শিশুর মাইলফলকের চার্ট – 1 থেকে 12 মাস বয়সে

শিশুর মাইলফলকের চার্ট - 1 থেকে 12 মাস বয়সে

এই জগতে একটি শিশুর প্রথম পদক্ষেপগুলি, প্রথম হাসি এবং প্রথম কয়েকটি মুহূর্ত পিতামাতার কাছে অত্যন্ত চমৎকার। প্রতিটি শিশু এক বছর বয়স হওয়ার আগে, অনেকগুলি মাইলফলক অতিক্রম করে।

aniview

এক থেকে ছয় মাস বয়সী শিশুর বিকাশের মাইলফলকের চার্ট

শারীরিক, মানসিক এবং জ্ঞানীয় বিকাশ দ্রুত ঘটে, এবং পিতামাতা হিসাবে এটি আপনার বোঝা জরুরি, যাতে আপনি আপনার বাচ্চাকে সুখী ও সুস্থ ভাবে বেড়ে উঠতে সাহায্য করতে পারেন। মাস অনুযায়ী বাচ্চাদের মাইলফলক চার্ট পিতামাতারা সজজেই পেতে পারেন, যেটা আপনার বাচ্চা যা যা করছে তার উপর নজর রাখে।

প্রথম মাসগুলি অদ্ভুত ও উত্তেজনাপূর্ণ, এবং বেশিরভাগ শিশু প্রথম কয়েক মাসের মধ্যে সম্পূর্ণ নির্ভরশীল অবস্থা থেকে মোটর ও শারীরিক দক্ষতা বিকাশের দিকে অগ্রসর হয়।

শিশুর বয়স অর্জিত দক্ষতা (শিশুদের অধিকাংশই করতে পারে) চোখে পড়ার মতো দক্ষতা (অনেক শিশুরা করতে পারে) উন্নত দক্ষতা (কিছু বাচ্চারা করতে পারে)
প্রথম মাস আপনার ছোট্ট নবজাতক ফরমূলা এবং বুকের দুধের গন্ধের মধ্যে পার্থক্য করতে পারে

আপনার বাচ্চার যোগাযোগের পছন্দের মাধ্যম হল কান্না

বাচ্চা যদি বিস্মিত হয় তবে তারা তাদের হাত ও পা টেনে নেবে। এটিকে মোরো রিফ্লেক্স বলা হয়

আপনার শিশুর দৃষ্টিশক্তির এখনও বিকাশ হচ্ছে, তাই সে কাছাকাছি বস্তুর উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করতে চেষ্টা করবে

আপনার নবজাতক মিষ্টি জিনিস পছন্দ করতে শুরু করবে এবং তার একটি সূক্ষ্ম স্বাদ থাকবে
দ্বিতীয় মাস উপুড় হয়ে থাকার সময় বা সোজা হয়ে বসে থাকার সময়, তারা তাদের মাথা বেশীক্ষণ ধরে স্থিতিশীলভাবে ধরে রাখতে পারবে

এখন তারা ঘোঁতঘোঁত বা গলগল আওয়াজ করে যোগাযোগ করবে

আঙ্গুলগুলি মুড়ে মুঠি বানাতে চেষ্টা করবে

শ্রবণক্ষমতা অনেকটাই উন্নত হবে, এবং সে এখন আরো ভালো শুনতে পারবে

তাদের হাতে কোনো স্টাফড খেলনা দিলে সেটিকে কিছুক্ষণ ধরে রাখতে পারবে

হাসির প্রথম সংকেত দেখা যাবে

তৃতীয় মাস চিত / উপুড় হয়ে থাকা অবস্থায় আপনার ছোট্ট মিষ্টিসোনাটি তার পা ছুঁড়তে পারবে হাসতে এবং চিনতে শুরু করবে নিজে নিজেই ঘুরে গিয়ে চিত হয়ে যাবে
চতুর্থ মাস আরো দৃঢ়ভাবে খেলনা ধরতে পারবে আপনার শিশুর ওজন জন্মের সময়ের ওজনের চেয়ে দ্বিগুণ হয়ে যাবে, তাই খিদে বেড়ে যাবে এখন কক কক করে, ঘোঁতঘোঁত করার মাধ্যমে যোগাযোগ করবে এবং কথা বলতে চাওয়ার প্রথম লক্ষণগুলি দেখা যাবে
পঞ্চম মাস আপনার ছোটটি তার প্রথম শব্দ বলতে চেষ্টা করবে অবলম্বন ছাড়াই দীর্ঘ সময়ের জন্য সোজা হয়ে বসতে সক্ষম হবে আপনার শিশু হামাগুড়ি দিতে শুরু করবে
ছয় মাস আপনার বাচ্চা বিভিন্ন মুখমন্ডল চিনতে পারবে এবং হাসবে বিভিন্ন গঠন বৈচিত্রের খাবারের স্বাদ বিকশিত হবে টেবিলে ভর দিয়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা শুরু করবে

এক থেকে ছয় মাস বয়সী শিশুর বিকাশের মাইলফলকের চার্ট

সাত থেকে বারো মাস বয়সী শিশুর বিকাশের মাইলফলক চার্ট

একবার ছয়মাসের গন্ডি পেরোলে, শিশুটির বৃদ্ধি এত বেশী হবে যে বাচ্চাদের মাইলফলক চার্ট অনুসরণ করা কঠিন হতে পারে। এই অবস্থায়, নীচের তালিকাটি পিতামাতাদের কাজে আসতে পারে যারা তাদের বাচ্চাদের বিকাশের উপর নজর রাখছেন।

শিশুর বয়স অর্জিত দক্ষতা (শিশুদের অধিকাংশই করতে পারে) চোখে পড়ার মতো দক্ষতা (অনেক শিশুরা করতে পারে) উন্নত দক্ষতা (কিছু বাচ্চারা করতে পারে)
সাত মাস যোগাযোগের দক্ষতা পরিমার্জিত হতে শুরু করবে, এবং আপনার ছোট্ট শিশু শব্দ অনুকরণ করবে মুখ চিনতে সক্ষম হবে, কারুর দিকে চেয়ে হাসবে নিজেকে টেনে তুলতে পারবে এবং অবলম্বনে ভর দিয়ে সোজা করে নিজেকে ধরে রাখতে পারবে
আট মাস সাহায্য ছাড়াই ঘুরে যেতে এবং বসতে পারবে তাদের নিজেদের নাম চিনতে শুরু করবে তারা আঙুল দিয়ে খাবার ধরার জন্য মুষ্ঠি বানাতে এবং এক হাত থেকে অন্য হাতে জিনিস নিয়ে যেতে শুরু করতে পারে
নয় মাস কঠিন খাদ্য উপভোগ করতে শুরু করবে এবং জিনিসপত্রের প্রতি পছন্দবোধ গড়ে উঠবে কয়েক দিনের স্মৃতির সাথে সংযোগ করার মতো জ্ঞানীয় ক্ষমতার বিকাশ হবে একক শব্দ ব্যবহার করে যোগাযোগ করতে সক্ষম হবে এবং রাগ হওয়া, খুশী হওয়ার মতো বিভিন্ন অনুভূতি প্রকাশ করতে পারবে
দশ মাস আপনার বাচ্চা তার আশেপাশের দিকে নজর দিতে শুরু করে, তাই কৌতূহল বাড়তে থাকে তার নিকটতম মানুষকে চিনতে এবং জিনিস মনে রাখতে সক্ষম হবে হাঁটতে চেষ্টা করবে এবং হাঁটা শুরু হবে
এগারো মাস আয়নার দিকে তাকিয়ে থাকতে শুরু করবে এবং চিনতে শুরু করবে ‘ওহ’ এবং ‘আহ’ বলার মাধ্যমে প্রকাশ করতে সক্ষম হবে। হাঁটার চেষ্টা করবে
বারো মাস আপনার ছোটটি একটি প্রধান মাইলফলক অতিক্রম করেছে এবং বসতে, হামাগুড়ি দিতে পারে এবং কৌতুহলী হয় খাদ্য সম্বন্ধে একটি ভালোরকমের পছন্দবোধ এবং সূক্ষ্ম স্বাদ আছে আরো বেশী খেলাধুলার সাথে সাথে শারীরিক কার্যকলাপও বৃদ্ধি পায়

দ্রুতগতিতে চলা বিশ্বে আপনার ছোট্ট আনন্দের টুকরোটিকে গাইড করা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে, কিন্তু প্রথম বছরের মধ্যে পিতামাতার তাদের বাচ্চার সাথে কথা বলা, খেলা এবং একটি বন্ধন গড়ে তোলাও গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন শারীরিক, মানসিক এবং মনস্তাত্ত্বিক মাইলফলকগুলিকে তালিকাভুক্ত করে রাখলে, আপনি এবং আপনার শিশু সুখী থাকবেন।