শিশুদের জন্য কমলা লেবু – উপকারিতা এবং রেসিপিসমূহ

শিশুদের জন্য কমলা লেবু

আপনার সন্তান ক্রমশ বেড়ে উঠতে থাকার কারণে আপনি হয়ত তাকে বিভিন্ন ধরনের খাবারের স্বাদের সাথে পরিচয় করানোর চেষ্টা করতে পারেন নতুন খাবারের সাথে পরিচয় করানোর সূচনা হিসেবে অথবা শুধুমাত্র এটি দেখার জন্য যে তারা সেটির প্রতি কীরকম প্রতিক্রিয়া দেখায়।তাদেরকে দেওয়ার জন্য ফলগুলি হতে পারে অন্যতম সেরা বিকল্পগুলির মধ্যে একটি কারণ সেগুলি হল প্রাকৃতিক এবং স্বাস্থ্যকর।তবে এটি অপরিহার্যভাবে সবসময় এরকম নাও হতে পারে কারণ ফলের মধ্যে থাকতে পারে অ্যাসিড এবং কিছু বিশেষ তেল যেগুলি শিশুদের দ্বারা হজম হতে বা নাও হতে পারে অথবা সময়ের সাথে সেটি বিরূপ প্রতিক্রিয়ার কারণও হয়ে উঠতে পারে।

aniview

শিশুরা কখন কমলা লেবু খেতে পারে?

6 মাস বয়সী শিশুদের জন্য কমলা লেবুর রস তৈরী করা যেতে নাও পারে কারণ তাদের সংবেদনশীল পেট অপরিহার্য ভাবে এই ফলের মধ্যস্থ অ্যাসিড উপাদানগুলিকে সহ্য করতে সমর্থ নাও হয়ে উঠতে পারে।কমলা লেবুতে প্রাথমিকভাবে সাইট্রাস অ্যাসিড থাকে যার থেকে আবার খুব ছোট শিশুদের মধ্যে র‍্যাশ হতেও দেখা যায়।অতএব,আপনার সন্তান প্রায় এক বছর পূর্ণ করার কাছাকাছি বয়সে এলে তখন তাকে কমলা লেবু প্রদান করা হল সবচেয়ে ভাল।

শিশুদের জন্য কমলা লেবুর অত্যাশ্চার্যজনক স্বাস্থ্যকারী উপকারিতাগুলি

শিশুদের কমলা লেবু দেওয়ার বেশ কিছু উপকারিতাগুলি এখানে উল্লিখিত হলঃ

১. দুর্দান্ত পুষ্টিগত গঠণতন্ত্র

কমলা লেবুগুলি বিভিন্ন ভিটামিন এবং খনিজের সহিত প্রচুর পরিমাণে পুষ্টিকর উপাদানে পরিপূর্ণ।একদম ছোট্ট শিশু এবং অল্প বয়সী বাচ্চাদের জন্য এগুলি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় এবং তাদের বিকাশের প্রথমদিকের বছরগুলিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।যদি কিছু নির্দিষ্ট সংখ্যক শিশুর মধ্যে তাদের শারীরিক বিকাশের ক্ষেত্রে সমস্যা থেকে থাকে তবে তাদের কমলা লেবুর রস খাওয়ালে তা তাদের পুষ্টির পরিপূরক হয়ে উঠতে পারে।

২. বদহজমের বিপরীত

প্রায় সকল ছোট্ট শিশু এবং অল্প বয়সী বাচ্চারাই প্রায় ঘন ঘন বা তার চেয়েও বেশী বদহজমের মুখোমুখি হয়ে থাকে।প্রাথমিক ভাবে এর কারণ হল তাদের পাচন তন্ত্র ধীরে ধীরে শক্তিশালী হতে শুরু করে।একটি কমলা লেবুর গঠণতন্ত্র এই পর্যায়ে সহায়ক হয়ে ওঠে কারণ সেগুলি পাচন প্রক্রিয়াটিকে উদ্দীপিত করে।

৩. কোষ্ঠকাঠিণ্য হ্রাস করে

বিকাশের প্রাথমিক পর্যায়ে,একটি ভাল অন্ত্র আন্দোলনের জন্য শিশুদের ডায়েটে প্রয়োজনীয় তন্তুর অভাব ঘটে।যখন এটির মোকাবিলা করার সময় আসে তখন শিশুদের ফল খাওয়ানো দুর্দান্ত একটি বিকল্প হয়ে ওঠে।কমলা লেবুতে বেশ ভাল পরিমাণে আঁশ বা তন্তু থাকার কারণে শিশুদের কোষ্ঠকাঠিণ্যে তাদের সেটির রস খেতে দেওয়া একটা চমৎকার ধারণা হয়।

৪. শক্তিশালী হাড়

কমলা লেবুতে প্রচুর পরিমাণে খনিজ এবং লবণগুলি থাকার ফলে এগুলি ক্যালসিয়াম এবং ফসফরাসের মত মৌলগুলির জন্য দুর্দান্ত পরিপূরক।এটি প্রতিদিন গ্রহণের সহিত হাড়ের দুর্বলতা এবং জয়েন্টগুলির নমনীয়তাকে এড়ানো যায় যা এই খনিজগুলির অনুপস্থিতিতে উদ্ভূত হওয়া একটি ব্যাধি যা রিকেট হিসেবে অভিহিত।

৫. সর্দি কাশি হ্রাসের সম্ভাবনা

যখনই আপনার ছোট্টটি অসুস্থ হয়ে পড়ে,সর্দি কাশি হওয়া একটা স্বাভাবিক দোষের মধ্যে পড়ে।একটি সুপ্রাচীন এবং ভাল কার্যকর সমাধান হল এক ছিঁটে লবণ এবং মধুর সহিত কমলা লেবুর রসকে মিশ্রিত করার মাধ্যমে ঘরোয়া প্রতিকারটির ব্যবহার।সাধারণ সর্দি কাশির জন্য এটি একটি দুর্দান্ত চিকিৎসা রূপে পরিচিত।

৬. হুপিং কাশি থেকে স্বস্তি

এটি সাধারণ সর্দি কাশি থেকে বেশ পৃথক।হুপিং কাশি গলায় ক্ষত সৃষ্টি করে এবং বেশ সংক্রামক হিসেবে জানা যায়।কিছুটা কমলার রসকে কিছুটা জলের সহিত মিশিয়ে পাতলা করে নিয়ে সেটিকে পরিচালনা করলে তা কাশি কমানোর ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে।

৭. মাম্পসের প্রতিকার

যদিও মাম্পস অথবা যা আবার প্যারোটাইটিস নামেও পরিচিত,একদম ছোট শিশুদের তুলনায় অপেক্ষাকৃত একটু বড় বাচ্চাদের মধ্যে দেখা যায়,একটি ভাইরাসজনিত রোগ যা ভীষণ ভাবে সংক্রামক।মাম্পসের চিকিৎসার একটি জনপ্রিয় উপায় হল কমলা লেবুর রস ও অন্যান্য অনেক ফলের রসের দ্বারা পরিপূরক গ্রহণ করা।কিছুটা হালকা গরম জলের সাথে উভয় প্রকার রসকেই অর্ধেক অর্ধেক করে নিয়ে একত্রে সম্মিলিত করে খাওয়ালে তা বাচ্চাদের স্বস্তি এনে দেয়।

৮. ডায়রিয়া হ্রাস করে

ছোট শিশু এবং অল্প বয়সী বাচ্চাদের জন্য,ডায়রিয়া অত্যন্ত বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে যা তাদের প্রচুর ডিহাইড্রেশন এবং শক্তি হ্রাস করে থাকে।দেহের হারিয়ে যাওয়া খনিজগুলির ভারসাম্য পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি দেহকে পুনরায় হাইড্রেট করে তোলার ক্ষেত্রে কমলার রস হল একটি অসাধারণ বিকল্প।ছোট্ট শিশুদেরকে এই রস দেওয়ার পূর্বে সেটিকে জলের সহিত মিশিয়ে নিয়ে পাতলা করে নেওয়া উচিত।

৯. বৈকল্পিক সেরা তরল ডায়েট

খাবার খাওয়ার সময় যদি আপনার বাচ্চা খাবারগুলিকে ঠিকমত না চিবিয়ে থাকে,তবে পাকস্থলী সেটিকে ভালভাবে হজম করতে ব্যর্থ হয়,যার ফলে বদহজম হয়।এই ক্ষেত্রে,আপনার বাচ্চা সারা দিনে বেশ কয়েকবারের জন্য কাঁচা ফলের রস যেমন কমলা লেবুর রসটিকে খেতে পারে।অন্ত্র সঞ্চালন পুনরুদ্ধার হওয়ার কারণে, শিশুটি তার ফল ভিত্তিক ডায়েট চালিয়ে যেতে পারে এবং তারপর ধীরে ধীরে তার স্বাভাবিক ডায়েট ফিরে পেতে পারে।

১০. টাইফয়েডের মুক্তিলাভে সহায়তা করে

টাইফয়েড কোনও মানুষের পাচন তন্ত্রকে বিনষ্ট করার পাশাপাশি তীব্র পেট ব্যথা,কাশি,মাথা যন্ত্রণা,জ্বর ইত্যাদি হওয়ার জন্য পরিচিত।যেহেতু এই সময় পেট কেবল রস এবং তরল হজম করতে পারে তাই কমলা লেবুর রস উভয়ের পক্ষে সহায়তা করতে পারে এবং আপনার সন্তান টাইফয়েডে ভুগে থাকলে তা থেকে তাকে স্বস্তি প্রদানের জন্য এটি খাওয়ানো সেরা বিকল্পগুলির মধ্যে একটি হয়ে থাকে।

কমলা লেবুর পুষ্টি তথ্য

একটি মোটামুটি মাঝারি মাপের কমলা লেবুর মধ্যে থাকেঃ

গঠণগত পরিমাণ

  • পটাসিয়াম-232 mg
  • ফসফরাস- 32 mg
  • ম্যাগনেসিয়াম-15 mg
  • ক্যালসিয়াম- 50 mg
  • সোডিয়াম- 2 mg
  • আয়রণ-0.18 mg
  • ভিটামিন A-346 IU
  • ভিটামিন c-82 mg
  • থিয়ামিন- 0.09 mg
  • রাইবোফ্লাভিন- 0.07 mg
  • নিয়াসিন- 0.59 mg
  • ফোলেট-0.48 mg

এছাড়াও এর মধ্যে সামাণ্য পরিমাণে কপার,জিঙ্ক এবং ম্যাঙ্গানিজও থাকে।

কমলা লেবুর পুষ্টি তথ্য

শিশুদের কীভাবে কমলা পরিবেশন করবেন?

আপনার সোনাকে দেওয়ার পূর্বে কমলা লেবুর কোঁয়াগুলির বীজ ছাড়িয়ে নিয়ে সেগুলির পাতলা আস্তরণগুলি নির্মূল করুন।ছোট ছোট কামড়ের আকারে সেগুলিকে এমন ভাবে টুকরো করুন পাছে এগুলির একটি কণাতেও আপনার ছোট্টটির গলায় যেন বিষম না লেগে যায়।

প্রথমেই তাকে মিষ্টি কমলা দেওয়ার চেষ্টা করুন কারণ সে হয়ত প্রথমেই সাধারণ কমলার তীব্র টক স্বাদটিকে আবশ্যিকভাবে পছন্দ নাও করতে পারে।কোনও বিবর্ণ হয়ে যাওয়া অদ্ভুত রঙের অথবা নরম হয়ে যাওয়া কমলাগুলিকে না দিয়ে তাকে সর্বদা ভাল দেখে ফলটিকে দেওয়াই নিশ্চিত করুন।

বোতলে করে বাজারে সহজলভ্য কমলার রস অথবা তার শাঁসগুলিকে আপনার সোনাকে দেবেন না।এগুলির স্বাদ বজায় রাখার জন্য এর সহিত একাধিক প্রিজারভেটিভ এবং চিনি যোগ করা থাকে।সর্বদা বাজার থেকে তাজা এবং পরিষ্কার কমলাই ক্রয় করুন এবং নিজে সেগুলি দিয়ে বাড়িতেই তার রস প্রস্তুত করুন আপনার অমূল্য সম্পদটিকে দেওয়ার জন্য।

যে খাদ্যগুলি আপনি কমলার সহিত মিশ্রিত করতে পারেন

কমলার স্বাদ নিয়ে পরীক্ষা করার জন্য আপনি এর সহিত আরও এক গুচ্ছ খাদ্য উপকরণকে মিশ্রিত করতে পারেন।সেগুলির মধ্যে কয়েকটি হলঃ

  • অ্যাভকাডো- কমলার টক স্বাদের সহিত সংযুক্ত করার জন্য এটি একটি দুর্দান্ত ফল।
  • ব্লু বেরী এবং ক্র্যান বেরী- এর প্রতিটির ভিন্ন স্বাদকেই কমলার স্বাদের পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে স্বাগত জানানো যেতে পারে।
  • মিষ্টি আলু- আপনি মিষ্টি আলুকে কমলার রসের সহিত মিশ্রিত করে নিজে হাতে একটি হালকা ধরণের সুস্বাদু খাদ্য পদ তৈরী করার চেষ্টা করতে পারেন।
  • মুরগি- যদি আপনার বাচ্চ মাংস খাওয়া শুরু করে থাকে তবে আপনি মুরগির মাংসের উপর কমলার রস ব্যবহার করতে পারেন সেটিকে বেশ চকচকে ও আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য।
  • দই- কমলার স্বাদের সহিত দইকে হিমায়িত করে তুললে তা দুর্দান্ত সুগন্ধের সহিত এক অনবদ্য স্বাদের সৃষ্টি করে।

আপনার সন্তানকে কমলা দেওয়ার সময় যে সাবধানতাগুলি গ্রহণ করতে হবে

আপনার ছোট্ট সোনাটিকে কমলা দেওয়ার পূর্বে নিম্নলিখিত সতর্কতাগুলি স্মরণে রাখবেন।

  • কোনও খোসা,তন্তু এবং বীজ থাকবে না

এই সমস্ত উপকরণগুলির নিজেদেরই একটি অদ্ভুত স্বাদ আছে। যদি আপনার শিশু এগুলি পছন্দ না করে তবে তারা পুরো ফলটিকেই দূরে সরিয়ে ফেলতে পারে। এছাড়াও,সর্বদাই এটি থেকে বীজগুলিকে অপসারণ করে তবেই আপনার শিশুকে দেওয়া উচিত।এমন ধরনের ভাল জাতের কমলাগুলি পছন্দ করুন যেগুলি থেকে সহজেই এগুলিকে পৃথক করে নেওয়া যায়।

  • চিবতে সমস্যা হচ্ছে?তবে এটি চটকে নিন

এমনকি যদি খোসা,তন্তু এবং বীজ ছাড়িয়ে নেওয়ার পরেও,আপনার বাচ্চের কমলার ছোট টুকরোগুলিকে খেতে সমস্যা হয়ে থাকে তবে আরও এক ধাপ এগিয়ে যান এবং কমলাটিকে ততক্ষণ পর্যন্ত চটকাতে থাকুন যতক্ষণ না সেটি আপনার সন্তানের জন্য একটি উপযুক্ত পিউরি রূপে গড়ে ওঠে।এটি আপনার সন্তানের কমলা খাওয়ার এবং এর স্বাদ আস্বাদন করার জন্য খুবই সহজ হয়ে উঠবে।

  • এখনকার জন্য কোন টক কমলা নয়

আরও কিছুটা অতিরিক্ত মাইল অতিক্রম করুন এবং চেষ্টা করুন শুধুমাত্র মিষ্টি কমলাগুলিকেই বেছে নিতে।এই ফলের টক স্বাদকে সামলে নেওয়ার মত স্বাদের প্রতি সংবেদনশীলতা এখনই হয়ত আপনার সন্তানের নাও থাকতে পারে।তাদের দেওয়ার জন্য ফলগুলিতে মিষ্টির ভাগ উচ্চ রাখলে তারা সেগুলিকে আরও ভালভাবে পছন্দ করবে।

  • সর্বদা তাজা ফল

আপনার বাচ্চাকে সর্বদা সম্পূর্ন রূপে পাকা এবং তাজা ফলগুলিকেই খাওয়ানো উচিত।একটি ভাল কমলার প্রতীক হল এটি সব দিক থেকেই বেশ দৃঢ় হবে।যদি আপনি এটির উপর চাপ প্রয়োগ করেন এবং সেটি কোনও পাশে নরম বলে মনে হয় তবে সেটিকে বাদ দিয়ে অন্য আরেকটিকে বাছুন।

শিশুদের জন্য কমলার সহজ রেসিপিগুলি

আপনি যদি চিন্তা করেন যে কীভাবে বাচ্চাদের জন্য কমলার রস তৈরি করা যেতে পারে,এখানে কিহু রোমাঞ্চকর ও আকর্ষণীয় রেসিপির উল্লেখ করা হল যেগুলি সাধারণ রসকে ছাপিয়ে যায়।

১. গাজর কমলার পিউরি

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • কমলার রস
  • খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে কাটা গাজর
  • দারুচিনি

গাজর কমলার পিউরি

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • গাজরের টুকরোগুলি নিয়ে সেগুলি ভালভাবে সেদ্ধ হওয়া না পর্যন্ত সব একসাথে ভালভাবে রান্না করে নিন।
  • এরপর,সেটির সাথে কিছুটা কমলার রস এবং দারুচিনি যোগ করে সব একসাথে ব্লেন্ডারে নিয়ে ভালভাবে মিশ্রিত করে নিন।

২. ক্র্যান বেরী সহযোগে ঠাণ্ডা কমলা

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • ক্র্যান বেরীর রস
  • কমলার রস
  • বরফের টুকরো

ক্র্যান বেরী সহযোগে ঠাণ্ডা কমলা

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • একটি ব্লেন্ডারের মধ্যে বরফের টুকরোগুলি এবং উভয় প্রকার রস নিন।
  • একটি ঘন ঘনত্বে না আসা পর্যন্ত এগুলির সব একসাথে ব্লেন্ড করে নিন।

৩. অরেঞ্জ ড্রিমসিক্যল মিল্ক

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • কম ফ্যাটযুক্ত দুধ
  • ভ্যানিলা নির্যাস
  • চিনি
  • অতিরিক্তভাবে চিনি সংযুক্ত নয় এমন ধরনের কমলার স্বাদযুক্ত পানীয়ের মিশ্রণ

অরেঞ্জ ড্রিমসিক্যল মিল্ক

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • একটি পাত্রের মধ্যে সকল উপকরণগুলিকে নিন।
  • এবার এগুলিকে সব একসাথে ভালভাবে ঝাঁকান বা একটি ভাল মিশ্রণ পাওয়ার জন্য একটি গ্লাসের ভিতরে এগুলি নিয়ে সব একসাথে ভালভাবে নাড়ুন।

৪. কমলার সহিত দই

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • দই
  • ম্যান্ডারিন জাতীয় কমলার কাটা ছোট টুকরো
  • মধু

কমলার সহিত দই

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • এক কাপ দই নিন এবং তার মধ্যে কমলার ছোট টুকরোগুলিকে যোগ করুন।
  • এর উপরিভাগে কিছুটা মধু ঢেলে সেটিকে সুন্দরভাবে সাজিয়ে তুলুন।

৫. অরেঞ্জ জুলিয়াস

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • কমলার রস
  • আপেলের রস
  • বুকের দুধ অথবা ফরমূলা
  • ভ্যানিলা
  • দারুচিনি

অরেঞ্জ জুলিয়াস

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • একটি ব্লেন্ডারের মধ্যে সকল উপকরণগুলিকে ঢালুন
  • এবার সবগুলি একসাথে মিশ্রিত করে একটি জলজলে ঘনত্বে তৈরী করে নিন।

৬. কলা কমলার মিশ্রণ

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • কলার কাটা টুকরো
  • কমলার রস
  • আপেলের রস
  • জলপাই তেল

কলা কমলার মিশ্রণকীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • একটি কড়াই নিয়ে তার মধ্যে কিছুটা জলপাই তেল নিয়ে সেটিকে মাঝারি আঁচে বসিয়ে রাখুন।
  • এরপর এর মধ্যে কলার টুকরোগুলিকে নিয়ে সাঁতলাতে থাকুন।এবার এক এক করে উভয় প্রকার রস এর মধ্যে ঢালতে থাকুন এবং অনবরত সেগুলিকে নেড়ে যেতে থাকুন।

৭. জ্যুসি কমলা-গাজর

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • খোসা ছাড়িয়ে ঘনকাকারে কাটা গাজরের টুকরো
  • কমলার রস
  • জল

জ্যুসি কমলা-গাজর

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • একটি কড়াই নিয়ে তার মধ্যে গাজর,জল এবং কমলার রস যোগ করুন।
  • এবার গাজরের টুকরোগুলি নরম না হওয়া পর্যন্ত সেগুলিকে ভাঁপিয়ে নিন এবং যদি পছন্দ করেন তবে সেগুলিকে চটকেও নিতে পারেন।
  • এর স্বাদ এবং গন্ধ বাড়িয়ে তুলতে এর উপর কিছুটা দারুচিনি গুঁড়ো ছিঁটিয়ে নিন।

৮. কমলা ও দইয়ের চটাপট

আপনার যা কিছু প্রয়োজন

  • খোসা ছাড়ানো ও বীজমুক্ত কমলার কোঁয়া
  • দই

কমলা ও দইয়ের চটাপট

কীভাবে প্রস্তুত করবেন

  • কমলার কোঁয়াগুলিকে নিয়ে সেগুলিকে ভাল ভাবে পিউরি বানিয়ে নিন।এরপর এর সাথে দই যোগ করার সময় সেগুলিকে ভালভাবে একসাথে মিশ্রিত করে নিন।
  • এবার সেই মিশ্রণটিকে একটি আইস কিউব ট্রের মধ্যে রেখে সেটিকে ফ্রীজের মধ্যে রেখে জমিয়ে নিন।

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

১. আমি কি শিশুদের কমলার রস দিতে পারি?

আপনার বাচ্চা কঠিণ খাবার খাওয়া শুরু করে ফেললে এবং এক বছরের কাছাকাছি তার বয়স হয়ে থাকলে,আপনি তাকে কমলার রস দিতে পারেন।তবে কোনও আম্লিক জাতীয় ফলে তার অ্যালার্জির প্রবণতা নেই সে বিষয়ে আগে নিশ্চিত হয়ে নেবেন এবং সবসময়েই তাকে কমলার রসটিকে জলের সাথে মিশিয়ে পাতলা করেই দেবেন।

২. ম্যান্ডারিন কমলাগুলি কি বাচ্চাদের জন্য নিরাপদ?

কমপক্ষে এক বছর বয়সী শিশুদের খাওয়ার জন্য এগুলি অবশ্যই নিরাপদ।এগুলি গ্রহণের ফলে তাদের মধ্যে কোনও বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে কিনা তা নজরে রাখা সবচেয়ে ভাল।

৩. আমি কি বাচ্চাদের অরেঞ্জ স্কোয়াশ দিতে পারি?

মিষ্টি করে তোলার জন্য অরেঞ্জ স্কোয়াশের মধ্যে বেশ ভাল পরিমাণে অতিরিক্ত চিনি যোগ করা থাকে।এগুলির পুষ্টি খুবই নিম্নমানের হয়ে থাকে এবং বাচ্চাদের দাঁতের জন্য এগুলি বেশ ক্ষতিকারক হতে পারে।সুতরাং এগুলিকে এড়িয়ে চলা সবচেয়ে ভাল।

৪. সাইট্রাস ফ্রুট বা আম্লিক ফলগুলির জন্য সবচেয়ে ভাল বিকল্প খাদ্যগুলি কি?

ভিটামিন C এর ভাল মাত্রা বজায়ের জন্য,বিকল্পগুলি পাওয়া যেতে পারে তরমুজ,পেঁপে,আলু এবং পালং শাকের মধ্যে,যেগুলির কোনওটিতেই টক স্বাদ নেই এবং এগুলিতে অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনাও খুবই কম থাকে।

৫. আমি কি ঘরে তৈরি শিশু খাদ্য সংরক্ষণের জন্য সাইট্রাস অ্যাসিড ব্যবহার করতে পারি?

শিশুদের খাওয়ার জন্য সাইট্রাস ফ্রুটগুলি বেশ ভাল।সুতরাং,প্রিজারভেটিভ বা সংরক্ষক হিসেবে দুই ফোঁটা লেবুর রস উত্তম হওয়া উচিত যেহেতু সেগুলিকে চূড়ান্ত প্রস্তুতিতে বণ্টিত করা হবে।

কমলার মত ফলগুলি দুর্দান্তভাবে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি সরবরাহ করে এবং সেগুলিকে বিভিন্ন ধরণের খাদ্য প্রস্তুতিতেও চমৎকার ভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।নিশ্চিত করুন যে এটিকে দেওয়ার জন্য আপনার সন্তানটি তার সঠিক বয়সে রয়েছে ও সেই সঙ্গে এগুলির প্রতি তার সঠিক অনুরক্তিও আছে এবং সে আপনার সাথে একসাথেই এর সুস্বাদু স্বাদটিকে উপভোগ করবে।