গর্ভাবস্থায় স্বামীর দায়িত্ব – আপনার গর্ভবতী স্ত্রীর যত্ন নেওয়া

গর্ভাবস্থায় স্বামীর দায়িত্ব - আপনার গর্ভবতী স্ত্রীর যত্ন নেওয়া

বিবাহ দুটি মানুষকে একত্রিত করে, যারা তাদের জীবনকে একসাথে এগিয়ে নিয়ে যায়। বিবাহের প্রতিটি দায়িত্ব স্বামী ও স্ত্রীকে ভাগ করে নেওয়া উচিত এবং এটি সন্তানকে বড় করার ক্ষেত্রেও এই একই নিয়ম খাটে। যদিও প্রতিটি দম্পতির গতিশীলতা অনুসারে বাবা-মায়ের মধ্যে ভূমিকা ও দায়িত্বগুলি পরিবর্তন হতে পারে, তবে গর্ভাবস্থায় বাবা-মা উভয়েরই সমান দায়িত্ব থাকে।

aniview

আপনার স্ত্রীকে গর্ভাবস্থায় সহায়তা করা আসলে বাস্তবে অনুগত স্বামী এবং অভিভাবক হিসাবে আপনার দায়িত্ব পালন করার বিষয়।

একজন স্বামী হিসাবে, আপনি ভাবতে পারেন যে আপনি কিভাবে আপনার স্ত্রীর গর্ভাবস্থায় যতটা সম্ভব সাবলীলভাবে যাত্রা করতে সহায়তা করতে পারেন। এখানে আমাদের কাছে একটি গাইড রয়েছে যা আপনাকে আপনার জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সময় স্বামী হিসাবে আপনার কর্তব্য সম্পর্কে ধারণা দেবে।

গর্ভাবস্থায় হবু বাবার ১৫টি দায়িত্ব

আপনার স্ত্রী যখন গর্ভবতী হন তখন কয়েকটি অপরিহার্য বিষয়গুলি স্মরণে রাখতে হবে। এগুলি অনুসরণ করে আপনি একজন সহায়ক স্বামী এবং দুর্দান্ত বাবা হবেন!

১. নিজেকে শিক্ষিত করুন

মাঝে মাঝে আপনার স্ত্রী কি পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন তা জানা এবং বোঝা একটি বিশাল পদক্ষেপ, তাই গর্ভাবস্থায় ঘটে যাওয়া বিষয়গুলি সম্পর্কে নিজেকে শিক্ষিত করুন। আপনার স্ত্রী যখন গর্ভবতী হন তখন অনেকগুলি বিষয় যত্ন নেওয়া দরকার। তাই তার খাবারের অভ্যাস, জামাকাপড় বা আরও গুরুতর বিষয় যেমন পরিপূরক গ্রহণ এবং সকালের অসুস্থতা সম্পর্কে জানুন, যাতে আপনি আপনার স্ত্রীকে সমর্থন করতে পারেন।

২. যদি তিনি সকালের অসুস্থতার সাথে লড়াই করেন তবে তাকে সহায়তা করুন

মর্নিং সিকনেস বা সকালের অসুস্থতা একটি বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা হতে পারে, যা কোনো মহিলাকে অযথা ক্লান্ত করতে পারে। স্বামী হিসাবে আপনার এই সময়ে আপনার স্ত্রীকে সহায়তা করা দরকার। তাকে উত্সাহিত করুন, তার পাশে দাঁড়ান এবং স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করান। তার জন্য বিশ্রামের জায়গাটি সেট আপ করুন, যাতে সকালের অসুস্থতা আঘাত হানলেই তিনি শিথিল হতে পারেন।

৩. সংবেদনশীল হোন

আগামী কয়েক মাসে অবশ্যই অনেক কিছু পরিবর্তন হবে। আপনার স্ত্রীর মেজাজের পরিবর্তন, মানসিক লড়াই, ব্যথা ইত্যাদি থাকবে এই সময়। এই পরিবর্তনগুলি স্বাভাবিক, তাই আপনার স্ত্রী যখন এই পরিবর্তনগুলির মধ্যে দিয়ে যাবেন তখন ধৈর্য ধরতে শিখুন। তার অনুরোধগুলির প্রতি সংবেদনশীল হন এবং সর্বদা যত্ন করে সাড়া দিন। এটি তাকে আপনার প্রতি কৃতজ্ঞতা বোধ করাবে।

৪. তাকে উত্সাহিত করুন এবং সমর্থন করুন

আপনার স্ত্রীর জীবনের এই পর্যায়ে সমর্থন এবং উত্সাহ প্রয়োজন। গর্ভাবস্থা বেশ কয়েকটি উত্থান-পতনের সময় – একদিকে, তিনি খুশি এবং উত্তেজিত; অন্যদিকে, শারীরিক পরিবর্তন, অনিশ্চয়তা এবং ভয় রয়েছে। তার গর্ভাবস্থার যাত্রায়, আপনি তাকে উত্সাহিত করা এবং তাকে এটা স্মরণ করিয়ে দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি তার সাথে রয়েছেন ও তার উদ্বিগ্ন হওয়ার দরকার নেই।

৫. নমনীয় হন

আপনার স্ত্রীর কিছু দিনের জন্য আপনার কাছ থেকে আরও অনেক কিছু প্রয়োজন হতে পারে – চাকুরীজীবী ​​স্বামীর পক্ষে এটি কঠিন হতে পারে। এমন অনেক সময় থাকতে পারে যখন আপনি আপনার পরিকল্পনা পরিবর্তন করতে পারেন বা এমনকি আপনার স্ত্রীর জন্য বাড়িতে থাকতে সেগুলি বাতিল করতে হতে পারে, তাই তার গর্ভাবস্থায় এই সম্ভাবনাগুলি বিবেচনা করুন। আপনার স্ত্রীর প্রয়োজন অনুযায়ী বন্ধুদের সাথে আপনার অনানুষ্ঠানিক সাক্ষাতের সময়সূচী তৈরি করার চেষ্টা করুন এবং আপনার স্ত্রীর সাথে এখন সময় কাটাতে পারেন, তার জন্য কাজের সময় নমনীয় করতে জিজ্ঞাসা করতে দ্বিধা করবেন না। এইভাবে, যখন তার আপনাকে প্রয়োজন পরে, আপনি তার জন্য থাকতে পারেন।

৬. তার সাথে রান্না করুন

গর্ভাবস্থায় অনেক কিছুই কঠিন হারকিউলিয়ান কাজ মতো মনে হয় এবং রান্না তাদের মধ্যে অন্যতম। রান্নাঘরে নিজেও জড়িত থাকুন এবং তার জায়গায় নিজে জিনিসগুলি তৈরি করার চেষ্টা করতে পারেন। তিনি আপনার প্রশংসা করবেন এবং এটি তার বোঝাটিকেও হালকা করবে, এইভাবে তাকে ভালভাবে বিশ্রাম দেওয়া যাবে ও তিনি শান্ত থাকতে পারবেন। পুরোপুরি দায়িত্ব নিতে দ্বিধা করবেন না!

৭. তার কাছাকাছি থাকুন

গর্ভবতী মহিলাদের প্রায়শই পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেওয়ার এবং নিজেকে ধকল না দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়, যার কারণে তাদের বেশিরভাগ সময়ই নিরাপদ ও তাদের নিজের জায়গায় থাকতে হয়। নিশ্চিত করুন যে আপনি তার সাথে অবিচ্ছিন্নভাবে যোগাযোগে রয়েছেন, কারণ এটা গুরুত্বপূর্ণ – যদি সম্ভব হয় তবে তার গর্ভাবস্থার ৮ম মাস পর্যন্ত তার সাথে থাকুন এবং একসাথে দায়িত্ব গ্রহণ করুন।

৮. তার সাথে পরিকল্পনা করুন

আপনার সন্তানের জন্মের অপেক্ষা করা বেশ উত্তেজনাপূর্ণ। দায়িত্বশীল দম্পতি হিসাবে, আপনার ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করা আপনার পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ, যাতে আপনার শিশু আসার পরে আপনি প্রস্তুত থাকেন। আপনার স্ত্রীর সাথে পরিকল্পনা করুন এবং গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করুন – এটি তাকে উত্সাহিত করবে এবং তাকে স্মরণ করিয়ে দেবে যে আপনারা দুজনে সব কিছুতে অবশ্যই এক সাথে রয়েছেন। এই সময়টি আপনি নিজের ছোট্টটির জন্য নামও ভাবতে শুরু করতে পারেন।

৯. দায়িত্ব গ্রহণ করুন

বাড়ির বিভিন্ন কাজের দায়িত্ব গ্রহণ করা আপনার স্ত্রীর প্রতি সমর্থন দেখানোর একটি গুরুত্বপূর্ণ উপায়। তার যে ছোট ছোট জিনিসগুলির জন্য সাহায্যের প্রয়োজন হতে পারে তার ক্ষেত্রে সহায়তা করুন, তবে তিনি কিছু না বললেও দায়িত্ব গ্রহণ করুন। তার কিছু সংবেদনশীল কাজ নিজে গ্রহণ করার মাধ্যমে আপনি তাকে শান্ত ও সুখী করবেন।

১০. একজন ভাল শ্রোতা হন

গর্ভাবস্থা যতটা যাদুময় সুন্দর, ততটাই হতাশাজনক অভিজ্ঞতা হতে পারে, তাই আপনার স্ত্রীর কিছু অভিযোগ থাকার সম্ভাবনা খুব বেশি। এই সময়গুলিতে, একজন ভাল শ্রোতা হওয়া তাকে সহায়টা করবে – আপনার স্ত্রীর ব্যথা এবং অস্বস্তি, তার শরীরের পরিবর্তন ও গর্ভাবস্থার বিভিন্ন মাইলফলক সম্পর্কে অভিযোগগুলি শুনুন। তার মনের কথা শোনা তাকে সত্যিই খুশি করবে, কারণ তিনি তার হতাশা প্রকাশ করতে সক্ষম হবেন এবং মন শান্ত অবস্থায় ফিরে যেতে পারবে।

১১. গৃহস্থালির কাজে তাকে সাহায্য করুন

এই সময়টি হল গৃহস্থালীর কাজের জন্য দায়িত্ব নেওয়ার। বাড়ির কাজগুলির তাড়াতাড়ি যত্ন নেওয়া তার পক্ষে আরও শক্ত হয়ে উঠবে, এবং এটি যতটা তার ততটাই আপনারও বাড়ি – এইক্ষণে এটির যত্ন নেওয়ার সময় এসেছে! শিশুকে গর্ভে বহন করা খুব সহজ কাজ নয়। সুতরাং, আপনাদের দুজনের দায়িত্ব ভাগ করে নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

১২. ডাক্তারের সাথে দেখা করুন

স্ত্রীর গর্ভাবস্থায় আপনার স্ত্রীর সাথে ডাক্তারের সাথে সাক্ষাৎ করতে যাওয়া উচিত। কোন জটিলতা থাকলে ডাক্তারের সাথে সাক্ষাত করা মানসিক চাপের কারণ হয়ে উঠতে পারে এবং আপনার স্ত্রীকে এটিকে একা ফেলে আসা উচিত নয়। যখনই আপনার স্ত্রী কোনো ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেন, আপনাকে অবশ্যই তার সাথে যেতে হবে।

১৩. প্রসবের জন্য প্রস্তুতি

সেই বড় দিনটির জন্য তার সাথে প্রস্তুত হোন। প্রসবের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া এবং শিশুর জন্য অপেক্ষা করা যে কোনো মহিলার জন্য চরম মানসিক চাপ সৃষ্টি করতে পারে, তাই নিশ্চিত করুন যে যখনই তার প্রয়োজন হয় তখনই আপনার সংস্থান প্রস্তুত থাকে। হাসপাতালে তার প্রয়োজনীয় সমস্ত জিনিস সহ মেটারনিটি ব্যাগটি প্রস্তুত রাখুন। শিশুকে ডায়াপার পরানো, কিভাবে শিশুকে কাপড়ে মুড়ে রাখা যায়, কিভাবে শিশুকে ঢেঁকুর তোলানো যায় এবং শিশুর যত্নের অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি সম্পর্কে পড়ুন। আপনার স্ত্রী বিশ্রাম নেওয়ার সময় এবং শিশুর যত্ন নেওয়ার সময় যাতে আপনি জিনিসগুলি পরিচালনা করতে সক্ষম হন, টা নিশ্চিত করুন। সর্বদা আপনার সমর্থন প্রদর্শন করুন।

১৪. তার খাবার খাওয়া এবং জল পান করার উপর নজর রাখুন

গর্ভবতী হওয়ার অর্থ সর্বদা নিশ্চিত হওয়া যে হবু মা সঠিকভাবে খাবার খাচ্ছে এবং পান করছে – নিজেকে ও তার শিশুকে সুস্থ রাখতে তার কি কি খাওয়া উচিত তা জেনে রাখাকে আপনার দায়বদ্ধতা করুন। তার কখন কোন পরিপূরক বা ওষুধ গ্রহণের প্রয়োজন? তিনি কি সঠিক সময়ে সঠিক খাবার খাচ্ছেন? তিনি কি খেতে পারবেন না? তার কি খেতে ইচ্ছা করছে? কোন খাবার শিশুর পক্ষে ভাল, এবং কোনটা নয়? তিনি কি যথেষ্ট জল পান করছেন? আপনার স্ত্রীর গর্ভাবস্থায় এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আপনার কাছে যেন রয়েছে তা নিশ্চিত করুন, কারণ তার স্বাস্থ্যেই সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ।

১৫. তাকে বিশেষ মানুষের মতো অনুভব করান

গর্ভাবস্থার অগ্রগতির সাথে সাথে আপনার স্ত্রী পরিবর্তিত শরীরের কারণে যখন তার শারীরিক উপস্থিতির বিষয়টি আসে, তখন তিনি হীনমন্যতায় ভুগবেন এবং কিছুটা দূরে দূরে থাকতে পারেন। এই মুহুর্তে, আপনি তাকে বোঝাতে পারন যে তিনি যেমন তিনি তেমনভাবেই নিখুঁত, নিষ্কলঙ্ক, সুন্দর। সুতরাং, তাকে সুন্দর এবং বিশেষ বোধ করানোর চেষ্টা করুন। প্রেগ্ন্যান্সি ফটোশুট-এর মাধ্যমে তাকে বিশেষ বোধ করানোর জন্য চেষ্টা করতে পারেন। গর্ভাবস্থায় যখন একজন স্বামী তার স্ত্রীর যত্ন নেন, তখন তিনি তাকে কিভাবে দেখেন তা সত্যি তাত্পর্যপূর্ণ হতে পারে।

যখন কোনো শিশু জন্মগ্রহণ করে, তখন বাবা-মা উভয়েই দায়িত্ব নেন। একইভাবে, কোনো মহিলা গর্ভবতী হলেও বাবা-মা উভয়কেই সমান দায়িত্ব নিতে হবে এবং কাজগুলি একসাথে করতে হবে। যখন কোনো মহিলা একটি শিশুকে গর্ভে বহন করেন, তখন তার পথে আসা সমস্ত দায়িত্ব তিনি পালন করেন। একজন হবু বাবা হিসাবে, এই প্রক্রিয়াটির মাধ্যমে তাকে সমর্থন করা গুরুত্বপূর্ণ। দায়বদ্ধতা কেবল তার একার উপর চাপিয়ে দেওয়া উচিত নয়। গর্ভাবস্থায় স্বামীর ভূমিকা অপরিহার্য এবং এটি অবশ্যই আপনার স্ত্রী ৯ মাসএর যাত্রা পূর্ণ করার পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনবে। সুতরাং, নিশ্চিত করুন যে আপনি তার গর্ভাবস্থার এই যাত্রাকে উন্নত ও সমৃদ্ধ করার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন।