19 মাস বয়সী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশ

19 মাস বয়সী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশ

আপনার সন্তান এখন পূর্ণ বিকশিত হেঁটে চলে বেড়ানো সম্পূর্ণরূপে টডলার পদের অধিকারী একজন দক্ষ পারদর্শী এবং সারা বাড়ি জুড়ে তার সৃষ্ট অগোছালো বিশৃঙ্খলা এখন সহজেই স্পষ্ট।এই বয়সে আপনি দেখতে পাবেন যে আপনার ছোট্টটি খুব সহজেই কোনও কিছুর দ্বারা আহত হয় এবং তা আবার দ্রুত খুব সহজেই উপেক্ষাও করে এগিয়ে চলে আরও নতুন কিছুর আকর্ষণে,তার এই সংক্ষিপ্ত মনোযোগের সময়কালগুলি এই বয়সে আপনার সন্তানের আচরণগুলি কীরকম হতে পারে তার বৈশিষ্ট্যগুলি বর্ণনের সংক্ষিপ্ত সংজ্ঞা বলে মনে হতে পারে।

aniview

এটি হল আবার সেই সময় যখন আপনার ছোট্টটির মধ্যে হাস্যরসের অনুভূতি বিকাশ পেতে শুরু করে,যার অর্থ হল যখন আপনি কোনও অদ্ভুত সুরে গান গাইতে থাকেন কিম্বা কোনও মজাদার মুখভঙ্গি গড়ে তোলেন সেই মজার দিকগুলি সে নিশ্চিতভাবে উপলব্ধি করতে পারে।তার এই খিলখিলিয়ে হাসিটি এই বিশ্বের অপার্থিব বস্তু বলে মনে হবে যদিও পরক্ষণেই তারা আবার খুব দ্রুত কাঁদতে শুরু করতে পারে মজাদার ব্যাপারগুলি এত সংক্ষিপ্ততার কারণে।

আসুন এবার 19 মাস বয়সী শিশুদের কীভাবে পরিচালনা করা উচিত এবং তাদের বৃদ্ধির উন্নতির সীমা কতদূর অবধি অনুমিত হতে পারে সে ব্যাপারে একটি সাধারণ দৃষ্টিপাত করা যাক।

19 মাস বয়সী টলটলায়নকারীর বিকাশ

19 মাস বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে মাইলফলকগুলি, শিশু কতটা বেড়েছে তা নির্ধারণ করার বিধির তুলনায় আরও বেশি সাধারণ নির্দেশাবলীর মত কাজ করে।আপনার সন্তান এখন একাধিক ক্রিয়াকলাপ করতে সক্ষম হবে এবং তার চারপাশের বিশ্বকে আরও বেশি বুঝতে সমর্থ হবে।সে যত না কথা বলতে বলতে পারবে তার থেকে অনেকবেশি শব্দ বুঝতে পারবে এবং তার সাথে আবার এখন থেকে সে খুব বেশি নোংরা না করেই চামচ এবং কাঁটা চামচ ব্যবহার করে নিজে নিজেই খেতে সমর্থ হবে।

অনেক ক্ষেত্রে,শিশুরা আবার এই বয়সে তাদের চারপাশে হওয়া যেকোনও ভুল-ভ্রান্তিগুলিকেও লক্ষ্য করতে সক্ষম হবে-তাকে যদি বলেন যে তার পুতুলটির একটি চোখ বা কান হারিয়ে গেছে,সে অনিবার্যভাবেই সেটি খেয়াল করতে বাধ্য।সে তার অনেক সিদ্ধান্তই নিজে নিজে নিতে শিখবে এবং চলাচলের দিক থেকে সে কোনও রকম সমর্থনের প্রয়োজন ছাড়াই একা একাই ছুটে বেড়াতেও সক্ষম হবে।

আপনার সন্তানের বৃদ্ধির গতির উপর ভিত্তি করে,সে হয়ত আরও বেশি কিছুই করতে সক্ষম হতে পারে।সে তার হাতগুলিকে ধুয়ে নিয়ে মুছতে পারবে এবং আবার যখন তার প্রস্রাব পাবে তাও হয়ত আপনাকে জানাতে সমর্থ হবে।তার পরিচিত শব্দগুলি বইয়ে দেওয়া ছবিগুলি থেকে খুঁজে নির্দেশ করতেও সক্ষম হবে।

আসুন আপনার সন্তান এই বয়সে বিভিন্ন দিক থেকে তার বৃদ্ধির কতদূর অগ্রগতি করতে পারে সে দিকে একটি বিশদ দৃষ্টিপাত করি।

শারীরিক বিকাশ

তার চলাচলের সক্ষমতার দিক থেকে তার বয়সের এই মাসে হয়ে থাকা বৃহৎ বিকাশগুলি হলঃ

  • কোনওরকম সাহায্য ছাড়াই সে ছুটতে সক্ষম হবে এবং বিভিন্ন দিকে চলাচলও করতে পারবে,সে হয়ত আবার পিছনের দিকে,একটা পাশ দিয়ে হাঁটতে সক্ষম হবে,আবার এমনকি নিজে নিজেই সিঁড়িতেও উঠে পড়তে পারবে।
  • স্বাভাবিক দৌঁড়ের থেকে তার দৌঁড়ঝাপগুলি অনেক বেশি উৎসাহজনক হয় আর তার ছোটার পথে যেকোনও মুহূর্তে যে সে পড়েও যেতে পারে সে নিশ্চয়তার ব্যাপারেও সে অবগত থাকে।
  • যদিও সে এখন ছুটতে পারে কিন্তু তার এই চলাচলের ওপর তার সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকে না।সঠিকভাবে দূরত্ব নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে এখনই সে দক্ষ হয়ে উঠবে না,তাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সংঘর্ষ বা ধাক্কা খাওয়াগুলি এড়ানোর জন্য সে নিজেকে বাধা দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়ে উঠবে না।

এই অবস্থার কথা বিবেচনা করে,আপনার শিশুটিকে একটি নিরাপদ ও সুরক্ষিত স্থানে রাখা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ যাতে সেখানে সে নিরাপদে তার ছোটাছুটি করার দক্ষতা অর্জনের চেষ্টা করতে পারে।আপনাকে কফি টেবিলের কিনারাগুলিতে এবং নিচু আসবাবগুলির ধারগুলিতে নরম প্যাড লাগিয়ে দিতে হবে যাতে সে সেগুলির কোনওকিছুতে ধাক্কা খেয়ে আহত না হয়।অগ্নিকুণ্ড বা উনুন জাতীয় কিছু থাকলে সেগুলিকে ও তার সাথে ঘরের কোণগুলিকেও আপনার ভালভাবে ঢেকে রাখা উচিত। সিঁড়ির নিকটে একটি দরজা লাগিয়ে দিলে তা আবার এটি নিশ্চিত করে যে আপনার ছোট্টোটি অতিরিক্ত উৎসাহের বশে সিঁড়িতে উঠে গড়িয়ে পড়ে যাবে না।

  • একটি 19 মাস বয়সী শিশুর ওজন বৃদ্ধি তার প্রথম বছরের ওজন বৃদ্ধির তুলনায় অত দ্রুত হারে হয় না।
  • এই বয়সে,তার হাতের আঙ্গুল ব্যবহারের দক্ষতা তুলনামূলকভাবে বৃদ্ধি পাবে।সে আরও ভালভাবে তার হাতের মুঠোয় কিছু ধরে রাখতে সক্ষম হবে এবং এমনকি সে আবার বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে একটি পাত্রের মধ্যে জড়ো করতেও পারবে।এছাড়াও আবার একটির উপর আরেকটি ব্লককে সাজিয়ে সাজিয়ে স্তুপ করার ক্ষেত্রেও যথেষ্ট কর-দক্ষতা অর্জন করবে।
  • আপনি আবার তার জন্য যথপোযুক্ত খেলনা ক্রয় করে দেওয়ার মাধ্যমে তার আঙ্গুলগুলির ব্যবহারে উৎসাহ প্রদান করতে পারেন,যা তার কর-দক্ষতার উন্নতি ঘটাবে।

শারীরিক বিকাশ

সামাজিক এবং আবেগীয় বিকাশ

আবেগের বিকাশের দিক থেকে,আগত মাসগুলিতে আপনার সন্তান লাফ দিয়ে তার বৃদ্ধির সীমা অতিক্রম করে ফেলবে।আর এই মাসে তার আচরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্যণীয় বিষয়টি হল তার মধ্যে আপনাকে সহায়তা করার জন্য তীব্র বাসনা দেখা দেওয়া।

  • সে যখনই আপনাকে কোনও কাজ করতে দেখবে নিশ্চিতভাবেই আপনাকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে যাবে।কয়েক মাস যাবৎ আপনাকে গভীরভাবে নিরীক্ষণ করে এই সকল কাজগুলির ব্যাপারে সে এখন অনেকটাই শিখে যায় এবং সেই ক্রিয়ায় আবশ্যিকভাবেই আপনাকে অনুকরণ করার চেষ্টাও শুরু করে।
  • সে যদি আপনাকে আপনার জামা কাপড় ভাঁজ করতে দেখে কিম্বা গাড়ি ধুয়ে পরিষ্কার করতে দেখে তবে সেই কাজে তাকেও অংশীদার করার কথা সে অবশ্যই আপনাকে জানাবে।
  • আবার এমনকি বয়স অনুপাতে তার কাজের প্রতি উৎসাহ তার সক্ষমতার বিবেচনায় অনেকটাই বেশি হয়ে থাকে,তাই তার সাথে তাকে জড়িত রাখার মত কোনও অনুভূতি তার মধ্যে সৃষ্টি করার কোনও উপায় বের করতে পারলে,তা তাকে খুশি করে তোলে।

সে যখন আপনাকে সাহায্য করার ইচ্ছা প্রকাশ করবে তার ইচ্ছা পূরণের জন্য চেষ্টা করুন তাকে টুকিটাকি কাজের মধ্যে জড়িত রাখার,তা না হলে এর পরিণতিতে আপনার 19মাস বয়সী ছোট্টোটি হয়ত আপনার সাথে কোনও কথা নাও বলতে পারে।আপনি তাকে সহজ,ক্ষতিকারক নয় এমন ধরনের কিছু ক্রিয়াকলাপ করতে দিতে পারেন,যেমন গাড়ি পরিষ্কারের সময় আপনি তাকে গাড়ির চাকার বেড়গুলি পরিষ্কারের দায়িত্বটি দিতে পারেন কিম্বা গাড়ি মোছার কাপড়টিকে ধরে রাখতে বলতে পারেন।

  • যদিও তার মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠার প্রত্যাশাটি কয়েক মাস ধরেই কমতে থাকবে, তবুও এটি এখনও এবং পরবর্তীতেও প্রতি ক্ষেত্রেই দেখা যায়।
  • সে যখন আপনার মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করে,অনুগ্রহ করে তাকে তিরস্কার করবেন না কারণ এটি তাকে ভবিষ্যতে নিরুৎসাহিত করে তুলতে পারে।
  • আপনি যদি অন্য আরেকটি শিশুর প্রত্যাশা করে থাকেন তবে সেই পরিস্থিতিটি আপনার সন্তানের পক্ষে আরও কঠিন হয়ে উঠতে পারে ।সুতরাং তার ভাই বা বোনটির আগমনের জন্য তাকে প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে কয়েকটি জিনিস আপনি করতে পারেন।

আপনি তাকে তার ছোটবেলার জামাকপড়গুলি ভাঁজ করতে দিন এবং তারই ছোটবেলার জিনিসগুলির ছবি তাকে দেখান আর তাকে বলুন যে তার ছোট্ট বেবির খুব শীঘ্রই সেগুলির প্রয়োজন হবে।আপনি আবার এমনকি তাকে একটি বিশেষ ধরণের পুতুলও প্রদান করতে পারেন যাতে সেই পুতুলের মধ্য দিয়েই তার মধ্যে ছোট বাচ্চাদেরকে ভালবাসার অভ্যাসটি গড়ে ওঠে।

জ্ঞানীয় এবং ভাষার বিকাশ

এই বয়সে,আপনার সন্তানের বিকাশ কত দূর হতে পারে তার পরিমাপ অনুমান করা সত্যই কঠিন।

  • এই সময় আপনার সন্তানের শব্দভাণ্ডার 10-50 টি শব্দের মধ্যে যতগুলি খুশি হয়ে থাকে।
  • তার বোধগম্য ক্রিয়াপদের দ্বারা সে হয়ত সহজ কয়েকটি বাক্যাংশ গঠন করতে সমর্থ হবে।আবার আমি,তুমি ইত্যাদির মত সর্বনামগুলি ব্যবহারের দ্বারা সে তার ধারণাগুলিকে আপনাকে বোঝাতে সক্ষম হবে।
  • বিভিন্ন শব্দ এবং দিকনির্দেশের বোধগুলিও আবার তার শব্দভান্ডারে থাকা শব্দগুলিকে সনাক্ত করতে সাহায্য করবে।
  • তার ভাষা এবং জ্ঞানের আরও বিকাশে সহায়তার জন্য আপনি তার বইয়ের মধ্যে বিভিন্ন ছবিকে নির্দেশ করে সেগুলি সম্পর্কে আপনার ছোট্টটিকে খুব সহজ কিছু শব্দ এবং বাক্যাংশ ব্যবহার করে ব্যক্ত করুন।এছাড়াও আবার আপনি তাকে বিভিন্ন রঙের নামগুলি বলে বলেও সেগুলি দেখানোর মাধ্যমে শেখানোর চেষ্টা করতে পারেন।
  • তার শিখন প্রক্রিয়ার আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল অণ্বেষণ করা,আর সেই কারণেই সে তার চারপাশের বিভিন্ন বস্তুগুলির বাহ্যিক গঠণ এবং আকারগুলি ইন্দ্রিয়ের দ্বারা অনুভব করার এবং সেগুলি বোঝার চেষ্টা করবে।একটি বাছাই করা নির্দিষ্ট বাক্সের মধ্যে সঠিক স্থানগুলিতে তার সঠিক জিনিসগুলি রাখার ব্যাপারটাই তার কাছে একটা দুর্দান্ত খেলায় পরিণত হবে।

আচার আচরণ

এই বয়সে,আপনার ছোট্ট সোনাটি আরও বেশি স্বাধীন এবং স্বয়ং-সম্পূর্ণ হয়ে উঠতে চেষ্টা করবে।অতএব,সে হয়ত আপনার প্রতিটি আদেশের প্রতিক্রিয়া ভালভাবে দেবে না-পরিবর্তে আপনি আরও সৌহার্দ্যপূর্ণ একটি প্রতিক্রিয়ার জন্য সে ব্যাপারে আপোস করার চেষ্টা করতে পারেন।তাকে ব্যাখ্যা করুন আপনি কি চান এবং তাকে এটি বোঝানোর চেষ্টা করুন যে,গ্রহণযোগ্য আচরণের সীমা হল শৃঙ্খলাবোধ।

আপনার ছোট্টটির উপর ক্রুদ্ধ অথবা অত্যন্ত কঠোর হয়ে উঠবেন না এবং এটি বোঝার চেষ্টা করুন যে,সে এখনও বিকাশের পর্যায়ে রয়েছে।আপনি যে কখনই আপনার ছোট্টটির উপর রাগ দেখাবেন না সে ব্যাপারটি নিশ্চিত করুন এমনকি যখন আপনি তাকে শৃঙ্খলাবোধ শেখানোর জন্য অবিরাম চেষ্টায় রত থাকেন, তখনও না-পরিবর্তে যেভাবেই হোক তাকে বরং আরও অনেক ভালবাসা দিন এবং যাই হয়ে থাকুক না কেন সেটি হসি মুখে মেনে নিন,কারণ আপনার ছোট্টটি প্রকৃতই এখনও যথেষ্ট ছোট আর আপনার বিরূপ আচরণ পরিস্থিতি উন্নতির বদলে আরও জটিল করে তুলবে যা আপনার 19 সপ্তাহ বয়সী ছোট্টটির ক্ষেত্রে মোটেই ইতিবাচক প্রভাব ফেলে না।

খাদ্য এবং পুষ্টি

এই বয়সে,আপনার শিশুটি তার সামনে দেখা যেকোনও জিনিসের প্রতিই সন্দেহভাজন হয়ে ওঠে-সুতরাং আপনি যদি তাকে কোনও নতুন খাদ্য পদ খাওয়ানোর চেষ্টা করে থাকেন,সেক্ষেত্রে সে যে সেই খাদ্যটিকে খাওয়ার পূর্বেও বেশ কয়েকবার দেখেছে সেই ব্যাপারটি নিশ্চিত করুন।যেকোনও কিছুতেই তাদের মনোযোগের সীমার সংক্ষিপ্ততার কারণে তারা আধ ঘন্টার মধ্যেই খাওয়ার প্রতিও নিশ্চিতভাবেই উৎসাহ হারিয়ে ফেলবে।অতএব,খাওয়ার সময়টিকে 20 মিনিটের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখুন এবং হালকা জলখাবারের জন্য 10 মিনিটের মত সময় বরাদ্দ করুন।

খাদ্য এবং পুষ্টি

যদি আপনার শিশুটি এখনও প্রচুর পরিমাণে স্তন দুধ পান করে থাকে,তবে খাবার খাওয়ার সময় সে হয়ত খুব বেশি ক্ষুধিত নাও হয়ে উঠতে পারে আবার এমনকি সে আয়রণের মত পর্যাপ্ত খনিজও না পেতে পারে।সুতরাং আপনার 19 সপ্তাহ বয়সী শিশুর খাদ্যের ব্যাপারে আপনার ডাক্তারবাবুর সাথে আলোচনা করে তাঁর পরামর্শ নিন যাতে আপনার ছোট্টটি স্বাস্থ্যকরভাবে বেড়ে উঠতে পারে।

ঘুমানো

প্রতিদিন 12-14 ঘন্টা করে আপনার সন্তানের ঘুম নিশ্চিত করুন কারণ তার অধিকাংশ বৃদ্ধির ঘটনাগুলিই তার ঘুমের সময়ের সাথে সমন্বিত।তার ঘুমের সময়সূচী বিক্ষিপ্ত হওয়া উচিত নয়,তার বিকাশ ও বৃদ্ধির ক্ষেত্রে ভাল ফল পেতে ঘুমের একটি অবিচলিত সময়সূচী গড়ে তোলা উচিত।তার ঘুমের জন্য একটি নিরাপদ জায়গা স্থির করা নিশ্চিত করুন এবং তার ঘুমের সময়সূচীর মধ্যে যদি অবিচ্ছিন্নভাবে কোনও বাধা এসে থাকে সেক্ষেত্রে আপনার ডাক্তারবাবুর সাথে সে ব্যাপারে আলোচনা করুন।

পটি প্রশিক্ষণ প্রস্তুতি

আপনি লক্ষ্য করবেন যে,আপনার ছোট্টটি তার এই বয়সে তার ডায়পারগুলি ময়লা করে ফেলার ক্ষেত্রে আপনার কাছে একটি বিশেষ অঙ্গ-ভঙ্গিমা শুরু করে।এর অর্থ হল ডায়পারের সমগ্র ব্যবস্থাটির সাথেই তার মধ্যে অস্বস্তি বাড়তে থাকছে।অতএব,এই বয়স থেকেই আপনি তাকে পটি প্রশিক্ষণ শুরু করতে পারেন।যদিও এই প্রক্রিয়াটি পরিচালনা করার ক্ষেত্রে যত্ন এবং উৎসাহের খামতি যেন না ঘটে সেটি মাথায় রাখবেন।

খেলাধূলা এবং ক্রিয়াকলাপ

এক্ষেত্রে 19 মাস বয়সী শিশুর এমন কিছু ক্রিয়াকলাপ রয়েছে যেগুলি তার দক্ষতা আরও বিকাশের সহায়ক হয়ে উঠতে পারে।সেগুলির মধ্যে কয়েকটির উল্লেখ এখানে করা হলঃ

  • তার ঘুম থেকে ওঠার সময় থেকে তাকে বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপের মধ্যে ব্যস্ত রাখলে তা তার বিকাশে সহায়তা করতে পারে।সাধারণ চিন্তাধারার খেলনাগুলি যেমন বিভিন্ন আকারের বাক্স,খেলনা রান্নাবাটি তাকে দীর্ঘ সময় ধরে ব্যস্ত করে রাখতে পারে এবং তার সাথে আবার তার জ্ঞানীয় এবং মানসিক দক্ষতার বিকাশেও সহায়তা করে।
  • সর্বদা তার দিকে সতর্কতার কড়া নজর রাখুন কারণ আপনি যদি তার কোনওরকম শোরগোল বা আওয়াজ না পেয়ে থাকেন তার অর্থ সে নিশ্চিত ভাবেই কিছু অপকর্ম করছে।
  • আপনার অসমাপ্ত বাক্য সম্পূর্ণ করার ক্ষেত্রে তাকে উৎসাহিত করুন- আপনি একটি বইয়ের মধ্য থেকে একটি ছবিকে চিহ্নিত করে সেটি সম্পর্কে একটি বাক্য বলতে বলতে মাঝ পথে থেমে যান যাতে আপনার ছোট্টটি সেই বাক্যের শেষটুকুতে তার উপযুক্ত শব্দ প্রয়োগ করে সেই বাক্যটি সম্পূর্ণ করতে পারে। তবে আপনার ছোট্টটির জন্য অবশ্যই সেই বাক্যগুলি বলা উচিত যেগুলি অত্যন্ত সহজ পরিচিত শব্দ দ্বারা তৈরী ছোট ছোট বাক্য।

মা-বাবাদের জন্য পরামর্শ

  • আপনার সন্তানের ডায়েটে পর্যাপ্ত তরল এবং ফাইবার সমৃদ্ধ খাদ্য সরবরাহের দ্বারা কখনই তার কোষ্ঠকাঠিণ্য না হওয়ার ব্যাপারটিকে নিশ্চিত করুন।
  • ঘুরে বেড়ানোর জন্য আপনি তাকে একটি তিন চাকার সাইকেল বা ওয়াকার কিনে দিতে পারেন কারণ শারীরিক ক্রিয়াকলাপগুলি কেবল তার পায়ের পেশীগুলিকেই সক্রিয় করে তুলতে সহায়তা করে না এটি আবার তার খিদেকেও বাড়িয়ে তোলে।
  • তাকে তার বয়স-উপযোগী খেলনা দিন কারণ এখনও তার মধ্যে হাতে পাওয়া সবকিছুকেই মুখে ঢুকিয়ে কামড়ানো বা চিবানোর স্বভাবটি থেকে যেতে পারে।
  • ইলেকট্রিক সুইচ বোর্ডে হাত দেওয়া,ছুরি-কাঁচি নিয়ে পরিক্ষা নিরীক্ষা চালানোর মত কিছু ক্রিয়াকলাপগুলি রোধ করতে আপনার সন্তানের চারপাশ শিশু সুরক্ষিত রাখুন।

মা-বাবাদের জন্য পরামর্শ

যদি প্রয়োজন হয় একজন ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন

এই পর্যায়ে আপনার সন্তান নিশ্চিত ভাবেই অত্যন্ত সক্রিয় হয়ে উঠবে,সুতরাং যেকোনও সময়েই দুর্ঘিটনা ঘটার সম্ভাবনা প্রবল-যদি আপনি তার দেহে ছোট খাটো কাটা বা কালশিটে দাগের থেকেও বড় কোনও ক্ষত দেখতে পান অথবা আপনার শিশুটি যদি কোনও বোধগম্য কারণ ছাড়াই দীর্ঘক্ষণ ধরে কাঁদতে থাকে তবে তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান।সর্বদা যুক্তির দ্বারা আপনার মাতৃসত্ত্বার উপর বিশ্বাস রাখুন-অনুতাপ করার থেকে নিরাপদ থাকা সব সময়ের জন্যই ভাল,সুতরাং আপনার মনে যদি সামাণ্যতম সন্দেহও থেকে থাকে তা দূর করার জন্য কেবল একবার অন্তত আপনার ডাক্তারবাবুকে দেখিয়ে নেওয়া নিশ্চিত করুন।

শিশুদের এই বয়সটিকে চূড়ান্ত পর্যায়ের সারণীতে চিহ্নিত করা হয়েছে, কারণ যদিও আপনার ছোট্টটির উপর আপনার প্রচুর মনোযোগ থাকে তা সত্ত্বেও সে আরও বেশি স্বাধীন হয়ে ওঠার চেষ্টা করবে।সর্বদা তার উপর কড়া নজর রাখুন কারণ আপনি জানতেও পারবেন না এর পর সে কি করে বসবে।এই বয়সেই কোনও শিশুর প্রথম স্মৃতি গড়ে উঠতে পারে,সুতরাং তার সাথে প্রচুর হাস্য রসিকতা জড়িত করা এবং আপনার ছোট্টটির প্রতি মুহূর্তের অসংখ্য ছবি ক্যামেরাবন্দি করার বিষয়টিও নিশ্চিত করুন!