যমজ অথবা ততোধিক সন্তান সহ গর্ভাবস্থার নবম সপ্তাহ

যমজ অথবা ততোধিক সন্তান সহ গর্ভাবস্থার নবম সপ্তাহ

এই সময় আপনার গর্ভদশাটি আপনার গর্ভের অভ্যন্তরে আপনার যমজ বাচ্চাদের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে থাকে, কারণ যমজ ভ্রূণ আপনার গর্ভ দশার নবম সপ্তাহে তাদের দেহের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু অঙ্গাণুর বিকাশ ও বৃদ্ধি অনুভব করে।এই পর্যায়ে আপনার নিজের দেহের ভিতরেই আবার অনেক পরিবর্তন হয়ে থাকে।আসন্ন সপ্তাহগুলিতে আপনার প্রথম ত্রৈমাসিকটি কাছাকাছি আসতে শুরু করার সাথে, আপনার শারীরিক স্বাস্থ্যকে সর্বোত্তম রাখা নিশ্চিত করাটা আরও বেশি জরুরী হয়ে ওঠে।কর্মরতা মহিলারা তাদের গর্ভাবস্থার ব্যাপারে তাদের বসদের সাথে আলোচনা করে এ ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্তে আসতে পারেন এবং কখন তারা ছুটিতে যেতে চান সে ব্যাপারে একটি সময়সীমা স্থাপন করতে পারেন।একটা জীবনধারার সাথে আসা শর্তাবলীগুলির মূলত সেই সকল মহিলাদের জন্য এক ব্যাপক পরিবর্তন নিয়ে আসবে যারা এমন ধরণের চাকরী করেন যেখানে ভিন্ন ধরণের কাজ করতে হয়।

aniview

গর্ভাবস্থার 9′ম সপ্তাহে শিশুদের বৃদ্ধি

যদি আপনার গর্ভে আপনি যমজ বা ততোধিক সন্তান ধারণ করেন, তবে গর্ভদশার নবম সপ্তাহের মধ্যে তাদের বিকাশ এক বিস্ময়কর পর্যায়ে পৌঁছায় এবং অনেকগুলি অর্থপূর্ণ বৈশিষ্ট্য সমাপ্তির পথে চলে।

শিশুদের চোখগুলি প্রায় সম্পূর্ণরূপে গঠিত হয়ে যায় যা সুরক্ষিত রাখার জন্য চোখের পাতাগুলির গঠণও প্রায় শেষ হয়ে আসে।মুখাবয়বের বৈশিষ্ট্যগুলি যেমন মুখ এবং নাক যথাযথ আকার নিতে শুরু করে।এগুলির পাশাপাশি মাথার পাশে কানগুলি গড়ে ওঠা শুরু হয় এবং এর পাশাপাশি পায়ের পাতা থেকে পায়ের আঙ্গুলগুলিও বেরিয়ে আসতে শুরু করে।বাচ্চাদের হাতের আঙ্গুলগুলিও ক্রমশ স্পষ্ট হতে শুরু করে।

শিশুদের শরীরের ভিতরে, বিকশিত হওয়া বেশিরভাগ আভ্যন্তরীণ অঙ্গাণুগুলি তাদের সঠিক অবস্থান গ্রহণ করে এবং সেগুলি ক্রমশ আরও বিকশিত হতে থাকে।তাদের হৃদপিণ্ডটি সাধারণত যথেষ্ট বিকশিত ও বর্ধিত হয় অভ্যন্তরে পূর্ণ গরিমায় তার চারটি প্রকোষ্ঠ গড়ে তোলার জন্য, যা এর কার্যকারিতাকে আরও ভালো করে তোলে।এই বয়সের মধ্যে তাদের মাড়ির উপরে দাঁতের গঠণও শুরু হয়ে যায়, যাতে সঠিক সময় উপস্থিত হলে সেগুলি বেরিয়ে আসতে পারে।

শিশুদের আকার কীরকম হয়?

শিশুদের আকার কীরকম হয়?

গর্ভদশার নবম সপ্তাহের মধ্যে অমরা সম্পূর্ণরূপে গড়ে ওঠার কারণে, শিশুরা ওজন এবং উচ্চতায় দ্রুত হারে বৃদ্ধি পেতে থাকে।এটি প্রায়শই ভ্রূণের পর্বের সমাপ্তিকে চিহ্নিত করে এবং বিকাশের পরবর্তী পর্ব শুরু করার পর্যায়কে নির্ধারণ করে।তাদের আকার এখন বেড়ে একটা আঙ্গুর অথবা একটা চেরী ফলের মত হয়ে উঠতে পারে এবং তারা তাদের সামনে দ্রুত এগিয়ে আসা বিকাশকে আলিঙ্গন করতে প্রস্তুত থাকে।

সাধারণ শারীরিক পরিবর্তনগুলি

সাধারণ শারীরিক পরিবর্তনগুলি

সাধারণ গর্ভাবস্থার মধ্য দিয়ে চলা কোনও গর্ভবতী মহিলার তুলনায় একাধিক সন্তান ধারণকারী একজন গর্ভবতী মহিলার দেহে এই পর্যায়ে সাধারণত পরিবর্তনগুলি সামাণ্য পৃথক হওয়ার প্রবণতা থাকে।আপনার অভ্যন্তরে বেড়ে ওঠা শিশুর সংখ্যা নির্বিশেষে এই পর্যায়ে হয়ে থাকা একগুচ্ছ পরিবর্তনগুলি হয় সাধারণ প্রকৃতির।

  • গর্ভস্থ শিশুদের বৃদ্ধির কারণে জরায়ুটিও আকারে প্রসারিত হবে। এই প্রসারটি সম্পূর্ণরূপে নির্ভর করে গর্ভের অভ্যন্তরে শিশুর সংখ্যার উপর।অনেক সময় এটি একটি পেঁপের মত আকারে বড় হতে পারে কিম্বা তারও বেশি। আকারে বেড়ে ওঠার কারণে জরায়ুটি আবার এর অবস্থানের সাথে সামঞ্জস্য বিধান করে, যা দেহের সাথে মানিয়ে এটিকে উপরের দিকে সামাণ্য কাত করে রাখে।
  • ঘন ঘন প্রস্রাব ত্যাগ এই সপ্তাহেও উপস্থিত থাকবে এবং তা দীর্ঘ সময় ধরে আপনাকে সমস্যার মধ্যে রাখবে।এছাড়াও আবার জরায়ুর অবস্থানের সামঞ্জস্য বিধানটি আপনার মুত্রাশয়ের উপর চাপ দেয় যে কারণে আপনি অবিরত প্রস্রাব পাওয়ার মত অনুভব করেন।
  • হরমোনের মাত্রার অনবরত ওঠানামার কারণে এই সময় তা মহিলাদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারে।
  • আগে মাইগ্রেনের যন্ত্রণায় ভুগে থাকা মায়েরা এই সময় পুনরায় তার মুখোমুখি হতে পারেন।এই অবস্থাটি যতটা সাধারণ বলে মনে হতে পারে, অবশ্যই কারুর পক্ষে সেটি এতটুকু সুখকর নয়।আর এর সাথে ক্লান্তি, মানসিক চাপ, উদ্বেগ মিলিত হয়ে গর্ভবতী হয়ে ওঠার সকল আনন্দ এবং সুখকে সহজেই বিতাড়িত করে দিতে পারে।
  • কর্মরতা মহিলাদের মধ্যে যাদেরকে কম্পিউটারের স্ক্রীনের সামনে বসে দীর্ঘ সময় কাজ করতে হয় তারা মাথা ধরা ও যন্ত্রণার ঝুঁকিতে থাকেন এবং তাদের চোখেও এমনকি ভীষণ চাপ পড়ে।এটি দূর করার একমাত্র উপায় হল বিশ্রাম নেওয়া।
  • ক্রমান্বয়ে ওজন বৃদ্ধির পর্বটি অবিরত চলতেই থাকে, যদিও এটি বিশাল একটি পার্থক্য তৈরী করার মত কিছু নয়।তবে এই সময়ের মধ্যে প্রায়ই আপনার ওজনের ওঠানামাটি পর্যায়ক্রমে কিছুদিন হতে থাকে, যার ফলে কিছুদিনের জন্য আপনার ওজন হ্রাস পায় এবং পরে আবার তা পুনরায় বৃদ্ধি পায়।
  • জরায়ুর ক্রমবর্ধমান আকার এবং স্তনের দিকে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে স্তনগুলি আকারে বেড়ে ওঠে ও প্রসারিত হয়।এই প্রসারণটি আবার ত্বকের উপর চাপ ফেলে, যার ফলে ত্বকও ক্রম প্রসারিত হতে থাকে এবং সেই কারণে অনেক সময় আবার টান থেকে চুলকাতেও শুরু করে।
  • এই সময় আবার অ্যাসিডিটি বা অম্লতা এবং কোষ্ঠকাঠিণ্যও দেখা দিতে পারে, যা প্রায়শই গ্যাস অপসারণ করা এবং ঢেকুর তোলার প্রবণতার সাথেও যুক্ত হতে পারে।সমাজে সকলের সামনে যদি আপনার বাতকর্মটি সজোরে হয়ে যায় তবে সেক্ষেত্রে বিব্রতবোধ করা ছাড়া এ ব্যাপারে চিন্তা করার মত কিছু নেই।একটি সঠিক আহার এবং তরল পান এটি হওয়ার সম্ভাবনাকে কিছুটা হ্রাস করতে পারে।
  • 9 সপ্তাহের সমাপ্তি একজন গর্ভবতী মহিলার মধ্যে তার বমি বমি ভাব এবং প্রাতঃকালীন অসুস্থতা্টির সবচেয়ে শক্তিশালী পর্যায়কে চিহ্নিত করে।বেশিরভাগ মহিলাই এই সময় তাদের গর্ভাবস্থার প্রতি বীতশ্রদ্ধ হয়ে উঠতে শুরু করেন এবং অনেক সময় তাদের বিরক্তিটা সম্পূর্ণরূপে হতাশায় পরিণত হতে পারে।আর এর উজ্জ্বল দিকটি হল, এই সকল উপসর্গগুলিই আসন্ন সপ্তাহগুলিতে হ্রাস পাওয়া শুরু করবে।

যমজ সন্তান গর্ভধারণের নবম সপ্তাহের লক্ষণগুলি

যমজ সন্তান গর্ভধারণের নবম সপ্তাহের লক্ষণগুলি

দেহে বিভিন্ন ধরণের পরিবর্তনগুলি সংঘটিত হওয়া ছাড়াও, যমজ সন্তান সহ গর্ভাবস্থার নবম সপ্তাহের লক্ষণগুলি আপনার মধ্যে ফুটে উঠতে পারে মানসিকভাবে এবং আরও অনেক সূক্ষ্ম উপায়ে।

  • উচ্চ মাত্রায় হরমোন নিঃসরণের কারণে কুখ্যাত মেজাজের দোলাচলটি গর্ভবতী মহিলাদের উপর এই সময়েই তার প্রখর থাবাটি দিয়ে বসে।দিনের যেকোনও সময়েই আপনার মনে হতে পারে ছোট্ট করে একটু ঘুম দিয়ে নেওয়ার কথা।আবার অনেক সময় আপনি কোনও কারণ ছাড়াই আপনার পরিবারের সদস্যদের উপর ভীষণ মাত্রায় ক্রুদ্ধ হয়েও উঠতে পারেন।
  • এই সপ্তাহের আশেপাশে আপনার hCG হরমোনের মাত্রা ব্যাপক শীর্ষে চলে যায়।এই পর্যায়ের সবচেয়ে শক্তিশালী ফলাফলটি হল বমি বমি ভাব, এবং একক শিশু গর্ভে ধারণের সময় কোনও মহিলার ক্ষেত্রে সেটি যতটা খারাপ হতে পারে তার থেকেও সেটি আরও বহুগুণ খারাপ হয়ে ওঠে যমজ অথবা ততোধিক সন্তান গর্ভে ধারণকারী মহিলাদের ক্ষেত্রে।যদি গর্ভস্থ শিশুর সংখ্যা অধিক হয় তবে তাদের সাহায্য ও সমর্থন করার জন্য শরীরের আরও কঠোরভাবে কাজ করা প্রয়োজন হয়, যার ফলে hCG হরমোন নিঃসরণের পরিমাণও বেড়ে যায় এবং তা এই সকল লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ করে তোলে।
  • গর্ভধারণের নবম সপ্তাহটি আপনার কাছে একটি অন্যতম কঠিনতম সপ্তাহে পরিণত হতে পারে।আপনার দেহের মধ্যে ঘটে যাওয়া সকল পরিবর্তনগুলির পাশাপাশি আপনার পরিবারের সকলের যত্ন নিতে তাদের চাহিদাগুলি পূরণ, বাড়ির কাজ এবং তার সাথে আপনার নিজের কাজ এবং যত্ন নেওয়ার মত গূঢ় দায়িত্ব পালনগুলি প্রকৃতপক্ষেই আপনার সর্ব শক্তি ক্ষয় করে আপনাকে পরিশ্রান্ত করে তুলতে পারে।তাই তা কাটিয়ে উঠতে এই সময় পর্যাপ্ত ঘুমের জন্য আপনার ঘুমের সময়সূচীর সাথে সামঞ্জস্য বিধান করার উচ্চ সুপারিশ করা হয়।
  • বমি বমি ভাবের কারণে মুখে লালাস্রাব বৃদ্ধি পায় তবে এই সপ্তাহের আশেপাশে আপনার নাসারন্ধ্রের মধ্যে অতিরিক্ত শ্লেষ্মা উৎপাদনের সাথে তা আবার যুক্ত হতে পারে।বর্ধিত রক্ত প্রবাহের কারণে নাক ভার হয়ে ওঠে বলে মনে হয় এবং এর পর উত্তেজিত শ্লৈষ্মিক ঝিল্লি তা ঠান্ডা লাগার মত ব্যাপারটির দিকে পরিচালিত করে।

যমজ সন্তান সহ গর্ভদশা– 9 সপ্তাহে পেটের আকৃতি

পূর্বে ব্যবহৃত আপনার বেশিরভাগ প্যান্টগুলিই এখন আর আপনার আগের মত সহজে মানানসই হয়ে উঠবে না।আপনার ওজন এবং কটিরেখার বৃদ্ধিটি এখন স্পষ্ট হয়ে উঠবে তবে তা কেবল আপনার নিজের কাছেই।পেটের আকারের বেশিরভাগ পরিবর্তনগুলিই আপনার জরায়ুর বৃদ্ধির ফলস্বরূপ হয়ে থাকে এবং বহু মহিলা গর্ভাবস্থাকালীন যে বর্ধিত ছোট্ট পেটটির কথা বলে থাকেন তা খুব শীঘ্রই বেশ প্রকট হয়ে উঠবে।

যমজ সন্তানের গর্ভাবস্থার 9 সপ্তাহআলট্রাসাউন্ড

আপনার গর্ভদশার 9 সপ্তাহে পৌঁছানোর পর একটি আল্ট্রাসাউন্ড স্ক্যান করানোর জন্য গেলে তা আপনাকে আপনার গর্ভস্থ সন্তানদের বিকাশের এক নতুন রাজত্বের সাথে পরিচয় করাবে।এটি চাক্ষুষ কম এবং শ্রবণ সম্বন্ধীয় বেশি, কারণ এক্ষেত্রে আপনার ডাক্তারবাবু আপনাকে আপনার সন্তানদের হৃদস্পন্দন শোনাতে সমর্থ হবেন।আপনার গর্ভে যমজ অথবা ততোধিক সন্তানদের অবস্থানগুলি তাদের হৃদস্পন্দনগুলিকে শোনার ক্ষেত্রে পৃথক করতে মূল চাবিকাঠি হয়ে উঠবে, তবে আপনি আবার এমনকি সেগুলি একটি অত্যন্ত দ্রুত গতিতে দ্রুত হারে স্পন্দিত হওয়ার একযোগে একটি মিশ্রধ্বনির মতও শুনতে পেতে পারেন।

কি খেতে হবে

কি খেতে হবে

একটি ডায়েটের সাথে আসা পুষ্টির গুরুত্ব অনেক বেশি যা সকল প্রকার পুষ্টি এমন এক পরিমাণে সরবরাহ করে যা শিশুদের বৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত।

চর্বিহীন এবং ভালো ভাবে সেদ্ধ করা মাংসগুলির সাথে সংলগ্ন থকা হল আপনার শ্রেষ্ঠ বাজি।আপনার নিয়মিত খাদ্য তালিকায় মরশুমি ফল এবং সবজিগুলি অন্তর্ভূক্ত করলে তা আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি সরবরাহ করা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সহায়তা করতে পারে।অবিরত ক্লান্তি এবং অবসাদে ভুগে থাকাটি হয়ে থাকতে পারে দেহে আয়রণের অভাবের ফল, যা আয়রণ সমৃদ্ধ খাদ্যের দ্বারা অবিলম্বে ঘাটতি পূরণ করে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনা উচিত।

সবুজ শাকসবজি, রঙীন ফল, শুকনো বাদামএগুলি সবই হল আপনার ডায়েটের সাথে সংযুক্ত করার দুর্দান্ত খাদ্য সামগ্রী।প্রসব পূর্ব ভিটামিনগুলির দ্বারা পুষ্টির ঘাটতি সম্পূরণ করা, এই সকল কিছুই আপনাকে সর্বাংশে সুস্থ রাখতে পারে।

গর্ভাবস্থার যত্ন নেওয়ার পরামর্শ বা টিপস

গর্ভাবস্থার এই পর্যায়ে নিজেকে নিরাপদ রাখতে বেশ কয়েকটি টিপস বা পরামর্শ গ্রহণ করলে তা আপনাকে আগামী সপ্তাহ এবং মাসগুলিতে নিরাপদে থাকতে সহায়তা করে।

করণীয়

  • আপনার স্তনকে সমর্থন করতে এবং ত্বকে কোনওরকম জ্বলন ও অস্বস্তি এড়াতে ব্যবহারের জন্য মাতৃত্বকালীন ব্রাগুলিকেই বেছে নিন।
  • সাপ্তাহিক ভিত্তিতে আপনার ওজন পর্যবেক্ষণ করুন এবং বর্ধিত কয়েক কিলো কমানোর ব্যাপারে অস্থির হয়ে উঠবেন না।

করণীয় নয়

  • রক্তক্ষরণ হলে কিম্বা যোনি থেকে পরে দুর্গন্ধ যুক্ত স্রাব নির্গত হলে যৌন সঙ্গম করা এড়িয়ে চলুন।
  • মশলাদার ঝাল, মষ্টি অথবা ফ্যাট যুক্ত খাদ্যগুলির সাথে পানোৎসব করা থেকে বিরত থাকুন কারণ এগুলি আপনার প্রাতঃকালীন অসুস্থতাকে আরও খারাপ করে তুলবে।

আপনার কি কি কেনাকাটি করার প্রয়োজন পড়বে

আপনার প্রাতঃকালীন অসুস্থতাটি আরও খারাপ হয়ে ওঠার কারণে কিছু সুগার ফ্রী চুইংগাম, যেগুলি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য নিরাপদ, ক্রয় করলে তা এক্ষেত্রে বেশ সহায়ক হয়ে উঠতে পারে।নিজেকে শান্ত, শিথিল ও স্বাচ্ছন্দ্য রাখতে মনের আবেগগুলিকে লিখে রাখতে একটা ভাল ডায়েরি নিতে পারেন।

যখন একজন মহিলা যমজ সন্তানের সাথে তার গর্ভাবস্থার নবম সপ্তাহে এসে উপস্থিত হন তখন তা তার জীবনে ভোগ করা একটি অন্যতম শুল্কপদানকারী মুহূর্ত হয়ে উঠতে পারে।গর্ভধারণের সকল সুখ স্বাচ্ছন্দ্যগুলিই শোষিত হয়ে যেতে পারে দেহে সংঘটিত একাধিক পরিবর্তনগুলির দ্বারা।সাহায্যের জন্য আপনার সঙ্গীকে বলার ব্যাপারটি নিশ্চিত করুন এবং সেগুলির সাথে ধাতস্থ হয়ে উঠতে কিছুটা সময় দিন কারণ খুব শীঘ্রই সেরা মুহূর্তগুলি এসে উপস্থিত হবে।