বাচ্চাদেরকে মশার কামড় – কারণ এবং চিকিৎসা

বাচ্চাদেরকে মশার কামড়

আপনার শিশুর চারপাশে গুণগুণ করা মশা তাড়াতে রাত পার হয়ে যাওয়ার কথা সহজে ভোলা যায় না শিশুরা এই ক্ষুদ্র রক্তচোষা পোকামাকড়গুলির সহজ লক্ষ্য আপনার শিশুর দেহে মশার কামড় সনাক্ত করার জন্য আপনার যা যা জানা দরকার, ঘরোয়া প্রতিকারের দ্বারা এটি চিকিৎসা করা এবং এটি দ্বিতীয়বার হওয়া প্রতিরোধ করা সম্পর্কে জানতে পড়তে থাকুন

aniview

মশার কামড়ানোর কারণ

মশার কামড়ানোর কারণ

বাচ্চারা মশার সাথে লড়াই করার জন্য প্রস্তুত থাকে না এবং তাই তারা মশাদের আকর্ষণীয় লক্ষ্যে পরিণত হয় আপনার শিশুর সমস্ত দেহে কেন মশার কামড় দেখা যেতে পারে তা এখানে বলা হল:

1. অপরিষ্কার পরিবেশ

জমে থাকা জল এবং ওভার ফ্লো করা / খোলা আবর্জনার ক্যান মশাদের আকর্ষণ করে এগুলি যদি আপনার এলাকায় বেশি দেখতে পাওয়া যায় তবে আপনার বাচ্চার মশার কামড় খাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে

2. উন্মোচিত ত্বক

আপনি যখন বাচ্চাকে শর্ট প্যান্ট / ন্যাপি এবং স্লিভলেস টিশার্ট পরিয়ে সাজান, সে মশার একটি সহজ লক্ষ্য হয়ে ওঠে

3. স্যাঁতস্যাঁতে ভাব

ভেজা তোয়ালে এবং জামাকাপড়, ফুটো ছাদ এবং স্যাঁতস্যাঁতে ভাব মশাদের আমন্ত্রণ করে এবং যখন বাড়িতে কোনও ছোট বাচ্চা থাকে তখন এগুলি এড়ানো উচিত

4. অনাবৃত খাবার আইটেম

খাবারের গন্ধও মশার ঝামেলাকে নিয়ে আসতে পারে ঘরে বাচ্চা থাকলে আপনার স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখা উচিত

5. সুগন্ধযুক্ত লোশন বা ক্রিম

যদি আপনি আপনার শিশুর শোবার ঘরে শিশুর তেল, লোশন এবং ক্রিম মজুত করে থাকেন তবে এটি মশার কামড়ের অন্যতম কারণ হতে পারে সুগন্ধি পাওডারও এড়ানো উচিত

6. ঘাম

মশারা ঘামের গন্ধ এবং এর উষ্ণতার প্রতি আকৃষ্ট হয় আপনি যদি আপনার বাচ্চাকে ঘামতে দেখেন তবে এটি মুছতে নরম তোয়ালে ব্যবহার করুন আপনার ছোট্ট বাচ্চার গায়ে ঘাম জমতে দেবেন না

7. জল ভিত্তিক সজ্জা

অভিনব জলপ্রপাত, ফ্ল্যাশিং লাইট এবং গার্গলিং শব্দ আপনার বাড়িকে এক অনন্য চেহারা দিতে পারে, তবে এটি মশার প্রজনন ক্ষেত্র আপনার নিষ্পাপ বাচ্চা এই জাতীয় বাড়িতে বড় হওয়া মশার একটি সহজ টার্গেটে পরিণত হতে পারে

আপনার শিশুর দেহে মশার কামড় কীভাবে সনাক্ত করবেন?

আপনি যদি এই লক্ষণগুলির কোনোটি লক্ষ্য করেন তবে এর অর্থ আপনার শিশুটিকে মশা কামড়েছে

  • ছোট্ট লাল ফোঁড়া
  • ফোলা লালচে অঞ্চল
  • কালো দাগ
  • বাচ্চা চুলকাচ্ছে বা কোনও লক্ষণীয় কারণ ছাড়াই কাঁদছে
  • একটি স্পষ্ট সাদা কেন্দ্রবিন্দু এবং একটি লাল দাগযুক্ত ত্বক ফুলে উঠেছে

আপনার শিশুর দেহে মশার কামড়ের কীভাবে চিকিৎসা করবেন?

আপনার শিশুর দেহে মশার কামড়ের কীভাবে চিকিৎসা করবেন?আপনার শিশুর ত্বক নিরাময়ে কার্যকর এই মশার কামড়ের প্রতিকারগুলি ব্যবহার করে দেখুন:

  • বরফ প্রয়োগ করলে চুলকানি এবং ফোলা নিয়ন্ত্রণে আনে
  • অবিলম্বে আরাম দিতে অ্যালুমিনিয়াম ক্লোরাইডযুক্ত রোলঅন ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করুন
  • শীতল ক্যালামাইন লোশনও মশার কামড়ের জন্য দ্রুত এবং সহজ প্রতিকার
  • চুলকানির জায়গাগুলি চুলকানো থেকে আপনার শিশুকে আটকাবেন

মশার কামড়ের ঘরোয়া প্রতিকার

বাচ্চাদের দেহে মশার কামড়ের উপশমের এই প্রতিকারগুলি কার্যকর এবং এর কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই প্রয়োজনীয় উপাদানগুলি আপনার রান্নাঘরেই উপলভ্য!

1. পাতিলেবু

লেবুতে দুর্দান্ত অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি এবং অ্যানাস্থেশিয়ার গুণ রয়েছে এটি এটিকে অন্যতম সেরা ঘরোয়া প্রতিকারে পরিণত করে একটি লেবুকে কেটে দুটি টুকরো করে সরাসরি কামড়ের উপরে প্রয়োগ করুন ত্বকে প্রয়োগের জন্য আপনি তাজা লেবুর রসও ব্যবহার করতে পারেন

2. রসুন

কামড়ের পরে চুলকানি এবং ফোলাভাবের জন্য রসুন একটি সুন্দর মজাদার মলম এটি ফোলা হ্রাস করতে সাহায্য করে এবং এর উগ্র গন্ধ আপনার অসহায় শিশুর থেকে মশাকে দূরে রাখে রসুন থেঁতো করুন এবং কামড়ের উপরে আলতোভাবে ঘষুন কয়েক মিনিট পর স্যাঁতসেঁতে কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন

3. বেকিং সোডা

বাচ্চাদের দেহে মশার কামড় নিরাময়ের জন্য এই সস্তা এবং কার্যকর পদ্ধতিটি মায়েদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় বেকিং সোডা দ্রুত পিএইচ মাত্রা পুনরুদ্ধার করতে পারে এবং চুলকানি কমাতে সহায়তা করে এক কাপ জলে এক চা চামচ বেকিং সোডা দ্রবীভূত করুন এটিতে একটি নরম তোয়ালে ডুবিয়ে 10 মিনিট ধরে সেটিকে কামড়ের জায়গায় রাখুন

4. বরফ

বরফ প্রদাহ প্রতিরোধে সহায়ক এবং এই কামড় থেকে আশেপাশের অঞ্চলগুলির প্রভাবিত হওয়াকে বাধা দেয় একটি পরিষ্কার, নরম কাপড়ে কয়েকটি আইস কিউব রাখুন এবং বারবার এটি ত্বকে বুলিয়ে দিন এটি আপনার শিশুর সংবেদনশীল ত্বকে বেশিক্ষণ ধরে রাখবেন না কারণ এটি কিছুটা অস্বস্তির কারণ হতে পারে এই সহজ অথচ কার্যকর চিকিৎসাটি শীঘ্রই নিরাময় করে

5. নুন

দ্রুত আরামের জন্য সমুদ্রের নুন এবং জল দিয়ে ত্বকের অঞ্চলটি পরিষ্কার করুন লেবুর মতো নুনও প্রদাহ বিরোধী এবং মশার কামড়ের কার্যকর ঘরোয়া প্রতিকার হিসাবে প্রমাণিত এর সহজলভ্যতা এটিকে পোকার কামড়ের দ্রুত সমাধান করে তোলে

6. ঘৃতকুমারী (অ্যালো ভেরা)

এটি একটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক এবং এটির জেল শিশুদের দেহে মশার কামড়ের দুর্দান্ত উপশমকারী জেলটি কয়েক মিনিটের জন্য ফ্রিজে রাখুন এবং তার পরে আক্রান্ত স্থানের উপরে প্রয়োগ করুন এটি মশার কামড়ের কারণে হওয়া চুলকানি, ফোলাভাব এবং ব্যথা হ্রাস করবে

7. মধু

ঘরোয়া প্রতিকারের জগতে মধুর প্রচুর প্রয়োগ আছে যেহেতু এটি অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি, তাই মধু মশার কামড়কে প্রশমিত করে এবং প্রদাহকে নিয়ন্ত্রণে রাখে

প্রতিরোধ

 মশারির জাল দিয়ে ঢেকেযেহেতু প্রতিরোধ চিকিৎসার চেয়ে সর্বদাই ভাল, তাই আপনার বাচ্চাকে মশার কামড় থেকে রক্ষা করতে নিম্নলিখিত ব্যবস্থা গ্রহণ করুন

1. মশারির জাল দিয়ে ঢেকে দিন

আপনার শিশুর বিছানা এবং গাড়ির সিটের উপরে সূক্ষ্ম জালযুক্ত মশারি ছড়িয়ে দিন এটি আপনার শিশুর ত্বককে এই ভয়ঙ্কর পোকামাকড়ের সংস্পর্শে আসা থেকে বাঁচায়

2. আপনার শিশুকে ঢেকে রাখুন

আপনার বাচ্চার হাত এবং পা সর্বদা ফুলহাতা জামাকাপড় দিয়ে ঢেকে রাখা উচিত, বিশেষত বর্ষার সময়

3. পোকামাকড় প্রতিরোধক ব্যবহার করুন

আপনার শিশুর ত্বকে সরাসরি কখনই পোকা প্রতিরোধক প্রয়োগ করবেন না পরিবর্তে এগুলি আপনার শিশুর পোশাকগুলিতে ব্যবহার করুন মশার প্রতিরোধকগুলি ডিইইটি (DEET) দিয়ে গঠিত, যা দুই বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের জন্য অনিরাপদ

4. আপনার সন্তানকে জলাধার থেকে দূরে রাখুন

জমে থাকা জল এবং কাঠে ভরা অঞ্চল মশার আদর্শ প্রজনন ক্ষেত্র আপনি যখন আপনার বাচ্চাকে নিয়ে বাইরে বেড়াতে যাবেন তখন এই জায়গাগুলি এড়িয়ে চলুন

5. জানালার স্ক্রীণ কিনুন

জাল বা স্ক্রীণ দিয়ে জানালা ঢেকে রাখুন এটি আপনার বাড়িতে মশা প্রবেশ করতে বাধা দেবে মশা তাড়াতে আপনি কোনও টেবিল ফ্যানও চালু করতে পারেন

6. দরজা বন্ধ রাখুন

অন্ধকার হয়ে যাওয়ার সাথে সাথে দরজা এবং জানালা বন্ধ করে দেওয়া আপনার বাচ্চাকে মশার কামড় থেকে রক্ষা করার জন্য অনেক কিছু করতে পারে

7. রঙগুলিতে মনোযোগ দিন

মশার যেহেতু নেভি এবং কালোর মতো গাঢ় রঙের প্রতি আকৃষ্ট হওয়ার প্রবণতা রয়েছে, তাই আপনার শিশুকে হালকা রঙের পোশাক পরানো বুদ্ধির কাজ আপনার বাচ্চার ঘরে অতিবেগুনী, নীল বা ফ্লুরোসেন্ট বাল্ব রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করে সেগুলিকে বদলে দেওয়া উচিত

আপনার কখন ডাক্তারকে কল করা উচিত?

মশা বিভিন্ন রোগের কার্যকর বাহক এবং শিশুদের এদের থেকে দূরে রাখতে হবে আপনি নিচে উল্লিখিত কোনও লক্ষণ লক্ষ্য করলে, আপনার শিশুর তাৎক্ষণিক চিকিৎসার প্রয়োজন:

  • আপনার শিশুর ত্বকে ক্ষত, প্রদাহ এবং লাল দাগ
  • শোঁ শোঁ করে আওয়াজ হওয়া এবং গলা ফুলে যাওয়া এনাফিল্যাক্সিসের সূচক যা একটি প্রাণঘাতী অবস্থায় পরিণত হতে পারে
  • ফুসকুড়ি, জ্বর, বমি হওয়া এবং বমি বমি ভাব
  • ভারী শ্বাস এবং শরীরের অন্যান্য অংশে প্রতিক্রিয়া
  • ক্ষতিগ্রস্থ জায়গায় বা তার আশেপাশে ব্যথা
  • আলোর প্রতি সংবেদনশীলতা হ্রাস
  • ফোলা ফোলা ঠোঁট
  • ঘাড়ে ফোলা
  • দংশনযুক্ত অঞ্চল বড় হয়ে যাওয়া এবং সেখানে পুঁজ হওয়া

সর্বদা মশাকে দূরে রাখা সম্ভব নয় তবে মশার কামড়ের সম্ভাবনা হ্রাস করা যায় আপনার বাচ্চা যখন ঘুমাচ্ছে বা খেলছে তখন আশেপাশে ভালো করে নজর রাখুন আপনার বাড়িকে মশা মুক্ত রাখার জন্য প্রয়োজনীয় হল নজরদারি