স্তন পান করানোর সময় মধু সেবন

স্তন পান করানোর সময় মধু সেবন

একজন স্তন দানকারী মায়ের সবচেয়ে বড় একটি ভাবনা হল তার খাদ্যাভ্যাস।বুকের দুধ পান করানোর সময়, ক্যাফিন জাতীয় পানীয়, অ্যালকোহল, সাইট্রাস ফল ইত্যাদি সেবনের মত অনেকগুলি সাধারণ অভ্যাস তিনি পরিবর্তন করেন তার সন্তানকে সবচেয়ে সেরা পুষ্টিটি সরবরাহ করার জন্য।কিন্তু সাধারণভাবে যে সকল খাদ্যগুলিকে স্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয় সেগুলি সম্পর্কে কি বলা যেতে পারে?খাওয়ার জন্য কোন খাদ্যগুলি নিরাপদ?এ ধরণের একটি খাদ্য হল মধু যা আবার তার মধ্যস্থ উচ্চ পুষ্টিমানের জন্য গলিত স্বর্ণনামেও পরিচিত।তবে মধু কি স্তন পান করানোর সময় সেবন করা নিরাপদ? হ্যাঁ, কিন্তু সাবধানতার সাথে।

aniview

স্তন দুধ পান করানো মায়েরা কি মধু খেতে পারেন?

হ্যাঁ, স্তন দুধ পান করানোর সময় মধু সেবন করা স্বাস্থ্যকর এবং নিরাপদ।স্তন পান করানো এবং মধুর ব্যাপারে অনিশ্চয়তার কারণটি হল বেটুলিজম স্পোর যেটি মধুর মধ্যে উপস্থিত থাকতে পারে।এটি শিশুদের ক্ষেত্রে ক্ষতিকারক কেবল তখনই যখন সেটি তাদের সরাসরি খাওয়ানো হয়।তবে এই স্পোরগুলি স্তন দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে শিশুদের দেহে প্রবেশ করে না।এর কারণ হল স্পোরগুলি প্রাপ্ত বয়স্কদের দেহে সহজেই ভেঙ্গে যায় এবং অপসারিত হয়, এইপ্রকারে রক্ত প্রবাহের মধ্যে কোনও রকম বিষাক্ত পদার্থ প্রবেশ করা থেকে প্রতিরোধ করে।তাছাড়াও আবার মায়ের দুধের মধ্য দিয়ে শিশুর দেহে প্রবেশের পথটিকে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে স্পোরগুলিকে অনেক দীর্ঘ পথ অতিক্রম করতে হয়।আর তার ফলে, স্তন দুধ পান করানো মায়েরা ততদিন মধু সেবন করতে পারেন যতদিন তারা তাদের শিশুদের সরাসরি মধুর সংস্পর্শে আনা থেকে সাবধানতা অবলম্বন করেন।

স্তন পান করানোর সময় মধু সেবনের ক্ষেত্রে অবলম্বিত সতর্কতাগুলি

  • আপনার হাতগুলিকে নিয়মিত পরিষ্কার করুন।মধু সেবন করার পর হাতের স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখতে যত্নের সাথে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বন করুন যাতে শিশুর হাত এবং ঠোঁট এই খাদ্যটির সংস্পর্শে না আসে।
  • এটিকে আপনার ত্বক কিম্বা স্তনের কোনও জায়গার উপর প্রয়োগ করবেন না কারণ তাহলে আপনার শিশুও সেটির সংস্পর্শে আসতে পারে।
  • এক বছরের কম বয়সী কোনও শিশুকে কোনওভাবেই মধু দেবেন না এমনকি কোনও ধর্মীয় বিশ্বাসের কারণের জন্যও না।
  • মৌচাক ভেঙ্গে সদ্য প্রাপ্ত কাঁচা মধুর পরিবর্তে পরিশোধিত মধুকেই বেছে নিন।
  • স্তন দানের সময় মধু সেবন করুন, তবে অবশ্যই তা সংযমের সাথে।আপনার পরিবারে যদি মধুকে একটি মিষ্টান্ন হিসেবে নিয়মিত ব্যবহার করা হয়, তবে আপনি কয়েকটি নির্দিষ্ট খাদ্যের ক্ষেত্রে এর বিকল্প হিসেবে গুড়কে বেছে নিতে পারেন।
  • ঈষদুষ্ণ তরলের সাথেই মধু সেবন করুন, অত্যন্ত গরম তরলের সাথে অবশ্যই নয় কারণ অত্যন্ত গরম তরল মধুর পুষ্টিগুণ এবং স্বাস্থ্যকর এনজাইমগুলিকে ব্যাহত করতে পারে।

স্তন পান করানোর সময় মধু সেবনের ক্ষেত্রে অবলম্বিত সতর্কতাগুলি

বুকের দুধ পান করানোর সময় মধু সেবনের উপকারিতাগুলি

  • এটি একটি প্রাকৃতিক মিষ্টি এবং চিনির থেকে স্বাস্থ্যকর।
  • ঠাণ্ডা লাগা, সর্দিকাশি এবং গলা ব্যথা নিরাময়ের জন্য এটি সেরা।
  • যখন অন্য কোনও খাবারের সাথে মধু সংযুক্ত করা হয় এটি দুর্দান্তভাবে কাজ করেঃ রাত্রি বেলায় মধু এবং দুধের একটি মিশ্রণ ভাল ঘুমে সহায়তা করে।
  • মধুতে উচ্চ মাত্রায় ফ্রূকটোজ এবং গ্লুকোজ থাকে যা মনোবল এবং শক্তি সরবরাহ করে।
  • মধুতে রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেণ্টের বৈশিষ্ট্যগুলি যা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

কখন মধু সেবন করা এড়িয়ে চলতে হবে?

মধু একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্য যেটি কেবল স্তন পান করানোর সময় আপনার সুস্থতা বজায় রাখতে সহায়তা করে।স্তন দুধ পান করানোর কোনও নির্দিষ্ট পর্যায়ে মধু সেবন করা এড়িয়ে চলা উচিত এমন ধারণার ব্যাখ্যা দিতে পারার মত কোনও বৈজ্ঞানিক সত্য বা তথ্য নেই।তবে নিম্নলিখিত কয়েকটি নির্দিষ্ট শর্তের ক্ষেত্রে মধু সেবন এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হবেঃ

  • আপনার পাশে থাকা শিশুর সাথে সরাসরি মধু সেবন করবেন না।এটি কেবল কোনওরকম দুর্ঘটনা বা অঘটন ঘটে যাওয়া রোধ করার জন্য।
  • ম্যাড মধু‘-এটি হল এক প্রজাতির রোডোডেনড্রন ফুল থেকে পাওয়া একটি বিশেষ ধরণের মধু।এর মধ্যে থাকে গ্রায়ানোটক্সিন যা এটিকে কড়া এবং শক্তিশালী করে তোলে।এটি নিয়মিত সেবন না করাই সবচেয়ে ভাল।সুতরাং, এটি ক্রয় করার আগে এর প্যাকের গায়ে লেখা উপকরণের তালিকাটি সতর্কতার সাথে পড়ে নিন।
  • স্থানীয় মধু ব্যবহার করুন, যদি সেটি কোনও সুপরিচিত ব্র্যান্ড বা কোনও বিশেষ পরিচিতির নাও হয় কিন্তু আপনার ডাক্তারবাবুর দ্বারা সেটি আপনার খাদ্যতালিকাগত প্রয়োজনের জন্য নির্ধারিত হয়ে থাকে তবে সেটি ঠিক আছে অন্যথায় সেটি থেকে বিরত থাকুন।

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবল

1.স্তন দুধ পান করানোর সময় মধু এবং দারিচিনি সেবন করা কি নিরাপদ?

মধু, দুধ এবং দারুচিনি গুঁড়োর একটি মিশ্রণ দুগ্ধ উৎপাদনে উদ্দীপিত করার জন্য দুর্দান্ত।সুতরাং স্তন দানের সময় মধু এবং দারুচিনি সেবন কেবল স্বাস্থ্যকরই নয় এটি আবার বুকের দুধ উৎপাদনকে বৃদ্ধি করার জন্যও একটি চমৎকার নির্বাচন।

2.বুকের দুধ পান করানোর সময় মধু এবং আদা চা পান করা কি ঠিক?

হ্যাঁ, আদা এবং মধুর চা ঠাণ্ডা লেগে সর্দিকাশি এবং গলা ব্যথা থেকে উপশম আনে এবং অ্যালোপাথি ওষুধগুলির তুলনায় এটি অনেক ভাল একটি জৈব প্রতিকার, বিশেষ করে যখন বাচ্চাকে স্তন পান করানো হয়।

3.আমি কি মানুকা মধু সেবন করতে পারি?

নিউজিল্যান্ডের মানুকা গাছ থেকে মানুকা মধুটি উদ্ভূত হয়ে থাকে।বিভিন্ন ধরণের প্রতিকারমূলক বৈশিষ্ট্যগুলি এর মধ্যে থাকার দরুণ এটি একটি বিস্ময়কর খাদ্য হিসেবে জনপ্রিয়।মানুকা মধুটি আবার অন্যান্য সকল মধুর মধ্যে সেরা হিসেবে বিবেচিত যেটি নতুন মায়েরা সেবন করতে পারেন।তবে যেকোনও কিছু গ্রহণ করার পূর্বেই সেটিকে আপনার ডাক্তারবাবুকে দিয়ে পরীক্ষা করিয়ে নেওয়াটা সবচেয়ে ভাল সব সময়ের জন্যই।

4.বোটুলিনাম স্পোরগুলি কীভাবে আমার সন্তানকে প্রভাবিত করতে পারে?

যখন 1 বছরেরও কম বয়সী কোনও শিশু এই স্পোরগুলির সরাসরি সংস্পর্শে আসে কিম্বা গ্রাস করে ফেলে, এই জাতীয় জটিল ব্যাকটেরিয়াগুলিকে হজম করতে না পারার কারণে তা বৃহদন্ত্রে কোলোনাইজেশনের দিকে পরিচালিত করে এবং বোটুলিনাম বিষক্রিয়ার সৃষ্টি করে।প্রাথমিক পর্যায়গুলিতে, এটি পেশীর টান বা দৃঢ়তার ক্ষতিসাধন করে এবং দুর্বলতার দিকে পরিচালিত করে।আর গুরুতর পর্যায়ে, এটি হাসপাতালে ভর্তি করার মত পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে এবং স্থায়ী রূপে মাংসপেশী এবং স্নায়ুর ক্ষতি করতে পারে।তবে সেটি সবসময় ঘটে না।

5.মধু প্রস্তুতকরণের সময় কি বোটুলিনাম স্পোরগুলিকে অপসারিত করা যেতে পারে?

না।বোটুলিনাম স্পোর বা বীজগুটিকাগুলি খুব কমই মধুর মধ্যে উপস্থিত থাকে।এটি খালি চোখে না দেখা যায়, না প্রস্তুতিকরণের সময় সেগুলিকে দূর করা যায়।

6. বোটুলিনাম থেকে আমার শিশুটিকে কীভাবে আমি রক্ষা করতে পারি?

শিশুদের মধ্যে বেটুলিজম কেবল খাদ্য জনিত কারণেই হয়ে থাকে নাএটি আবার দূষিত মাটির থেকেও হয়ে থাকতে পারে।আপনার শিশুকে রক্ষা করার একমাত্র উপায় হল প্রতিরোধ করা এবং সুরক্ষিত রাখা। 12 মাসের কম বয়সী কোনও শিশুকেই মধু (সরাসরি অথবা ক্যানজাত)দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।ধূলোবালি এবং মাটিতে আপনার ছোট্টটিকে উন্মুক্ত করা থেকে রক্ষা করুন।

মধু হল শক্তিতে ভরপুর একটি খাদ্য যা স্তন দানকারী মায়ের জন্য অসংখ্য পুষ্টি সরবরাহ করে।তবে এটি মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে, যেকোনও খাদ্যই প্রতিস্থাপন করা যেতে পারে।মধু সেবনের ধারণাটি যদি আপনার উপরে চাপ ফেলে, সেক্ষেত্রে সবচেয়ে ভাল হল আপনি এটি এড়িয়ে চলুন এবং অন্যান্য খাবারের সাথে এটি প্রতিস্থাপন করুন।স্তন পান করালে তা কখনই শিশুটির ক্ষতি করবে না, এমমকি এটিও সুপারিশ করা হয় যে, আপনি আপনার বাচ্চাকে স্তন পান করাতে পারেন, যখন সে শিশুদের বোটুলজম দ্বারা আক্রান্ত হয়ে থাকে তখনও।স্তন দুধ পান করানো মায়েদের শুধু মনে রাখা দরকার সতর্ক হতে যাতে তারা তাদের সন্তানকে আরও ভালভাবে স্তন পান করানোর দ্বারা লালন পালন এবং রক্ষা করতে সক্ষম হতে পারেন।