কোন বয়সে গিয়ে আপনার বাচ্চা একটা ওয়াকার ব্যবহার করতে পারে

কোন বয়সে গিয়ে আপনার বাচ্চা একটা ওয়াকার ব্যবহার করতে পারে

এখন যেহেতু আপনার ছোট্ট শিশুটি তার বৃদ্ধির দ্রুত লক্ষণগুলি প্রদর্শিত করাতে শুরু করে, তখন আপনি অবশ্যই তার প্রথম পদক্ষেপটি ফেলতে দেখার জন্যও ব্যাগ্র হয়ে উঠবেন।হাঁটতে শেখাটা একটা শিশুর জীবনের সাথে সাথে তার বাবামায়ের কাছেও একটা গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা যেহেতু এটা স্বাবলম্বনের পরিচয় দেয়হাঁটতে শেখার ব্যাপারটাকে এইভাবে তার কাছে উদ্ঘাটন ও স্বাচ্ছন্দ্য করে তুলতে সহায়তা করার সাথে আপনি হয়ত তাকে সেটিতে উৎসাহিত করে তোলারও চেষ্টা করতে পারেন বাড়িতে একটা ওয়াকার নিয়ে আসার মাধ্যমে।

aniview

আপনার বাচ্চাকে কখন একটা বেবি ওয়াকার ব্যবহার শুরু করতে দিতে পারেন

যদিও একটা ওয়াকার ব্যবহারের জন্য শিশুদের কোনও নির্দিষ্ট বয়সকে বেঁধে রাখা নেই, তবে সেটি ব্যবহার করতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগে শিশুর শক্তি, ক্ষমতার বৃদ্ধি, বিকাশ এবং তার আকারের ব্যাপারটাকে ভালভাবে বিবেচনা করে নিতে হবে।ওয়াকারগুলি স্বভাবত 4-16 মাস বয়সের মধ্যে থাকা শিশুদের উপযোগী করে ডিজাইন করা হয়ে থাকে।এটা ছাড়াও ওয়াকার ব্যবহারে সক্ষম হওয়ার জন্য শিশুটি যেন তার মাথাটিকে নিজের বশে বেশ দৃঢ়ভাবে ধরে রাখতে সমর্থ হয় সে ব্যপারে সতর্ক থাকতে হবে এবং ওয়াকারের মধ্যে তাকে রাখার পর তার পাগুলি মেঝে স্পর্শ করা প্রয়োজন।

বেবি ওয়াকারের সুবিধাগুলি

আপনার সন্তানের জন্য একটা ওয়াকার কেনার বেশ কিছু সুবিধার কথা এখানে আলোচনা করা হলঃ

  • ব্যস্ত রাখে এবং অনুপ্রাণিত করে

বাচ্চাদের ব্যস্ত এবং কাজে নিযুক্ত রাখতে বেশিরভাগ বেবি ওয়াকারগুলির সাথেই কিছু সাধারণ খেলনা অথবা বাচ্চাদের আকর্ষণ করার মত কিছু লাগানো হয়ে থাকে।সেগুলি এমনভাবেই ডিজাইন করা হয় যা শিশুদের মানসিক বিকাশের সাথে দৃষ্টিশক্তিও উদ্দীপ্ত করে।ওয়াকারের মধ্যে সংলগ্ন থেকে শিশুরা তার মধ্যেই ব্যস্ত থাকার দরুণ আপনার দৈনন্দিন কাজকর্মগুলি অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রেও একটা ওয়াকার এক বিরাট অবদান রাখে।

  • বাচ্চাদের হাঁটতে উৎসাহিত করে

হাতে সমর্থন পাওয়ার সাথে সাথেই আপনার ছোট্টটি তার প্রথম পদক্ষেপটি ফেলার জন্য হয়ত উৎসাহিত হয়ে উঠতে পারেএটি আপনার বাচ্চাকে বুঝতে সাহায্য করবে যে দাঁড়িয়ে থাকার অবস্থানটি কীভাবে তাকে হাঁটতে সাহায্য করবে আর সে নিজের মত করে সেটা করতে চাইবে।

  • তাদের গতিশীলতাকে বাড়িয়ে তোলে

8-12 মাসের মধ্যে থাকা শিশুরা তাদের চারপাশে ঘুরে দেখতে আগ্রহী হয়। একটা ওয়াকার তাদের প্রয়োজনীয় গতিশীলতাকে সরবরাহ করতে পারে এবং কোনওরকম ভাবে কারুর সাহায্য ছাড়াও তাদের চলাচলে সাহায্য করতে পারে।

বেবি ওয়াকার ব্যবহারের অসুবিধাগুলি

বেবি ওয়াকার ব্যাবহারের সাথে সম্পর্কিত কিছু অসুবিধার উল্লেখ এখানে করা হলঃ

  • ওয়াকার ব্যবহার করা শিশুরা প্রকৃতপক্ষে যে সকল শিশু ওয়াকার ব্যবহার করে না তাদের তুলনায় হাঁটা বা হামাগুঁড়ি দেওয়ার মাইলফলকটিতে দেরীতে পৌঁছাতে পারে।
  • শিশুর গড়িয়ে যাওয়াবসতে পারাহামাগুঁড়ি দেওয়াহাঁটার মত রুটিন অনুসরণ করা আবশ্যক যেগুলি একটি শিশুর মেঝেতে থাকার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।এই ক্রিয়াগুলি তার সকল মাংসপেশীগুলিকে শক্তিশালী করে তুলতে সাহায্য করে যা তার উঠে দাঁড়ানো বা হেঁটে চলে বেড়ানোর জন্য খুবই প্রয়োজন।একটা ওয়াকার আপনার বাচ্চার এগুলি করার ক্ষেত্রে বাঁধার সৃষ্টি করতে পারে এবং তার ফলে তার স্বাভাবিক বিকাশ ব্যহত হতে পারে।
  • একটি হামাগুড়ি দেওয়া শিশু যে জিনিসগুলিকে তার হাতের নাগালে পায় না, সেগুলি খুব সহজেই হাতের মধ্যে পেয়ে যায় ওয়াকারের মধ্যে থাকা একটি শিশু, আর তার ফলে সে তা থেকে আহতও হতে পারে।
  • ওয়াকারের ডিজাইনে ভাঁজ করা ফোল্ডিং অংশ বা কব্জা থাকার কারণে সেগুলিতে আপনার ছোট্টটির পায়ের পাতা এবং আঙ্গুলে চোট লাগতে পারে।
  • চাকা যুক্ত একটা ওয়াকার আপনার প্রতিক্রিয়ার সময়তিকে খর্ব করে দেয় কারণ সেটা যদি গতি তোলে তবে একটা দুর্ঘটনা পর্যন্ত ঘটে যেতে পারে।

বেবি ওয়াকার কি বাচ্চার ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে?

স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় গড়ানো, হামাগুঁড়ি দেওয়া, উঠে দাঁড়ানো এবং তারপর হাঁটাতে শুরু করাকোনও শিশুকে কীভাবে নিজে থেকে তার ভারসাম্য ধরে রাখতে হয় তা শিখিয়ে তোলে।যখন আপনি আপনার বাচ্চাকে একটা ওয়াকার ব্যবহার করতে দেন, তবে সেটিতে শিশুটির অবস্থান এমন হয় যেখানে সে তার নিতম্বের থেকে সামনের দিকে ঝুঁকে পড়ে।একটা ওয়াকারের মধ্যে শিশুর নিজের কোনও ভারসাম্য থাকে না।যদি শিশুটি তার পাশে বা সামনের দিকে টিপও দেয় ওয়াকারটা তাকে পড়ে যাওয়া থেকে বাঁধা দেয়।নিজের ভারসাম্য ধরে রাখার জন্য শিশুকে তা আবার নতুন করে শেখার প্রয়োজন হবে।

আপনার বাচ্চাকে একটা ওয়াকার ব্যবহার করতে দেওয়ার সময় যে সাবধানতাগুলি অবলম্বন করতে হবে

আপনার বাচ্চাকে কার্যতই একটা ওয়াকার ব্যবহার করতে দেওয়ার আগে বেবি ওয়াকার ব্যবহারের সুরক্ষার ব্যাপারে কতকগুলি সমস্যা সামাধানের জন্য আপনাকে উচ্চ পরামর্শ দেওয়া হচ্ছেঃ

  • সমতল জায়গায় আর শুধুমাত্র মেঝেতেই বেবি ওয়াকারটি ব্যবহার করা নিশ্চিত করুন।
  • সিঁড়ি এবং কোনওরকম জলাশয় থেকে আপনার বচ্চা এবং তার ওয়াকারটিকে দূরে রাখুন।
  • বাচ্চার ওয়াকারটি ব্যবহার করার সময় তার আশেপাশে আপনার কিম্বা একজন দায়িত্ববান প্রাপ্তবয়স্কের থাকা বাধ্যতামূলক।
  • আশপাশ থেকে ধারাল, তীক্ষ্ণ বস্তুগুলি সরিয়ে ফেলুন।ভারী ও ভেঙে যেতে পারে এমন জিনিসগুলিকেও অন্য জায়গায় স্থানান্তরিত করা উচিত।

যেমনটি আমরা দেখেছি যে বেবি ওয়াকারগুলির নিজস্ব কিছু সুবিধাঅসুবিধা আছে এবং প্রায়শই যে প্রশ্নটি উঠে আসে তা হল-“বেবি ওয়াকারগুলি কি নিরাপদ?” একজন সচেতন অভিভাবক হওয়ার কারণে আপনাকে এ ব্যাপারে যত্নশীল হতে হবে, যাতে এর অসুবিধাগুলিকে এড়িয়ে সুবিধাগুলিকে কাজে লাগানো যেতে পারে।সর্বোপরি, এ ধরণের বস্তু ব্যবহারের কারণে বাচ্চাদের বিকাশ যাতে বিঘ্নিত না হয়ে পড়ে তা নিশ্চিত করা একজন অভিভাবকেরই দায়িত্ব।