শিশু কন্যাদের জন্য পটি প্রশিক্ষণ

শিশু কন্যাদের জন্য পটি প্রশিক্ষণ

শিশুর ডায়পার পরিবর্তন করা মাতৃত্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ।তবে অধিকাংশ মা-বাবারাই অধীর হয়ে ওঠেন প্রস্রাব এবং মল ত্যাগের জন্য তাদের সন্তানকে টয়লেট ব্যবহারের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য।এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে আপনার ছোট্ট সোনাটিকে পটি প্রশিক্ষণ দেওয়া আপনি কেবল তখনই শুরু করুন যখন তার জন্য এটি শুরু করার সঠিক ও উপযুক্ত সময়, তার আগেও নয় আবার পরেও নয়।আপনার যদি একটি ছোট্ট মেয়ে থেকে থাকে, সেক্ষেত্রে সুখবর আছেঃ ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের পটি প্রশিক্ষণটি আগে হয়ে থাকে! বিশেষজ্ঞদের গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে পটি প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে ছেলেরা মেয়েদের তুলনায় বেশি সময় নেয়।সুতরাং আপনি যদি আপনার বাড়িতে আপনার ছোট্ট মেয়েটিকে পটি প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যাপারে খুব বেশি চিন্তা করে থাকেন, আপনার সব চিন্তা দূর করে আনন্দ করার সময় এসেছে কারণ আপনাকে এর জন্য খুব বেশি কষ্ট করতে হবে না!

aniview

পটি প্রশিক্ষণ বিষয়টি আসলে কি?

বাচ্চাদের প্রস্রাব-মল ত্যাগের মত নিত্য কর্মগুলি সম্পাদনের জন্য টয়লেট ব্যবহার করা প্রশিক্ষণ দেওয়ার সামগ্রিক প্রক্রিয়াটিই পটি প্রশিক্ষণ নামে অভিহিত।ছোট হওয়ার কারণে, শিশুরা সাধারণত তাদের নিত্য শৌচ কর্মগুলি ডায়পারের মধ্যেই করে থাকে। কিন্তু তারা যেহেতু ধীরে ধীরে বেড়ে টলমল করে হেঁটে চলে বাড়ানো টডলার পদাধিকারীতে পরিণত হতে থাকে, তাদের টয়লেট ব্যবহার করার প্রশিক্ষণ দেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ এবং সেটি অবশ্যই সঠিক বয়সে করা দরকার।এই টয়লেট প্রশিক্ষণটিতে কিন্তু তাই বলে প্রথমেই শিশুদের সরাসরি শৌচালয় ব্যবহারের দ্বারা সেটি শুরু করানো হয় না।তারা সেটি ধীরে ধীরে শিখবে, আর ছোট শিশুদের ডায়পার থেকে যথাযথভাবে টয়লেট ব্যবহারে রূপান্তরিত করতে সাহায্য করার সামগ্রিক পর্বটিকেই বলা হয় পটি প্রশিক্ষণ।

শিশুকন্যাদের পটি প্রশিক্ষণ দেওয়াটি কখন শুরু করবেন?

শিশুকন্যাদের পটি প্রশিক্ষণ দেওয়াটি কখন শুরু করবেন?

একই বয়সের কন্যা শিশুরা পুত্র শিশুদের তুলনায় কম বিচলিত হওয়ার কারণে, শিশু কন্যাদের টয়লেট প্রশিক্ষণটি দেওয়া তুলনামূলক সহজ এবং তারা সেটি দ্রুত রপ্ত করে নিতে পারে।বলা হয়ে থাকে যে, আপনাকে তবুও সঠিক সময়ের জন্য অপেক্ষা করতে হবে এবং আপনার কন্যা টয়লেট ব্যবহার করার জন্য প্রস্তুত কিনা তার লক্ষণগুলি লক্ষ্য করতে হবে।এছাড়াও আবার আপনার ছোট্ট রানির চারপাশে হয়ে থাকা নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যদি সে অতিবাহিত করে, সেক্ষেত্রে তাকে পটি প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করার আগে আপনাকে অবশ্যই অপেক্ষা করতে হবে সেই পরিবেশের সাথে তার নিজেকে মানিয়ে নেওয়া না পর্যন্ত।বিশেষজ্ঞদের দ্বারা নির্ধারিত শিশু কন্যাদের জন্য পটি প্রশিক্ষণ শুরু করার আনুমানিক বয়সটি হল 18 মাস থেকে 3 বছর বয়সের মধ্যে।

কন্যা শিশুদের জন্য টয়লেট প্রশিক্ষণটি কীভাবে শুরু করবেন?

আপনার মনের অগোচরে উঠে আসতে পারে ভীষণ প্রাসঙ্গিক এমন একটি প্রশ্ন হল ‘কীভাবে আমি আমার মেয়েকে পটি প্রশিক্ষণটি দিতে পারি?’ এখানে এমন কতগুলি ইঙ্গিত আছে যেগুলি আপনাকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবেঃ

সঠিক সময়ের অপেক্ষাঃ সকল শিশুর মধ্যেই কিছু শারিরিক, আচরণগত এবং জ্ঞানীয় লক্ষণ প্রকাশ পায় যেগুলি আপনার সন্তানের প্রশিক্ষণের জন্য তার প্রস্তুত হওয়ার স্পষ্ট ইঙ্গিত হিসেবে কাজ করে।সেই লক্ষণগুলি দেখতে পাওয়ার অপেক্ষা করুন কারণ আপনি যদি তাড়াতাড়িও শুরু করেন তবুও সম্পূর্ণ পটি প্রশিক্ষণের ব্যাপারটি সম্পন্ন হতে সেই একই সময় লাগবে।

একটি পরিকল্পনা ছকে ফেলুনঃ এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি পরীক্ষা চালানো শুরু করার পূর্বে সেটির ব্যাপারে সম্পূর্ণ রূপে একটি পরিকল্পনা করে নিন।তবে পরিকল্পনাটি অবশ্যই বিস্তৃত হতে হবে এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ, কোনওরকম অঘটন ঘটে গেলে সেটি সামাল দেওয়া এবং কখনই-বা সেটি থেকে প্রত্যাবর্তন করা দরকার-এরকম সকল বিষয়গুলিও অবশ্যই বিবেচনার মধ্যে রাখতে হবে।আপনার সন্তানের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের কিম্বা তার ডে কেয়ার থেকে প্রাপ্ত পরামর্শগুলি এবং তাদের বহু বছরের অভিজ্ঞতার মূল্যবান টিপসগুলি এক্ষেত্রে ইতিবাচক ফলাফল নিয়ে আসবে।এছাড়াও এগুলি সযত্নে মাথার মধ্যে গচ্ছিত রাখাটাও গুরুত্বপূর্ণ কারণ প্রশিক্ষণ পরিকল্পনাটি সফলভাবে চালিয়ে যেতে তাদের অবদানের প্রয়োজন হবে।

এটি সময় নিতে দিনঃ কেউ একজন ভীষণ সঠিকভাবেই বলেছিলেন যে ‘শিষ্টাচারের জন্য সময়ের প্রয়োজন আর সেখানে তাড়াহুড়ো করার চেয়ে অশ্লীল আর কিছুই হতে পারে না’।সুতরাং, আপনার মূল্যবান ছোট্ট শিশুটি এই নতুন দক্ষতাটি অর্জন করার জন্য সক্ষম হয়ে ওঠার আগেই দ্রুত তড়িঘড়ি তাকে এটি অর্জন করার জন্য জোর দেবেন না।সবসময় মনে রাখবেন যদিও কিছু বাচ্চা এ ব্যাপারে প্রশিক্ষিত হয়ে উঠতে হয়ত মাত্র কয়েকটা দিনই নিতে পারে কিন্তু অন্যরা আবার সেক্ষেত্রে বেশ কয়েক মাসও লাগাতে পারে।

আপনার শিশুকে অনুপ্রাণিত করুনঃ আপনার সন্তানকে অনুপ্রাণিত করুন তার চালিয়ে যাওয়া প্রতিটি প্রয়াসের ক্ষেত্রে।প্রতি সময়ে প্রশংসা করার মাধ্যমে প্রতিদিন তার সেই কাজটি করার ক্ষেত্রে তাকে অনুপ্রাণিত করবে।

যেকোনও অঘটনের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবেঃ টয়লেট প্রশিক্ষণ চলাকালীন নানাবিধ অঘটন ঘটে যেতে পারে।আপনার ধৈর্য্য হারাবেন না অথবা শীঘ্র শিখে উঠতে না পারার কারণে আপনার ছোট্ট প্রেয়সীটিকে যেন বকাবকিও করবেন না।আপনার থেকে কোনওরকম বিরূপ উক্তি তার শিখন প্রক্রিয়াটিকে সম্ভবত ধীর করে তুলতে পারে অথবা আপনার সন্তানকে সেটি শেখার ক্ষেত্রে বিমুখ করেও তুলতে পারে।

শিশুদের জন্য পটি প্রশিক্ষণের প্রস্তুতির চিহ্নগুলি

শিশুদের জন্য পটি প্রশিক্ষণের প্রস্তুতির চিহ্নগুলি

নতুন মা-বাবাদের জন্য সহজ করে তুলতে, বিশেষজ্ঞরা শিশুদের জন্য পটি প্রশিক্ষণের প্রস্তুতির বেশ কয়েকটি নির্দিষ্ট লক্ষণ একত্রিত করেছেন যেগুলির দিকে আপনার একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া প্রয়োজন তাদের জন্য পটি প্রশিক্ষণের পরিকল্পনা গড়ে তোলা শুরু করার পূর্বে।এই লক্ষণগুলিকে মূলত বিভাজিত করা হয়েছে শারীরিক, আচরণগত এবং জ্ঞানীয় লক্ষণগুলিতেঃ

শারীরিক লক্ষণ সমূহঃ প্রথমেই আপনি পরীক্ষা করে দেখে নিতে চাইতে পারেন হাঁটার জন্য আপনার বাচ্চা যথেষ্ট সহযোগিতা করে কিনা।আবার আপনার শিশুর একেবারে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রস্রাব না হওয়া পর্যন্ত এবং একটি অনুমেয় সময়ে সুগঠিত অন্ত্রের গতিবিধি না হওয়া পর্যন্ত আপনি অপেক্ষা করতে চাইতে পারেন।এছাড়াও আবার আপনার কন্যার জন্য পটি প্রশিক্ষণকে ঘিরে আপনার পরিকল্পনাগুলি গড়ে তোলার সময় কমপক্ষে 2-3 ঘন্টা বা তারও বেশি তার ঘুমের সময় কালে শুকনো থাকাটা ভীষণ কার্যকর হবে।

আচরণগত লক্ষণগুলিঃ আপনার টলমল করে হেঁটে চলা টডলার পদাধিকারিণীটিকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য সে শান্ত হয়ে এক জায়গায় অন্তত পাঁচ মিনিট বসে থাকা পর্যন্ত আপনার অপেক্ষা করা প্রয়োজন।বিশেষজ্ঞরা বলে থাকেন যে এটি অর্জন করা ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের সহজ।কিছু ক্ষেত্রে সে আবার তার নিজের প্যান্টটিকে উপরে নীচে টানতেও সক্ষম হয়ে উঠবে।

যখন কোনও শিশু তার ভিজে ডায়পারটিকে পরে থাকার ক্ষেত্রে কিম্বা সেটির অনুভূতিটিকে অপছন্দ করতে শুরু করে অথবা তার অন্ত্রের গতিবিধির কোনও রকম লক্ষণের প্রকাশ তার শারীরিক বা মুখের অঙ্গভঙ্গীর দ্বারা প্রকাশ করে, তবে এটি হল তার পটি প্রশিক্ষণ শুরু করার একটি ভাল সঙ্কেত।এছাড়াও আবার আপনি যদি আপনার কন্যা সন্তানটির মধ্যে অন্যান্য শৌচালয়ের অভ্যাসগুলির প্রতি কোনও রকম উৎসাহ প্রকাশ লক্ষ্য করে থাকেন, তবে আপনার শিশু কন্যাটিকে তার নিজের মত করে সেগুলি গড়ে তুলতে সহায়তা করার জন্য আপনার একটি পরিকল্পনা ছকে ফেলার এটিই হল মোক্ষম সময়।অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ আচরণগত বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে তার মধ্যে একটি স্বাধীনচেতা মনোভাবের ইচ্ছে প্রকাশ পাবে,তার সাফল্যগুলিতে সে গর্ব বোধ করবে এবং সাধারণত সহযোগী হয়ে উঠবে।

জ্ঞানীয় লক্ষণগুলিঃ একটি 2 বছর বয়সী শিশুকে পটি প্রশিক্ষণ দেওয়া কিম্বা একটি 3 বছর বয়সী শিশুকে টয়লেট প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করার জন্য তার মধ্যে একটি ভাল পরিমাণ জ্ঞানীয় বিকাশ ঘটাটাও গুরুত্বপূর্ণ।তাদের শারীরিক সঙ্কেতগুলিকে তাদের বুঝতে পারার ক্ষেত্রে সক্ষম হওয়া উচিত এবং যখনই প্রয়োজন হবে তাদের নিজেদেরও সঙ্কেত দিতে সক্ষম হওয়া উচিত।

সহজ এবং সোজাসাপটা নির্দেশগুলি অনুসরণ করতে সক্ষম হয়ে ওঠাটাও হল অপর আরেকটি জ্ঞানীয় বিকাশ যেটি যেকোনও প্রশিক্ষণ শুরু করার আগে প্রত্যাশিত। বিশেষজ্ঞরা আবার এর উপরেও গুরুত্ব আরোপ করেন যে, যে সকল শিশুরা তাদের খেলনাপত্রগুলিকে তাদের নিজেদের মত করে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা শুরু করে তারা নিজেদেরকেও পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রস্তুত হয়।মল ত্যাগ বা প্রস্রাবের ক্ষেত্রে তাদের আবার নিজস্ব কিছু কোড বা নির্দিষ্ট শব্দ থাকবে যেগুলিকে সে ব্যবহার করতে পারে যখনই তাদের প্রস্রাব পায় বা অন্ত্রের গতিবিধির সময় এসে উপস্থিত হয়।

উপরে উল্লিখিত সকল লক্ষণগুলিই নতুন মা-বাবাদের তাদের টডলার পদাধিকারিণীকে টয়লেট প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করার সঠিক সময়টিকে নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে।

মেয়েদের জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ পটি প্রশিক্ষণের পরামর্শগুলি

মেয়েদের জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ পটি প্রশিক্ষণের পরামর্শগুলি

আপনার ছোট্ট কন্যা সন্তানটির জন্য আপনার গ্রহণ করা পটি প্রশিক্ষণ পদ্ধতিগুলি বেশ মজাদারও হয়ে উঠতে পারে, আর এই সকল পরামর্শগুলি সেই সমগ্র প্রক্রিয়াটিকে আরও মসৃণ করে তুলতা সহায়তা করবে।

অনুকরণঃ

বেশিরভাগ বাচ্চা মেয়েরই আকাঙ্খা থাকে বড় হওয়ার সাথে সাথে তাদের মায়ের মত একজন হয়ে ওঠার।অতএব, আপনি হয়ত বেশিরভাগ সময়েই লক্ষ্য করতে পারেন তাদেরকে নকল করতে, তাদের মায়ের মত করে সাজগোজ, স্টাইল এবং মেক-আপগুলি করতে।বাচ্চা মেয়েরা তাদের মাকে অনুকরণ করতে ভালবাসার দরুণ তাদের মাকে টয়লেট ব্যবহার করতে দেখতে দেওয়ার দ্বারা তাদের থেকে সেটি শিখে অভ্যস্থ হয়ে উঠতে দেওয়াটা একটি ভালো ধারণা হয়ে ওঠে।আর বাড়িতে তার যদি একটি বড় দিদি থেকে থাকে, সে তার বড় দিদিকেও লক্ষ্য করতে পারে এবং দিদির থেকে সে একটি টয়লেট ব্যবহারের কৌশলগুলিকেও বেছে নিয়ে সেগুলিকে রপ্ত করে নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে।

প্রয়োজনীয় উপাদানগুলি ক্রয়ঃ

প্রশিক্ষণ শুরু জন্য প্রথমেই আপনার শিশু কন্যার জন্য বাচ্চাদের মাপের একটি পটি ক্রয় করুন যেটিকে সে তার নিজের বলতে পারে।তাদের সরাসরি শৌচালয় ব্যবহার করতে নিয়ে যাওয়ার পূর্বে সর্বদাই পরামর্শ দেওয়া হয় একটি বাচ্চাদের মাপের পটি দিয়ে প্রশিক্ষণটি শুরু করার জন্য কারণ শৌচালয়গুলি হল সাধারণত দুর্ঘটনা প্রবণ স্থান এবং সেখানে আপনার সন্তানকে অবিরত নজরে রাখা প্রয়োজন।

কিন্তু আপনি যদি চান আপনার রাজকন্যাটিকে সরাসরি শৌচালয়ের টয়লেটে প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করতে, তবে তার জন্য এমন একটি মানানসই অতিরিক্ত সিট ক্রয় করুন যেটি পটির সহিত দৃঢ় ভাবে সংলগ্ন থাকবে এবং আপনার সোনামণির জন্য তা আরামদায়কও হবে।এর সাথে সাথে তার ছোট্ট পাগুলিকে ঝুলিয়ে রাখার বদলে উপরে আরামদায়কভাবে তুলে রাখার জন্য একটি টুলেরও যোগান দিন।সে আবার এটিকে ব্যবহার করতে পারে স্বাধীনভাবে সিটের উপর ওঠা ও নামার কাজে।

এছাড়াও আবার আপনি কিছু ছবির বই ও ভিডিও-র সিডিও কিনতে পারেন যেগুলির মধ্যে শিশুদের টয়লেট প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত চিত্র এবং বিষয়গুলি চিত্রিত থাকে।বাজারে এই ধরণের প্রচুর বই ও সিডি উপলভ্য ঠিকই, তবে আপনি সেগুলি থেকে যথার্থটিই বেছে নিন।

তাকে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতে দিনঃ

পটি প্রশিক্ষণের ধারণাগুলিতে আপনার কন্যাটিকে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করানোর জন্য এক্ষেত্রে একাধিক বিভিন্ন উপায় আছে।প্রথমেই তার পটি সিটটির উপর তার নাম লিখে দিয়ে এবং তার উপর তার প্রিয় কার্টুনের স্টিকারগুলির দ্বারা সেটিকে সুসজ্জিত করে তুলে সেটিকে তার জন্যই তার ব্যক্তিগত করুন।শুধু খেলার ছলেই এটিকে নিয়ে তাকে এক সপ্তাহ কাটাতে দিন।এরপর তার প্রিয় পুতুলটিকে নিয়ে তাকে অভিনয় করে দেখান যে পটি সিটটিকে কীভাবে ব্যবহার করতে হয়।সে বস্তুতই এটিতে মজা পাবে।এরপর আপনি তাকে প্রস্তাব দিতে পারেন যে পটি সিটটি ব্যবহার করে মল ত্যাগের চেষ্টা করতে।

ডায়পারের পরিবর্তে আরামদায়ক অন্তর্বাসঃ

আপনার ছোট্ট কন্যাটিকে তার নিজের পছন্দ মত অন্তর্বাস কিনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দানের মাধ্যমে তাকে অনুপ্রাণিত করে তুলুন।ছোট মেয়েরা সর্বদাই তার ওয়ারড্রবে যেকোনও কিছু নতুন পোশাক পরিচ্ছদ যোগ করার ব্যাপারে ভীষণ উৎসাহিত হয়ে থাকে আবার সেটি টেনে বের করতেও পছন্দ করে।

প্রশিক্ষণের একটি সময়সূচী স্থাপন করুনঃ

আপনার ছোট্ট সোনামনিটির প্রি-স্কুলের এবং ডে কেয়ারের সময়ের কথাটি মাথায় রেখে, আপনাকে এর জন্য একটি সময়সূচীর কৌশল বের করতে হবে এবং সেটিকে তার প্রি-স্কুল কিম্বা ডে কেয়ারের তত্ত্বাবধায়কদের সাথে ভাগ করে নিতে হবে।আপনি তাকে ডায়পার থেকে প্যান্টিগুলিতে রূপান্তরের ক্ষেত্রে কিম্বা সরাসরি অন্তর্বাসে পরিবর্তিত করার ক্ষেত্রে প্রয়োজনে আপনি প্রত্যাবর্তন এবং সম্মুখে এগিয়ে যাওয়ার নীতি গ্রহণ করতে প্রস্তুত থাকবেন কিনা সে ব্যাপারেও আপনার মনকে প্রস্তুত করা প্রয়োজন।বিশেষজ্ঞদের প্রস্তাব অনুযায়ী,দিনের বেলায় সরাসরি সুতির প্যান্টিতে পরিবর্তিত করা একটি ভাল বিকল্প,যদিও রাত্রি বেলায় আপনাকে এখনও ডায়পার ব্যবহারই করে যেতে হবে।

মোছার প্রশিক্ষণঃ

একটি শিশু কন্যাকে টয়লেট প্রশিক্ষণটি যখন দেওয়া হয়, তখন তাকে সিটের উপর স্বাচ্ছন্দ্যভাবে বসার প্রশিক্ষণ দেওয়াটাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ।একবার সে সেটি শিখে নিতে পারলেই, পরবর্তী পদক্ষেপটি হবে তার নিজেকে ভালভাবে মুছে নেওয়ার প্রশিক্ষণ দেওয়া।আর এখন সেটি বেশ কৌশলের সাথেই করতে হবে।সে হয়ত এটি শিখতে বেশ কিছুটা সময় নিতে পারে,বিশেষ করে মল ত্যাগের পর।সুতরাং সেটি শুরু করার জন্য, তাকে শুধু বলুন যে প্রস্রাব ত্যাগের পর জায়গাটিকে শুকনো করে নিতে।

কম সময়ের জন্য ডায়পার ব্যবহারের অনুমতি দানঃ

বাচ্চাদের যখন ডায়াপার ছাড়াই কিছু সময় ব্যয় করার অনুমতি দেওয়া হয়, তারা টয়লেট ব্যবহারের জন্য সংকেত দিতে শেখে।ডায়াপার পরে থাকাকালীন ছোট শিশুরা বস্তুতই কখনও বুঝতে পারে না যে কখন তাদের প্রস্রাব এবং মল ত্যাগ হচ্ছে।সুতরা, তাদের ডায়াপার খুলে দিয়ে দিনের বেলায় অবাধে ঘুরে বেড়াতে দেওয়াটা হল টয়লেট প্রশিক্ষণের গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ।

কৃতিত্বগুলির উদযাপন এবং হাল না ছেড়ে দেওয়াঃ

তার প্রতিটি মাইলফলক উদযাপন করুন তাকে একটি তারা কিম্বা একটি স্টিকার অথবা বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে কখনও কখনও আবার একটি খেলনা পুতুল পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে।এটি মনে রাখাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে, এই পর্বে কিছু অঘটন ঘটে যেতেই পারে।আর সেই মুহূর্তে আপনার ছোট্ট পরীটিকে অঘটনটি ঘটিয়ে ফেলার দরুণ বকাবকি না করে বরং জড়িয়ে আলিঙ্গন করুন।সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল আশাহত না হয়ে ক্রম প্রয়াস অব্যহত রাখা।

মজার উপকরণগুলির সংযোজনঃ

টয়লেট প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতাটিকে আপনার শিশু কন্যার জন্য বেশ মজাদার করে তুলুন পাত্রের জলটির সাথে কিছু দ্রাবণীয় বর্ণ সংযোজনের দ্বারা।এছাড়াও আবার আপনি তার টয়লেটেরে মধ্যে তার পছন্দের বই এবং ম্যাগাজিনগুলি সহ একটি র‍্যাক স্থাপন করতেও পারেন।এছাড়াও তাকে ব্যস্ত রাখতে ও আমোদিত করে তোলার জন্য আপনি তাকে কিছু খেলনা প্রদানও করতে পারেন।

রাত্রের জন্য প্রশিক্ষণের সূচনা করাঃ

দিনের বেলায় পটির জন্য একবার আপনার সন্তান ভালভাবে প্রশিক্ষিত হয়ে উঠলেই, ভোরবেলায় তার ডায়পার চেক করা শুরু করুন এটি দেখার জন্য যে, সারা রাত ধরে না ভিজিয়ে সে শুকনো থাকছে কিনা।রাত্রিকালীন প্রদেয় প্রশিক্ষণটি দিনের তুলনায় বেশ কিছুটা প্রলম্বিত হতে পারে, তবে সে ধীরে ধীরে সেটিও রপ্ত করে ফেলবে।রাত্রি বেলায় তার ডায়পার পরানোটি বন্ধ করে দেওয়ার আগে আপনি অবশ্যই অপেক্ষা করুন সে তার মুত্রাশয়টিকে একটানা অন্তত 2 ঘন্টার জন্য ধরে রাখতে সক্ষম হয়ে ওঠা পর্যন্ত।রাত্রের দিকে তার তরল গ্রহণের পরিমাণে হ্রাস টানার মত কিছু ছোট্ট ছোট্ট পরিবর্তনগুলি আনয়নের দ্বারা আপনি তার রাত্রিকালীন পটি প্রশিক্ষণটির গতি ত্বরাণ্বিত করতে পারেন।তার ঘুমের সময়ের আগে আপনার কন্যাটিকে টয়লেট ব্যবহার করানোটাও আবার একটি বেশ ভাল ধারণা এ ব্যাপারে গড়ে তুলতে পারে।

শিশু কন্যাদের পটি প্রশিক্ষণের সময় যেগুলি করণীয় এবং করণীয় নয়

করণীয়

  • সঠিক সময়ের জন্য অপেক্ষা
  • যথাযথ লক্ষণগুলির দিকে নজর রাখা
  • একটি সহজ পরিকল্পনা ছকে নেওয়া
  • টিপসগুলির জন্য তার শিশুরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ
  • তার প্রতিটি মাইলফলকের জন্য পুরস্কার প্রদানের দ্বারা তাকে অনুপ্রাণিত করে তোলা
  • প্রশিক্ষণের জন্য কিছু মজাদার উপকরণের সংযোজন করা

করণীয় নয়-

  • তাড়াহুড়ো করবেন না
  • খুব শীঘ্রই এর ফলাফলের প্রত্যাশা করবেন না
  • কোনও রকম অঘটন ঘটিয়ে ফেললে তাকে কোনওরকম বকাবকি নয়
  • অন্যান্য বাচ্চাদের সাথে তুলনা করে তাকে কখনই নিরুৎসাহ করে তুলবেন না।

কন্যা বনাম পুত্রদের পটি প্রশিক্ষণ- প্রকৃত পার্থক্যগুলিঃ

কন্যা বনাম পুত্রদের পটি প্রশিক্ষণ- প্রকৃত পার্থক্যগুলিঃ

মোছানোঃ একটি গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্য হ’ল আপনার ছোট্ট কন্যাটিকে সামনে থেকে পিছনে মুছতে শেখানো, বিশেষত সে পটি করার বা মল ত্যাগ করার পরে।এটি তাকে কোনওরকম মুত্রাশয় বা মুত্র নালীর সংক্রমণের কবল থেকে দূরে রাখবে।আবার প্রস্রাব করার পরেও তার নিজেকে শুকনো রাখাটা প্রয়োজন যা ছেলেদের করতে লাগে না।

নীচের দিকে ইঙ্গিত করাঃ আপনার ছোট্ট কন্যা সন্তানটিকে প্রস্রাব করার সময় নীচের দিকে ইঙ্গিত করতে শেখানো দরকার যাতে মুখে সেটি ছিঁটে না যায়।

দাঁড়ানো অবস্থায় প্রস্রাব করাঃ আপনার ছোট্ট টোলটলায়মানকারিণীটি আবার হয়ত দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়েই প্রস্রাব করার চেষ্টা করতে চাইতে পারে।সে তার দাদা কিম্বা স্কুলের কোনও ছেলেকে সেটি করতে দেখে থাকতে পারে।তাকে সেটি করবার চেষ্টা করতে দিন এবং নিজে থেকেই শিখতে দিন যে ছেলেদের মত দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করাটা মেয়েদের ক্ষেত্রে অস্বস্তিকর ও অসুবিধাজনক।শেষ পর্যন্ত সে তার সকল শৌচ প্রচেষ্টাগুলির জন্য বসে বসেই করবে।