণত অ্যান্টিবায়োটিক OCP গুলোর সাথে বিক্রিয়া করে না,তাই এটা খাওয়া চলতে পারে।

কি হতে পারে যদি আপনি গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিলগুলো খেতে ভুলে যান?

আপনি যদি পিল খেতে ভুলে যান তবে আপনার অকাল প্রসবের সম্ভবনা থাকবে।কোন ডোজ বাদ গেছে, কটা ডোজ বাদ গেছে, সঙ্গমের সময় কন্ডোম ব্যবহার এর মত অন্যান্য কোনো গর্ভনিরোধক পদ্ধতি নেওয়া হয়েছে কিনা এসবের ওপর নির্ভর করে আপনার অকাল গর্ভধারণের ঝুঁকি।

কি হতে পারে যদি আপনি গর্ভনিরোধক বড়ি বা পিলগুলো খেতে ভুলে যান

এখানে আপনার সুরক্ষার জন্য কতগুল গাইডলাইন দেওয়া হল।

  • আপনি যদি একটা হরমোনাল পিল এর একটা ডোজ বাদ দেন তাহলে অবশ্যই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পরেরটা খান।এবং কোর্সটা সম্পূর্ণ করুন।
  • আপনাকে পুনরায় ভুলে যাওয়া ডোজটা নেবার দরকার নেই,কোর্সের শেষ সাত দিনের মধ্যে হলে।
  • যদি আপনি পরবর্তি প্যাক শুরু করার আগে অসুরক্ষিত যৌনসঙ্গম করে ফেলেন তাহলে অবশ্যই আপৎকালীন গর্ভনিরোধক ব্যবহার করুন।
  • যদি আপনি নতুন প্যাক ঠিক সময়ে শুরু করতে না পারেন( ঋতুস্রাবের প্রথম বা পঞ্চম দিন থেকে যেমন আপনার ডাক্তারবাবু বলেছেন)তবে কন্ডোম জাতীয় বাধাদানকারী গর্ভনিরোধক ব্যবহার করুন।
  • আপনি যদি দুটো ডোজ বাদ দেন বা এই সময়ের মধ্যে যদি অসুরক্ষিত যৌন সঙ্গম করে থাকেন বা কিছু অস্বাভাবিক লক্ষণ দেখেন তাহলে অতি দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
  • পিলবাক্স ব্যবহার বা ড্রাগ রিমাইন্ডার অ্যাপ্লিকেশন বা অ্যালার্ম ব্যবহার করূন সঠিক সময়ে পিল খাওয়ার জন্য।

সাধারণ প্রশ্নাবলী

পিল খাওয়ার পরে কি হবে যদি আমি বমি করি বা আমার ডায়েরিয়া হয়?

যদি পিল খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বমি হয়ে যা তাহলে আপনি পুনরায় আর একটি বড়ি খান এবং কোর্স শেষ করুন।যদি খাদ্যে বিষক্রিয়া,বা হেপাটাইটিস অথবা অন্য কোন ধরনের গ্যাষ্ট্রো-এনট্রাইটিস এর জন্য আপনার বমি বা পাতলা পায়খানা হয় তবে তাড়াতাড়ি ডাক্তারের সাথে দেখা করুন।আপনি OCP নেওয়া বন্ধ রাখুন এবং অসুরক্ষিত যৌন সঙ্গম বন্ধ রাখুন অথবা গর্ভনিরোধের অন্য পদ্ধতি প্রয়োগ করন যত দিন না আপনি পুরোপুরি সুস্থ হচ্ছেন।

কখন আমি অন্য একটা গর্ভনিরোধক পিল এর প্যাক শুরু করব?

এটা নির্ভর করবে আপনি 21 দিনের না 28 দিনের কোর্স করছেন তার ওপর। প্রথম প্যাকটা শেষ হবার পর আপনি দ্বিতীয়াটা শুরু করবেন।এটা আপনার পরবর্তী ঋতুচক্র শুরু হবার সাথে সাথে হলে ভাল হয়।কবে আপনার ঋতুস্রাব শুরু হবে তার আশায় বসে না থেকে পরবর্তি গর্ভনিরোধকের প্যাক শুরু করে দেওয়া ভাল।

যদি আবার সন্তানধারণ করতে ইচ্ছুক হন তাহলে কি হবে?

যখন আপনি OCP খাচ্ছেন তখন আপনি যদি গর্ভধারণ করতে চান তাহলে পিল খাওয়া বন্ধ করুন।যত তাড়াতাড়ি আপনি কোর্স বন্ধ করবেন তত তাড়াতাড়ি আপনর ঋতুস্রাব হবে।যেটা আপনার পরবর্তি ঋতুচক্র শুরুর সংকেত। 14 দিনের মাথায় ওভ্যুলেশান হবে।এই সময়ে আপনি যৌনসঙ্গম করবেন গর্ভধারণের জন্য। কেউ কেউ বলেন যে কয়েকটি স্বাভাবিক ঋতুচক্রের পর গর্ভধারন করা ভাল। আপনি অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নেবেন OCP বন্ধ বা পরিবর্তন করার আগে।

পিল কি STD থেকে সুরক্ষা দেয় ?

যদিও খাওয়ার গর্ভনিরোধক পিল গর্ভধারণ রোধ করতে সক্রিয় ভূমিকা নেয় তবে এটা যৌন সংক্রামক ব্যাধি(STD) প্রতিরোধ করতে পারে না।বাধাদানকারী গর্ভনিরোধক যেমন কন্ডোম প্রভৃতি গর্ভনিরোধক হিসাবে কাজ করার সাথে সাথে STD থেকে সুরক্ষা দেয়।

অন্যান্য জন্মনিয়ন্ত্রনের বিকল্পগুলি কি কি?

হরমোনাল গর্ভনিরোধক ছারাও নিচে অন্যান্য কতগুলো গর্ভনিরোধকের কথা বলা হল।

  • ক্যালেন্ডার পদ্ধতি : ওভ্যুলেশনের সময় অর্থাৎ ঋতুস্রাব থেকে 14 তম দিনে সঙ্গম না করাই ভাল।
  • স্পার্মিসাইড জেল : মহিলাদের সারভিক্সে সঙ্গমের আগে লাগানো হয়।
  • বাধাদানকারী ডিভাইস : কন্ডোম, ভ্যাজাইন্যাল রিং, এবং ডায়াফ্রাম
  • ইন্ট্রাউটেরাইন : কপার T
  • স্টেরিলাইজেশান পদ্ধতি : হিসরোক্টমি এবং টিউবেক্টমি

মাঝে মধ্যে পিল খাওয়া বন্ধ করে দেওয়া কি প্রয়োজন?

একটানা ব্যবহারের জন্য আপনার যদি কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া না হয় তাহলে OCP তে ছেদ ঘটাবার দরকার নেই।আপনার স্বাস্থ্য উপদেষ্টার কথা অনুসারে আপনি অন্য কোন গর্ভনিরোধক পদ্ধতিতে পরিবর্তিত করতে চান, OCP বন্ধ করলে আপনার গর্ভসঞ্চারের সামান্য সম্ভবনা থেকে যায়।

যদি আমি কোনো ডোজ নিতে ভুলে যাই?

কোন কারণবশত আপনি আপনার ডোজ নিতে ভুল করলে হয় আপনাকে সঙ্গম থেকে বিরত থাকতে হবে নতুবা আপনার সাথীকে কন্ডোম ব্যবহার করতে হবে।আপনি আপনার ভুলে যাওয়া ডোজটি নিয়ে নেবেন কোর্সটাকে কোনরকম বিঘ্নিত না করে।

আধুনিক চিকিৎসার অগ্রগতির ফলে খাবার গর্ভনিরোধক বড়ি এখন পৃথিবী জুড়ে মহিলাদের কাছে জন্ম নিয়ন্ত্রনের অন্যতম সেরা পচ্ছন্দ।যদি সঠিক ভাবে গ্রহণ করা যায় তবে এটাতে সুরক্ষার ব্যাপারে ভরসা রাখা যায়। এটি মহিলাদের ডিম্বাশয়ের এবং জরায়ুর ক্যান্সার থেকেও সুরক্ষা প্রদান করে।