18 মাস বয়সী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশ

18 মাস বয়সী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশ

আপনার এক গুচ্ছ আনন্দের ছোট্ট ডালিটি এখন 18 মাস বয়সী!সে এখন সারা দিন ধরে সারা বাড়ি বিচরণ করে যা কিছুই করে বেড়ায় তার সমস্ত কিছুই আপনি উপভোগ করতে পারবেন।এটি মাবাবা এবং টলটলায়মানকারী ছোট্ট শিশু উভয়ের কাছেই একটি অত্যন্ত বিভ্রান্তিকর সময় কারণ আপনার কাছে সে এখনও আপনার ছোট্ট শিশু,কিন্তু আপনার টলমল করে হেঁটে চলা ছোট্টটির ব্যাপারে উদ্বেগের প্রসঙ্গ যতদূর আসে,সে নিজেকে একজন স্বাবলম্বী,স্বাধীন এবং বিশ্ব অণ্বেষণে সে সার্বিকভাবে প্রস্তুত বলে মনে করে।নিম্নে আলোচিত নিবন্ধটিতে আমরা চর্চা করব আপনার 18 মাস বয়সী শিশুর বৃদ্ধি এবং বিকাশের পর্যায়ে কি কি ঘটতে চলেছে সে ব্যাপারে।

aniview

18 মাস বয়সী টলটলায়মানকারীর বিকাশ

আপনি হয়ত লক্ষ্য করে থাকবেন যে এই পর্যায়ে আপনার শিশুটি হয়ত তার প্রথম বছরের তুলনায় বিদ্যুতের গতির ন্যায় দ্রুত হারে বেড়ে উঠছে না।তবে তার বৃদ্ধি তাই বলে থেমে নেই তা অবিরত হয়েই চলেছে কিন্তু ধীর গতিতে।এখানে 18 মাস বয়সী কিছু মাইলফলকের উল্লেখ করা হল যেগুলি আপনার সন্তান অর্জন করতে পারেঃ

শারীরিক বিকাশ

এই বয়সে আপনার সন্তানের মধ্যে অনেকগুলি শারীরিক পরিবর্তন সংঘটিত হয়ে থাকে।আপনার 18 মাস বয়সী ছোট্টটির ওজনের পরিসর হতে পারে পুত্র সন্তানের ক্ষেত্রে 22.4-26 পাউণ্ডের মধ্যে এবং কন্যা সন্তানের ক্ষেত্রে 20.8-24.5 পাউণ্ডের মধ্যে।

  • আপনার ছোট্টটি দৌড়াতে সমর্থ হয়
  • আপনার পুচকে এখন কোনও একটি বলকে ছুঁড়তে এবং সেটিকে আবার লুফে নিতেও সক্ষম।
  • আপনার সোনা এখন আপনার হাত ধরে সিঁড়ি বেয়ে উঠতে এবং নামতেও ওস্তাদ।
  • সে এখন তার রঙ পেন্সিল এবং ক্রেয়ন দিয়ে আঁকিবুকি কাটতেও পারদর্শী হয়ে ওঠে।
  • আপনার ছোট্টটি আবার এমনকি তার নিজের জামা কাপড়গুলিও খুলতে পারে।
  • সে এখন তার পান করার কাপ থেকে নিজে নিজেই চুমুক দিতে সক্ষম হয়ে ওঠে এবং সম্ভবত এমনকি নিজে নিজে খেতেও পারে।
  • ঘুরে বেড়াবার সময় আপনার লিটল চ্যাম্প এখন খেলার জন্য তার খেলনা গাড়িগুলিকেও টেনে বের করে নিয়ে আসতে পারে।

সামাজিক এবং মানসিক বিকাশ

আপনার টডলার পদাধিকারীটি এখন তার এই বয়সে বিভিন্ন ধরণের আবেগ অনুভূতিগুলি বুঝতে এবং অনুভব করতে পারে এবং আপনার বাচ্চার 18 মাস বয়সের মধ্যে বিকাশ হয়ে থাকতে পারে এমন কিছু দক্ষতাগুলি হলঃ

  • আপনার শিশুটি এখন তার ভালবাসা এবং অনুরক্তি প্রকাশ করতে সক্ষম হয়ে ওঠে।
  • আপনার ছোট্টটি মর্মাহত অথবা উদ্বিগ্ন হয়ে থাকলে সে হয়ত দুর্বার ক্রোধে ফেটে পড়তে পারে।
  • এই বয়সে আপনার সোনা সকল বিষয়ে অত্যন্ত কৌতুহলী হয়ে ওঠে এবং তার চারপাশের সবকিছুর ব্যাপারে অণ্বেষণ করে বেড়াতে চায়।
  • আপনার সন্তান এই সময় আপনার প্রতি অত্যন্ত অনুরক্ত হয়ে উঠতে পারে এবং তার মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবোধ আশঙ্কার লক্ষণগুলি দেখা দিতে পারে।
  • ক্ষেত্র বিশেষে আপনার ছোট্টটি আবার হয়ত তার বিরক্তি এবং অসন্তোষও প্রদর্শন করতে পারে।
  • আপনার সোনা আবার হয়ত বা ফিকফিকিয়ে কিম্বা খলখলিয়ে হাসির দ্বারাও অন্যদের প্রতি তার প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করতে পারে।

জ্ঞানীয় এবং ভাষার দক্ষতা

আপনি আবার হয়ত আপনার 18 মাস বয়সী ছোট্টটির মধ্যে নিম্নলিখিত জ্ঞানীয় এবং ভাষার দক্ষতাগুলি লক্ষ্য করে থাকতে পারেনঃ

  • আপনার সন্তান এই বয়সে একক শব্দের মৌখিক আদেশগুলিকে বুঝতে পারে এবং তার প্রতিক্রিয়াও জানাতে পারে।
  • আপনার সোনা এখন 10-20 টি শব্দ বলতে সক্ষম হবে।
  • আপনার শিশু এখন তার দেহের অঙ্গ প্রত্যঙ্গগুলিকে চেনে এবং তার সাথে বেশ সম্পর্কিতও হয়ে ওঠে আর তাই যখন তাকে সেগুলির থেকে কোনওটিকে দেখাতে বলার কথা হয় সে আবার এমনকি সেটির দিকে নির্দেশও করতে পারে।
  • আপনার সন্তান এখন তার প্রিয় খেলনাগুলির কথা স্মরণে রাখতে পারে।
  • আপনার ছোট্টটি এখন আকজন নকল মাস্টার হয়ে ওঠে এবং সম্ভবত আপনার ক্রিয়াকলাপগুলিও অনুকরণ করতে পারে যেমন ফোনে কথা বলা ইত্যাদি।
  • সে এখন অনুরূপ বস্তুগুলি মেলাতে পারে।
  • আপনার ছোট্ট পারদর্শী এখন আবার সম্ভবত তার ছবির বইয়ের মধ্যে চরিত্র

এবং বস্তুগুলিকে সনাক্তও করতে পারবে।

আচরণ

এই বয়সের মধ্যে আপনার টডলার পদাধিকারীটি আরও সচেতন এবং অবিচল হয়ে ওঠে এবং সে এখন জানে কীভাবে সে তার পথ পেতে পারে।এই সময়ের মধ্যে আপনার ছোট্টটির মধ্যে একটি শক্তিশালী ইচ্ছেশক্তি গড়ে ওঠে এবং সে যা চায় সেটি যদি সে কোনওভাবে পেয়ে যায়,তবে হৈ চৈ বাঁধিয়ে একটা শোরগোল ফেলে দিতে পারে।সে আবার এখন এটিও জানে কীভাবে আপনার মনোযোগ আকর্ষণ করতে হয়।আপনি হয়ত এখনও আপনার শিশুর জন্য ডায়পার ব্যবহার করে থাকেন কিন্তু তাকে টয়লেট প্রশিক্ষণ দেওয়ার এটিই হল সঠিক সময়।সে হয়ত এমনকি তার বড় ভাইবোনেদের নকল করে তাদের দেখাদেখি পটি সিটের উপরে বসতেও চাইতে পারে।

খাদ্য এবং পুষ্টি

আপনার সন্তান বেড়ে ওঠার সাথে সাথে তার পুষ্টির চাহিদাও বৃদ্ধি পায়।আপনি তাকে পরিবারের বাকি সকল সদস্যের সাথে একসাথে খাওয়াতে পারেন তার বেবি সীটের উপর বসিয়ে।এমনকি আপনার শিশু যদি নিজে থেকে খুব বেশি নাও খায় অথবা পরিবারের সকলের সাথে বসে খাওয়ার সময় খাবার নিয়ে খেলাও করে,তবুও সে এটি শেখে যে বড় হওয়ার সাথে সাথে তাকে শেষ পর্যন্ত সেই খাওয়ার কাজটিও সারতেই হবে।পরিবারের বাকি সদস্যদের সাথে বসার সময় যদি খাবার না খায় তবে চেষ্টা করুন সেদিকে মনোযোগ না দেওয়ার বা মনোযোগ দেওয়ার এবং যখন সে তার খাবারটি খেয়ে শেষ করে উঠবে তাকে বাহবা দিন।এইভাবে সে জানতে পারবে যে তার থেকে কি করার প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

আপনার সন্তানের খাদ্য পরিকল্পনায় সকল শ্রেণীর খাদ্যগুলিকে অন্তর্ভূক্ত করেছেন তা নিশ্চিত করুন।এই বয়সে আপনার ছোট্টটির জন্য প্রয়োজন হবে সারা দিনে তিন বার প্রধান খাবার এবং দুই থেকে তিনবার জলখাবারের।মস্তিষ্কের ভাল উন্নতি সাধনের জন্য তার খাদ্য তালিকার সাথে আবার ফুল ফ্যাটের দুধ সংযুক্ত করারও পরামর্শ দেওয়া হয়।যদি আপনার ছোট্টটি কয়েকটি নির্দিষ্ট খাদ্য আইটেমের উপর বিরিক্তবোধ করে,জোর করে তাকে সেগুলি খাওয়াবেন না।তবে এ ব্যাপারটি নিশ্চিত করুন যে আপনি পুনরায় সে খাদ্য আইটেমগুলির সাথে তার পরিচয় করাবেন কিছু দিন পরে অন্য রূপে।

আপনার সন্তানের যদি এখনও বোতলে খাওয়ার অভ্যাস থাকে,তবে এখনই তাকে তার বোতল থেকে তার চুমুক দিয়ে খাওয়ার সিপি কাপে স্থানান্তরণ করার সময় এসেছে। তাছাড়াও আবার যদি আপনার ছোট্টটি ল্যাকটোজ অসহিষ্ণু হয়ে থাকে,সেক্ষেত্রে আপনি তাকে সয়া দুধ দিতে পারেন।তার কোনও রকম খাদ্য জনিত অ্যালার্জি থেকে থাকলে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকুন আর সেই কারণেই আপনাকে সবসময় একবারে একটি মাত্র খাবার দিয়ে সেই খাবারের প্রতি আপনার ছোট্টটির কীরূপ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ পায় তা পরীক্ষা চালানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

ঘুমানো

কিছু মাবাবার কাছে হয়ত তাদের সন্তানকে ঘুম পাড়িয়ে রাখাটা অত্যন্ত দুরূহ কাজ বলে মনে হয়ে থাকতে পারে।এর কারণ হল সে তার চারপাশে ঘুরে ঘুরে প্রতিটি বিষয়ে অণ্বেষণ করার ব্যাপারে এতটাই বেশি আগ্রহী হয়ে থাকে যে ঘুমটি তার কাছে সর্বশেষ প্রাধান্য পেয়ে থাকে।আপনার ছোট্ট অণ্বেষণকারীটি হয়ত ক্লান্ত এবং অবসন্ন হয়ে পড়তে পারে কিন্তু তবুও সে ঘুমাতে যেতে অস্বীকার করে।এরকম পরিস্থিতিতে, সবচেয়ে ভাল যে জিনিসটি আপনি করতে পারেন তা হল তার ঘুমের সময় বিক্ষিপ্ত চিত্ত হয়ে ওঠার কারণগুলিকে কিম্বা ঘুমের প্রতিবন্ধকতাগুলিকে খর্ব করা বা অপসারিত করা।এছাড়াও আবার ঘুমের একটি নির্দিষ্ট সময়সূচী তৈরী করে তার সাথে সংলগ্ন থাকুন,যাতে আপনার দুষ্টুটি জানতে পারে যে প্রতিদিন কোন সময়টি তার বিশ্রাম নেওয়া বা ঘুমের জন্য বরাদ্দ এবং তার সেটি করা উচিত।আর তার ঘুমের সময় টেলিভিশন চালানো,জোরে গান চালানোর মত যেকোনও উপদ্রবগুলি থেকে বিরত থাকুন কিম্বা তার অন্যান্য ভাইবোনদেরও সেই সময় তার কাছে যেতে দেওয়া থেকে বাধা দান করুন যাতে কোনওভাবেই সে বিচলিত হয়ে উঠতে না পারে।

সকলেই যেমন বলেন এবং করেন,আপনার শিশুর ঘুমের ধরণটি ততটাও তেমন খারাপ নয়,এটি শুধু আপনি কীভাবে সেটিকে অনুভব করছেন এবং পরিকল্পনা করছেন তার উপরেও অনেকটা নির্ভর করে।এই বয়সে আপনার ছোট্টটি সম্ভবত রাত্রি বেলায় মোটামুটি প্রায় 10-11 ঘন্টা ঘুমাবে এবং দিনের বেলায় দুই থেকে তিনটি ছোট ঘুম দেবে।তবে আপনার সন্তানের ঘুমের একটি সময়সূচীর সাথে সংলগ্ন থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করুন কারণ এটি আপনার সন্তানের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ঘুমের একটি সুঅভ্যাস গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সহায়ক হয়ে উঠবে।

খেলাধূলা এবং ক্রিয়াকলাপ

সর্বোপরি আপনার সন্তান এই বয়সে যা করতে চায় তা হল সারাদিন ধরে খেলে বেড়াতে।সে খেলতে চায় আপনার সাথে তার ভাইবোনের সাথে এবং এমনকি আবার আপনার বাড়ির পোষ্যটির সাথেও।কিন্তু এখানে চিন্তার বিষয়টি হল এই যে আপনার সন্তান যেকোনও কিছুতেই খুব তাড়াতাড়ি বিরক্ত ও একঘেয়ে হয়ে ওঠে এবং তার মধ্যে হৈচৈ বাঁধিয়ে ফেলে।আপনার ছোট্টটিকে আনন্দে এবং প্রফুল্ল চিত্তে রাখতে আপনি কীভাবে তাকে কোনও কিছুর সাথে ব্যস্ত রাখতে পারেন?এখানে আমরা এমন কয়েকটি আকর্ষণীয় এবং মজাদার ক্রিয়াকলাপের উল্লেখ করতে চলেছি যেগুলির মধ্যে আপনি আপনার টডলার পদাধিকারীটিকে ব্যস্ত রাখতে পারেনঃ

  • লাইনের উপর থাকাঃ রঙীন ফিতে কিম্বা চক দিয়ে মেঝের উপর একটি লাইন টানুন এবং আপনার শিশুকে সেটি বরাবর সোজা হাঁটতে বলুন।যদি সে তালগোল পাকিয়ে এলোমেলো ভাবে চলতে থাকে,তবে এমন ধরনের কয়েকটি শব্দ বলুন যাতে তার একাগ্রতা ও আত্মবিশ্বাস বেড়ে উঠতে পারে।এটি আপনার শিশুর মাংস পেশীর উপর নিয়ন্ত্রণ এবং ভারসাম্য বজায় রেখে কাজ করায় সহায়তা করার ভীষণ ভাল একটি খেলা।
  • বাকেটের মধ্যে বল ছোঁড়াঃ আপনার সন্তানের সূক্ষ্ম সঞ্চালন দক্ষতা বৃদ্ধি করতে এবং তাকে কার্যকর ভাবে সক্রিয় রাখতে এটি একটি দুর্দান্ত কার্যকলাপ।এটি আপনি ঘরের ভিতরে এমনকি আবার ঘরের বাইরেও খেলতে পারেন।একটি রেখা টানুন এবং সেই রেখার একদম পিছনের দিকে আপনার সন্তানকে দাঁড় করান আর একটি বাকেট নিয়ে(চেষ্টা করুন একটি চওড়া মুখের বাকেট নিতে)আপনার সন্তানের থেকে সেটিকে মোটামুটি প্রায় 3 ফুট মত দূরে রাখুন আর সেই বাকেটের মধ্যে তাকে বল ছুঁড়ে ফেলতে সাহায্য করুন।
  • বল পাস করাঃ সব বয়সের শিশুরাই বল নিয়ে খেলতে পছন্দ করে।আপনার শিশুটিও একটি বল নিয়ে খেলতে কখনই বিরক্ত বা ক্লান্ত হতে পারে না।আপনি আপনার সন্তানের সাথে মেঝের উপর বসে পড়তে পারেন এবং একটি বল নিয়ে একে অপরের কাছে বলটিকে সরিয়ে দেওয়া নেওয়ার মাধ্যমে বল পাস করার খেলাটিকে উপভোগ করতে পারেন।আপনি আবার এই খেলাটিতে বিভিন্নতা নিয়ে আসতে পারেন সেটিকে বিভিন্ন উচ্চতায় ছুঁড়ে দেওয়া কিম্বা মেঝের উপরে ড্রপ ফেলার মাধ্যমে।
  • গুপ্তধনের বাক্সঃ আপনার টডলার পদাধিকারীটির স্মৃতিশক্তির দক্ষতাকে কাজে লাগাতে সহায়তার জন্য এটি একটি অত্যন্ত রোমাঞ্চকর খেলা হয়ে উঠতে পারে।আপনি অন্যান্য খেলনার সাথে তার প্রিয় খেলনাটিকে একটি বাক্সের ভিতরে ভরে লুকিয়ে ফেলে তাকে সেটি খুঁজতে যেতে বলতে পারেন।এই খেলাটি আপনার সন্তানের কাছে অসম্ভব উত্তেজনাপূর্ণময় হয়ে উঠবে।
  • কিছু সুর তৈরী করুনঃ আপনি হয়ত আপনার ছোট্টটির জন্য বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র যেমন ড্রাম,জাইলোফোন,ঝুমঝুমি ইত্যাদি ক্রয় করতে পারেন এবং সেগুলি নিয়ে আপনার ছোট্টটির সাথে খেলতে পারেন।এর পরিবর্তে বরং আপনার পুরো পরিবারটি যদি সেখানে এসে একত্রিত হয়ে সকলে একসাথে মিলে এই ক্রিয়াটিতে যোগদান করে তবে সেটি আরও বেশি উপভোগ্য হয়ে উঠবে।এই ক্রিয়াটির সাথে আপনার ছোট্ট পারদর্শীটি সঙ্গীত এবং ছন্দ ও তালের সাথে সমন্বয় করতে শিখবে।

এই ধরনের আরও অনেকগুলি খেলাধূলা এবং ক্রিয়াকলাপ আছে যেগুলি আপনি আপনার সন্তানের সাথে করার পরিকল্পনা করতে পারেন।

মাবাবাদের জন্য পরামর্শ

মা-বাবাদের জন্য পরামর্শ

18 মাস বয়সী শিশুদের মাবাবাদের জন্য কয়েকটি পরামর্শ এখানে দেওয়া হলঃ

  • আপনার শিশুর পুষ্টি চাহিদাগুলির দিকে নজর রেখে তার যত্ন নেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।আপনার সন্তানকে খাওয়াতে গিয়ে যদি হিমশিম খেতে হয় এবং কোনওভাবেই তাকে না খাওয়ানো যায় অথবা তার ওজন না বাড়ে,এ ব্যাপারগুলির জন্য আপনার ডাক্তারবাবুর পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।
  • আপনার শিশুর জন্য একটি আরামদায়ক এবং স্বাচ্ছন্দ্যময় ঘুমের জায়গা প্রস্তুত করুন এবং সমস্ত সম্ভাব্য প্রতিকূলতাগুলিকে দূর করুন।আপনার ছোট্টটি দিনের বেলায় খুব বেশি উদ্যমের সাথে কর্মোব্যস্ত থাকে আর তাই পরের দিন নতুন উদ্যমে শুরু করতে সক্ষম হওয়ার জন্য তার রাত্রি বেলায় প্রয়োজন একটি প্রশান্তির নিশ্ছিদ্র ঘুম।
  • বাড়ির বাইরে পা দেওয়ার সময় আপনার ওস্তাদটির পায়ে জুতো পরানো নিশ্চিত করুন।
  • আপনার সন্তানের নিয়মিত রুটিন চেকআপের একটিও মিস করবেন না এবং সময় মত তার প্রতিটি টিকা দিন।
  • এই বয়সের মধ্যে আপনার সন্তানকে টয়লেট প্রশিক্ষণ দেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, তবে তাই বলে তাকে এ ব্যাপারে জোর করবেন না বা নাকাল করে তুলবেন না।
  • আপনার টডলার পদাধিকারীর জন্য আপনার কিছু সহজ নিয়ম এবং শৃঙ্খলা গড়ে তুলে তার মধ্যে ধীরে ধীরে তাকে প্রবেশ করানোর চেষ্টা করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।তার সকল দাবী সবসময় পূরণ করবেন না এবং মাঝেমধ্যে এক আধবার তাকে নাবলতেও শিখুন।যদি সে তার দুর্বার ক্রোধে ফেটে পড়ে,চেষ্টা করুন সেটি অবজ্ঞা করতে।
  • আপনার সন্তানের আশেপাশে পোষা প্রাণীগুলির ব্যাপারে সাবধান হন।সে এখন এতটাও বড় হয়ে ওঠে নি যে তার পোষ্যগুলিকে সে পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে, তাই হয়ত সে কখনও কখনও তাদের কিম্বা নিজেকেও আঘাত করে ফেলতে পারে।
  • আপনি যদি এখনও আপনার সন্তানকে স্তন পান করিয়ে থাকেন এবং তাতে আপনি এবং আপনার শিশু উভয়েই যদি স্বাচ্ছন্দ্য হয়ে থাকেন,তবে সেটি বন্ধ করে দেওয়ার কোনও কারণ নেই।

ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ যদি প্রয়োজন হয়

উপরে উল্লিখিত প্যারামিটারগুলি এই বয়সের ছোট শিশুদের দ্বারা কিছু সাধারণভাবে অর্জিত স্থিতিমাপ বিশেষতবে,এটি প্রয়োজনীয় নয় যে প্রতিটি শিশুই একই সময় এবং প্যাটার্ন অনুসরণ করবেআপনার বাচ্চার পক্ষে এই মাইলফলকগুলি শীঘ্রই বা পরবর্তী সময়ে অর্জন করা পুরোপুরি স্বাভাবিক।তবে কখনও কখনও আবার আপনি আপনার শিশুকে তার বয়সের সাপেক্ষে বেশ কিছুটা পিছনে পড়ে যেতে লক্ষ্য করে থাকতে পারেন,যেমনঃ

  • আপনার সন্তান কথা বনলতে সক্ষম হয় না অথবা পাঁচটিরও কম শব্দ বলতে পারে।
  • আপনার শিশুটি হাঁটতে অসমর্থ হয়ে থাকে এমনকি সাহায্য নিয়েও তা পারে না।
  • সাধারণ অনুরোধ এবং উক্তিগুলিও আপনার শিশু বোধগম্য করে উঠতে অসমর্থ হয়।
  • আপনার ছোট্টটিকে সবকিছুতেই নিরুৎসাহ বলে মনে হয় এবং এমনকি সে চোখের যোগাযোগও গড়ে তুলতে ব্যর্থ।

আপনি যদি উপরে উল্লিখিত উপসর্গ বা লক্ষণগুলির মধ্যে থেকে কোনও একটিকেও আপনার সন্তানের মধ্যে উপস্থিত দেখেন অথবা অন্য কোনও অস্বাভাবিক লক্ষণ তার মধ্যে দেখা যায়,সেক্ষেত্রে যত শীঘ্র সম্ভব আপনার ডাক্তারবাবুর পরামর্শ নেওয়ার পরামর্শই আপনাকে দেওয়া হয়।