যমজ অথবা ততোধিক সন্তান সহ 36 সপ্তাহের গর্ভবতী

যমজ অথবা ততোধিক সন্তান সহ 36 সপ্তাহের গর্ভবতী

বাহ! দারুণ আপনি তবে এটি করেই ফেলেছেন।এখন আপনি প্রায় 9 মাসের কাছাকাছি সময় ধরে আপনার পেটের ভিতরে আপনার যমজ কিম্বা তিনটি সন্তানকে বহন করে চলে কার্যত 36 সপ্তাহের একজন গর্ভবতী হয়ে উঠেছেন।যদিও চিকিৎসার পরিভাষায় এই পর্যায়টি এখনও অকাল কালের মধ্যে বিবেচিত হবে, যদিও দেরীতে, তবুও অধিকাংশ গর্ভবতী মায়েদের বেশ হাসিখুশি থাকতে দেখা যায় কারণ তারা এটি অনুভব করেন যে তাদের সন্তানরা এখন যেকোনও মুহূর্তে বহির্বিশ্বে তাদের নিজেদের বহিঃপ্রকাশ করতে পারে।আপনার গর্ভদশাটি এখন বেশ ভাল এক পর্যায়ে পৌঁছে গেছে এবং চূড়ান্ত বৃদ্ধির যেকোনও প্রক্রিয়াই এখন আপনার মধ্যে দ্রুত সমাপ্ত হবে।আপনার জীবনের প্রতিটি সম্মুখস্থে চূড়ান্ত সতর্কতা এবং প্রস্তুতি গ্রহণের সাথে উত্তেজনা অবশ্যই স্পষ্ট হয়ে উঠবে।শেষ পর্যন্ত প্রসবের নির্ধারিত দিনটি আসন্ন বুঝতে পেরে এটি সাধারণত আবার উদ্বেগবোধের সাথে যুক্ত হয়ে যায়।আপনার নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাস গড়ে তোলা এবং আপনার ডাক্তারের সুপারিশ মত সব কিছু মেনে তার সাথে সামঞ্জস্য বিধান করা এই সকল বিষয়গুলিকে সর্বোত্তম পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারটিকে নিশ্চিত করার এক দুর্দান্ত উপায়।

aniview

36 তম সপ্তাহে শিশুদের বৃদ্ধি

আপনার গর্ভদশার 36 তম সপ্তাহের সাথে, আপনার গর্ভের ভিতর আপনার ছোট্টগুলি এমন এক পর্যায়ে বেড়ে উঠেছে যে কার্যকরভাবে তারা নিজেরাই নিজেদের দেহের যত্ন  নিতে পারে এমন পর্যাপ্ত সময় তারা পেয়েছিল।এখন তারা যে সকল বিভিন্ন কার্যকারিতাগুলি পরিচালনা করবে সেগুলি স্পষ্টতই দৃশ্যমান হয়ে উঠবে।  গর্ভের বাইরে জীবন রক্ষায় সহায়তাকারী এক অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া হল নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস।এই সময়ের মধ্যে আপনার বাচ্চাদের পূর্ণ বিকশিত ফুসফুস গড়ে উঠবে।সুতরাং তাদের যদি এই মুহূর্তেই প্রসব করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে, তাদের শ্বাস-প্রশ্বাসের জন্য কোনও ডাক্তারি সহায়তার প্রয়োজন হবে না।এই সপ্তাহের মধ্যে আবার শিশুদের দেহস্থ লোমগুলিও সাধারণত উধাও হয়ে যাবে এবং ভার্নিক্সের সাথে সংমিশ্রিত করে এক ধরণের ঘন সাদা তরল তৈরী করে।গর্ভের ভিতরে শিশুরা অ্যামনিওটিক তরলে শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়ার সাথে সাথে চোষণ ক্রিয়াটিও চালানোর কারণে চুল বা লোমের কিছু অংশ এবং ভার্নিক্স তাদের দেহে প্রবেশ করে।যেগুলি মিলিত ভাবে গঠণ করে ম্যাকোনিয়াম, যা হল বেশিরভাগ সদ্যোজাতের প্রথম দেহ নিসৃত বর্জ্য পদার্থ।   আপনার সন্তানরা ইতিমধ্যেই শিখে গেছে সঠিক ভাবে কি করে চোষণ করতে হয়।তার থেকেও বড় কথা হল আপনার সন্তানদের মাড়ি কঠিণ এবং যথেষ্ট দৃঢ় হয়ে উঠেছে যা তাদের স্তনের সাথে সঠিকভাবে আবদ্ধ রেখে নিঁখুত ভাবে উপযুক্ত ভঙ্গিমাতে দুধ পান করতে সহায়তা করে।যদি দাঁতের কথা ওঠে তাহলে বলতে হয় যে সেগুলি মাড়ির গভীরে সঠিকভাবেই বিকাশ লাভ করেছে আর প্রসবের কয়েকমাস পরে নির্দিষ্ট সময়েই সেগুলি প্রকাশ পাবে।  বিভিন্ন শারীরবৃত্তীয় ক্রিয়াসমূহ যেমন রক্ত সংবহন, রোগ প্রতিরোধকারী অনাক্রম্যতন্ত্র, বৃক্কের দ্বারা দেহের রেচন পদার্থের নিষ্ক্রমণ, যকৃত কর্তৃক কয়েকটি উৎসেচকের ক্ষরণ, প্রভৃতি কার্যাবলী তাদের সর্বোচ্চ সীমায় সন্তোষজনক ভাবে ক্রিয়াশীল থাকে।এই  কারণের জন্যই যেসকল শিশুরা গর্ভাবস্থার 36 সপ্তাহে জন্মলাভ করে তাদের নিজের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার এবং আনন্দের সাথে জীবন অতিবাহিত করার আগে মাত্র কয়েকটি দিনঅ তাদের চিকিৎসাজনিত নজরদারীতে থাকতে হয়।   শিশুদের আকৃতি কেমন হয়?  আপনার গর্ভস্থ একাধিক শিশুদের বৃদ্ধিজনিত আশঙ্কাগুলি এখন থেকে আর থাকবে না বললেই চলে, কারণ তাদের বর্ধিত ওজনের ফল আপনার দেহে বেশ ভালভাবেই প্রতিভাত হবে। মাথা থেকে তাদের পায়ের পাতার আঙ্গুলের দৈর্ঘ্য মোটামুটি 44-45 সেন্টিমিটারের আশেপাশে থাকে এবং প্রতিটি শিশুর ওজন প্রায় 2.4 থেকে 2.5 কিলোগ্রাম পর্যন্ত হয়।আপনি অপেক্ষা করে থাকেন কখন আপনি তাদেরকে আপনার দেহ থেকে ঠেলে বের করে দেবেন সেই সময়ের জন্য!    সাধারণ দৈহিক পরিবর্তনগুলি যেহেতু আপনি ইতিমধ্যেই আপনার সন্তানদের সঙ্গে নিয়ে গর্ভাবস্থার প্রায় 9 মাস অতিক্রম করে এসেছেন তাই আপনার দেহে সত্যিকারের সকল সম্ভাব্য পরিবর্তনগুলি ঘটবে আর তা এই মাসেই সম্পন্ন হবে।তার কয়েকটি আপনি এই সপ্তাহেই উপলব্ধি করতে পারবেন যেগুলি আপনার প্রসবের প্রাসঙ্গিক লক্ষণগুলিকে চিহ্নিত করে।  ·        36 সপ্তাহের গর্ভদশাসম্পন্ন মহিলাদের মধ্যে এই সময় আত্মবিশ্বাসের সাথে নড়াচড়া করার সমস্যা দেখা দেবে।এই সময় শরীরের মধ্যে অত্যন্ত অদ্ভূত পরিস্থিতির উদ্ভব হবে। শরীরের মধ্যস্থ এই বিরাট ভার বহন করতে হবে যা রীতিমত কষ্টসাধ্য।বিশেষত যখন যমজ বা তার চেয়ে বেশি সন্তান আপনার গর্ভে থাকে।আপনার পেটটির আয়তন বেশ বিশাল আকার ধারণ করবে এবং আপনি যখন সিঁড়ি দিয়ে উপরে উঠবেন বা অসমান জায়গায় হাঁটাচলা করবেন তখন সেটি আপনার দৃষ্টিপথের বাঁধা সৃষ্টি করবে। লিগামেন্টগুলির শিথিলতা এবং সন্ধিগুলির শ্রেনীবদ্ধতা পরিবর্তনের জন্য আপনার মনে হবে আপনি এমন একটা দেহকে বয়ে নিয়ে চলছেন যার উপর আপনার নিজের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই।আপনার শরীরে হরমোনের পরিমাণ স্বাভাবিক হতে শুরু করবে এবং আপনার পায়ের পাতার ফোলাটি তীর্যক ভাবে আপনার দেহের ভারসাম্যের ওপর প্রভাব বিস্তার করবে।সর্তকতার সাথে ধীর গতিতে চলাচল করার মধ্য দিয়ে আপনি একস্থান থেকে অন্য স্থানে গমন করতে পারবেন সুরক্ষিত উপায়ে।·        শরীরের ক্রমবর্ধমান আকার এবং  দেহের অতি মাত্রায় ওজনের আরও একটি পরিণতি হল বিভিন্ন রকমের ব্যথা এবং বেদনা যা আপনাকে আপনার দেহের প্রায় প্রতিটি অঙ্গ সম্পর্কে সচেতন করে তোলে।গর্ভদশার পরবর্তী পর্যায়গুলিতে, যেখানে আপনার দেহ প্রসবের জন্য প্রস্তুত হয়, এই সকল যন্ত্রণাগুলিকে আরও খারাপ করে তোলে।এর পিছনে থাকা প্রধান কারণটি হল আপনার শ্রোণীর মধ্যে বিভিন্ন জায়গার মধ্যে সামঞ্জস্য বিধান, যার সাথে আবার শ্রোণী সন্ধিটিও অন্তর্ভূক্ত।এ ব্যাপারে রিল্যাক্সিন নামক হরমোন নিঃসরণটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, কারণ এটি অঞ্চলটিকে শিথিল এবং প্রসারিত করে এবং প্রসবের সময় জন্মনালীর মধ্য দিয়ে সন্তান প্রসবের জায়গাটিকে সহজতর করে।সন্ধিগুলি শিথিল হয়ে যাওয়ায় এবং এবং আপনার এই অতিরিক্ত ওজন ধরে রাখার ক্ষেত্রে একই শক্তি এবং সমর্থন সরবরাহ করতে  না পারার কারণে পিঠে ও নিতম্বতে প্রচুর চাপের সৃষ্টি হয় আর তার ফলেই ব্যথা উদ্ভূত হয়ে থাকে।·        গর্ভদশার 36 সপ্তাহে বেশিরভাগ গর্ভবতী মহিলারা তাদের যোনি থেকে কি নিষ্ক্রমণ করবে তা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন থাকেন।অভ্যন্তরে শিশুকে সুরক্ষিত রাখার বিষয়ে দেহ অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করে, যোনি অঞ্চলটিকে জীবাণুমুক্ত রাখতে এবং তার মধ্য দিয়ে শিশুদের বেরিয়ে আসার সময় সেটিকে স্বাস্থ্যকর রাখতে যোনি স্রাবের নির্গমণ বেড়ে যেতে পারে।যদিও এই স্রাব সাধারণত দুধেল সাদা রঙের বা এমনকি আবার বর্ণহীনও হয়ে থাকতে পারে, তবে গর্ভদশার এই অন্তিম পর্যায়ের দিকে তা আগের তুলনায় গাঢ় হয়ে উঠতে পারে রঙে সামাণ্য পরিবর্তন আনার সাথে যা খুব সম্ভবত হালকা বাদামী কিম্বা আবার এমনকি গোলাপী ঘেষা বর্ণেরও হয়ে থাকে।তবে স্রাবটি যদি স্বাভাবিকের তুলনায় অত্যন্ত অদ্ভুত বলে মনে হয়, তবে সেটি আবার এমনকি মিউকাস বা শ্লেষ্মা প্লাগ, যা আপনার প্যাসাজটিকে অবরুদ্ধ রাখে তা বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়াকেও ইঙ্গিত করতে পারে, যা শ্রম বেদনা খুব শীঘ্র ওঠার একটি দৃঢ় লক্ষণ।  36 সপ্তাহে যমজ সন্তান গর্ভধারণের লক্ষণ  গর্ভাবস্থার শেষ পর্যায়ে আপনি একবার যে লক্ষণগুলি অনুভব করেন সেগুলি এই সপ্তাহে তাদের শক্তি আরও বাড়িয়ে তোলে।এগুলি সহজেই আপনার জন্য বিরক্তিকর হয়ে উঠতে পারে এবং এ থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার মূল চাবিকাঠি হল ধৈর্য্য। ·        এই সপ্তাহের মধ্যে মায়েদের মধ্যে সাধারণত থাকা একটি স্বাগত লক্ষণ হল একজন স্বাভাবিক মানুষের মত পুনরায় সম্পূর্ণ রূপে শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়ার ক্ষমতা।লাইটনিং নামক একটি প্রক্রিয়া সাধারণত এই সময় হয়ে থাকে, যা আপনার জরায়ুর নিম্ন ভাগে বাচ্চাদের আন্দোলনগুলিকে বর্ণন করতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে, যেহেতু তারা প্রসবের জন্য প্রস্তুত হয়।আপনার শ্রোণীচক্রের নিম্নভাগে এই অধগমনটি জরায়ুর উপরের অঞ্চলে অতিরিক্ত স্থান দেয়।আর একবার এটি হলেই বুকের স্থানে উপস্থিত বিভিন্ন অঙ্গাণুগুলি, বিশেষ করে আপনার ফুসফুস এবং মধ্যচ্ছদা বেশ আক্ষরিক ভাবেই দীর্ঘশ্বাস ফেলতে পারে।এগুলি এখন ঠিক আগের মতই সঙ্কুচিত এবং প্রসারিত হতে শুরু করে যা আপনাকে খুব বেশি কসরত করা ছাড়াই সহজভাবে এবং গভীরভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস  নিতে দিতে সহায়তা করে। ·        যদি বাচ্চাদের অধগমন আপনার শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়াকে সহজতর করে তোলে, তবে এর পরিণামস্বরূপ আবার এটি আপনার পাচনতন্ত্রের জন্য একটি দুঃস্বপ্ন হয়ে উঠতে পারে।এখন সমস্ত চাপ এবং ওজন গিয়ে পড়বে আপনার পাকস্থলী এবং অন্ত্রের উপর, যা অস্বস্তির সৃষ্টি করে এবং কোষ্ঠকাঠিণ্য, হৃদয় জ্বলন, ও বদহজমের প্রকোপকে বাড়িয়ে তোলে।·        এই সপ্তাহে ঘুমকেও আপনার দীর্ঘ সময় ধরে হারিয়ে যাওয়া বন্ধুর মত মনে হতে পারে।আপনি আপনার মনকে শান্ত করার এবং আপনার সমস্ত দুঃশ্চিন্তাগুলি থেকে মুক্তি পাওয়ার চেষ্টা করতে পারেন।আপনার শরীরের সাথে সহজ করে তোলার জন্য আপনার ঘুমের অবস্থানগুলির সাথেও আপনি সামঞ্জস্য বিধান করতে পারেন।কিন্তু এই সব কিছু সত্ত্বেও, আপনি এখনও শান্তিতে ঘুমিয়ে পড়ার ক্ষেত্রে সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন।

যমজ সন্তান সহ গর্ভাবস্থার পেট- 36 সপ্তাহে

এই সপ্তাহের মধ্যেই আপনার পেটটি তার সর্বাধিক বলয়াকৃতিটি অর্জন করবে।একাধিক সন্তান সহ অধিকাংশ মহিলাদেরই পেটের আকারটি এরকম হয়ে থাকে, যদিও আবার মারাত্মক কিছু বিরল ক্ষেত্রে, অধিকাংশের তুলনায় আকারে ছোট পেট থাকার প্রবণতা থাকে।তবে এটি চিন্তার কোনও কারণ হতে পারে না যতক্ষণ আপনার শিশুরা তাদের বৃদ্ধির সকল মাইলফলকগুলি অর্জন করে চলে।

36 সপ্তাহে যমজ সন্তান গর্ভধারণের-আলট্রাসাউন্ড

এই সপ্তাহে পরিচালিত যেকোনও আল্ট্রাসাউন্ডে একটি এবং কেবল একমাত্র প্রাথমিক লক্ষ্য থাকবে, সেটি হল আপনার গর্ভস্থ শিশুরা প্রসবের জন্য প্রস্তুত কিনা তা নিশ্চিত করা।এক্ষেত্রে তাদের অবস্থানটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।যেকোনও অদ্ভুত অবস্থান যা আদর্শগত নয়, প্রাথমিকভাবে সংশোধন করার চেষ্টা করা হবে অপ্রবেশ্যকারী কৌশলের দ্বারা।বাকি থাকা যেকোনও পরীক্ষা নিরীক্ষা এবং চেক-আপগুলিও এই সময়ের মধ্যেই করা হয়ে থাকে।

কি খেতে হবে

আপনি ইতিমধ্যেই আপনার গর্ভদশার সমাপ্তির পর্যায়ে এসে উপনীত হয়েছেন।যাইহোক, তবে আপনার খাদ্যজনিত দৃষ্টিভঙ্গীগুলিও অব্যহত রাখাটা জরুরি, ফোলিক অ্যাসিড, আয়রণ, ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক এবং ভিটামিন C গুলিও সমানে পরিমিত পরিমাণে গ্রহণ করা প্রয়োজন কারণ এগুলি এখনও সম্পন্ন হওয়ার প্রয়োজন থাকতে পারে এমন যেকোনও বৃদ্ধিচক্রের মাধ্যমে শিশুদের সহায়তা করতে পারে।একটি সাধারণ ডায়েট যা আপনার ওজনকে নিয়ন্ত্রণে রাখার সাথে তাদের ক্রমবৃদ্ধিকেও এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে, বজায় রাখাটা একটা ভাল ধারণা হয়ে উঠবে।

গর্ভাবস্থার যত্ন নেওয়ার পরামর্শ বা টিপস

এই সময়ের মধ্যে আপনার গর্ভদশাটি প্রায় শেষ হয়ে গেছে এবং আপনি প্রসবের জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকেন।সুতরাং কয়েকটি সহজ পরামর্শ এক্ষেত্রে আপনার জন্য সমাপ্তির পথটিকে সামগ্রিকভাবে সহজতর করে তুলতে পারে।

করণীয়

  • আপনাকে স্বাভাবিক বা সিজারিয়ান পদ্ধতিতে প্রসব ক্রিয়াটি করাতে হলে সে ব্যপারে আপনার ডাক্তারবাবুর সাথে কথা বলুন।
  • আপনার প্রয়োজনীয় সামগ্রীর ব্যাগটিকে পুনরায় পরীক্ষা করুন এবং আপনার সঙ্গীটিকে দিয়েও সেটি আরেকবার ট্রায়াল করিয়ে নিন।

করণীয় নয়

  • হালকা হাঁটাচলা করা বা পুলের মধ্যে সাঁতার কাটা থেকে পুরোপুরি নিরস্ত থাকবেন না।
  • আপনার স্তনগুলির সমর্থনের প্রয়োজন হলে ঘুমের সময় আপনার ব্রা ছেড়ে ফেলবেন না।

আপনার কি কি কেনাকাটি করার প্রয়োজন পড়বে

আপনার নিজের জন্য এতদিনে নিশ্চই যথেষ্ট কেনাকাটি করার পালা শেষ হয়ে গেছে।সুতরাং এই সপ্তাহে আপনার সঙ্গীর জন্য কিছু উপকরণ কেনাকাটি করতে পারেন, যেমনঃ

  • সারারাতের জন্য পায়াজামা এবং কিছু অতিরিক্ত জামাকাপড়
  • একটি সাধারণ ডিজিটাল স্টপওয়াচ

যে সকল মহিলা যমজ সন্তানের সাথে 36 সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা, তাদের চোখ এই সময় মূলত তাদের শ্রমের লক্ষণগুলির সন্ধান করে চলে।আপনি এখন গর্ভদশার 9’ম মাসে এসে অধিষ্ঠিত এবং আপনার সন্তানরাও এখন বহির্বিশ্বকে তাদের নিজেদের চোখে দেখার জন্য বেরিয়ে আসতে উদগ্রীব হয়ে ওঠে।আপনার প্রসবের মাধ্যমে বিশ্বাস এবং ধৈর্য্য রাখা আপনাদের উভয়ের পক্ষেই সমগ্র প্রক্রিয়াটিকে সর্বোত্তম করে তোলে।