শিশুর জন্য ফর্মুলা দুধ: আপনার শিশুর কতটা প্রয়োজন?

শিশুর জন্য ফর্মুলা দুধ: আপনার শিশুর কতটা প্রয়োজন?

বুকের দুধ না ফর্মুলা-দুধ খাওয়াতে হবে তা ঠিক করা কোনও নতুন পিতামাতার জন্য একটি বড় সিদ্ধান্ত। বুকের দুধ খাওয়াতে না চাইলে, যখন আপনি একটি ফর্মুলা নির্বাচন করেন তখন প্রতিদিন বাচ্চাকে কতটুকু দিতে হয় তা চিন্তা করা বিভ্রান্তিকর হতে পারে। উত্তরটি শিশুর বয়স, ওজনের উপর নির্ভর করছে এবং আপনি শুধুমাত্র ফর্মুলা খাওয়াচ্ছেন নাকি বুকের দুধ অথবা শক্ত খাবারের পাশাপাশি একটি সম্পূরক হিসাবে এটি প্রদান করছেন তার উপর নর্ভর করে একটি শিশুকে আপনি কি পরিমাণ ফর্মুলা দেবেন সেই বিষয়ে আপনার মনস্থির করার আগে এখানে কিছু জিনিস জানার আছে।

aniview

শিশুদের খাওয়ানোর সময়ের সংকেত

বাচ্চাদের প্রায়ই, প্রতি 2-3 ঘন্টায় একবার করে খাওয়ানো উচিত। প্রতিটি শিশু আলাদা এবং শিশু কখন ক্ষুধার্ত হচ্ছে তা চিহ্নিত করা গুরুত্বপূর্ণ, নাহলে তারা খুব মনমরা হয়ে কাঁদতে পারে। মুখ খোলা এবং বন্ধ করা, ঠোঁট চাঁটা, হাত এবং আঙ্গুল বা পোশাক চুষতে শুরু করার মাধ্যমে সংকেতগুলি শুরু হয়। 4 মাস বয়স পর্যন্ত এগুলি হল চিহ্নিত করার সাধারণ উপায়। এই সময় তারা তাদের মাথা ঘোরায় এবং আপনার বুকের দিকে তাদের মুখ খুলতে থাকে। শিশুরা এছাড়াও চোষার ইশারা করে এবং তাদের  হাতটি মুখের সামনে নিয়ে আসে; এটি তাদের খাওয়ানোর একটি ভালো সময়। ক্ষুধার্ত অবস্থায় কাঁদতে থাকা একটু বড় বাচ্চারাও  তাদের মাথা উন্মত্তভাবে এক দিক থেকে অন্য দিকে নাড়াতে থাকে।

তবে, কখনও কখনও খাওয়ানোর ইঙ্গিত চিহ্নিত করা কঠিন হতে পারে। এগুলি স্বাভাবিকভাবে দেখা দিতে পারে যখন আপনি শিশুকে বোতলটি দেন এমনকি যদি তারা ক্ষুধার্ত নাও হয়ে থাকে, তারা হয়তো কেবল আপনার কাছে থাকতে চায়।

আপনার শিশুর জন্য কত  ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন?

আপনার শিশুর জন্য কত  ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন?

প্রতিটি বাচ্চার খিদে আলাদা এবং তার পুষ্টির চাহিদাগুলি প্রতি মাসে পরিবর্তিত হওয়ার জন্য আপনার বাচ্চাদের কতটা ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন তা নির্ণয় করা কঠিন হতে পারে। সাধারণত যখন তারা ক্ষুধার্ত হয় তখনই খায় এবং যখন তারা পেট ভরে গেছে মনে করে তখনই তারা খাওয়া বন্ধ করে দেয়। ফর্মুলা-খাওয়ানো শিশুরা বেশি খেতে থাকে এবং বুকের দুধ খাওয়ানোর চেয়ে বেশী ওজনের হয়ে থাকে। বাচ্চাদের জন্য ফর্মুলা দুধ পরিমাপের মূল নিয়মটি হল এটি তাদের শরীরের ওজন অনুযায়ী পরিমাপ করা হয়। বাচ্চাদের শরীরের প্রতি কেজি ওজনের জন্য দিনে 150 মিলি থেকে 200 মিলি ফর্মুলার  প্রয়োজন হয়। অর্থাৎ, যদি কোনো শিশু 3 কেজি ওজনের হয় তবে প্রতিদিন তার 450 মিলি থেকে 600 মিলি ফর্মুলার প্রয়োজন হবে। তবে তারা হয়তো তাদের প্রথম সপ্তাহে এতটা খেতে চাইতে না পারে বা প্রতিবার খাওয়ার সময় একই পরিমাণ খেতে নাও পারে, তাই মনে রাখবেন তাদের খাওয়ার জন্য জোর করা উচিৎ হবে না।

যদি আপনি ভাবছেন যে কোনো নবজাতককে কতটা ফর্মুলা দুধ খাওয়ানো উচিত, তাহলে প্রতিটি ফীডে তাদের 60-70 মিলি ফর্মুলা দিতে চেষ্টা করুন কারণ তারা একসাথে এর বেশি খেতে সক্ষম হবে না।

শিশুর প্রয়োজন অনুযায়ী ফর্মুলার পরিমাণ

একটি শিশুর ফর্মুলা দুধ খাওয়ার পরিমাণ শুধুমাত্র তাদের ওজনের ওপর নির্ভর করে না, একই সাথে বয়সের উপরও নির্ভর করে। তাদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে তাদের পুষ্টির ও ক্যালোরির চাহিদা বাড়ে এবং তারা আরও বেশি খাবার খায়। প্রথম কয়েক সপ্তাহে তারা একটি ফিডে গড়ে প্রায় 70 মিলি ফর্মুলা পান করতে পারে। প্রথম 2 সপ্তাহ থেকে 2 মাসের মধ্যে তারা প্রতিটি ফিডে প্রায় 75-105 মিলি খাবে যার ফলে দৈনিক মোট খাওয়ার পরিমাণ 450 মিলি থেকে 735 মিলির মধ্যে হবে। যখন তারা প্রায় 2-6 মাস বয়সী, তখন তারা একটি ফিডে 105 মিলি থেকে 210 মিলি ফর্মুলা দুধ শিশু খাবে।

একটি 6 মাসের শিশুর জন্য ফর্মুলা দুধ প্রতিদিন প্রায় 900 মিলি লাগে এবং তারা প্রতিটি ফিডে 210 মিলি থেকে 240 মিলির মধ্যে খেতে চাইবে। এছাড়াও, এই সময়ে, বেশিরভাগ শিশু কঠিন খাবারের সাথে পরিচিত হয় এবং তাদের ফর্মুলার পরিমাণ দিনে 600 মিলিতে নেমে আসবে।

কত ঘন ঘন আপনার শিশুকে খাওয়াতে হবে?

বাচ্চারা খেতে চাইলে খাওয়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়, অর্থাৎ যখনই তাদের ক্ষুধার লক্ষণ দেখা যাবে তখনই তাদের খাওয়াতে হবে। ফর্মুলা খাওয়া নবজাতকদের প্রতি 2-3 ঘন্টায় খেতে দেওয়া উচিৎ। তারা যত বড় হয় তাদের পেটের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, তারা তখন একটি ফিডে বেশি খেতে থাকে এবং প্রতি 3-4 ঘন্টাতে খাবার খাওয়াতে হয়। আগে উল্লেখ করা হয়েছে, আপনাকে শিশুকে খাওয়ানোর সময়ের সংকেতের দিকে চোখ রাখতে হবে এবং সেই অনুযায়ী খাওয়াতে হবে। যতক্ষণ না বাচ্চা আপনার খাওয়ানোর অপেক্ষায় অস্থির হয়ে কাঁদতে শুরু করে, ততক্ষণ পর্যন্ত আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে না কান্না প্রায়ই ক্ষুধার্ত হওয়ার একটি বিলম্বিত চিহ্ন। সন্তান যথেষ্ট পরিমাণে খেয়েছে – তার লক্ষণগুলিও, যেমন খাওয়া  ধীর হয়ে যাওয়া এবং থেমে যাওয়া, সন্ধান করা সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

এছাড়াও যদি বাচ্চাটি ছোট হয় বা ওজন বাড়তে সমস্যা হয়, তবে তাদের ঘন ঘন খাওয়ানো উচিত, এমনকি ঘুম থেকে তুলেও। এইসব ক্ষেত্রে কত পরিমাণ এবং কত ঘন ঘন খাওয়ানো উচিত সে বিষয়ে একজন ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

আপনার শিশু যথেষ্ট পরিমাণে ফর্মুলা খাচ্ছে কিনা কীভাবে আপনি জানবেন?

শিশুর শারীরিক চেহারা এবং আচরণ সে  যথেষ্ট ফর্মুলা পেয়েছে কি না সে বিষয়ে আপনাকে ধারণা দিতে পারে।

নিচের লক্ষণগুলি নির্দেশ করে যে তারা অপর্যাপ্ত ফর্মুলা পেয়েছে (অর্ধভুক্ত):

  • শিশুর ওজন বৃদ্ধির হার স্বাভাবিকের চেয়ে ধীর। এটি একটি নিশ্চিত লক্ষণ যে সে অর্ধভুক্ত থাকছে এবং একজন শিশু বিশেষজ্ঞের সঙ্গে অবিলম্বে পরামর্শ করা আবশ্যক।
  • একটি সম্পূর্ণ খাওয়ানোর পরেও  তাদের অসন্তুষ্ট বলে মনে হচ্ছে।
  • প্রস্রাব হওয়ার পরিমাণ কমে গেছে।
  • কমলা রঙের স্ফটিক ভিজা ডায়পারে দেখা যাচ্ছে, যা ডিহাইড্রেশন এবং অপর্যাপ্ত তরল গ্রহণের একটি চিহ্ন।
  • শিশুর ত্বকে একটি কোঁচকানো এবং আলগা ভাব আছে।
  • শিশু স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি কাঁদে।
  • নীচের লক্ষণগুলি ইঙ্গিত করে যে শিশুটি খুব বেশি ফর্মুলা গ্রহণ করছে (অতিভোজন):
  • শিশুকে খাওয়ানোর পরে অবিলম্বে থুতু বা বমি করে দেয়।
  • শিশুটি খাওয়ার পর গ্যাস এবং কোলিক জনিত পেট ব্যথা অনুভব করে এবং পাদুটিকে পেট পর্যন্ত তুলে চিৎকার করে।
  • শিশুর ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং তার বয়সের তুলনায় বেশি ওজনের হয়ে যাচ্ছে।

শিশুটি ফর্মুলার সঠিক পরিমাণ প্রাপ্ত হলে তার লক্ষণ:

  • 2 সপ্তাহ পর থেকে তাদের একটি স্থায়ী ওজন বৃদ্ধি দেখা যায় এবং এক বছর বয়স হওয়া পর্যন্ত সেটি বজায় রাখে।
  • তারা খাওয়ার পরে খুশি, সন্তুষ্ট এবং নিরুদ্বেগ বলে মনে হয়।
  • তারা ফ্যাকাশে প্রস্রাব করে এবং দিনে প্রায় 5-6টি ডায়াপার ভেজায়।

যাইহোক, কিছু অবস্থা আছে যেগুলি উপরে উল্লিখিত নিয়ম থেকে বিচ্যুত। বাচ্চারা 2-6 সপ্তাহ থেকে, 4 মাসে এবং 6 মাসে দুর্দান্ত বৃদ্ধির পর্যায়ের মধ্যে দিয়ে যেতে পারে। একটি দুর্দান্ত বৃদ্ধি  বলতে দ্রুত বৃদ্ধির একটি সময়কে বোঝায় এবং যে কোনো সময় ঘটতে পারে। এই ধরনের একটি দুর্দান্ত বৃদ্ধির সময় তারা বেশি খেতে থাকে এবং স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ক্ষুধার্ত থাকে।

এছাড়াও, ফর্মুলা-খাওয়া শিশুদের স্বাভাবিকের থেকে আরো বেশী খাওয়ার ঝোঁক থাকে। বুকের দুধ খাওয়ালে  দুধের উপর শিশুর মাঝারি নিয়ন্ত্রণ থাকে, যেখানে বোতল থেকে সহজে দ্রুত দুধ প্রবাহিত হয়। যেহেতু বোতলে বেশি দুধ থাকে এবং শিশুদের একটি স্বাভাবিক চোষার প্রতিক্রিয়া আছে, তাই তারা বেশি খেয়ে ফেলে এবং অতিভুক্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকে। ফরমুলা দুধ ও বুকের দুধ ভিন্নভাবে বিপাক করা হয় এবং বুকের দুধের তুলনায় ফর্মুলাতে পুষ্টির সামগ্রী কম থাকে, তাই সেগুলি আরও বেশী খাওয়ার প্রয়োজন হতে পারে।

ফর্মুলা প্রতিস্থাপন করার আদর্শ সময় কোনটি?

ফর্মুলা প্রতিস্থাপন শুরু করার আদর্শ সময় মোটামুটি 6 মাস বয়স যখন থেকে আপনি তাদের কঠিন খাবারের সাথে পরিচয় করানো শুরু করেন। কিন্তু যেহেতু তাদের পছন্দসইভাবে খাওয়ার মতো প্রচুর কঠিন খাবার নেই, তাই তারা প্রয়োজনীয় সব পুষ্টি পাবে না, তাই তাদের প্রায় এক বছর বয়স পর্যন্ত ফর্মুলাতে রাখা গুরুত্বপূর্ণ। আপনি তাদের ফর্মুলা খাওয়ার পরিমাণ 900 মিলি থেকে প্রায় 600 মিলিতে কমতে দেখতে শুরু করবেন যখন আপনি তাদের কঠিন খাবারগুলি আরো বেশি করে খাওয়াতে শুরু করবেন। এক বছরের পর, শিশুদের কেবলমাত্র প্রায় 350 মিলি দুধ দরকার, সেটা ফর্মুলা, বুকের দুধ বা উচ্চ ফ্যাট যুক্ত গরুর দুধ হতে পারে। যদি তারা মূলত ফর্মুলার উপর নির্ভর করে বড় হয়েছে এবং কঠিন খাবারে সম্পূর্ণরূপে অভ্যস্ত হয়েছে, তবে অল্প অল্প করে ফর্মুলা হ্রাস করা শুরু করুন।

শিশুদের ফর্মুলা খাওয়ানো বুকের দুধ খাওয়ানোর একটি স্বাস্থ্যকর বিকল্প। শিশুর বৃদ্ধির জন্য এটি প্রায় সব রকমের উপকারী পুষ্টি সরবরাহ করে। অতএব, কতটা ফর্মুলা দুধ আপনার শিশুর জন্য পর্যাপ্ত তা জানা খুব গুরুত্বপূর্ণ, যাতে শিশুর কোনো গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি বাদ না যায়।